X
রবিবার, ০২ অক্টোবর ২০২২
১৭ আশ্বিন ১৪২৯

হোয়াটস অ্যাপ ও জুমে আ.লীগ নেতাকর্মীদের ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময়

পাভেল হায়দার চৌধুরী
২১ জুলাই ২০২১, ২০:৩৫আপডেট : ২১ জুলাই ২০২১, ২০:৩৫

করোনা মহামারির সময়ে যোগাযোগের জন্য জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে ইন্টারনেটভিত্তিক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো। এক্ষেত্রে অনেকের সাথে একসাথে যোগাযোগ করতে হোয়াটস অ্যাপ ও জুম অ্যাপস বেশি গুরুত্ব পাচ্ছে। করোনা পরিস্থিতিতে রাজনীতিবিদদের জন্য গেল ঈদগুলো ছিল পীড়াদায়ক। এবারের ঈদও কষ্টে কেটেছে  ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের। ঈদ উদযাপন নিয়ে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ নেতারা বলছেন, জনগণের পাশে থাকা, জনগণের জন্য কাজ করা, জনগণের সঙ্গে মেশা রাজনীতিক নেতাদের একমাত্র কাজ। করোনা মহামারির কারণে সেই সুযোগ থেকে  ঈদে বঞ্চিত হচ্ছেন নেতারা। করতে হচ্ছে উল্টো কাজ। দূরত্ব বজায় রেখে চলতে হচ্ছে নেতাকর্মীদের সঙ্গে। জনগণের সঙ্গে  দূরত্ব রেখে চলা রাজনীতিকদের জন্য পীড়াদায়ক। সবাইকে সুস্থ রাখতে বাধ্য হয়েই সামাজিক দূরত্ব রেখে চলতে হলেও হোয়াটস অ্যাপ, মোবাইল ফোন ও জুম মিটিংয়ে চলছে আওয়ামী লীগ নেতাদের ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময়।  ঈদের দিন ঘণ্টার পর ঘণ্টা এসব মাধ্যমে ব্যস্ত রয়েছেন নেতারা।

ঈদের নামাজ শেষ করে প্রায় সারাদিনই নেতাকর্মীদের সঙ্গে জুম মিটিংয়ে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করেছেন। শুধু নেতাকর্মীই নয়, করোনা মহামারিতে জনগণের পাশে দাঁড়ানো স্বেচ্ছাসেবীদের সাথে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করেছেন, তাদের উৎসাহ দিয়েছেন আওয়ামী লীগ নেতারা।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব উল আলম হানিফ বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, হোয়াটস অ্যাপ, মোবাইল ফোন ও জুম মিটিং করে নেতাকর্মীদের সঙ্গে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করেছি। তিনি বলেন, করোনা মহামারিতে এলাকায় যারা স্বেচ্ছাশ্রম দিয়ে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন তাদের সঙ্গে জুম মিটিং করে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করেছি। কুষ্টিয়া মেডিকেল ছাত্রলীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাদের সঙ্গেও তিনি কথা বলেন জুম মিটিংয়ে। এছাড়া দলের সহকর্মীদের সঙ্গেও হোয়াটস অ্যাপে শুভেচ্ছা বিনিময় করেছেন বলে জানান হানিফ। তিনি ঈদ করেছেন ঢাকায়।

তিনি বলেন, রাজনীতিবিদদের জন্য জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে থাকা ভীষণ পীড়াদায়ক।  ঈদ আনন্দের তবে সশরীরে জনগণের পাশে থাকতে না পারার একধরণের কষ্ট তো রয়েছেই। তবুও মানুষকে সুস্থ রাখতে শারীরিক দূরত্ব রেখে ঈদ উদযাপন করেছি। তবে মানসিক দূরত্ব ছিল না। বিভিন্ন মাধ্যম ব্যবহার করে কাছেই থেকেছি।

আওয়ামী লীগের অপর যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও শিক্ষা মন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন, করোনা মহামারির কারণে শারীরিক দূরত্ব মেনে ঈদ উদযাপন করেছি। তবে হোয়াটস অ্যাপ, মোবাইল ফোন ও জুম মিটিংয়ের মাধ্যমে নেতাকর্মীদের কাছেই ছিলাম সারাদিন। ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেছি। এছাড়া ম্যাসেজের মাধ্যমেও ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় হয়েছে। দীপু মনিও ঢাকায় ঈদ করেছেন। তিনি জানান, এমনিতেও ঈদের দিন আমি এলাকায়  থাকি না। কারণ, আমি এলাকায় থাকলে নেতাকর্মীরা পরিবারের সঙ্গে ঈদ না করে আমাকে সময় দেন। তাই আমি ঈদের দিনটা ওদের পরিবারের জন্য রাখতে চাই। তবে সচরাচর ঈদের পরেরদিন এলাকায় যাই। কিন্তু করোনার কারণে এবার এলাকায় যাচ্ছি না।

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন বলেন, আমি ঈদ করেছি আমার এলাকা জয়পুরহাটে। নামাজ পড়েছি  ক্ষেতলাল সরকারি পাইলট স্কুল মাঠে। সেখানে উপস্থিত নেতাকর্মীদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করেছি। এছাড়াও মোবাইল ফোন, হোয়াটস অ্যাপে শুভেচ্ছা বিনিময় করেছি।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ফারুক খান বলেন, নেতাকর্মীর সঙ্গে সশরীরে মিশতে না পারা রাজনীতিবিদদের জন্য খুব কষ্টের। কিন্তু করোনা পরিস্থিতি আমাদের বাধ্য করেছে জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন থাকতে। আমরা সচেতন ও সতর্ক না হলে আমাদের যারা ফলো করে তারাও সচেতন হবে না। বাধ্য হয়ে মানুষের কল্যাণেই জনগণ থেকে দূরে থেকে ঈদ উদযাপন করেছি ঠিকই কিন্তু মোবাইল ফোন, হোয়াটস অ্যাপ ব্যবহার করে নেতাকর্মী, শুভাকাঙ্ক্ষী সবার সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেছি।

আওয়ামী লীগের অপর সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরীরও ঈদ কেটেছে ঢাকায়। তবে ঈদের আগে স্বাস্থ্যবিধি মেনে তার এলাকায় ২৩টা ইউনিয়নে সাধ্যমত ত্রাণ সহায়তা দিয়েছেন তিনি। করোনা পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে এলাকায় ঈদ উদযাপন করতে যাইনি। তবে মোবাইল  ফোনে এলাকার সকলের সঙ্গে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় হয়েছে। অডিও ও ভিডিও রেকর্ডের মাধ্যমে দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও। করোনা মহামারির আগের ঈদগুলোতে গণভবন ফটক ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময়ের জন্য সকাল থেকেই উন্মুক্ত থাকতো। করোনা মহামারির কারণে এই নিয়ে গত চারটি ঈদে প্রধানমন্ত্রী অডিও ও ভিডিও বার্তায় দলের নেতাকর্মী ও জনগণকে শুভেচ্ছা জানান। করোনা পরিস্থিতিতে দলের নেতারাও সরাসরি দলীয় সভাপতিকে শুভেচ্ছা জানানো থেকে বঞ্চিত হয়ে আসছেন। কেন্দ্রীয় নেতারা শেখ হাসিনার মোবাইল ফোন ও হোয়াটস অ্যাপ নাম্বারে ম্যাসেজ পাঠিয়ে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরও  হোয়াটস অ্যাপ ও মোবাইল ফোনে নেতাকর্মীদের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেছেন।

/এমএস/
সম্পর্কিত
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
ক্যাশলেস ই-নামজারি, ৩৯ ঘণ্টায় ৭৭ লাখ টাকা আদায়
ক্যাশলেস ই-নামজারি, ৩৯ ঘণ্টায় ৭৭ লাখ টাকা আদায়
অসাম্প্রদায়িক দেশকে নষ্ট হতে দেবো না: মির্জা ফখরুল
অসাম্প্রদায়িক দেশকে নষ্ট হতে দেবো না: মির্জা ফখরুল
কলেজছাত্রীকে যৌন নির্যাতন, কারাগারে পুলিশ কর্মকর্তা
কলেজছাত্রীকে যৌন নির্যাতন, কারাগারে পুলিশ কর্মকর্তা
রিজার্ভ চুরির মামলায় তদন্ত কর্মকর্তাকে আদালতে তলব
রিজার্ভ চুরির মামলায় তদন্ত কর্মকর্তাকে আদালতে তলব
এ বিভাগের সর্বশেষ
অসাম্প্রদায়িক দেশকে নষ্ট হতে দেবো না: মির্জা ফখরুল
অসাম্প্রদায়িক দেশকে নষ্ট হতে দেবো না: মির্জা ফখরুল
নিরুত্তাপ জেলা পরিষদ ভোট: আ.লীগের প্রতিদ্বন্দ্বী আ.লীগ
নিরুত্তাপ জেলা পরিষদ ভোট: আ.লীগের প্রতিদ্বন্দ্বী আ.লীগ
যুগপৎ আন্দোলন চান বাম নেতারা
যুগপৎ আন্দোলন চান বাম নেতারা
নির্বাচনকালীন সরকার ইস্যুতে বিএনপির সঙ্গে কল্যাণ পার্টির ঐকমত্য
আ.লীগ ছাড়া সব দলের সঙ্গে আলোচনা করার সিদ্ধান্তনির্বাচনকালীন সরকার ইস্যুতে বিএনপির সঙ্গে কল্যাণ পার্টির ঐকমত্য
জেএসডির কেন্দ্রীয় কাউন্সিল ১০ ডিসেম্বর
জেএসডির কেন্দ্রীয় কাউন্সিল ১০ ডিসেম্বর