X
বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২
২০ আশ্বিন ১৪২৯

রেমিট্যান্স যোদ্ধাদের জন্য ৪ দাবি

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
১৯ জুন ২০২১, ১৬:১৫আপডেট : ১৯ জুন ২০২১, ১৬:১৫

রেমিট্যান্স যোদ্ধাদের জন্য বিমানের টিকিটে লেবার ফেয়ার প্রদান করাসহ ৪ দফা দাবি জানিয়েছে রিক্রুটিং এজেন্সিজ ঐক্য পরিষদ। শনিবার (১৯ জুন) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে আয়োজিত মানববন্ধন থেকে এসব দাবি জানানো হয়।

চার দফা দাবি হলো:

১. রেমিট্যান্স যোদ্ধাদের জন্য এয়ার টিকেট লেবার ফেয়ার প্রদান করা ও অযৌক্তিক মূল্য বৃদ্ধি রোধ করা।

২. জনশক্তি প্রেরণ খাতকে শিল্প হিসেবে ঘোষণ করা এবং এর মালিকদের আর্থিক প্রণোদনা দেওয়া।

৩. স্মার্ট কার্ড গ্রহণ করে বৈধভাবে কর্মী প্রেরণ করার পরও মানব পাচার আইনে রিক্রুটিং এজেন্সি মালিকদের হয়রানি বন্ধ করা।

৪. সব রিক্রুটিং এজেন্সিকে বাংলাদেশ ও ফরেন দূতাবাসসমূহে তালিকাভুক্ত করা।

এ সময় বক্তারা বলেন, আমরা চাই, সরকার নির্ধারিত খরচে রেমিট্যান্স যোদ্ধাদের জন্য বিভিন্ন দেশে কর্মসংস্থান করা হোক। বর্তমানে সৌদি আরবসহ অন্যান্য আরব দেশসমূহের এয়ার টিকেটের মূল্য বাংলাদেশ বিমানসহ বিভিন্ন এয়ারলাইন্স অযৌক্তিকভাবে ৩-৪ গুণ বাড়িয়েছে। দেশের হাজার হাজার কোটি ডলার কষ্টার্জিত বৈদেশিক মুদ্রা বিদেশি এয়ারলাইন্স দেশ হতে নিয়ে যাচ্ছে। ভারত, পাকিস্তান, নেপাল, শ্রীলঙ্কা হতে ১৮-২২ হাজার টাকায় আরব দেশসমূহের এয়ার টিকেটের মূল্য হলেও বাংলাদেশ হতে একই গন্তব্যে এয়ার টিকেটের মূল্য ৭০-৯০ হাজার টাকা। আমরা অবিলম্বে বাংলদেশ বিমানের মাধ্যমে হলেও রেমিট্যান্স যোদ্ধাদের জন্য লেবার ফেয়ার নির্ধারণ ও সেটির দৃশ্যমান বাস্তবায়ন দেখতে চাই।

তারা বলেন, ১৯৭৬ সাল থেকে আজ পর্যন্ত এক কোটি ৩৩ লাখের বেশি নারী-পুরুষ রেমিট্যান্স যোদ্ধা বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বৈধভাবে কর্মসংস্থানের সুযোগ পেয়েছেন। এক কোটির বেশি রেমিট্যান্স যোদ্ধার কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে রিক্রুটিং এজেন্সিসমূহের অবদান অসামন্য। কোভিড-১৯ বৈশ্বিক মহামারির কারণে জনশক্তি প্রেরণ খাত তথা রিক্রুটিং এজেন্সিসমূহ শত শত কোটি টাকা আর্থিক ক্ষতিতে পড়েছে। যে সেক্টর হতে বছরে ২২ মিলিয়ন ডলার বৈদেশিক মুদ্রা অর্জিত হয়, সেই সেক্টর যুগ যুগ ধরেই অবহেলিত অবস্থান রয়েছে। এই সেক্টর শিল্প হিসেবে অন্তর্ভুক্ত না থাকায়, রিক্রুটিং এজেন্সিসমূহ সরকার ঘোষিত আর্থিক প্রণোদনা প্রাপ্তি হতে বঞ্চিত হয়েছে। জনশক্তি প্রেরণ খাতকে শিল্প হিসেবে ঘোষণ করা হলে ভবিষ্যতে সম্ভাবনার এই সেক্টর হতে রেকর্ড বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের মাধ্যমে দেশের চলমান উন্নয়ন অগ্রযাত্রা তথা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ভিশন খুব সহজেই বাস্তবায়ন করা সম্ভব হবে। আমরা অবিলম্বে জনশক্তি প্রেরণ খাতকে শিল্প হিসেবে ঘোষণার জোর দাবি জানাচ্ছি।

এ সময় বলা হয়, রিক্রুটিং এজেন্সিসমূহ সরকারের যথাযথ বিধিবিধান প্রতিপালনসহ বিএমইটি প্রদত্ত স্মার্ট কার্ড গ্রহণ করে রেমিট্যান্স যোদ্ধাদের কর্মসংস্থান করে থাকে। একজন কর্মীকে প্রেরণে বিভিন্ন কর্তৃপক্ষের সংশ্লিষ্টতা থাকলেও অমানবিকভাবে শুধু রিক্রুটিং এজেন্সিসমূহের শত শত মালিক ও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মানবপাচার আইনের জামিন অযোগ্য ধারায় জেল জুলুম হয়রানির শিকার হতে হয়। আমরা এই হয়রানি বন্ধ চাই। স্মার্ট কার্ড গ্রহণ করে কর্মী প্রেরণ করলে সেটি মানবপাচার আইনের আওতামুক্ত ঘোষণাসহ জাতীয় সংসদের মাধ্যমে মানব পাচার আইন-২০১২ এর সংশোধন চাই।’

বক্তারা আরও বলেন, বর্তমানে দেশে প্রায় ২ হাজার বৈধ রিক্রুটিং এজেন্সি রয়েছে। বিভিন্ন দেশের বাংলাদেশ দূতাবাসসমূহে তালিকাভুক্ত হতে তাদের নানা ধরনের বিড়ম্বনার শিকার হতে হয়। ঢাকাস্থ সৌদি দূতাবাসসহ বিভিন্ন দূতাবাসে দেশের প্রায় ৫০ শতাংশ রিক্রুটিং এজেন্সি শত চেষ্টা করেও অদৃশ্য কারণে তালিকাভুক্ত হতে পারছে না। আমরা চাই, সরকার অনুমোদিত সব বৈধ রিক্রুটিং এজেন্সিকে বাংলদেশ ও বহির্বিশ্বের সব দূতাবাসে অবিলম্বে তালিকাভুক্ত করার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হোক।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন পরিষদের সভাপতি এম টিপু সুলতান, মহাসচিব আরিফুর রহমান প্রমুখ।

 

/বিআই/আইএ/
সম্পর্কিত
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
আগামীকাল প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন
আগামীকাল প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন
পুতিনের সঙ্গে আলোচনা অসম্ভব: জেলেনস্কি
পুতিনের সঙ্গে আলোচনা অসম্ভব: জেলেনস্কি
টেকনাফ উপকূলে ট্রলারডুবি: সৈকতে ভেসে এলো শিশুর লাশ
টেকনাফ উপকূলে ট্রলারডুবি: সৈকতে ভেসে এলো শিশুর লাশ
কেমন আছেন মণ্ডপে হামলায় নিহত দিলীপের স্ত্রী-সন্তান?
কেমন আছেন মণ্ডপে হামলায় নিহত দিলীপের স্ত্রী-সন্তান?
এ বিভাগের সর্বশেষ
৫০ তরুণ ঘরছাড়া: খোঁজা হচ্ছে কুশীলবদের
জঙ্গি সম্পৃক্ততা সন্দেহে তদন্ত৫০ তরুণ ঘরছাড়া: খোঁজা হচ্ছে কুশীলবদের
বাংলাদেশ আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদ: কর্মসূচির অগ্রগতি ভবিষ্যৎ ও পরিকল্পনা
বাংলাদেশ আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদ: কর্মসূচির অগ্রগতি ভবিষ্যৎ ও পরিকল্পনা
অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পলিথিন ব্যবসায়ী, খোয়ালেন ৮ লাখ টাকা
অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পলিথিন ব্যবসায়ী, খোয়ালেন ৮ লাখ টাকা
রোমানিয়ায় চাকরির নামে প্রতারণা, র‍্যাবের জালে প্রতারক
রোমানিয়ায় চাকরির নামে প্রতারণা, র‍্যাবের জালে প্রতারক
মিয়ানমারের বিরুদ্ধে মামলায় গাম্বিয়াকে সমর্থনের জন্য স্পেনকে অনুরোধ
মিয়ানমারের বিরুদ্ধে মামলায় গাম্বিয়াকে সমর্থনের জন্য স্পেনকে অনুরোধ