রুনির অভিযোগ, ফুটবলারদের ‘গিনিপিগ’ বানানো হয়েছে

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ২১:৪০, মার্চ ১৫, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:০৯, মার্চ ১৫, ২০২০

ওয়েইন রুনিকভিড-১৯ মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়ার পরও ম্যাচ স্থগিত করতে ফুটবল প্রশাসন কেন এত দেরি করলো, প্রশ্ন ডার্বি কাউন্টি অ্যাটাকার ওয়েইন রুনি। তার মতে, ইংল্যান্ডের ফুটবলারদের সঙ্গে গিনিপিগের মতো আচরণ করেছে কর্তৃপক্ষ।
ইতালি, স্পেন ও ফ্রান্সে করোনা-আতঙ্কে সিরি ‘আ’, লা লিগা ও লিগ ওয়ান বন্ধ হয় আগেই। অন্যদিকে ইংল্যান্ডে দুজনের করোনা পরীক্ষা পজিটিভ হলেও প্রিমিয়ার লিগ ও লিগ কাপ হয়েছে নির্ধারিত সূচিতে। আর্সেনাল কোচ মাইকেল আর্তেতা ও চেলসি উইঙ্গার ক্যালাম হাডসন-ওডোয় করোনা-আক্রান্ত হলে শুক্রবার জরুরি সভায় বসে ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন। সেখানেই সিদ্ধান্ত হয় ৪ এপ্রিল ও ৩ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ থাকবে প্রিমিয়ার লিগ ও লিগ কাপের খেলা।

এরই মধ্যে ইংল্যান্ডে ১ হাজার ১৪০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং মৃত্যু হয়েছে ২১ জনের। ডার্বি কাউন্টি অধিনায়ক রুনি মনে করেন, খেলোয়াড়দের নিরাপত্তা নিশ্চিতে সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করতে ব্যর্থ ফুটবল কর্তৃপক্ষ। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সাবেক তারকা বলেছেন, ‘জরুরি সভা শেষে শেষ পর্যন্ত সঠিক সিদ্ধান্ত নেওয়া হলো। ততক্ষণ পর্যন্ত মনে হচ্ছিল ইংল্যান্ডের সব খেলোয়াড়কে গিনিপিগ হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে। যেখানে ক্রীড়াঙ্গনের বাকি খেলা- টেনিস, ফর্মূলা ওয়ান, রাগবি, গলফসহ অন্য দেশের ফুটবল বন্ধ হচ্ছে সেখানে আমরা খেলা চালিয়ে যাচ্ছিলাম।’

দ্য টাইমস’র কলামে রুনি আরও লিখেছেন, ‘কেউ কেউ হয়তো খুশি নয়। কিন্ত আমি মনে করি ফুটবলের আগে জীবন বড়। এটা তো শুধুই খেলা। মৌসুমের সময় যদি বাড়ানো হয়, তবে আমরা খুশিমনে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত খেলতে চাই।’

/এফএইচএম/

লাইভ

টপ