X
সকল বিভাগ
সেকশনস
সকল বিভাগ

ধর্মঘটের তৃতীয় দিনে ভোগান্তি বেশি অফিসগামীদের

আপডেট : ০৭ নভেম্বর ২০২১, ১২:৩৪

জ্বালানি তেলের দাম ‍বৃদ্ধি প্রেক্ষাপটে ভাড়া বাড়ানোর দাবিতে পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের ধর্মঘট চলছে শুক্রবার (৫ নভেম্বর) থেকে। শুক্র ও শনিবার সরকারি ছুটির দিন হওয়ায় রাজধানীতে যাত্রীদের চাপ কিছুটা কম ছিল। ভোগান্তি থাকলেও অতিরিক্ত ভাড়া গুণে রিকশা, সিএনজি কিংবা ভাড়ায় চালিত মোটরবাইকে কোনোরকম ‘ম্যানেজ’ করে নিয়েছিলেন রাজধানীবাসী। তবে আজ রবিবার (৭ নভেম্বর) সরকারি অফিস, আদালত, ব্যাংকসহ সবধরনের প্রতিষ্ঠান খোলা। তাই রাজধানীতে অতিরিক্ত ভাড়া দিয়েও যানবাহন মেলেনি অফিসগামীদের। গত দুদিন কিছুটা বাড়লেও আজ সিএনজি-রিকশার ভাড়া ঠেকেছে কয়েকগুণ পর্যন্ত। দুদিনেই সরকারের পক্ষ থেকে কোনও সমাধান না আসায় ক্ষোভ প্রকাশ করছেন অনেকেই।

বাদুর ঝোলা হয়ে বাসে অফিসগামীরা
 
সকাল থেকে রাজধানীর বিভিন্ন সড়ক ঘুরে দেখা যায়, সবচেয়ে বেশি ভোগান্তিতে পড়েছেন অফিসগামীরাই। তারা বলছেন, অফিসেও যেতে হবে। আবার পরিবহনের ব্যবস্থাও নেই। এই অবস্থায় অনেকেই হেঁটে রওনা দিয়েছেন। কেউ কেউ ব্যক্তিগত যানে যাতায়াত করছেন। আর চাকরিজীবীদের বড় অংশই; যাদের এ ব্যবস্থা নেই তারা আছেন বিপদে।

রাজধানীর মিরপুর আনসার ক্যাম্প বাস স্টান্ডে অপেক্ষা করছিলেন জনাপঞ্চাশেক মানুষ। বেশ কিছু সময় পর একটি খালি সিএনজি অটোরিকশা আসতেই কয়েকজন যাত্রী একসঙ্গে রীতিমতো দৌঁড়ে গেলেন সেটার কাছে। কয়েকযাত্রীর একসঙ্গে `জিজ্ঞাসায়‘ কিছুটা ভ্যাবাচ্যাকা সিএনজি চালক কৌশল করে সিএনজি এগিয়ে নিলেন খানিকটা। ভিড় কমলে এক এক করে গন্তব্য জানতে চাইলেন। পছন্দ মতো দুএকজনকে ভাড়াও বললেন। তাতে নিরাশ হয়ে পিছু ফিরলেন যাত্রী; ভাড়া কয়েকগুণ বেশি। অবশেষে এই ‘নিলামে’ এক ‘বিজয়ী’ সিএনজি নিয়ে ছুট দিলেন তার গন্তব্যে। বাকিদের আবারও শুরু হলো অপেক্ষা।

সিএনজির ভাড়া বেড়েছে কয়েকগুণ পর্যন্ত (ছবি: বাংলা ট্রিবিউন)

সেখান থেকে ফিরে কল্যাণপুরের দিকেও দেখা গেল প্রায় একই চিত্র। কল্যাণপুরে কথা হলো মফিদুর রহমান নামে এক যুবকের সঙ্গে। ফার্মগেটে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মী মফিদুর জানালেন, প্রতিদিন যাতায়াত আর খাওয়ার জন্য বাড়ি থেকে দেড়শ টাকা নিয়েই বের হন তিনি। কল্যাণপুর থেকে ফার্মগেট যেতে আজ রিকশা ভাড়াই চাইছে দুইশো টাকা। বাধ্য হয়ে হাঁটা ধরেছেন তিনি।

চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে যাবেন- এমন কয়েকজনকেও অপেক্ষা করতে দেখা গেল সড়কের পাশে। অপেক্ষা করছেন স্কুল শিক্ষার্থীরাও। কিছুক্ষণ অপেক্ষার পর কেউ কেউ ছুটছেন পায়ে হেঁটেই। নোয়াখালী থেকে কয়েকদিন আগে চিকিৎসার জন্য ঢাকায় এসেছেন গফুর মিয়া। কয়েক ঘণ্টা দাঁড়িয়েও কোনও ব্যবস্থা না করতে আত্মীয়ের বাসায় ফিরে যাচ্ছেন তিনি। গফুর মিয়া বলেন, ‘আমার হার্টের সমস্যা, চলাফেরা করতে কষ্ট হয়। ডাক্তার দেখাবো, তাও যেতে পারলাম। সাধারণ মানুষের কষ্ট হচ্ছে, এটা দেখার জন্য সরকারের কেউ নাই।’

বাস না থাকায় অতিরিক্ত ভাড়ায় ঝুঁকিপূর্ণভাবেই গন্তব্যে যাচ্ছেন যাত্রীরা (ছবি: বাংলা ট্রিবিউন)

গাড়ি চালক ও মালিকদের এমন কর্মসুচিতে ক্ষুব্ধ সাধারণ মানুষ। শিশু সন্তানকে কল্যাণপুরে গাড়ির জন্য অপেক্ষমান রাবেয়া বেগম বলেন, গাড়ি বন্ধ করে রাখছে, সরকার কেন কিছু বলে না।

উল্লেখ্য, গত বুধবার রাতে ডিজেলের দাম এক লাফে ১৫ টাকা বা ২৩ শতাংশ বাড়িয়ে ৮০ টাকা নির্ধারণ করে জ্বালানি বিভাগ। বৃহস্পতিবার সকালেই পণ্যবাহী গাড়ির মালিক-শ্রমিকদের সংগঠন ধর্মঘটের ডাক দেয়। পরে জেলায় জেলায় বাস না চালানোর ঘোষণাও দেওয়া হয়। সর্বশেষ শনিবার লঞ্চ ধর্মঘটের ঘোষণাও আসে।

ধর্মঘটের তৃতীয় দিনে দেশের পরিবহন ব্যবস্থার এই অচলাবস্থা কাটাতে পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের দাবি অনুযায়ী নতুন ভাড়া নির্ধারণের জন্য বৈঠকে বসেছে বিআরটিএ। রবিবার (৭ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ১১টার পর রাজধানীর মহাখালীতে বিআরটিএ ভবনে এ বৈঠক শুরু হয়েছে।

/সিএ/ইউএস/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
টাঙ্গাইলে জাপাতে যোগ দিলেন ব্যবসায়ী-শিক্ষার্থীসহ ৪০ জন 
টাঙ্গাইলে জাপাতে যোগ দিলেন ব্যবসায়ী-শিক্ষার্থীসহ ৪০ জন 
বেকসুর শাহরুখপুত্র!
বেকসুর শাহরুখপুত্র!
'৫০ বছর পুরনো' ট্যাংক ইউক্রেন পাঠাচ্ছে রাশিয়া
'৫০ বছর পুরনো' ট্যাংক ইউক্রেন পাঠাচ্ছে রাশিয়া
বজ্রাঘাতে প্রাণ গেলো সৌদি প্রবাসীর 
বজ্রাঘাতে প্রাণ গেলো সৌদি প্রবাসীর 
এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
প্রেমিককে সঙ্গে নিয়ে ২০ ভরি স্বর্ণ চুরি করে গৃহকর্মী
প্রেমিককে সঙ্গে নিয়ে ২০ ভরি স্বর্ণ চুরি করে গৃহকর্মী
রাজধানীতে চাঁদাবাজ-ছিনতাইকারী চক্রের ২৬ সদস্য গ্রেফতার
রাজধানীতে চাঁদাবাজ-ছিনতাইকারী চক্রের ২৬ সদস্য গ্রেফতার