ল্যাবুশ্যাগনের টানা তৃতীয় সেঞ্চুরিতে দুর্দান্ত অস্ট্রেলিয়া

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৯:০৪, ডিসেম্বর ১২, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:০৪, ডিসেম্বর ১২, ২০১৯

মার্নাস ল্যাবুশ্যাগনের সেঞ্চুরি উদযাপনব্যাটে রীতিমত বসন্ত চলছে মার্নাস ল্যাবুশ্যাগনের। টানা তৃতীয় সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন তিনি। ফর্মের তুঙ্গে থাকা এই ব্যাটসম্যানের সেঞ্চুরির পর ঘুরে দাঁড়িয়েছে নিউজিল্যান্ড। এরপরও পার্থের দিবা-রাত্রির টেস্টের প্রথম দিন শেষে সুবিধাজনক জায়গায় অস্ট্রেলিয়া। ল্যাবুশ্যাগনের হার না মানা ১১০ রানে দিন শেষ করেছে স্বাগতিকরা ৪ উইকেটে ২৪৮ রানে।

থামছেন না ল্যাবুশ্যাগনে। স্টিভেন স্মিথের মাথায় বলের আঘাতে ‘কনকাশন-সাব’ হিসেবে মাঠে নেমেছিলেন তিনি। হঠাৎ পাওয়া সুযোগটা কাজে লাগিয়ে রান উৎসব করে যাচ্ছেন এই ব্যাটসম্যান। পার্থের টেস্ট দিয়ে টানা তৃতীয় ইনিংসে পেলেন সেঞ্চুরির দেখা। পাকিস্তানের বিপক্ষে দুই টেস্টে তিন অঙ্কের ঘর ছোঁয়া ল্যাবুশ্যাগনে কিউইদের বিপক্ষেও প্রথম টেস্টে উদযাপন করলেন শতক।

পাকিস্তানের বিপক্ষে দুই টেস্টই ইনিংস ব্যবধানে জিতেছে অস্ট্রেলিয়া। স্বাভাবিকভাবেই দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে পারেননি ল্যাবুশ্যাগনে। ব্রিসবেনে ১৮৫ রানের ইনিংসের পর অ্যাডিলেডের দিবা-রাত্রির টেস্টে খেলেন ১৬২ রানের ঝলমলে ইনিংস। এবার টানা তৃতীয় সেঞ্চুরি পেলেন পার্থের ম্যাচ দিয়ে।

টস জিতে ব্যাটিংয়ে নামা অস্ট্রেলিয়া উদ্বোধনী জুটিতে পায় ৪০ রান। সুবিধা করতে পারেননি জো বার্নস, ৯ রান করে ফেরেন প্যাভিলিয়নে। আগের টেস্টে ক্যারিয়ারসেরা হার না মানা ৩৩৫ রানের ইনিংস খেলা ডেভিড ওয়ার্নারের ব্যাটে আরেকটি দারুণ ইনিংসের ইঙ্গিত ছিল। যদিও ৪৩ রানে থামেন এই ওপেনার।

এরপর শুরু স্মিথ ও ল্যাবুশ্যাগনের ‍প্রতিরোধ। দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে তারা বাড়িয়ে নেন দলীয় রান। তৃতীয় উইকটে দুজন গড়েন ১৩২ রানের বড় জুটি। রানে ফেরার ইঙ্গিত দেওয়া স্মিথ হাঁটছিলেন হাফসেঞ্চুরির পথে। কিন্তু ৪৩ রান করে নাইল ওয়াগনারের শিকার হয়ে ফিরতে হয় তাকে। ১৬৪ বলের ইনিংসটি সাবেক অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক সাজান ৪ বাউন্ডারিতে। এরপর ম্যাথু ওয়েড ১২ রানে আউট হলে স্বাগতকিরা হারায় চতুর্থ উইকেট।

তবে একপ্রান্ত আগলে রেখে টেস্ট ক্যারিয়ারের তৃতীয় সেঞ্চুরি তুলে নেন ল্যাবুশ্যাগনে। দিন শেষে তিনি অপরাজিত ১১০ রানে। ২০২ বলের ইনিংসটি ডানহাতি ব্যাটসম্যান সাজান ১৪ বাউন্ডারি ও ১ ছক্কায়। তার সঙ্গে দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু করবেন ২০ রানে ‍অপরাজিত থাকা ট্রেভিস হেড।

প্রথম দিনে নিউজিল্যান্ডের সবচেয়ে সফল বোলার ওয়াগনার। এই পেসার ৫২ রান খরচায় পেয়েছেন ২ উইকেট। আর একটি করে উইকেট নিয়েছেন টিম সাউদি ও কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম। ক্রিকইনফো

/কেআর/

লাইভ

টপ