মাওলানা ভাসানী প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিচ্ছুদের সহায়তায় ছাত্রলীগ

Send
মাভাবিপ্রবি প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ২৩:৩৬, ডিসেম্বর ০৭, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০৮:৪৯, ডিসেম্বর ০৮, ২০১৯

মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (মাভাবিপ্রবি) ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক ও বিফার্ম প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিতে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা ভর্তিচ্ছু ও অভিভাবকদের সহযোগিতায় নানামুখী কর্মসূচি হাতে নিয়েছে মাভাবিপ্রবি শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নিবিড় পাল ও মানিক শীলের নেতৃত্বে ভর্তিচ্ছু ও তাদের অভিভাবকদের হাতে খাবার ও সুপেয় পানি বিতরণ করেছে শাখা ছাত্রলীগ। এছাড়াও পরীক্ষার আগের রাতে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের হলে থাকার ব্যবস্থা, শিক্ষার্থীদের জন্য জয় বাংলা ফ্রি বাইক সেবা চালু, পরীক্ষার কেন্দ্র পরিচিতির জন্য দিকনির্দেশক চিহ্ন ও সার্বক্ষণিক স্বেচ্ছাসেবক নিযুক্ত এবং হেল্প ডেস্ক স্থাপন করে শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন সহযোগিতা করেন তারা।

ক্যাম্পাস ঘুরে দেখা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে অস্থায়ী হেল্পডেস্ক বসিয়ে সেখান থেকে শিক্ষার্থীদের সহযোগিতা কার্যক্রম পরিচালনা করছে। পানির বোতল ও খাবার ক্যাম্পাসের বিভিন্ন পয়েন্টে পয়েন্ট গিয়ে ভর্তিচ্ছুদের মাঝে বিতরণ করছেন। তাদের আচরণ ও সহযোগিতায় মুগ্ধ হয়েছেন অভিভাবকরা।

বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ সূত্রে জানা যায়, যেসকল ভর্তিচ্ছু পরীক্ষার্থী পরীক্ষার আগের দিন ক্যাম্পাসে এসেছেন তাদের জন্য ক্যাম্পাসে হলে আবাসন ব্যবস্থায় ছাত্রলীগের স্বেচ্ছাসেবক টিম কাজ করছে।

মাভাবিপ্রবি ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নিবিড় পাল বলেন, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী ভাই-বোনদের সার্বিক সহযোগিতায় আমরা সবসময় সোচ্চার। ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের ভাসানীর সবুজ চত্ত্বরে উষ্ণ অভিনন্দন।

ছাত্রলীগ কর্মী মানিক শীল বলেন, ভর্তি পরীক্ষায় বরাবরের মতো আমাদের শিক্ষার্থীবান্ধব কাজ অব্যাহত রেখেছি। মাভাবিপ্রবি শাখা ছাত্রলীগ সবসময়ই সাধারণ শিক্ষার্থীদের সহযোগিতায় ছিলো, থাকবে।

উল্লেখ্য, এ বছর চারটি ইউনিটের ১৬টি বিভাগে ৮১৫ টি আসনের জন্য মোট ৬০ হাজার ৩৬৬ জন শিক্ষার্থী আবেদন করেছে। আসন প্রতি ৮০ জন ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী প্রতিযোগিতা করছে।

/এফএএন/

লাইভ

টপ