X
সোমবার, ২০ মে ২০২৪
৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

‘বাবার কিছু হয়ে গেলে কেউ কি ফিরিয়ে দিতে পারতো?’

ঢাবি প্রতিনিধি
২৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:৩৪আপডেট : ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:৩৪

‘গত ১২এপ্রিল রাজনৈতিক প্রতিহিংসার জেরে রাতের আঁধারে বাবার ওপর হামলা চালানো হয়। ১০ দিন ধরে বাবা আইসিইউতে। আজ যদি আমার বাবার কিছু হয়ে যেতো, হাজার প্রতিবাদের বিনিময়েও আমার বাবাকে কেউ কি ফিরিয়ে দিতে পারতো?’

সোমবার (২২ এপ্রিল) বিকালে শাহবাগ জাতীয় জাদুঘরের সামনে নোয়াখালী সুবর্ণচরের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শিক্ষার্থী লিটনের বাবা বশির আহমেদের ওপর হামলার বিচার দাবিতে মানববন্ধন করেন ঢাকার সুবর্ণচর উপজেলার শিক্ষার্থীরা। সেখানে কান্নাজড়িত কণ্ঠে কথাগুলো বলছিলেন বশির আহমেদে বড় মেয়ে মোর্শেদা আক্তার কাকলী।

তিনি বলেন, ১২ এপ্রিল আমার বাবার ওপর হামলা হয়। আজ আমি এখানে হামলার বিচারের জন্য দাঁড়িয়েছি, যা আমি বা আমার পরিবার কখনও স্বপ্নেও ভাবিনি। আমার বাবা ৩০ বছর ধরে আওয়ামী লীগের রাজনীতি করে গেছেন। রাজনৈতিক জীবনে যার কোনও লোভ ছিল না, আমার বাবা কখনও সুবিধার রাজনীতি করেননি, আমাদের চার ভাই-বোনের পড়াশোনার জন্যও কখনও রাজনৈতিক সুবিধা নেননি। বাবার ইচ্ছা ছিল আমরা চার ভাই-বোন সর্বোচ্চ ডিগ্রিধারী হই। মা-বাবার অক্লান্ত পরিশ্রমে দুই ভাই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, বড় ভাই ঢাকা কলেজ ও আমি প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মাস্টার্স পাস করি।’

তিনি আরও বলেন, ‘এই যেসব ছেলে আমার বাবার ওপর হামলা চালিয়েছে, তারাও তো কোনও বাবার সন্তান। তাদের মা-বাবার কাছে ও সুবর্ণচরবাসীর কাছে আমার প্রশ্ন, কেমন সন্তান গড়ছেন আপনারা! সমাজ এতটাই নিচে নেমে গেছে যে সামান্য ক্ষমতার লোভ আর এক-দুই হাজার টাকার লোভ দেখিয়ে একজন ষাটোর্ধ্ব মানুষকে খুনের চেষ্টা করতে বিবেক বাধল না।’

‘এই ১৫-১৬ বছর বয়সী ছেলেদের কারা শেল্টার দিচ্ছে? কারা এদের বিপথে নিয়ে যাচ্ছে?’ এমন প্রশ্ন রেখে কাকলী বলেন, ‘পড়াশোনা করার সোনালি সময়ে কারা এদের অন্ধকারে দাবিত করছে? কেউ বলতে পারবেন আমার বাবা কোনও লোককে মেরেছেন? কোনও বয়স্ক লোককে অসম্মান করেছেন? তাহলে কোন সূত্র ধরে আমার বাবার ওপর নির্মম হামলা চালানো হলো?’

হামলার কারণ জানিয়ে কাকলী বলেন, আসন্ন উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচনকে কেন্দ্র করে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এইচ এম খায়রুল আলম সেলিমের সভায় গিয়েছিলেন। বাবাকে কখনও রাজনৈতিক প্রতিহিংসার জেরে কাউকে খারাপ কথা বলতে দেখিনি। কিন্তু আজ সেই বাবাকেই প্রতিহিংসার শিকার হতে হয়েছে। আজ যদি আমার বাবার কিছু হয়ে যেতো, হাজার প্রতিবাদের বিনিময়েও আমার বাবাকে কেউ কি ফিরিয়ে দিতে পারতো?’

‘আজ কিছু লোক এটিকে আমাদের পারিবারিক সমস্যা বলে চালিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছে। তাদের কাছে প্রশ্ন, রিজভি, ফয়সাল ও সাকিবের মতো ১৫-১৬ বছর বয়সী ছেলেদের সঙ্গে আমার বাবার কী ধরনের পারিবারিক শত্রুতা?’ বলেন তিনি।

ঢাবির আইন বিভাগের শিক্ষার্থী ও ভুক্তভোগীর সন্তান লিটন বলেন, ‘আমার বাবা যখন রাত ১০টার দিকে বাড়ি ফিরছিলেন, তখন সন্ত্রাসীরা বাবার ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। বাবা আট-দশ দিন ধরে আইসিইউতে ভর্তি রয়েছেন। যাদের নেতৃত্বে বাবার ওপর হামলা চালানো হয়েছে, তারা ঘুরে বেড়াচ্ছে। এই হামলার মদদদাতা ও হামলাকারীদের বিচার চাই।

এ সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিবেটিং সোসাইটির সাবেক সভাপতি শেখ মোহাম্মদ আরমানের সঞ্চালনায় আরও বক্তব্য দেন সুবর্ণচরের বাসিন্দা ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফজলুল হক মুসলিম হলের সিনিয়র অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ আকরব আলী।

/এনএআর/
সম্পর্কিত
খারকিভে রুশ হামলায় নিহত ১০
খেটে খাওয়া মানুষের ভাগ্যোন্নয়নের বাজেট দাবি
‘দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হলে খাদ্যে ফরমালিন মেশানো বন্ধ হতো’
সর্বশেষ খবর
ভারতে লোকসভা নির্বাচনে পঞ্চম দফার ভোট চলছে
ভারতে লোকসভা নির্বাচনে পঞ্চম দফার ভোট চলছে
ডাকাতি করতে গিয়ে কিশোরীকে ধর্ষণ, গ্রেফতার ৪
ডাকাতি করতে গিয়ে কিশোরীকে ধর্ষণ, গ্রেফতার ৪
পোশাক থেকে সুগন্ধির দাগ কীভাবে তুলবেন
পোশাক থেকে সুগন্ধির দাগ কীভাবে তুলবেন
সংযোগ নেই তবু দিনমজুরের নামে বকেয়া বিদ্যুৎবিল পরিশোধের নোটিশ!
সংযোগ নেই তবু দিনমজুরের নামে বকেয়া বিদ্যুৎবিল পরিশোধের নোটিশ!
সর্বাধিক পঠিত
শনিবার ক্লাস চলবে ডাবল শিফটের স্কুলে
শনিবার ক্লাস চলবে ডাবল শিফটের স্কুলে
রাইসির হেলিকপ্টারের অবস্থান ‘শনাক্ত’, সুসংবাদের প্রত্যাশা
রাইসির হেলিকপ্টারের অবস্থান ‘শনাক্ত’, সুসংবাদের প্রত্যাশা
এনবিআর চেয়ারম্যানকে আদালত অবমাননার নোটিশ
এনবিআর চেয়ারম্যানকে আদালত অবমাননার নোটিশ
নতুন বাণিজ্য সচিবের দায়িত্ব গ্রহণ
নতুন বাণিজ্য সচিবের দায়িত্ব গ্রহণ
হামজার পর দিয়াবাতেকে বাংলাদেশ দলে খেলানোর প্রক্রিয়া শুরু
হামজার পর দিয়াবাতেকে বাংলাদেশ দলে খেলানোর প্রক্রিয়া শুরু