X
বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪
৪ বৈশাখ ১৪৩১

‘সফট’ কর্মসূচিতে থাকবে বিএনপি, নানা হিসাব যুগপৎ-সঙ্গীদের

সালমান তারেক শাকিল
২০ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৯:৩৪আপডেট : ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ২২:৫২

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনোত্তর নতুন নির্বাচনের দাবি করলেও আপাতত জনইস্যুভিত্তিক ছোট পরিসরে ও ‘সফট’ কর্মসূচিতেই থাকছে বিএনপি। পাশাপাশি দলের পুনর্গঠন ও বিরোধী দলগুলোর মধ্যে সমন্বয় রাখার বিষয়ে সম্ভাব্য আলোচনাও করছেন দলটির নীতিনির্ধারকরা।

বিএনপির স্থায়ী কমিটি ও দলটির একাধিক দায়িত্বশীল সূত্র জানিয়েছে, সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) রাতে অনুষ্ঠিত স্থায়ী কমিটির ভার্চুয়াল বৈঠকে চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এই আলোচনায় তিনটি বিষয় উঠে এসেছে বলে দাবি করেছে সূত্রটি।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির নেতারা মনে করছেন, মানুষ নানা কারণে সরকারের বিরুদ্ধে জমাট বেঁধে আছে। দ্বিতীয়ত, নাগরিক সমাজও সরকারের বিপক্ষে এবং তৃতীয়ত, আন্তর্জাতিক গোষ্ঠীও দুই ধারায় বিভক্ত রয়েছে। এসব বিষয় বিবেচনায় নিয়ে বিএনপিকে কর্মসূচি ও তার পরবর্তী রাজনৈতিক কৌশল নিয়ে ভাবতে হচ্ছে।

‘সামনের দিনে বিএনপির হয়ে কে কী বলবে, তা বলা মুশকিল। কারণ বিএনপির পক্ষ থেকে এখনও সুনির্দিষ্ট কোনও কিছু বলা হয়নি’—বলছিলেন বিএনপির সঙ্গে আন্দোলনরত গণতন্ত্র মঞ্চের একজন নেতা।

বাংলা ট্রিবিউনের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন, ‘বিএনপির মূল নেতারা যখন মাঠের বাইরে, তখন অন্য একটি গ্রুপ নেতৃত্ব দিয়েছে। এখন যারা কারাগার থেকে বেরিয়েছেন, যাদের নেতৃত্বে আন্দোলন গড়ে উঠেছিল, তাদের মতামত থাকবে। সে কারণে এখনও কৌশল গুছিয়ে উঠতে পারেনি বিএনপি।’

এরইমধ্যে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস ও আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী মুক্তি পাওয়ায় এ প্রক্রিয়াটি এখন গতি পাবে, বলে জানান এই নেতা।

স্থায়ী কমিটির একজন সদস্য বলেন, ‘মহাসচিব মির্জা ফখরুল, মির্জা আব্বাস, আমির খসরু মাত্র বেরিয়েছেন কারাগার থেকে। তাদের শরীর এখনও ঠিক হয়নি। প্রত্যেকেই চিকিৎসার জন্য আরও কিছু দিন সময় নেবেন। এরপর বিশ্লেষণ করার সুযোগ আসতে পারে।’

রবিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) বাংলা ট্রিবিউনের সঙ্গে আলাপকালে আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী জানান, তিনি কয়েক দিন বিশ্রাম নেবেন। শারীরিক অনেক জটিলতা থাকায় চিকিৎসা গ্রহণ করবেন। চিকিৎসা গ্রহণ ইতোমধ্যে শুরু করেছেন মির্জা ফখরুল। তারও শারীরিক অবস্থা অনেকটাই দুর্বল এবং অনেক সময় দাঁড়িয়ে থাকতে পারছেন না বলে জানায় তার পারিবারিক একটি সূত্র।

মঞ্চের আরেক গুরুত্বপূর্ণ নেতার ভাষ্য, ‘সামনে রমজান, তারপর ঈদ। এরপর গ্রেফতারকৃত নেতাকর্মীদের মুক্তি— পারিবারিকভাবে অনেক নেতা বিপর্যস্ত, তাদের সে পরিস্থিতি থেকে বের করে আনার বাস্তবতা রয়েছে। সেই পরিপ্রেক্ষিতে ছোট-ছোট প্রোগ্রাম দিতে পারে বিএনপি।’

মঞ্চের অন্যতম নেতা সাইফুল হক বলেন, ‘৭ জানুয়ারির নির্বাচনে মানুষ গণঅনাস্থা দেখিয়েছে। যুগপৎ ধারায় কিছু কিছু কর্মসূচি পালিত হয়েছে। বিএনপির সঙ্গে একবার আলোচনা হয়েছে, যা মুলতবি রয়েছে। এক্ষেত্রে বিরোধী দলগুলো যার যার জায়গা থেকে সক্রিয় রয়েছে। তবে রাজনৈতিক কৌশল কী হবে, তা ঠিক করতে বিএনপিকে নৈর্ব্যক্তিক অবস্থান থেকে বিশ্লেষণ করা দরকার। মানুষ বিরোধী দলগুলোকে রাজপথে দেখতে চায়।’

স্থায়ী কমিটির একজন প্রভাবশালী সদস্য মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এ প্রতিবেদককে বলেন, ‘আপাতত সফট প্রোগ্রাম থাকবে। আমাদের দলের সিদ্ধান্ত এমনই। এখনও পরিস্থিতি অনুকূলে আসেনি।’

জানতে চাইলে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সেলিমা রহমান বলেন, ‘নতুন কর্মসূচি শিগগিরই আসবে। সফট কর্মসূচি নাকি অন্য কিছু, সেটা তো সিদ্ধান্ত হলে জানবেন।’

যুগপৎ-সঙ্গীদের নানা সমীকরণ, আলোচনায় ইসলামি ও প্রো-ইসলামি দলগুলোর জোট

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন বর্জনে অন্তত ৬৪টি রাজনৈতিক দল ছিল বিএনপির সঙ্গে। অন্তত ৩৯টি রাজনৈতিক দল বিএনপির সঙ্গে যুগপৎধারায় কর্মসূচি পালন করে আসছে। এসব দল ও জোট হলো—গণতন্ত্র মঞ্চ (৬ দলীয় জোট), ১২ দলীয় জোট, গণফোরাম-পিপলস পার্টি (দ্বিদলীয় জোট), সমমনা জোট (১১ দল), গণতান্ত্রিক বাম ঐক্য (৪ দল)। এককভাবে পালন করেছে বিএনপি, এলডিপি, গণঅধিকার পরিষদ ও বাংলাদেশ লেবার পার্টি।

বিএনপির মিডিয়া সেলের সদস্য শায়রুল কবির খান জানান, ২০২২ সালের ৩০ ডিসেম্বর প্রথম যুগপৎধারায় কর্মসূচি পালিত হয়। সেটি ছিল গণমিছিল। এরপর ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পদত্যাগসহ নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকার পুনঃপ্রতিষ্ঠা’র এক দফা দাবিতে বিএনপির নেতৃত্বাধীন যুগপৎ পদযাত্রা কর্মসূচি হয়েছে ২০২৩ সালের ১৮ জুলাই। বিদায়ী বছরের ২৯ অক্টোবর থেকে ৫ দফা হরতাল, ১৩ দফা অবরোধ ও ১৩ দফা গণসংযোগ কর্মসূচি পালন করা হয়। সর্বশেষ এ বছরের ৩০ জানুয়ারি কালো পতাকা মিছিল হয়।

যুগপতে অংশ নেওয়া দলগুলোর শীর্ষ নেতারা বলছেন, যেকোনও ধরনের কর্মসূচি বা সিদ্ধান্ত হোক, বিএনপির সঙ্গে থেকে তা পালন করবে দলগুলো। যুগপতে যুক্ত গণতন্ত্র মঞ্চ এককভাবে দেশব্যাপী বিভাগীয় প্রতিনিধি সম্মেলনের উদ্যোগ নিয়েছে। পাশাপাশি যুগপতে যুক্ত ও নির্বাচন বর্জন করা কয়েকটি দলের মধ্যে নতুন করে একটি জোট গঠনের প্রক্রিয়া নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে।

মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) বিএনপির সঙ্গে যুক্ত যুগপৎ দল ও সমমনা একাধিক দলের নেতাদের উপস্থিতিতে একটি সভা হয়েছে জাতীয় প্রেস ক্লাবে। অংশীজনরা বলছেন, নতুন জোটের সম্ভাব্য শরিক যারা হচ্ছেন, এই দলগুলো মঙ্গলবারের অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছে।

জাতীয় প্রেসক্লাবে এনডিএম-এর আলোচনা সভা

ববি হাজ্জাজের নেতৃত্বাধীন এনডিএমের ব্যানারে ‘একুশের চেতনায় নতুন বিপ্লব: এবার হবে জনতার সংসদ’ শীর্ষক এই আলোচনা সভায় অংশ নেন গণঅধিকার পরিষদ, ইসলামি আন্দোলন, এবি পার্টি, জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টির (জাগপা) ও জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের নেতারা।

এই দলগুলোর একটি দলের অন্যতম শীর্ষ নেতা বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, ইতোমধ্যে ইসলামি ও প্রো-ইসলামি দলগুলোর সমন্বয়ে একটি জোট গঠনের বিষয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে। এরইমধ্যে দুই থেকে তিনবার আনুষ্ঠানিক ও ঘরোয়া বৈঠক হয়েছে। তবে কবে নাগাদ এই জোট আসতে পারে, তার কোনও লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা যায়নি। উদ্যোগটি এখন ববি হাজ্জাজ সমন্বয় করছেন, এমন দাবিও করেছেন তিনি।

এ প্রসঙ্গে এনডিএম চেয়ারম্যান ববি হাজ্জাজ বলছিলেন, তারা এ ধরনের আলোচনা প্রায়শই করছেন।

বাংলা ট্রিবিউনকে ববি হাজ্জাজ বলেন, ‘সবসময় এ ধরনের আলোচনায় থাকি আমরা, সবসময় সবাই মিলে কিছু করা যায় কিনা। অবশ্যই কিছু চিন্তাধারা সেপারেশন করতে চাচ্ছে। অনেকেই আছি, সবাই একসঙ্গে কাজ করতে চাই। কিছু লোকজন তাদের চিন্তাচেতনার বাইরে গিয়ে কিছু করতে রাজি নন। ফলে কিছু সেপারেশন হচ্ছে। সবাই মিলে জোট করি, এটা নতুন না।’

যদিও ইসলামি আন্দোলনের একজন কেন্দ্রীয় নেতা দাবি করেন, ‘অনেক দল ইসলামি দলের জোটে অংশগ্রহণ করতে রাজি না। জোটে না যাওয়ার চাপ আছে অনেকের ওপর।’

যুগপৎ-সঙ্গীদের মধ্যে পৃথক জোট গঠনের আলোচনা শুরু হলেও গণতন্ত্র মঞ্চ, ১২ দলীয় জোট, সমমনা জোটের নেতারা বলছেন, তাদের জোট রয়েছে। আপাতত নতুন কোনও জোটের উদ্যোগে তারা নেই।

গণতন্ত্র মঞ্চের একজন নেতা জানান, আগামী কিছু দিন পর মঞ্চের তরফে বিভাগীয় পর্যায়ে প্রতিনিধি সভা করা হবে। এরপর ঢাকায় সমাবেশ ডাকবে মঞ্চ। তিনি উল্লেখ করেন, আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি মঞ্চের পরবর্তী বৈঠকে বিস্তারিত আলোচনা হবে।

আরও পড়ুন:

বিএনপি ও বিরোধী দলগুলোর যুগপতে ভাটা

 

/এপিএইচ/এমওএফ/
সম্পর্কিত
বিএনপির দিকে তাকিয়ে নেতারাআন্দোলন পুনর্গঠনে সরকারবিরোধী দল ও জোট
‘লন্ডন-সন্তুষ্টিতে’ ব্যস্ত বিএনপি নেতারা, পরবর্তী কর্মপরিকল্পনা আসছে কবে?
আন্দোলনের মুষল বৃষ্টিতে ভেসে যাবে শাসক গোষ্ঠী: গয়েশ্বর চন্দ্র রায়
সর্বশেষ খবর
চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন: কোন পদে লড়ছেন কে
চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন: কোন পদে লড়ছেন কে
মেট্রোরেল চলাচলে আসতে পারে নতুন সূচি
মেট্রোরেল চলাচলে আসতে পারে নতুন সূচি
দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকে ধাক্কা লেগে মোটরসাইকেল আরোহী মামা-ভাগনে নিহত
দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকে ধাক্কা লেগে মোটরসাইকেল আরোহী মামা-ভাগনে নিহত
বৈশাখী মেলা বসানো নিয়ে দুই ‘কিশোর গ্যাংয়ের’ সংঘর্ষে যুবক নিহত
বৈশাখী মেলা বসানো নিয়ে দুই ‘কিশোর গ্যাংয়ের’ সংঘর্ষে যুবক নিহত
সর্বাধিক পঠিত
‘ভুয়া ৮ হাজার জনকে মুক্তিযোদ্ধার তালিকা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে’
‘ভুয়া ৮ হাজার জনকে মুক্তিযোদ্ধার তালিকা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে’
হজ নিয়ে শঙ্কা, ধর্ম মন্ত্রণালয়কে ‍দুষছে হাব
হজ নিয়ে শঙ্কা, ধর্ম মন্ত্রণালয়কে ‍দুষছে হাব
এবার নায়িকার দেশে ‘রাজকুমার’ 
এবার নায়িকার দেশে ‘রাজকুমার’ 
এএসপি বললেন ‌‘মদ নয়, রাতের খাবার খেতে গিয়েছিলাম’
রেস্তোরাঁয় ‘মদ না পেয়ে’ হামলার অভিযোগএএসপি বললেন ‌‘মদ নয়, রাতের খাবার খেতে গিয়েছিলাম’
আজকের আবহাওয়া: দুই বিভাগে ঝড়ো হাওয়াসহ শিলা বৃষ্টির আভাস
আজকের আবহাওয়া: দুই বিভাগে ঝড়ো হাওয়াসহ শিলা বৃষ্টির আভাস