তবু বার্সাতেই থেকে যেতে চান মেসি

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ২১:৩১, ফেব্রুয়ারি ২০, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:৩১, ফেব্রুয়ারি ২০, ২০২০

বার্সাতেই থেকে যেতে চান মেসি।মেসির চলমান চুক্তিতে একটি ধারা আছে। যেখানে স্পষ্ট উল্লেখ আছে ২০১৯-২০ মৌসুম শেষে চাইলে বার্সেলোনা ছেড়ে যেতে পারবেন, কাতালান ক্লাবটির কিছু করার থাকবে না। চুক্তির এই শর্তের কথা স্বীকারও করেছেন বার্সা সভাপতি জোসেপ মারিয়া বার্তোমেউ। যদি সত্যি চলে যান, তাহলে কোথায় যাবেন আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড? গুঞ্জন আছে মেসির সম্ভাব্য ঠিকানা হতে পারে ম্যানচেস্টার সিটি।

কিন্তু উয়েফার ফিন্যান্সিয়াল ফেয়ার প্লে নীতি ভঙ্গ করায় দুই বছর চ্যাম্পিয়নস লিগে নিষিদ্ধ হয়েছে ম্যান সিটি। সামনের ও পরের মৌসুমে যাদের ইউরোপে খেলা হচ্ছে না, সেই ক্লাবে মেসির যাওয়ার প্রশ্নই ওঠে না। সেই হিসাবে ছয়বারের ব্যালন ডি’অর জয়ীর ন্যু ক্যাম্প ছাড়ার সম্ভাবনা কম। কিন্তু যে ক্লাবের আলো-বাতাসে বেড়ে উঠেছেন, সেই ক্লাবের সভাপতির নামে যখন ‍তার বিরুদ্ধ কুৎসা ছড়ানোর অভিযোগ উঠেছে, তখন? কঠিন এই পরিস্থিতির মধ্যেও কাতালান ক্রীড়া দৈনিক মুন্দো দেপোর্তিভোয় দেওয়া সাক্ষাৎকারে মেসি বলছেন, ‘আমি বার্সেলোনাতেই থাকবো।’

পেপ গার্দিওলার অধীনে মেসি ক্যারিয়ারের সেরা সময় কাটিয়েছেন। গার্দিওলা এখন ম্যান সিটির দায়িত্বে। যে কারণে আর্জেন্টাইন অধিনায়কের ভবিষ্যতের সঙ্গে ইংলিশ ক্লাবটির নাম জুড়ে দেওয়া হচ্ছিল। কিন্তু তাদের চ্যাম্পিয়নস লিগের নিষেধাজ্ঞা সেই সম্ভাবনায় জল ঢেলে দিয়েছে। তবে সিটির জন্য মেসির আছে সমবেদনা, ‘ম্যানচেস্টার সিটির শাস্তি আমাকে অবাক করেছে। কারণ কেউই এত কঠিন শাস্তির কথা চিন্তা করেনি। এটা খুবই কঠোর। খুব অদ্ভুত লাগবে যদি তারা শেষ পর্যন্ত ইউরো খেলতে না পারে।’

বার্সেলোনায় ঝামেলা লেগেই আছে। মাঠের ভেতরের চেয়ে বাইরের সমস্যাই বেশি। নতুন করে উঠেছে বোর্ড প্রধানের বিরুদ্ধে অভিযোগ। বার্তোমেউ নাকি তার সঙ্গে বনিবনা না হওয়া বর্তমান ও সাবেক খেলোয়াড়দের নামে অপবাদ ছড়ানোর জন্য এক জনসংযোগ প্রতিষ্ঠানকে ভাড়া করেছিলেন। মেসির নামও নাকি ছিল বার্তোমেউয়ের কালো তালিকায়। তবে এত কিছুর পরও মেসি বার্সাতেই থেকে যেতে চান, ‘আমার ইচ্ছা যতদিন ক্লাব ও ভক্তরা চায়, ততদিন বার্সেলোনায় থাকার। আমার দিক থেকে কোনও সমস্যা নেই। বার্সার সঙ্গে আরেকটি চ্যাম্পিয়নস লিগ জিততে চাই, একই সঙ্গে লা লিগায় জয়ের ধারাটা বয়ে নিয়ে যেতে চাই। আমি এই ক্লাবেই থাকব।’

বার্সাকে ছেড়ে যাওয়ার চিন্তা নাকি তার কখনও ছিল না, ‘বার্সালোনা ছাড়ার চিন্তা আমার কখনও ছিল না। এখনও নেই। সময়ের কথা তো বলা যায় না, তবে আমি এখানে ভালো আছি।’ গত মৌসুমে লিভারপুলের কাছে হেরে চ্যাম্পিয়নস লিগ থেকে বিদায় নিতে হয়েছিল কাতালানদের। প্রথম লেগে বড় জয়ের পরও ছিটকে যায় তারা। এবার আর সেই ভুল করতে রাজি নন মেসি, ‘চ্যাম্পিয়নস লিগ আরও কঠিন হয়ে উঠেছে। এখানে ধারাবাহিকতা খুব দরকার, একই সঙ্গে লিভারপুল ও রোমার বিপক্ষে করা ভুলগুলো আর করা চলবে না।’

মেসির সঙ্গে নেইমারের সম্পর্ক ছিল দারুণ। একসঙ্গে কাটিয়েছেন স্মৃতির পাতায় সাজিয়ে রাখার মতো চারটি মৌসুম। পিএসজিতে চলে যাওয়া ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ডের সঙ্গে আবার খেলতে চান বার্সেলোনা অধিনায়ক, ‘নেইমার বিশ্বের অন্যতম সেরা খেলোয়াড়। ও ফিরলে খুশি হবো। স্বাভাবিকভাবেই নেইমারের চলে যাওয়া মানুষজনের কাছে ভালো লাগেনি। ও নিজেও বুঝতে পেরেছে। ন্যু ক্যাম্প ছেড়ে যাওয়ার কষ্ট সবসময়ই তাড়ায় ওকে।’

 

/কেআর/পিকে/

লাইভ

টপ