জায়গাটা আর হারাতে চান না মতিন

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২০:৫৩, জানুয়ারি ১৯, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:২৫, জানুয়ারি ১৯, ২০২০

বাংলাদেশের জয়ের নায়ক মতিন মিয়া গোলের জন্য হা-পিত্যেশ করছিল বাংলাদেশ। অবশেষে তা এলো শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে। একটি নয়, তিন তিনটি। তাতেই উড়ে গেছে লঙ্কানরা। তিন গোলের দুটিই করেছেন মতিন মিয়া।

গতবার বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপে জাতীয় দলে জায়গা পেয়েছিলেন এই ফরোয়ার্ড। কিন্তু একাদশে খেলার সুযোগ কমই এসেছে। এবারের টুর্নামেন্টের শুরু থেকে খেলছেন। ফিলিস্তিনের বিপক্ষে তেমন ভালো খেলতে পারেননি। কিন্তু লঙ্কানদের বিপক্ষে জ্বলে উঠেছেন। মতিনের নৈপুণ্য দেখলো বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামের হাজার দশেক দর্শক। দেশের জন্য কিছু করতে পেরে মতিন আনন্দিত।

মতিনের দুটি গো্লই দৃষ্টিনন্দন। প্রথমার্ধে মানিক হোসেন মোল্লার থ্রু থেকে লক্ষ্যভেদ করেছেন। পরেরটি তো বিশ্বমানের! মাঝমাঠ থেকে বল নিয়ে একক প্রচেষ্টায় আগুয়ান গোলকিপারকে ডজ দিয়ে বল জালে জড়িয়েছেন।

এমন গোল অবশ্য মতিন আগেও করেছেন। তবে সেটি ঘরোয়া ফুটবলে। বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে দুই মৌসুম আগে সাইফ স্পোর্টিংয়ের হয়ে মুক্তিযোদ্ধার বিপক্ষে মাঝমাঠ থেকে বল ধরে কয়েকজনকে কাটিয়ে অসাধারণ গোল করেছিলেন। এবার আন্তর্জাতিক ফুটবলে নিজের দ্বিতীয় গোলটিকেই রাঙিয়ে রাখলেন উজ্জ্বল রংয়ে।

তার জোড়া গোলে বাংলাদেশের সেমিফাইনালে জায়গা করে নিলো। ম্যাচ শেষে মতিন বলেছেন, ‘কঠিন ম্যাচ ছিল। জিতলে আমরা নকআউট পর্বে যাবো। তাই সুযোগ পেয়ে নষ্ট করিনি। জাতীয় দলের হয়ে এই প্রথম গোল পেয়েছি। দেশের হয়ে খেলছি, দেশের জন্য কিছু করতে পেরেছি বলেই বেশি ভালো লাগছে।’

ফুটবল গোলের খেলা। সুযোগ পেলেই তা কাজে লাগাতে হবে। মতিন প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হয়েই সুযোগ কাজে লাগিয়েছেন, ‘ম্যাচের আগে পন ছিল, গোল করতেই হবে। সেই অনুযায়ী খেলেছি। সবার চেষ্টায় গোল হয়েছে, ম্যাচ জিতেছি।’

মূল স্ট্রাইকার নাবীব নেওয়াজ জীবন না থাকায় মতিন বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপে খেলছেন শুরু থেকে। আজ মাহবুবুর রহমান সুফিলের সঙ্গে জুটি বেঁধে খেলেছেন আক্রমণভাগে। মতিন চাইছেন জাতীয় দলের একাদশে নিজের জায়গাটা স্থায়ী করে নিতে, ‘জাতীয় দলে নিজের জায়গাটা পাকা করে নেওয়ার ইচ্ছা। বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে লাওসের বিপক্ষে অ্যাওয়ে ম্যাচে একাদশে খেলেছি। অনেক দিন পর বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপে খেলছি। নিজের পারফরম্যান্স দিয়েই ভবিষ্যতে একাদশে খেলতে চাই।’

/টিএ/পিকে/

লাইভ

টপ