X
সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২
১১ আশ্বিন ১৪২৯

নতুন ভাড়ার তালিকা নেই গণপরিবহনে, যাত্রীদের ক্ষোভ

মাহফুজ সাদি
১০ আগস্ট ২০২২, ২৩:৩০আপডেট : ১০ আগস্ট ২০২২, ২৩:৩০

জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির প্রেক্ষাপটে গণপরিবহনের মালিক ও শ্রমিক নেতাদের সঙ্গে দীর্ঘ বৈঠক করে ভাড়া বাড়িয়ে পুনর্নির্ধারণের ঘোষণা দেয় বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ- বিআরটিএ। এরপর চার দিন পেরিয়ে গেলেও এখনও মহানগর ও দূরপাল্লার বাসে নতুন ভাড়ার তালিকা প্রদর্শন করা হচ্ছে না। উপরন্তু, ভাড়া নিয়ে চলছে নৈরাজ্য। এ নিয়ে যাত্রীদের তিক্ত অভিজ্ঞতার কথা জানিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করতে দেখা গেছে।

জানা যায়, গত ৬ আগস্ট ভাড়া বাড়িয়ে সমন্বয় করার ঘোষণা দেওয়া হয়। ৮ আগস্ট বিআরটিএ’র ওয়েবসাইটে মহানগর ও দূরপাল্লার বাসের নতুন ভাড়ার তালিকা প্রকাশ করা হয়। এরপরও দুই দিন অতিবাহিত হলেও এখনও গণপরিবহনে ভাড়ার নতুন চার্ট দেখা যাচ্ছে না। এই সুযোগে গত চার দিন ধরে ইচ্ছে মতো ভাড়া আদায়ের অভিযোগ করেছেন যাত্রীসহ সংশ্লিষ্টরা।

ঘোষণা অনুযায়ী, ঢাকা ও চট্টগ্রাম মহানগরে প্রতি কিলোমিটারে ১৬ দশমিক ২৭ শতাংশ, এই দুই মহানগরীর আশপাশের এলাকায় (ডিটিসিএ) ১৭ শতাংশ এবং দূরপাল্লার বাসে ২২ দশমিক ২২ শতাংশ ভাড়া বাড়িয়ে তালিকা দিয়েছে বিআরটিএ।

সে হিসাবে দূরপাল্লার বাসের ভাড়া আগের চেয়ে প্রতি কিলোমিটারে ১ টাকা ৮০ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ২ টাকা ২০ পয়সা, ঢাকা-চট্টগ্রামে ২ টাকা ১৫ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ২ টাকা ৫০ পয়সা এবং ডিটিসিএ এলাকায় ২ টাকা ৫ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ২ টাকা ৪০ পয়সা করা হয়। ঢাকা ও চট্টগ্রামের বড় বাসে সর্বনিম্ন ভাড়া আগেরটাই ১০ টাকা এবং মিনি বাসে ৮ টাকা বহাল রাখা হয়েছে।

বুধবার (১০ আগস্ট) রাজধানীর বিভিন্ন রুটের বাসে নতুন ভাড়ার চার্ট দেখা যায়নি। বেশ কয়েকজন যাত্রীও জানিয়েছেন, তারা কোনও বাসে ভাড়ার চার্ট দেখেননি। কেন এখনও নতুন তালিকা টানানো হয়নি জানতে চাইলে চালক ও তাদের সহকারীরা বলছেন, ‘মালিক না লাগালে আমরা কী করবো?’

এ বিষয়ে বাস মালিকরা কোনও মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানালেও বিআরটিএ’র নির্ধারিত ভাড়ার চেয়ে বেশি ভাড়া আদায়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে। আনোয়ার হোসেন নামের একযাত্রী বাংলা ট্রিবিউনকে বলেছেন, মোহাম্মাদপুর থেকে ফার্মগেটে নতুন ভাড়া ১২ টাকা নির্ধারণ করা হলেও ‘স্বাধীন পরিবহনে’ তার কাছ থেকে ১৫ টাকা নেওয়া হয়েছে। আরও কয়েকজন যাত্রী প্রায় একই ধরনের কথা বলেন। তাদের অভিযোগ, নতুন ভাড়ার তালিকায় খুচড়া ভাড়া থাকলেও তা মানছেন না পরিবহন শ্রমিকরা। তারা ২-৪ টাকা বর্ধিত ভাড়ার ক্ষেত্রে ৫ টাকার নিচে নিতে চাইছেন না।

অতিরিক্ত ভাড়া আদায় নিয়ে বাসের কন্ডাক্টরদের সঙ্গে যাত্রীদের বাকবিতণ্ডা, এমনকি হাতাহাতির ঘটনাও ঘটতে দেখা গেছে এদিন। ক্ষুব্ধ এসব যাত্রী বলছেন, বাসে নতুন ভাড়ার চার্ট এখনও লাগানো হয়নি— তা কেন দেখছে না বিআরটিএ। ভ্রাম্যমাণ আদালতে লোক দেখানো কয়েকটি মামলা ও কিছু জরিমানা করা হলেও চার্টের ক্ষেত্রে তারা উদাসীন।

এদিকে, দূরপাল্লার বিভিন্ন রুটের গণপরিবহনের ক্ষেত্রেও বিআরটিএ’র নির্ধারিত ভাড়ার চেয়ে বেশি আদায়ের অভিযোগ রয়েছে। ৫০-৩০০ টাকা পর্যন্ত অতিরিক্ত ভাড়া নেওয়ার অভিযোগও করেছেন একাধিক যাত্রী। এ ক্ষেত্রে কর্তৃপক্ষের নজরদারির অভাবকে দায়ী করছেন অনেকে। তবে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির একাধিক নেতা বলছেন, বুধবার (১০ আগস্ট) থেকে ১১টি মনিটরিং টিম নিয়ে মাঠ পর্যবেক্ষণে নামছেন তারা।

রোড সেফটি ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক সাইদুর রহমান বলেন, ‘পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের কারণেই নির্ধারিত ভাড়া মানা হয় না। তারা ইচ্ছে মতো ভাড়া আদায় করছেন। বিষয়টি তদারকি করছে না বিআরটিএ ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। যাত্রীরা হয়রানির শিকার হচ্ছেন। ভাড়া নির্ধারণের সময়ও যাত্রীদের প্রতিনিধি রাখা হয় না। ফাঁকা বুলি ছাড়া কার্যকর কোনও পদক্ষেপ না নেওয়ায় পরিস্থিতির উন্নতি হচ্ছে না।’

এসব অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে বিআরটিএ’র উপ-পরিচালক (এনফোর্সমেন্ট) (উপ-সচিব) হেমায়েত উদ্দিন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘অতিরিক্ত ভাড়া নেওয়ার বিষয়টি নিয়ন্ত্রণে ঢাকায় ১০টি ও চট্টগ্রামে ২টি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হচ্ছে। এতে মামলা হচ্ছে, জরিমানাও হচ্ছে, গাড়ি ডাম্পিং করা হচ্ছে। ভাড়ার তালিকা গাড়িতে আছে কিনা, তাও খতিয়ে দেখছেন তারা। বুধবার সংশ্লিষ্ট নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের সঙ্গে বৈঠক করে বিষয়টি নিয়ে আরও কঠোর হওয়ার কথা বলেছেন বিআরটিএ চেয়ারম্যান।’

বাংলাদেশ যাত্রীকল্যাণ সমিতির মহাসচিব মোজাম্মেল হক চৌধুরী বলেন, ‘বিআরটিএ কেবল সীমিত পরিসরে কয়েকটা মামলা, কিছু জরিমানা করলে কাজ হবে না। পরিবহন মালিক ও কোম্পানির প্রধানকে আইনের মুখোমুখি করতে হবে, সুনির্দিষ্টভাবে ব্যবস্থা নিতে হবে। বাস স্টেশন ও টার্মিনালগুলোতে ভাড়ার ডিজিটাল তালিকা প্রদর্শন করতে হবে। সাধারণ যাত্রীরা যাতে দেখতে পারেন, জানতে পারেন।’

এর আগে মঙ্গলবার (৯ আগস্ট) বিকালে মিরপুরে এক অনুষ্ঠানে বিআরটিএ’র চেয়ারম্যান নূর মোহাম্মদ মজুমদার বলেন, ‘গণপরিবহনের বর্ধিত ভাড়া আদায়ে অনিয়ম দেখলে প্রমাণসহ অভিযোগ করতে পারেন যাত্রী বা যে কেউ। প্রমাণ পেলে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে অবশ্যই ব্যবস্থা নেবো আমরা।’ এ সময় সড়কে শৃঙ্খলা রক্ষা এবং ‘ভাড়া সন্ত্রাস’ নিয়ন্ত্রণে অংশীজনদের এগিয়ে আসার আহ্বানও জানান তিনি।

/এপিএইচ/
সম্পর্কিত
বরগুনা থেকে ঢাকাগামী সব বাস অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ
বরগুনা থেকে ঢাকাগামী সব বাস অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ
নওগাঁয় অভ্যন্তরীণ রুটে বাস চলাচল বন্ধ
নওগাঁয় অভ্যন্তরীণ রুটে বাস চলাচল বন্ধ
ফরিদপুর থেকে বাস চলাচল বন্ধ
ফরিদপুর থেকে বাস চলাচল বন্ধ
সিলেটে অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট মঙ্গলবার
সিলেটে অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট মঙ্গলবার
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
হাজারীবাগে কুরিয়ার সার্ভিস ডিপোতে ‘বিস্ফোরণ’, নিহত ১ 
হাজারীবাগে কুরিয়ার সার্ভিস ডিপোতে ‘বিস্ফোরণ’, নিহত ১ 
৯ ঘণ্টা পর আবার উদ্ধার অভিযান শুরু
৯ ঘণ্টা পর আবার উদ্ধার অভিযান শুরু
কলকাতা থেকে আখাউড়া হয়ে ট্রেন যাবে আগরতলা
কলকাতা থেকে আখাউড়া হয়ে ট্রেন যাবে আগরতলা
আলমডাঙ্গায় স্বামী-স্ত্রীর মরদেহ উদ্ধারে ঘটনায় মামলা
আলমডাঙ্গায় স্বামী-স্ত্রীর মরদেহ উদ্ধারে ঘটনায় মামলা
এ বিভাগের সর্বশেষ
মেট্রোরেলের কী প্রভাব পড়বে যাত্রীদের ওপর?
মেট্রোরেলের কী প্রভাব পড়বে যাত্রীদের ওপর?
বাসে অতিরিক্ত ভাড়া, ক্ষুব্ধ যাত্রীরা
বাসে অতিরিক্ত ভাড়া, ক্ষুব্ধ যাত্রীরা
ভাড়া বেশি নেওয়ায় রাঈদা পরিবহনকে জরিমানা
ভাড়া বেশি নেওয়ায় রাঈদা পরিবহনকে জরিমানা
‘একচেটিয়া’ বাস ভাড়া প্রত্যাখ্যান যাত্রী কল্যাণ সমিতির
‘একচেটিয়া’ বাস ভাড়া প্রত্যাখ্যান যাত্রী কল্যাণ সমিতির
সড়কে এখনও নামেনি অনেক বাস
সড়কে এখনও নামেনি অনেক বাস