২০১৯ সালের শীর্ষ ২০ পর্যটন শহরের তালিকায় এশিয়ার দাপট

Send
জার্নি ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৪:৩০, ডিসেম্বর ০৫, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৪:৩৫, ডিসেম্বর ০৫, ২০১৯

হংকংরাজনৈতিক অস্থিরতা, সরকারবিরোধী আন্দোলন ও পুলিশের সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের সহিংসতার মধ্যে হংকংয়ের জন্য আশার আলো হয়ে এলো পর্যটন খাত। টানা তৃতীয়বারের মতো শীর্ষ পর্যটন গন্তব্যের খেতাব পেয়েছে শহরটি।

বিদেশি পর্যটক সমাগমের হিসাবে বিশ্বের শীর্ষ ১০০ শহুরে গন্তব্যের তালিকা প্রকাশ করেছে যুক্তরাজ্য ভিত্তিক বাজার গবেষণা প্রতিষ্ঠান ইউরোমনিটর ইন্টারন্যাশনাল। এতে এক নম্বরে আছে হংকং। প্রতিকূল পরিস্থিতি বিরাজ করলেও এই শহর থেকে মুখ ফিরিয়ে নেননি বিদেশি পর্যটকরা। যদিও তাদের খুব কম সংখ্যক অংশ মনের মতো করে বেড়াতে পেরেছেন।

ধারণা করা হচ্ছিল, সরকারবিরোধী বিক্ষোভের কারণে হংকংয়ের পর্যটন শিল্প ক্ষতিগ্রস্ত হবে। কারণ পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষের কারণে অনেক সময় হংকংয়ের বিমানবন্দর বন্ধ রাখতে হয়েছিল। তবুও আশানুরূপ পর্যটক সমাগম হয়েছে শহরটিতে। 

বিদেশ থেকে আসা পর্যটক সংখ্যার নিরিখে প্রতি বছর সবচেয়ে জনপ্রিয় শহরের তালিকা তৈরি করে ইউরোমনিটর ইন্টারন্যাশনাল। এবার ৪০০টি শহরে গবেষণা চালিয়েছে এই ব্রিটিশ সংস্থা। বিদেশে কমপক্ষে ২৪ ঘণ্টা অবস্থান করা পর্যটক সংখ্যার নিরিখে তালিকাটি তৈরি হয়েছে। এক্ষেত্রে স্বদেশি পর্যটক ও প্রমোদতরীতে ভ্রমণকারীদের গোনা হয়নি।

(ওপরে বাঁ থেকে) কুয়ালালামপুর ও ম্যাকাউ, (নিচে বাঁ থেকে) সিঙ্গাপুর ও ব্যাংককর‌্যাংকিংয়ে এশিয়ান শহরগুলোর আধিপত্য চোখে পড়ার মতো। শীর্ষ ২০-এর ১২টি শহরই এই মহাদেশের। এশিয়াতেই বিদেশি ভ্রমণপ্রেমীর সংখ্যা সবচেয়ে দ্রুত বৃদ্ধি পেয়েছে। দুই ও তিন নম্বর অক্ষুণ্ন রেখেছে যথাক্রমে থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংকক ও ইংল্যান্ডের রাজধানী লন্ডন। ১১ নম্বরে থাকা থাইল্যান্ডে ফুকেট ছিটকে পড়েছে ২০-এর বাইরে। তবে দেশটির আরেক শহর পাতায়া ঢুকেছে ১৮ নম্বরে।

এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে চীনের ম্যাকাউ পাঁচ থেকে চারে উঠেছে ও সিঙ্গাপুর চার থেকে নেমে গেছে পাঁচে। তবে চীনের শেনজেন ১০ থেকে নেমে গেছে ১৩ নম্বরে। কুয়ালালামপুর ৯ নম্বর স্থান ধরে রেখেছে। জাপানের টোকিও ১৪ থেকে ছিটকে গেছে ১৭ নম্বরে। ভারতের দিল্লি ১৩ থেকে উঠে এসেছে ১১ নম্বরে। দেশটির আরেক শহর মুম্বাই ১৯ থেকে একলাফে চলে এসেছে ১৪ নম্বরে। তাইওয়ানের তাইপেই ১৭ থেকে নেমে গেছে ১৯ নম্বরে।

এশিয়ার পর তালিকায় ইউরোপের শহর বেশি। ইউরোপের শহরগুলোর মধ্যে ফ্রান্সের প্যারিস ষষ্ঠ স্থান অক্ষুণ্ন রেখেছে। ইতালির রোম ১৫ থেকে নেমে গেছে ১৬ নম্বরে। তুরস্কের ইস্তানবুল ১২ থেকে ১০ নম্বরে ও আনাতালিয়া ১৬ থেকে উঠে এসেছে ১২ নম্বরে।

সাত নম্বর ধরে রেখেছে মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই। ফ্রি ট্রানজিট ভিসা ও বিভিন্ন থিম পার্কের সুবাদে বিদেশি পর্যটক বেড়েছে শহরটিতে। গত বছর ২০ নম্বরে থাকা চেক রিপারবলিকের প্রাগকে সরিয়ে জায়গাটি দখল করেছে সৌদি আরবের মক্কা।

(ওপরে বাঁ থেকে) প্যারিস ও নিউ ইয়র্ক, (নিচে বাঁ থেকে) দুবাই ও ইস্তানবুলবিদেশি পর্যটক সংখ্যায় শীর্ষ ২০ শহর
১. হংকং: ২ কোটি ৯২ লাখ ৬২ হাজার ৭০০ (২০১৮)/২ কোটি ৬৭ লাখ ১৬ হাজার ৮০০ (২০১৯)

২. ব্যাংকক, থাইল্যান্ড: ২ কোটি ৪১ লাখ ৭৭ হাজার ৫০০ (২০১৮)/২ কোটি ৫৮ লাখ ৪৭ হাজার ৮০০ (২০১৯)

৩. লন্ডন, ইংল্যান্ড: ১ কোটি ৯২ লাখ ৩৩ হাজার (২০১৮)/১ কোটি ৯৫ লাখ ৫৯ হাজার ৯০০ (২০১৯)

৪. ম্যাকাও, চীন: ১ কোটি ৮৯ লাখ ৩১ হাজার ৪০০ (২০১৮)/২ কোটি ৬ লাখ ৩৭ হাজার ১০০ (২০১৯)

৫. সিঙ্গাপুর: ১ কোটি ৮৫ লাখ ৫১ হাজার ২০০ (২০১৮)/১ কোটি ৯৭ লাখ ৬০ হাজার ৮০০ (২০১৯)

৬. প্যারিস, ফ্রান্স: ১ কোটি ৭৫ লাখ ৬০ হাজার ২০০ (২০১৮)/১ কোটি ৯০ লাখ ৮৭ হাজার ৯০০ (২০১৯)

৭. দুবাই, সংযুক্ত আরব আমিরাত: ১ কোটি ৫৯ লাখ ২০ হাজার ৭০০ (২০১৮)/১ কোটি ৬৩ লাখ ২৮ হাজার ৩০০ (২০১৯)

৮. নিউ ইয়র্ক সিটি, যুক্তরাষ্ট্র: ১ কোটি ৩৬ লাখ (২০১৮)/১ কোটি ৪০ লাখ ১০ হাজার (২০১৯)

৯. কুয়ালালামপুর, মালয়েশিয়া: ১ কোটি ৩৪ লাখ ৩৪ হাজার ৩০০ (২০১৮)/১ কোটি ৪০ লাখ ৭২ হাজার ৪০০ (২০১৯)

১০. ইস্তাম্বুল, তুরস্ক: ১ কোটি ৩৪ লাখ ৩৩ হাজার (২০১৮)/১ কোটি ৪৭ লাখ ১৫ হাজার ৯০০ (২০১৯)

১১. দিল্লি, ভারত: ১ কোটি ২৬ লাখ ৪৫ হাজার ৩০০ (২০১৮)/১ কোটি ৫১ লাখ ৯৬ হাজার ৫০০ (২০১৯)

১২. আনাতালিয়া, তুরস্ক: ১ কোটি ২৪ লাখ ৩৮ হাজার ৮০০ (২০১৮)/১ কোটি ৩৩ লাখ ৩২ হাজার ১০০ (২০১৯)

১৩. শেনজেন, চীন: ১ কোটি ২২ লাখ ২ হাজার ১০০ (২০১৮)/১ কোটি ২৩ লাখ ২৪ হাজার ১০০ (২০১৯)

১৪. মুম্বাই, ভারত: ১ কোটি ৫ লাখ ৯০ হাজার ১০০ (২০১৮)/১ কোটি ২৪ লাখ ৪২ হাজার ৪০০ (২০১৯)

১৫. ফুকেট, থাইল্যান্ড: ১ কোটি ৫ লাখ ৫০ হাজার ৭০০ (২০১৮)/১ কোটি ৯ লাখ ৬৫ হাজার ২০০ (২০১৯)

১৬. রোম, ইতালি: ১ কোটি ৬৫ হাজার ৪০০ (২০১৮)/১ কোটি ৩ লাখ ১৭ হাজার (২০১৯)

১৭. টোকিও, জাপান: ৯৯ লাখ ৮৫ হাজার ১০০ (২০১৮)/১ কোটি ৪ লাখ ৪৩ হাজার ১০০ (২০১৯)

১৮. পাতায়া, থাইল্যান্ড: ৯৬ লাখ ৬ হাজার ৪০০ (২০১৮)/৯৯ লাখ ৫১ হাজার ৯০০ (২০১৯)

১৯. তাইপেই, তাইওয়ান: ৯৫ লাখ ৯৭ হাজার ৮০০ (২০১৭)/৯৯ লাখ ৮১ হাজার ৭০০ (২০১৯)

২০. মক্কা, সৌদি আরব: ৯৫ লাখ ৬৫ হাজার ২০০ (২০১৮)/৯৮ লাখ ৩৩ হাজার (২০১৯)

সূত্র: সিএনএন

/জেএইচ/
টপ