X
সকল বিভাগ
সেকশনস
সকল বিভাগ

যে প্রাণীর অক্সিজেন লাগে না!

আপডেট : ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ২২:২৯

একটি অতিক্ষুদ্র অ্যামিবারও বেঁচে থাকতে অক্সিজেন লাগে। কিন্তু বিজ্ঞানীরা এখন পর্যন্ত কেবল একটি প্রাণীরই সন্ধান পেয়েছেন, যার বেঁচে থাকতে এক ফোঁটা অক্সিজেন লাগে না। এমনকি শ্বাস-প্রশ্বাস জাতীয় কাজও এর মধ্যে দেখা যায়নি। কিন্তু ওটা বংশবিস্তার চালিয়ে যাচ্ছে দেদার।

আণুবীক্ষণিক প্রাণীটা মূলত এক ধরনের পরজীবী। নাম—হেনেগুইয়া সালমিনিকোলা। স্যামন মাছের গায়েই বেঁচে থাকে ওটা।

এ প্রাণীর অক্সিজেন না লাগার বিষয়টি গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে আবিষ্কার করেন ইসরায়েলের তেল আবিব ইউনিভার্সিটির গবেষকরা। বারবার পরীক্ষা করে তারা নিশ্চিত হয়েছেন সালমিনিকোলার কোষে নেই আমাদের চেনা মাইটোকন্ড্রিয়া। যেকোনও প্রাণিকোষের জন্য যেটাকে বলা হয় পাওয়ার হাউজ। ওই মাইটোকন্ড্রিয়াতেই জ্বালানি হিসেবে অক্সিজেন ব্যবহৃত হয়ে শক্তি উৎপাদন করে। সালমিনিকোলার ভেতর উপাদানটি না থাকায় এটি ভিন্ন কোনও প্রক্রিয়ায় স্যামন মাছের শরীর থেকে খাবার কিংবা শক্তি শুষে নেয়।

এর আগে অ্যামিবা ও কিছু ফাঙ্গাসের মতো এককোষী কয়েক ধরনের প্রাণীকে অক্সিজেনহীন পরিবেশ (যাকে বলে অ্যানারোবিক এনভায়রনমেন্ট) বেঁচে থাকতে দেখা গেছে। কিন্তু হেনেগুইয়া সালমিনিকোলা একাধিক কোষবিশিষ্ট পরজীবী হলেও এটার একেবারেই অক্সিজেনের প্রয়োজন হয় না।

অনেকটা জেলিফিশের মতো দেখতে পরজীবী প্রাণীটির অক্সিজেন ছাড়া বেঁচে থাকা ও সংখ্যা বৃদ্ধির বিষয়টি গবেষকদের এখনও ভাবালেও কেউ বলছেন, বিবর্তনের কারণেই এমনটা হয়েছে। অন্য সব প্রাণীর কোষ ও ডিএনএ দিনে দিনে যত জটিল হয়েছে তত বেড়েছে অক্সিজেন-জ্বালানির চাহিদা। সালমিনিকোলার ক্ষেত্রে তেমনটা হয়নি বলেই এর মধ্যে গড়ে ওঠেনি মাইটোকন্ড্রিয়ান জিনোম।

 

সূত্র: লাইভ সায়েন্স

/এফএ/এমওএফ/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
একাত্তরের গণহত্যা নিয়ে ভাস্কর্য প্রদর্শনী শুরু
একাত্তরের গণহত্যা নিয়ে ভাস্কর্য প্রদর্শনী শুরু
‘পাদুকা শিল্প অবহেলিত’
‘পাদুকা শিল্প অবহেলিত’
চাকরি গেলো পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষা প্রতিমন্ত্রীর মেয়ের
শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতি মামলাচাকরি গেলো পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষা প্রতিমন্ত্রীর মেয়ের
প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্ন জালিয়াতি, পাঁচ শিক্ষকসহ আটক ১৩
প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্ন জালিয়াতি, পাঁচ শিক্ষকসহ আটক ১৩
এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত