X
সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪
১০ আষাঢ় ১৪৩১

যুগপৎসঙ্গীদের ‘সান্ত্বনা’ দিচ্ছে বিএনপি

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
০৯ জানুয়ারি ২০২৪, ১৯:০৬আপডেট : ০৯ জানুয়ারি ২০২৪, ১৯:৫২

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জনগণের অংশগ্রহণ না করার মধ্য দিয়ে বিএনপি ও বিরোধী দলগুলোর যুগপৎ আন্দোলনের প্রথম সাফল্য এসেছে বলে মনে করে বিএনপি। দলটির শীর্ষ নেতারা সমমনা দলগুলোর নেতাদের আশ্বস্ত করছেন যে এখন নতুন করে আবার দ্বিতীয় ধাপের আন্দোলন শুরু করা হবে এবং সেই আন্দোলনে চূড়ান্ত বিজয় আসবে।

মঙ্গলবার (৯ জানুয়ারি) বিকালে বিএনপির গুলশানের চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও দলটির সিনিয়র নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন ১২ দলীয় জোটের নেতারা।

বৈঠকে বিএনপির শীর্ষ নেতাদের পক্ষ থেকে নির্বাচনোত্তর এসব সান্ত্বনা দেওয়া হয় বলে বৈঠকে অংশ নেওয়া একাধিক নেতা মন্তব্য করেন।

বাংলা ট্রিবিউনের সঙ্গে আলাপকালে জোটের একাধিক নেতা জানান, বিএনপির শীর্ষ নেতৃত্ব থেকে আগামী দিনে নতুন পর্যায়ের আন্দোলনে যাওয়ার প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়। একই সঙ্গে ভোটে মানুষের সাড়া মেলেনি, এমন পরিস্থিতির কথা জানিয়ে তা ‘রাজনৈতিক বিজয়’ হিসেবে বৈঠকে উল্লেখ করা হয়।

স্কাইপিতে যুক্ত হয়ে নেতাদের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার।

বিএনপির দায়িত্বশীল একাধিক নেতা জানিয়েছেন, মূলত ৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত নির্বাচনের পর নতুন করে কর্মসূচি দেওয়ার চিন্তাভাবনা শুরু হয়েছে বিএনপিতে। দলের পক্ষ থেকে মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরীসহ হাজার হাজার নেতাকর্মীর মুক্তির অপেক্ষা করা হচ্ছে। এ কারণে বিএনপির শীর্ষ নেতৃত্ব ইতোমধ্যে তার পক্ষ থেকে যুগপতে যুক্ত দল ও জোটের সঙ্গে পরবর্তী করণীয় নির্ধারণ করতে আলোচনার প্রক্রিয়া শুরু করেছেন।

গণতন্ত্র মঞ্চের এক নেতা জানান, আগামী কয়েক দিনের মধ্যে গণতন্ত্র মঞ্চের নেতাদের সঙ্গেও তারেক রহমানসহ দলটির সিনিয়র নেতাদের আলোচনা হবে। সেই আলোচনায় গণতন্ত্র মঞ্চের পক্ষ থেকে পুরো আন্দোলন, কর্মসূচি নিয়ে বিএনপির একক সিদ্ধান্ত গ্রহণ, একের পর এক হরতাল ও অবরোধ দেওয়ার বিষয়গুলো উঠে আসবে।

মঞ্চের একটি সূত্র জানিয়েছে, ইতোমধ্যে তারা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তারেক রহমানের সঙ্গে বৈঠকের আগে পুরো পরিস্থিতি ও বিগত আন্দোলনের সিদ্ধান্তগুলো নিয়ে তারা পর্যালোচনা করবেন। বিএনপির সঙ্গে বৈঠকে মঞ্চের অবস্থান স্পষ্ট করা হবে।

মঞ্চের নেতা শেখ রফিকুল ইসলাম বাবলু বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আমরা যুগপতে থাকবো। এতে কোনও বিভ্রান্তি নেই। আমরা চাই সবকিছু আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে হোক। ইতোমধ্যে জনগণ সরকারের বিরুদ্ধে রায় দিয়েছেন। আমরা বিজয়ী হয়েছি। এখন পরবর্তী কার্যক্রম শুরু হবে।’

মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত ১২ দলীয় জোটের বৈঠকে বিএনপির পক্ষ থেকে ‘জোট ও আন্দোলন থেকে সরে না যাওয়ায়’ নেতাদের ধন্যবাদ জানানো হয়। পাশাপাশি আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার কথা বলা হয়।

বৈঠকে বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, বেগম সেলিমা রহমান ছিলেন। স্কাইপিতে কথা বলেন সালাউদ্দিন আহমেদ।

১২ দলীয় জোটের পক্ষে বক্তব্য দেন জাতীয় পার্টির (কাজী জাফর) চেয়ারম্যান ১২ দলীয় জোটের প্রধান মোস্তফা জামাল হায়দার, বাংলাদেশ এলডিপির মহাসচিব ও ১২ দলীয় জোটের মুখপাত্র শাহাদাৎ হোসেন সেলিম, জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টির (জাগপা) সহসভাপতি ও ১২ দলীয় জোটের প্রধান সমন্বয়ক রাশেদ প্রধান, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব মাওলানা ড. গোলাম মহিউদ্দিন ইকরাম।

/এসটিএস/এনএআর/
সম্পর্কিত
সরকার ভারতের সেবাদাস, গণতন্ত্র ধ্বংসের দায় পুলিশেরও: মির্জা ফখরুল
ব্রিটিশ পদ্ধতির কারণে আইনি পথে লুটপাট ও পাচার হয়: হাসনাত কাইয়ূম
চট্টগ্রাম-কক্সবাজার রুটে বিশেষ ট্রেনটি বন্ধ হলে কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি 
সর্বশেষ খবর
সুচিকিৎসা পাচ্ছেন বলেই খালেদা জিয়া এখনও সুস্থ আছেন: আইনমন্ত্রী
সুচিকিৎসা পাচ্ছেন বলেই খালেদা জিয়া এখনও সুস্থ আছেন: আইনমন্ত্রী
১০ মাসে বাংলাদেশ থেকে ভারতীয়রা নিয়ে গেছে ৫১ মিলিয়ন ডলার
সংসদে অর্থমন্ত্রী১০ মাসে বাংলাদেশ থেকে ভারতীয়রা নিয়ে গেছে ৫১ মিলিয়ন ডলার
ঘরোয়া উপায়ে খুশকি সামলাবেন যেভাবে
ঘরোয়া উপায়ে খুশকি সামলাবেন যেভাবে
‘ফ্ল্যাগ গার্ল’ প্রিয়তার নতুন অর্জন
‘ফ্ল্যাগ গার্ল’ প্রিয়তার নতুন অর্জন
সর্বাধিক পঠিত
ওসিকে ধাক্কা দিয়ে চাকরি হারালেন সেই এএসআই
ওসিকে ধাক্কা দিয়ে চাকরি হারালেন সেই এএসআই
আঠাবিহীন কাঁঠাল চাষে চমক, তিন মাসেই ফল, দেবে বারো মাস
আঠাবিহীন কাঁঠাল চাষে চমক, তিন মাসেই ফল, দেবে বারো মাস
‘কক্সবাজারে সেনানিবাস না থাকলে দখল করে নিতো আরাকান আর্মি’
‘কক্সবাজারে সেনানিবাস না থাকলে দখল করে নিতো আরাকান আর্মি’
৭৭ বছর পর ট্রেন যাবে কলকাতায়, রাজশাহীতে উচ্ছ্বাস
৭৭ বছর পর ট্রেন যাবে কলকাতায়, রাজশাহীতে উচ্ছ্বাস
‘জল্লাদ’ শাহজাহান মারা গেছেন
‘জল্লাদ’ শাহজাহান মারা গেছেন