X
রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২
৯ আশ্বিন ১৪২৯

বিড়ির শুল্ক কমানোর দাবি ব্যবসায়ীদের

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
০৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৯:৫৬আপডেট : ০৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৯:৫৬

বিড়ির শুল্ক কমানোর দাবিতে সংবাদ সম্মেলন তামাক চাষিদের সুরক্ষায় সরকারি নীতিমালা, বাজেটে বিড়ির ওপর বৃদ্ধি করা শুল্ক কমানো এবং বিড়ি শিল্পকে অবিলম্বে কুটির শিল্প হিসেবে ঘোষণার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছে রংপুর অঞ্চলের তামাক চাষি ও ব্যবসায়ী সমিতি। সোমবার (৭ সেপ্টেম্বর)  জাতীয় প্রেস ক্লাবে তারা এই সংবাদ সম্মেলন করে। এতে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি মো. হামিদুল হক।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা বলেন, বিড়ির ওপর ষড়যন্ত্রমূলকভাবে মাত্রাতিরিক্ত করারোপের ফলে বিড়ি কারখানগুলো বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। বিড়ি শিল্পের এই অবস্থার কারণে আমাদের উৎপাদিত তামাক বিক্রি বন্ধ হয়ে পড়েছে। এর কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে হাজার হাজার তামাক চাষি ও ব্যবসায়ী। এতে রংপুর অঞ্চলের তামাক চাষিরা মারাত্মক আর্থিক ক্ষতির সম্মুখিন হচ্ছে; যা অর্থনীতিতে বিরূপ প্রভাব ফেলছে। আর এই এলাকার মানুষের অন্য কোনও আয়ের পথ না থাকায় দেখা দেবে অভাব-অনটন। আবার ফিরে আসবে সেই মঙ্গা পরিস্থিতি; যা বর্তমান সরকারের জন্য কোনোভাবেই কাম্য নয়।

মো. হামিদুল হক বলেন, 'আমাদের পাশের দেশ ভারতে বিড়িকে কুটির শিল্প হিসেবে ঘোষণা দিয়ে সুরক্ষা দিচ্ছে। দরিদ্র মানুষের কর্মসংস্থান বিবেচনা করে প্রতিবেশী দেশ ভারতে বিড়ির ওপর শুল্ক সহনীয় মাত্রায় রাখা হয়েছে। কিন্তু বাংলাদেশে সম্পূর্ণ বিপরীতমুখী অবস্থান নেওয়া হয়েছে। ২০২০-২১ অর্থবছরের বাজেটে প্রতি প্যাকেট বিড়ি ৪ টাকা মূল্য বৃদ্ধি করে বিড়িকে স্বল্পমূলে ধ্বংস করার আরেকটি কৌশল অবলম্বন করেছে। এর ফলে তামাক চাষিরা হাজার হাজার টন তামাক বিক্রি থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।'

সংবাদ সম্মেলনে ব্যবসায়ীরা বলেন, আমরা তামাক চাষ করি বলে বিড়ি ফ্যাক্টরিতে লাখ লাখ শ্রমিক কাজ করে খাচ্ছে। এই শিল্পের মালিকরা পর্যায়ক্রমে এই দেশে বিভিন্ন শিল্প কারখানা গড়ে তুলেছে এবং লাখ লাখ বেকার যুবকের কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি করেছে। কিন্তু উচ্চ শুল্কের কারণে এ শিল্প ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে। অতিরিক্ত শুল্কারোপের ফলে একদিকে যেমন কারখানা বন্ধ হয়ে যাচ্ছে, অপরদিকে শ্রমিক বেকার হয়ে পড়ছে।

সংবাদ সম্মেলন থেকে কারখানা খুলে দিয়ে বেকার শ্রকিদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা ও অতিরিক্ত শুল্ক প্রত্যাহার করে তামাক চাষিদের আর্থিক ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা করার জন্য সরকারের প্রতি অনুরোধ জানানো হয়।

 

/এসও/আইএ/
সম্পর্কিত
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
দুই গ্রুপের কোন্দলে মধ্যরাতে উত্তপ্ত ইডেন কলেজ
দুই গ্রুপের কোন্দলে মধ্যরাতে উত্তপ্ত ইডেন কলেজ
রামনাথ বিশ্বাসের বসতভিটা পুনরুদ্ধার ও সংরক্ষণে ১০০ নাগরিকের বিবৃতি
রামনাথ বিশ্বাসের বসতভিটা পুনরুদ্ধার ও সংরক্ষণে ১০০ নাগরিকের বিবৃতি
এতদিন কোথায় ছিলেন রহিমা?
এতদিন কোথায় ছিলেন রহিমা?
আ.লীগ সব সময় জনগণের ভোটেই ক্ষমতায় আসে: প্রধানমন্ত্রী
আ.লীগ সব সময় জনগণের ভোটেই ক্ষমতায় আসে: প্রধানমন্ত্রী
এ বিভাগের সর্বশেষ
দুই গ্রুপের কোন্দলে মধ্যরাতে উত্তপ্ত ইডেন কলেজ
দুই গ্রুপের কোন্দলে মধ্যরাতে উত্তপ্ত ইডেন কলেজ
রামনাথ বিশ্বাসের বসতভিটা পুনরুদ্ধার ও সংরক্ষণে ১০০ নাগরিকের বিবৃতি
রামনাথ বিশ্বাসের বসতভিটা পুনরুদ্ধার ও সংরক্ষণে ১০০ নাগরিকের বিবৃতি
আজ মহালয়া, দেবীপক্ষের শুরু
আজ মহালয়া, দেবীপক্ষের শুরু
জিকে শামীমের মামলার রায় আজ, যাবজ্জীবন কারাদণ্ড চায় রাষ্ট্রপক্ষ
জিকে শামীমের মামলার রায় আজ, যাবজ্জীবন কারাদণ্ড চায় রাষ্ট্রপক্ষ
ইয়াবাসহ এলিট ফোর্সের দুই নিরাপত্তাকর্মী আটক
ইয়াবাসহ এলিট ফোর্সের দুই নিরাপত্তাকর্মী আটক