X
সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২
১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

লকডাউন কি করোনাভাইরাসের বিস্তার কম করতে সহায়তা করে?

ড. মালিহা শিফা, জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ
২০ এপ্রিল ২০২১, ২৩:৪৪আপডেট : ২০ এপ্রিল ২০২১, ২৩:৫০

করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে দেশে দেশে লকডাউন দেওয়া হয়েছে। লকডাউন শতাব্দীর পর শতাব্দী ধরে রোগের বিস্তারকে ধীর করার উপায় হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে। এটি একটি অস্থায়ী ব্যবস্থা, যা রোগের বিস্তারকে ধীর করতে এবং বিজ্ঞানীদের এই রোগের বিস্তার সম্পর্কে নজর রাখতে, রোগ সম্পর্কে আরও জানার জন্য এবং চিকিত্সা বিকাশের জন্য সময় দিয়ে সহায়তা করে।

যখন আমাদের চিকিত্সা ব্যবস্থা ঝুঁকিতে পড়ে, চিকিত্সার সংস্থানগুলোর অভাব হয়, অসুস্থতা এবং মৃত্যুহার রোধ করা প্রয়োজনীয় হয়ে পড়ে, তখন লকডাউন অপরিহার্য হয়ে ওঠে। হতে পারে লকডাউন শতভাগ কার্যকর সমাধান নয়। তবে বিভিন্ন সার্ভেতে দেখা যায় যে, করোনাভাইরাস সংক্রমণকে হ্রাস করতে এটি ব্যাপক সাহায্য করে।

কোভিড-১৯ মহামারির প্রাথমিক পর্যায়ে, কয়েক মিলিয়ন কেস প্রতিরোধে এবং হাজারো মানুষকে বাঁচানো লকডাউনের সিদ্ধান্তের কারণেই সফল হয়েছে। যারা লকডাউন সফলভাবে পালন করতে সক্ষম হয়েছেন, তারা উচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ পরিবেশ  থেকে বেশি উপকৃত হয়েছে। এজন্যই বিশ্বজুড়ে দেশগুলো করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে লকডাউনের দিকে ঝুঁকছে।

কোভিড -১৯ এর সংস্পর্শে যাওয়ার ঝুঁকি দূর করতে লকডাউন শতভাগ কার্যকর হতে পারে না। কারণ মানুষকে বাজারে যেতে হয়, অভাবী লোকদের জীবিকার তাগিদে বের হতে হয়। সমালোচকরা লকডাউনের সীমাবদ্ধতা এগুলোকে বলতে পারেন। তবে এর অর্থ এই নয় যে লকডাউন নিরর্থক। ভ্যাকসিন যেমন শতভাগ কার্যকর নয়, তেমনি লকডাউনও একমাত্র সমাধান নয়। তবে জনস্বাস্থ্যের জন্য এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ।  

যেহেতু করোনাভাইরাস হাঁচি–কাশি এবং অ্যারোসোল দ্বারা ছড়িয়ে পড়ে, তাই এটি একজনের থেকে অন্য ব্যক্তিতে সংক্রমণ হয় দ্রুত। পরিবেশে ভাইরাস এড়ানোর জন্য শারীরিক দূরত্বের কথা বলা থাকলেও এটিই যথেষ্ট  নয়। আমরা জানি যে অ্যারোসোল আরও অনেক বেশি দূর যেতে পারে। তাই কৌশল হিসেবে সামাজিক দূরত্ব সহায়ক, তবে অন্যান্য নির্দেশনা যেমন মাস্ক পরাও জরুরি। ভাইরাস আছে এমন পরিবেশে আপনি যত বেশি সময় কাটাচ্ছেন, আপনার আক্রান্ত  হওয়ার সম্ভাবনা তত বাড়ছে। যেমন আপনি যদি মাস্ক পরা থাকেন, তাহলে এটি ৫০ শতাংশ কার্যকর হবে যদি আপনি ১৫ মিনিটের জন্য একটি পরিবেশে থাকেন। কিন্তু আপনি যদি এক ঘন্টা একই পরিবেশে থাকেন, সেক্ষেত্রে কিন্তু আপনার এক্সপোজারের সম্ভাবনা অনেক বেড়ে যায়।

ইসরায়েল ও অস্ট্রেলিয়ার মতো দেশগুলো কিন্তু লকডাউন কঠোরভাবে পালন করে তুলনামূলক অন্যান্য দেশ থেকে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা কমিয়েছে। স্থানীয় স্পাইকগুলোকে দমন করতে লকডাউন সাহায্য করেছে। তাদের টেস্টিং এবং ট্রেসিংয়ের মজবুত সিস্টেম রয়েছে এবং তাদের নাগরিকদের কাছ থেকেও সহযোগিতা পাওয়া গেছে অনেক। যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার মতো রাজ্যে, যেখানে তাদের মাথাপিছু সবচেয়ে কম সংখ্যক হাসপাতাল এবং আইসিইউ বেড রয়েছে, তারাও শুধুমাত্র কঠোর লকডাউনের মাধ্যমে পরিস্থিতি অনেকটাই সামলে নিতে পেরেছে।

যদি কোনও ভাইরাস আরও সংক্রমণযোগ্য হিসাবে রূপান্তরিত হয়, তবে এর আগে যে ব্যবস্থাগুলো শুরু হতে পারে তা আমাদের দেশে পর্যাপ্ত ছিল না। এমনকি জনস্বাস্থ্যের ক্ষেত্রে সংক্রমণ ঠেকাতে যেসব নির্দেশনা যেমন মাস্ক পরা, সামাজিক দূরত্ব, হাত ধোয়ার অভ্যাস যদি কঠোরভাবে পালন করা যেত তাহলে হয়ত কিছুটা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ করা যেত। অর্থনৈতিক চাপ অনেক পরামর্শ দেওয়ার চেয়ে আগেই বিধিনিষেধ শিথিল করতে বাধ্য করেছে আমাদের।

যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়ার মতো দেশগুলোর পথ অনুসরণ করে বেশি আক্রান্ত ও সংক্রমণযুক্ত অঞ্চলে সীমিত লকডাউন (কম হিসেবে ৩ দিন) ঘোষণা করা যেতে পারে। যে সমস্ত কৌশল ব্যবহার করে আমরা নিরাপদে থাকতে পারি এবং একে অপরের সাথে যোগাযোগ করতে পারি এবং সুস্থ থাকতে পারি এবং আমাদের নিজেদের ও সন্তানদের মানসিক চাপের সাথে মোকাবিলা করতে পারি তার জন্য আমাদের সবারই সক্রিয় অংশগ্রহণ করা জরুরি।

/এনএ/
কেউ ক্ষুধার্ত থাকবে না, কর্মসূচির মাধ্যমে সহায়তা দেওয়া হচ্ছে
কেউ ক্ষুধার্ত থাকবে না, কর্মসূচির মাধ্যমে সহায়তা দেওয়া হচ্ছে
মানবতাবিরোধী অপরাধ: চট্টগ্রামের শওকাতুলের বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন চূড়ান্ত
মানবতাবিরোধী অপরাধ: চট্টগ্রামের শওকাতুলের বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন চূড়ান্ত
শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে জয়ের হাসি ঘানার
শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে জয়ের হাসি ঘানার
বিয়ানীবাজার কূপ থেকে জাতীয় গ্রিডে যুক্ত হলো ৮ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস
বিয়ানীবাজার কূপ থেকে জাতীয় গ্রিডে যুক্ত হলো ৮ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস
সর্বাধিক পঠিত
‘বিএনপিকে চালায় আ.লীগ, আমরা না চাইলে নির্বাচনে আসতে পারবেন না’
‘বিএনপিকে চালায় আ.লীগ, আমরা না চাইলে নির্বাচনে আসতে পারবেন না’
ইতালিতে জরুরি অবস্থা ঘোষণা
ইতালিতে জরুরি অবস্থা ঘোষণা
মরক্কোর বিপক্ষে হারের পর বেলজিয়ামে দাঙ্গা
মরক্কোর বিপক্ষে হারের পর বেলজিয়ামে দাঙ্গা
চাকরি ছাড়ছেন ডিএনসিসির পাঁচ ভেটেরিনারি কর্মকর্তাই!
চাকরি ছাড়ছেন ডিএনসিসির পাঁচ ভেটেরিনারি কর্মকর্তাই!
মঙ্গলবার বাজারে আসছে দুই ও পাঁচ টাকার নতুন নোট
মঙ্গলবার বাজারে আসছে দুই ও পাঁচ টাকার নতুন নোট