X
বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪
২ শ্রাবণ ১৪৩১

দর্শনার্থীদের ভিড় বাড়লেও বিক্রি বাড়েনি বইমেলায়

আবিদ হাসান
১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ২২:৪৯আপডেট : ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ২২:৪৯

ভালোবাসা দিবস, বসন্ত উৎসব ও স্বরস্বতী পূজা উপলক্ষে সারা দিন লোকে লোকারণ্য ছিল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা। বেলা তিনটায় ফটক খুলে দেওয়ার পর জনতার সেই ভিড় বাড়তে থাকে বইমেলায়। বাসন্তী-ভালোবাসার রঙে নিজেদের সাজিয়ে মেলায় এসেছেন পাঠক-দর্শনার্থীরা।

বুধবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) মেলায় প্রবেশপথেই দেখা যায় দর্শনার্থীদের ভিড়। খুব কষ্টে ভেতরে প্রবেশের পর দেখা যায় বইমেলার জনসমুদ্র। দর্শনার্থী বাড়লেও বিক্রি আগের মতোই রয়েছে বলে জানান প্রকাশকরা। তবে বই কিনুক আর না কিনুক মেলায় মানুষ আসুক এমনটাই চাওয়া তাদের।

প্রকাশকরা জানান, আগের বছরগুলোর তুলনায় এবার শুরু থেকেই মেলায় বিক্রি ভালো হচ্ছে। আজ ভালোবাসা দিবস, বসন্ত ও স্বরস্বতী পূজা উপলক্ষে দর্শনার্থীদের ভিড় বেড়েছে অনেক। তবে বিক্রি রয়েছে অপরিবর্তনীয়। যারা আসছে, তাদের বেশিরভাগই ঘোরাঘুরি করছে। মেলায় আসলেই যে বই কিনতে হবে এমন নয়। মেলা লেখক-পাঠক ও প্রকাশকদের মিলনস্থল। মানুষ মেলায় আরও বেশি আসুক এমনটাই চাওয়া।

অনিন্দ্য প্রকাশের প্রকাশক আফজাল হোসেন বলেন, ‘এবার মেলায় বিক্রি অন্য বছরগুলোর তুলনায় শুরু থেকেই ভালো। তবে আজ দর্শনার্থীদের যে ভিড়, সে তুলনায় বিক্রি বাড়েনি। বিক্রি আগের মতোই।’

অক্ষর প্রকাশের বিক্রয়কর্মী নয়ন দাস বলেন, ‘বিক্রি মোটামুটি ভালো হচ্ছে, খারাপ না। তবে আজ দর্শনার্থীদের ভিড় বিক্রি বাড়ায়নি। বিক্রি আর স্বাভাবিক দিনগুলোর মতোই।’

অন্যপ্রকাশের সত্ত্বাধিকারী মাজহারুল ইসলাম বলেন, ‘মেলায় আজ লোকসমাগমের আলোকে বিক্রি বাড়েনি। মেলা থেকে বের হওয়ার পথে দাঁড়িয়ে দেখুন যত জন বের হচ্ছে তার মধ্যে কত জনের হাতে বই আছে! তবে মেলায় আসলেই বই কিনতে হবে এমন কোনও কথা নেই। বইমেলা মানেই হলো পাঠক-লেখক ও প্রকাশকদের মেলা। এবার সার্বিক বিক্রির অবস্থা কিছুটা ভালো আগের তুলনায়।’

ঐতিহ্য প্রকাশের বিক্রয়কর্মী মেহেদী হাসান জানান, মানুষের ভিড়ের কারণে বিক্রি কিছুটা বেড়েছে। তিনি বলেন, বিক্রি এমনিতেই এবার ভালো। আজ মানুষের আগমন বেশি, সঙ্গে বিক্রিও বেড়েছে।’

বসন্ত ও ভালোবাসার দিনে বইমেলায় পাঠক-দর্শনার্থীর ভিড়

নতুন বই

বইমেলার ১৪তম দিনে নতুন বই এসেছে ৯১টি। এরমধ্যে গল্প ১১, উপন্যাস ১২, প্রবন্ধ ৩, কবিতা ৩৫, গবেষণা ২, ছড়া ৪, শিশুসাহিত্য ৩, জীবনী ৫, রচনাবলি ১, নাটক ১, বিজ্ঞান ১, ভ্রমণ ১, ইতিহাস ১, রাজনীতি ১, ধর্মীয় ৩, অনুবাদ ২, অভিধান ১, সায়েন্স ফিকশন ১ ও অন্যান্য ৩টি।

মূল মঞ্চের আয়োজন

বিকাল ৪টায় বইমেলার মূল মঞ্চে অনুষ্ঠিত হয় ভাষা সংগ্রামী গাজীউল হক শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান। প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন রাফাত আলম মিশু। আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন সুজাতা হক এবং মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন অধ্যাপক আবদুল মান্নান চৌধুরী।

প্রাবন্ধিক মিশু বলেন, ‘রাষ্ট্রভাষা আন্দোলনে যারা ব্যক্তি থেকে সময়ের নায়ক হয়ে উঠেছিলেন গাজীউল হক তাদের মধ্যে অগ্রগণ্য। আশি বছরের বর্ণাঢ্য জীবনে তিনি ছিলেন একাধারে মেধাবী ছাত্র, রাজনৈতিক কর্মী, লেখক, গীতিকার, সুবক্তা এবং আইনজীবী। তবে সব কিছু ছাপিয়ে তার বড় পরিচয় তিনি একজন ভাষাসংগ্রামী এবং মুক্তিযোদ্ধা। গাজীউল হক নিজে লেখক ছিলেন, তাই তার জীবনপাঠের ক্ষেত্রে তার রচনাগুলো গুরুত্বপূর্ণ অনুষঙ্গ হিসেবে বিবেচিত হতে পারে।’

সভাপতির বক্তব্যে অধ্যাপক আবদুল মান্নান চৌধুরী বলেন, ‘ভাষাসংগ্রামী গাজীউল হক আমৃত্যু দুঃসাহসী ও দৃঢ় মানসিকতার স্বাক্ষর রেখেছেন। বাংলাদেশের সংগ্রামী ইতিহাসে তার কর্ম ও আদর্শ চিরঅম্লান হয়ে থাকবে।’

মেলার স্টলে দর্শনার্থীদের ভিড়

লেখক বলছি

লেখক বলছি অনুষ্ঠানে নিজেদের নতুন বই নিয়ে আলোচনা করেন লেখক ও কার্টুনিস্ট আহসান হাবীব, কবি শাহেদ কায়েস, লেখক ও সংগীত পরিচালক তানভীর তারেক এবং কথাসাহিত্যিক মাজহার সরকার।

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে কবিতা পাঠ করেন কবি মারুফুল ইসলাম, মাসুদুজ্জামান, ইসমত শিল্পী এবং সাহেদ মন্তাজ। আবৃত্তি পরিবেশন করেন মাসকুর-এ-সাত্তার কল্লোল, মাসুদুজ্জামান এবং চৈতালী হালদার। পুথিপাঠ করেন মো. শহীদ এবং মো. কুদ্দুস মিয়া। সংগীত পরিবেশন করেন শিল্পী মো. রফিকুল আলম, মো. খুরশীদ আলম, মামুনুল হক সিদ্দিক, মুর্শিদুদ্দীন আহম্মদ, মো. রেজওয়ানুল হক, জয় শাহরিয়ার, আঞ্জুমান আরা শিমুল, চম্পা বণিক, শরণ বড়ুয়া এবং অনন্যা আচার্য।

বৃহস্পতিবারের সময়সূচি

একুশে বইমেলার ১৫তম দিন বৃহস্পতিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) মেলা শুরু হবে বিকাল ৩টায় এবং চলবে রাত ৯টা পর্যন্ত। বিকাল ৪টায় বইমেলার মূল মঞ্চে অনুষ্ঠিত হবে ‘স্মরণ: আবদুল হালিম বয়াতি’ শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান। প্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন জোবায়ের আবদুল্লাহ। আলোচনায় অংশ নেবেন শফিকুর রহমান চৌধুরী এবং মো. নিশানে হালিম। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন সাইদুর রহমান বয়াতি।

ছবি: প্রতিবেদক

/আরআইজে/
সম্পর্কিত
বর্ষবরণে উত্তরে অলিগলি হালখাতা
বইমেলা শেষ, কবে স্বরূপে ফিরবে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান?
ব্রহ্মপুত্রপাড়ে পণ্ডিত বইমেলা, থাকবেন ক্ষুদ্র জাতি-গোষ্ঠীর সাহিত্যিক ও শিল্পী
সর্বশেষ খবর
জাতির উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ শুরু
জাতির উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ শুরু
রাজধানীতে ১৪ প্লাটুন আনসার মোতায়েন
রাজধানীতে ১৪ প্লাটুন আনসার মোতায়েন
কোটা সংস্কার আন্দোলন এবং ‘রাজাকারের নাতিপুতি’ প্রসঙ্গ
কোটা সংস্কার আন্দোলন এবং ‘রাজাকারের নাতিপুতি’ প্রসঙ্গ
জাবিতে পুলিশের সঙ্গে শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষ চলছে
জাবিতে পুলিশের সঙ্গে শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষ চলছে
সর্বাধিক পঠিত
সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা
সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা
কী আছে ড. জাফর ইকবালের মূল লেখায়
কী আছে ড. জাফর ইকবালের মূল লেখায়
ছাত্রলীগের ১৫ কর্মীকে ছয়তলা থেকে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ
ছাত্রলীগের ১৫ কর্মীকে ছয়তলা থেকে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ
রোকেয়া হল ছাত্রলীগের নেত্রীর কক্ষে হামলা, মারধর
রোকেয়া হল ছাত্রলীগের নেত্রীর কক্ষে হামলা, মারধর
ছাত্রলীগ থেকে পদত্যাগ করলেন আরেক নেতা, লিখলেন ‘আর পারলাম না’
ছাত্রলীগ থেকে পদত্যাগ করলেন আরেক নেতা, লিখলেন ‘আর পারলাম না’