X
রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২
১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

পদ্মা সেতুর ঐতিহাসিক উদ্বোধনকে কীভাবে দেখছে ভারত?

রঞ্জন বসু, দিল্লি
১৮ জুন ২০২২, ১০:০০আপডেট : ১৮ জুন ২০২২, ১৯:২২

আগামী ২৫ জুন পদ্মা সেতুর উদ্বোধনের মধ্যে দিয়ে বাংলাদেশের সমকালীন ইতিহাসে নিঃসন্দেহে একটি মাইলফলক রচিত হতে যাচ্ছে। বাংলাদেশের নিজস্ব অর্থায়নে ও চীনের একটি সংস্থার প্রযুক্তিগত সহায়তায় নির্মিত এই সেতুর উদ্বোধনের দিকে প্রতিবেশী ভারতও কিন্তু তাকিয়ে আছে সাগ্রহ উদ্দীপনার সঙ্গে।

পদ্মা সেতু নিয়ে ভারতের উৎসাহের প্রধান কারণ, এই ব্রিজ ঢাকা ও কলকাতার মধ্যে সড়ক বা রেলপথে দূরত্ব অন্তত তিন ঘণ্টা কমিয়ে দেবে। সাম্প্রতিক অতীতে ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে যেভাবে একটার পর একটা কানেক্টিভিটি প্রকল্প বাস্তবায়িত হয়েছে, তাতে ভারতের পণ্য ও যাত্রীবাহী যানও অচিরেই এই সেতু ব্যবহারের অনুমতি পাবে বলে দিল্লি আশা করছে। সে ক্ষেত্রে দুদেশের মধ্যে বাণিজ্য যথারীতি বাড়বে, ভারতের উত্তর পূর্বাঞ্চলও ভৌগলিকভাবে বাকি দেশের অনেক কাছে চলে আসবে।

আর পদ্মা সেতু নিয়ে ভারতের যে সামান্য অস্বস্তির উপাদান – তা হল এটি নির্মাণ করেছে চীনের একটি সংস্থা। যে দেশটির সঙ্গে ভারতের ঠান্ডা লড়াই সুবিদিত। ভারতের কোনও ইঞ্জিনিয়ারিং ফার্ম এই সেতু নির্মাণের বরাত পেলে তা দিল্লির জন্য অবশ্যই অনেক গৌরবের বিষয় হতো। 

তবে এখানেও একটা বড় সান্ত্বনা হল, চীনা সংস্থা নির্মাণ করলেও বাংলাদেশ এর জন্য কোনও চীনা ঋণ নেয়নি। ফলে ঋণের অর্থ মেটাতে না পেরে হামবানটোটা বন্দরকে শ্রীলঙ্কা যেভাবে চীনের হাতে তুলে দিতে বাধ্য হয়েছে, পদ্মা সেতুর কখনও সেই পরিণতি হবে না।

কিছুদিন আগেই বাছাই-করা ভারতীয় সাংবাদিকদের একটি প্রতিনিধিদলকে বাংলাদেশে নিয়ে গিয়ে পদ্মা সেতু দেখিয়ে এনেছে দিল্লিস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস। দিল্লিতে বাংলাদেশ হাই কমিশনের প্রেস মিনিস্টার শাবান মাহমুদ ওই সিনিয়র সাংবাদিকদের সঙ্গে নিয়ে সেতু ঘুরে দেখিয়েছেন – এরপর থেকেই ভারতের নানা জাতীয় দৈনিকে পদ্মা সেতু নিয়ে বিভিন্ন ইতিবাচক খবর প্রকাশিত হচ্ছে।

দ্য টাইমস অব ইন্ডিয়া লিখেছে, ‘বাংলাদেশের অর্থনীতির মোড়-ঘোরানো এই পদ্মা সেতু চীনের একটি কোম্পানি তৈরি করেছে ঠিকই, কিন্তু চীনের অর্থনৈতিক সহায়তার ব্যাপারে বাংলাদেশ কিন্তু অত্যন্ত সতর্ক ও সাবধানী অবস্থান নিয়ে চলছে। বস্তুত ঢাকা ও চট্টগ্রামের মধ্যে একটি হাই-স্পিড রেল লিঙ্ক স্থাপনের জন্য চীন বারে বারে উৎসাহ দেখালেও বাংলাদেশ কিন্তু সে প্রস্তাব সরাসরি নাকচ করে দিয়েছে।’

বস্তুত অর্থনীতি ও কূটনীতির অঙ্গনে চীন ও ভারতের মধ্যে বাংলাদেশ যেভাবে একটা সফল ‘ভারসাম্য’ বজায় রেখে চলছে তাতে দিল্লিও বেশ সন্তুষ্ট। 

দিল্লির সাউথ ব্লকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন সিনিয়র কর্মকর্তার কথায়, ‘পদ্মা সেতু তৈরির কন্ট্রাক্ট কেন চীনের একটি কোম্পানিকে দেওয়া হয়েছে সেটা আমরা বুঝি, ভারতের সে জন্য অসন্তুষ্ট হওয়ার কোনও প্রশ্নই নেই।

বাংলা ট্রিবিউনকে এদিন তিনি আরও বলেন, ‘বাংলাদেশের একটা স্বাধীন পররাষ্ট্রনীতি আছে, নিজস্ব ভাবনা ও বাধ্যবাধকতাও আছে। আমাদের একমাত্র বিবেচনা হলো, এই অঞ্চলে ভারতের নিরাপত্তা স্বার্থ কোনওভাবে বিঘ্নিত হচ্ছে কিনা – আর সেদিক থেকে বলতে গেলে ঢাকা ও দিল্লি উভয়ই কিন্তু পরস্পরের অনুভূতিকে মর্যাদা দেয়, সম্মান করে।’

ঢাকায় নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার বিক্রম দোরাইস্বামী ইতোমধ্যেই বলেছেন, ‘অবকাঠামোর উন্নয়ন হলে কীভাবে তা বাণিজ্যের পরিমাণ বৃদ্ধি করে তা আমরা চোখের সামনে দেখতে পাচ্ছি। যেমন, বাংলাদেশ থেকে ভারতে বার্ষিক রফতানির পরিমাণ আগেই ১০০ কোটি ডলার ছাড়িয়ে গিয়েছিল, এখন তা ২০০ কোটি ডলার ছুঁতে যাচ্ছে। পদ্মা সেতু চালু হয়ে গেলে এই অঙ্ক আরও বাড়তে থাকবে, তা বলার অপেক্ষা রাখে না।’

ভারতীয় রাষ্ট্রদূত আরও জানান, একটি ‘ইকোনমিক পার্টনারশিপ অ্যাগ্রিমেন্ট’ নিয়ে দুই দেশ এখন যৌথ সমীক্ষা চালাচ্ছে – দুদেশের বাণিজ্যমন্ত্রীরা হয়তো খুব শিগগিরি তা অনুমোদনও করবেন। এরপরই সমঝোতার নানা দিক নিয়ে আলোচনা শুরু হবে, যার একটা মূল ভিত্তি হবে চালু হয়ে যাওয়া পদ্মা সেতু।

এছাড়া, কলকাতা ও ঢাকার মধ্যে এখন যে মৈত্রী এক্সপ্রেস চলাচল করে, সেটিকেও অচিরেই পদ্মা সেতু দিয়ে নিয়ে যাওয়া হবে বলে আশা করা হচ্ছে। এতে ট্রেন জার্নির সময় যেমন অন্তত ঘণ্টাতিনেক কমবে, দুদেশের যাত্রীদের জন্যই যাত্রা অনেক সহজ হবে। ফলে পশ্চিমবঙ্গের অনেক পর্যটক ও ব্যবসায়ীও এই সেতুর উদ্বোধন আর নতুন ট্রেন রুটের দিকে সাগ্রহে তাকিয়ে আছেন।

/এমআর/
চট্টগ্রামে ইয়াবাসহ যুবক গ্রেফতার
চট্টগ্রামে ইয়াবাসহ যুবক গ্রেফতার
মেসিকে পরীর চুমু, চঞ্চলের সংলাপ ‘বোঝনাই ব্যাপারটা’!
আর্জেন্টিনার জয়ে ফেরামেসিকে পরীর চুমু, চঞ্চলের সংলাপ ‘বোঝনাই ব্যাপারটা’!
নারীর মৌলিক অধিকার প্রতিষ্ঠায় সহিংসতাই অন্যতম বাধা
নারীর মৌলিক অধিকার প্রতিষ্ঠায় সহিংসতাই অন্যতম বাধা
যেভাবে জানা যাবে এসএসসি ও সমমানের ফল
যেভাবে জানা যাবে এসএসসি ও সমমানের ফল
সর্বাধিক পঠিত
পোল্যান্ডের জয়ে আরও চাপে মেসিরা
পোল্যান্ডের জয়ে আরও চাপে মেসিরা
ইউক্রেন ইস্যুতে অবস্থান স্পষ্ট করলো ন্যাটো
ইউক্রেন ইস্যুতে অবস্থান স্পষ্ট করলো ন্যাটো
আবারও নাসিমের অনুসারীদের পেটালো বিএনপির সমর্থকরা
আবারও নাসিমের অনুসারীদের পেটালো বিএনপির সমর্থকরা
মেসি-ফের্নান্দেজের গোলে আর্জেন্টিনার জয়
মেসি-ফের্নান্দেজের গোলে আর্জেন্টিনার জয়
ম্যাজিস্ট্রেটের মামলায় কারাগারে স্বামী
ম্যাজিস্ট্রেটের মামলায় কারাগারে স্বামী