গত অর্থ বছরে বিমানের নিট লাভ ২১৭ কোটি টাকা: সংসদে প্রতিমন্ত্রী

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ০০:৫৪, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:২৫, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২০

জাতীয় সংসদ অধিবেশন (ছবি-ফোকাস বাংলা)

বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী বলেছেন,  ২০১৮-১৯ অর্থবছরে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স নিট লাভ করেছে ২১৭ কোটি টাকা। রবিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় সংসদের প্রশ্নোত্তর পর্বে জামালপুর-১ আসনের সদস্য আবুল কালাম আজাদের প্রশ্নের জবাবে এ তথ্য জানান তিনি।

বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিমানের দুর্নীতি ঠেকানো ও ব্যয় সংকোচনের লক্ষ্যে প্রশাসনকে ঢেলে সাজানো হয়েছে। ফলে বিমানের দুর্নীতি বহুলাংশে কমে এসেছে।

তিনি জানান, ২০১৮-১৯ অর্থ বছরে বিমানের আয় ছিল পাঁচ হাজার ৭৯৫ কোটি টাকা। এ সময় ব্যয় হয়েছে পাঁচ হাজার ৭৭৭ কোটি ১০ লাখ টাকা। ফলে নিট লাভ হয়েছে ২১৭ কোটি ৮০ লাখ টাকা। চলতি অর্থ বছরের প্রথম ৬ মাসে অনিরীক্ষিত ও করপূর্ব নিট লাভ হয়েছে ৪২৩ কোটি টাকা।

মেরিটাইম পলিসি করা হচ্ছে

রংপুর-১ আসনের জাতীয় পার্টির সদস্য মসিউর রহমান রাঙ্গার প্রশ্নের জবাবে সংসদের কাজে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত আইনমন্ত্রী আনিসুল হক জানান, সমুদ্র কমিশন গঠনের কোনও পরিকল্পনা আপাতত সরকারের নেই। তবে, দেশের সমুদ্রসীমার নিরাপত্তা ও সমুদ্র সম্পদ সুরক্ষা এবং বিশাল সমুদ্র এলাকায় অর্থনৈতিক ও বাণিজ্যিক কাজে প্রসারের লক্ষ্যে যুগোপযোগী খসড়া মেরিটাইম পলিসি প্রণয়নের কার্যক্রম চলমান রয়েছে। ওই নীতিমালায় সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়/দফতরের সমন্বয়ে একটি জাতীয় মেরিটাইম ডিভিশন গঠনের প্রস্তাব রয়েছে। বর্তমান প্রেক্ষাপটে বাংলাদেশের সমুদ্রসীমা মীমাংসার পর ব্লু-ইকোনমির উৎকর্ষতা এবং কর্ম পরিধি ক্রমান্নয়ে বাড়ছে। ফলে দেশি-বিদেশি বিভিন্ন সংস্থা দ্বারা সিসমিক সার্ভে করে ভাসমান এলএনজি টার্মিনাল স্থাপন, মাতারবাড়ি কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ ইত্যাদি কার্যক্রম কুতুবদিয়া, চানুয়া মহেশখালী ও কক্সবাজার সংলগ্ন এলাকায় পরিচালিত হচ্ছে। তিনি জানান, ভবিষ্যতে ব্লু-ইকোনমিক এলাকাগুলো বাংলাদেশের অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডের অন্যতম ‘হাব’ হিসেবে গড়ে উঠবে।

 

/ইএইচএস/টিএন/

লাইভ

টপ