গুলি খেলেও অধিকার আদায়ের পথ থেকে সরে দাঁড়াবো না: ইশরাক

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৩:৪২, জানুয়ারি ২৬, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:১৩, জানুয়ারি ২৮, ২০২০

সত্য ও ন্যায়ের পক্ষে কথা বলার কারণে যদি গুলি খেতে হয়, তাহলে শাপলা চত্বরে বুক চিতিয়ে দেবেন বলে জানিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) নির্বাচনে বিএনপি মেয়র প্রার্থী প্রকৌশলী ইশরাক হোসেন। তিনি বলেন, ‘গুলি খেলেও মানুষের অধিকার আদায়ের পথ থেকে সরে দাঁড়াবো না।’
রবিবার (২৬ জানুয়ারি) রাজধানীর মতিঝিলের শাপলা চত্বরে নির্বাচনি প্রচারণা শুরুর আগে এ কথা বলেন তিনি। নির্বাচনি প্রচারণার ১৬তম দিনে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ শ্রমিক দলের আয়োজনে মতিঝিল ব্যাংকপাড়াসহ পুরো এলাকা দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে গণসংযোগ করেন ইশরাক।
সরকারের বিদায়ের সময় ঘনিয়ে এসেছে বলে মন্তব্য করে ইশরাক হোসেন বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে দেশের স্বাধীনতা অর্জন হয়েছে। আমরা কোনও তাঁবেদারি বা কারও জমিদারি মানবো না। দেশ কারও পারিবারিক সম্পত্তি না। রক্ত দিয়ে যে দেশ স্বাধীন হয়েছে, প্রয়োজনে আবার রক্ত দিয়ে মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠা করবো।’
শুধু ঢাকা নয়, পুরো দেশে ধানের শীষের পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে দাবি করে ইশরাক হোসেন বলেন, ‘আগামী ১ ফেব্রুয়ারি সবাই নির্ভয়ে দলবেঁধে ভোটকেন্দ্রে যাবেন। আমরা গণতন্ত্র ও নিজেদের অধিকার রক্ষার আন্দোলনে রয়েছি। এ আন্দলনের মাধ্যমে দেশনেত্রী খালেদা জিয়াকে মুক্ত করবো। প্রয়োজনে রক্ত দেবো, জীবন দেবো, তবুও তাকে মুক্ত করবো।’
গত ১৩ বছরে ক্ষমতাসীনরা দেশের অর্থনৈতিক খাতকে ধ্বংস করেছে অভিযোগ করে বিএনপির এই মেয়র প্রার্থী বলেন, ‘শেয়ার মার্কেট থেকে সাধারণ মানুষের হাজার হাজার কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে গেছে সরকারের লোকেরা। মানুষ সর্বহারা হয়ে দিনের পর দিন আন্দোলন করছে এবং আত্মহত্যার মতো ঘটনাও ঘটেছে।’

সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার ছেলে ইশরাক বলেন, ‘জনগণ নির্ধারণ করবে, কারা দেশ পরিচালনা করবে, তারা ভোটের মাধ্যমে তাদের প্রতিনিধি নির্বাচন করবে।’
প্রচারণায় অংশ নিয়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস বলেন, ‘ইশরাক বক্তব্যে তার যোগ্যতার প্রমাণ করেছেন বলে আমি বিশ্বাস করি। তার বাবা সাদেক হোসেন খোকা এবং আমি মির্জা আব্বাস ঢাকা শহরের সাবেক মেয়র ছিলাম। বিশ্বাস করি, ইশরাকও বাবা এবং চাচার অভিজ্ঞতা, সাহস কাজে লাগিয়ে আপনাদের পাশে থাকবে।’
আরেক স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেন, ‘দেশের জনগণ পরিবর্তন চায়। তারা এই অত্যাচারী, গণতন্ত্র হত্যাকারী, নিপীড়নকারী, ভোট চোর এবং ব্যাংক লুট-শেয়ারবাজার লুটেরা সরকারকে আর ক্ষমতায় দেখতে চায় না।’
প্রচারণায় উপস্থিত ছিলেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, এসএম জিলানীসহ দলের নেতাকর্মীরা।

/এএইচআর/এআর/এপিএইচ/এমএমজে/

লাইভ

টপ