X
রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪
৭ বৈশাখ ১৪৩১

জুতা পায়ে কেন শহীদ মিনারের বেদিতে?

আতিক হাসান শুভ
২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৮:৫৮আপডেট : ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৯:৩৮

মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে (২১ ফেব্রুয়ারি) ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে খালি পায়ে শহীদ মিনারে গিয়ে ফুল দেওয়াই রীতি। কিন্তু অযাচিতভাবে এই নিয়ম অমান্য করতে দেখা যায় কখনও কখনও। কেউ কেউ শ্রদ্ধা জানাতে গিয়ে শহীদ মিনারের বেদিতে জুতা পায়ে উঠে পড়েন। এর আগে ঢাকার বাইরে এমন ঘটনা ঘটলেও এবার খোদ রাজধানীতে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের বেদিতে অনেককে জুতা পায়ে ঘুরতে দেখা গেছে, যা অশোভনীয়।

বিষয়টিকে ‘সুশিক্ষার অভাব’ অভিহিত করে সমাজবিজ্ঞানীরা বলছেন, এ দেশের মানুষ এখনও ভাষা শহীদদের মর্যাদা দিতে শেখেনি। এছাড়া শহীদদের শ্রদ্ধা জানানো এখন উৎসবে পরিণত হয়েছে। এটা হয়ে গেছে ফুর্তি বা লোক দেখানো, যা মোটেও কাম্য নয়।

বুধবার (২১ ফেব্রুয়ারি) শহীদ দিবসের  প্রথম প্রহরে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা নিবেদনের পর বাকি রাতটুকু হাজারো মানুষ খালি পায়ে বেদিতে উঠে ফুল দিয়ে শহীদদের শ্রদ্ধা জানান। তবে সকালে শুরু হয় ভিন্ন চিত্র। বেলা বাড়তে থাকলে শহীদ মিনারের প্রতি অবজ্ঞা ধরা পড়ে কিছু মানুষের কর্মকাণ্ডে। সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা জানানোর পরপরই তারা জুতা পায়ে বেদিতে উঠে পড়েন, ঘুরে বেড়ান ও ছবি তোলেন। কেউ গ্রুপ ছবি, কেউ বা সেলফি তোলায় মেতে ওঠেন।

শ্রদ্ধা নিবেদন নাকি উৎসব, পায়ে জুতা তুলছেন সেলফিও, ছবি: প্রতিবেদক জুতা পায়ে কেন শহীদ মিনারে উঠেছেন—এমন প্রশ্ন করা হলে কেউ ইতস্ততবোধ করেন, আবার কেউ চেঁচিয়ে উঠে নানান বাহানা দেন।

জুতা পায়ে শহীদ মিনারে ওঠার বিষয়ে ক্ষোভ জানিয়ে আব্দুর জাহের নামে একজন শিক্ষক বলেন, ‘এ দেশের মানুষ এখনও ভাষা শহীদদের মর্যাদা দিতে শেখেনি। তারা জানে না শহীদ মিনারের মর্যাদা কী। তারা কেবল লোক দেখানোর জন্যই শ্রদ্ধা দেখায়। এটা আসলে সুশিক্ষার অভাব। আমি একজন শিক্ষক হিসেবে লজ্জিত, আমার সন্তানদের সুশিক্ষা দিতে পারিনি।’

এই শিক্ষক আরও বলেন, ‘মানুষ শহীদ মিনারে এসে এমনভাবে হাসি-ঠাট্টায় মেতেছে, মনে হচ্ছে একুশে ফেব্রুয়ারি শোকের নয়, উদযাপনের। এখন অবশ্য যেই ধারা অব্যাহত আছে—মানুষ জানেই না একুশে ফেব্রুয়ারি আসলে কীভাবে পালন করতে হবে। এই ধারা পরিবর্তন করতে হবে। নয়তো বাংলা ভাষার যে মর্যাদা, তা ধীরে ধীরে অন্ধকারে নিমজ্জিত হবে।’

শহীদ মিনারের বেদিতে জুতা পায়ে কেন উঠেছেন এমন প্রশ্ন করতেই বেশ কয়েকজন লাজুক ভঙ্গিতে নেমে যান। আবার বেশ কয়েকজন রেগে যান। তাদের মধ্যে একজন শিবলি। চেঁচিয়ে উঠে তিনি বলেন, ‘সবাই উঠেছে তাই আমরাও উঠেছি। আর শহীদদের শ্রদ্ধা জানানো তো শেষ। এখন উঠলে তো সমস্যা নেই। এখানে উঠলে তো জেল জরিমানা হবে না।’

জুতা পায়ে শহীদ মিনারের বেদিতে সেলফি তোলায় ব্যস্ত সবাই, ছবি: প্রতিবেদক

জুতা পায়ে ছয় বছর বয়সী ছেলেকে নিয়ে শহীদ মিনারে উঠেছেন এক মা। পায়ে জুতা কেন, প্রশ্ন শুনে হেসে নেমে গেলেন। তার মতো আরও কয়েকজনকে একই প্রশ্ন করা হলে কোনও জবাব না দিয়ে নিচে গিয়ে জুতা রেখে আসেন। তবে বেশিরভাগ এমন প্রশ্ন শুনে উল্টোপথে হাঁটতে শুরু করেন।

বউ-বাচ্চা সবাইকে নিয়ে জুতা পায়ে শহীদ মিনারের বেদিতে উঠে গ্রুপ ফটো তুলছিলেন কর্মজীবী নুর মোহাম্মদ। প্রশ্ন করায় তিনি বলেন, নিচে রেখে শহীদ মিনারে উঠলে জুতা চুরি হয়ে যায়। তাই জুতা নিয়েই উঠেছি।

অবশ্য এদিন অসংখ্য মানুষের জুতা হারানোর ঘটনা ঘটেছে। তাদের মধ্যে দুজন সিয়াম ও তন্নী। সিঁড়ির নিচে রেখে শহীদ মিনারে উঠে ফুল দিয়ে এসে তারা দেখতে পান জুতা নেই। এছাড়া যমুনা টেলিভিশনের স্টাফ রিপোর্টার ফয়সাল মাহমুদ, বার্তা ২৪-এর মাল্টিমিডিয়া রিপোর্টার রাকিব হাসান, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আফতাব, কবি নজরুল কলেজ শিক্ষার্থী আবির, রায়হান, অভিসহ অনেকেই জুতা হারিয়েছেন।

শহীদ মিনার যে শ্রদ্ধা ও মর্যাদার প্রতীক এদের বুঝোবে কে, ছবি: প্রতিবেদক

জুতা হারানোর বিষয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা জানান, আশপাশে ভালো করে খুঁজলে হয়তো পাওয়া যাবে। মাঝে মধ্যে জুতার স্তূপ জমে গেলে দায়িত্বরতরা সরিয়ে রাখেন। অনেক জুতা জমে গেলে অন্য জায়গায় সরিয়ে রাখা হয়। তারা আরও জানান, এত মানুষের মাঝে দু-একটি অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটেছে হয়তো। মানুষের জুতা পাহারা দেওয়া তো সম্ভব না। সবাই নিজ দায়িত্বে রাখলে এমনটা হতো না।

জুতা পায়ে বেদিতে ওঠার বিষয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক নেহাল করিম বলেন, ‘বাংলাদেশের মানুষ সবকিছু নিয়ে অতিরিক্ত করে। শহীদদের শ্রদ্ধা জানানো এখন উৎসবে পরিণত হয়েছে। এটা হয়ে গেছে ফুর্তি, লোক দেখানো।’

/এপিএইচ/এমওএফ/
সম্পর্কিত
শহীদ মিনারে বীর মুক্তিযোদ্ধা শিব নারায়ণ দাসের প্রতি শেষ শ্রদ্ধা
তাসখন্দে শহীদ মিনার স্থাপনের প্রস্তাব
আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের রজতজয়ন্তী পালন করবে ইউনেস্কো
সর্বশেষ খবর
বিএনপির কোনও নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে রাজনৈতিক মামলা দেওয়া হয় না: পররাষ্ট্রমন্ত্রী
বিএনপির কোনও নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে রাজনৈতিক মামলা দেওয়া হয় না: পররাষ্ট্রমন্ত্রী
গরমে সুপেয় পানি নিয়ে সাধারণ মানুষের পাশে পুলিশ
গরমে সুপেয় পানি নিয়ে সাধারণ মানুষের পাশে পুলিশ
পাগলা মসজিদের দানবাক্সে এবার মিললো রেকর্ড ৭ কোটি ৭৮ লাখ টাকা
পাগলা মসজিদের দানবাক্সে এবার মিললো রেকর্ড ৭ কোটি ৭৮ লাখ টাকা
ফেসবুকে উসকানিমূলক পোস্ট, হিন্দু মহাজোট ‘নেতা’ পুলিশ হেফাজতে
ফেসবুকে উসকানিমূলক পোস্ট, হিন্দু মহাজোট ‘নেতা’ পুলিশ হেফাজতে
সর্বাধিক পঠিত
দুর্নীতির অভিযোগ: সাবেক আইজিপি বেনজীরের পাল্টা চ্যালেঞ্জ
দুর্নীতির অভিযোগ: সাবেক আইজিপি বেনজীরের পাল্টা চ্যালেঞ্জ
সারা দেশে স্কুল-কলেজ-মাদ্রাসায় ছুটি ঘোষণা
সারা দেশে স্কুল-কলেজ-মাদ্রাসায় ছুটি ঘোষণা
সোনার দাম কমেছে, আজ থেকেই কার্যকর
সোনার দাম কমেছে, আজ থেকেই কার্যকর
শিল্পী সমিতির নির্বাচন: সভাপতি মিশা, সম্পাদক ডিপজল
শিল্পী সমিতির নির্বাচন: সভাপতি মিশা, সম্পাদক ডিপজল
দেশের ৯ অঞ্চলে তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রির বেশি, পারদ উঠতে পারে আরও
দেশের ৯ অঞ্চলে তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রির বেশি, পারদ উঠতে পারে আরও