মৃত্যু গুজব নিয়ে ইয়াসির: বাড়িতে আছি, নিরাপদে আছি

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৯:২৬, মে ২৩, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:৩৩, মে ২৩, ২০২০

পাকিস্তানি লেগ স্পিনার ইয়াসির শাহকরোনাভাইরাসের থাবার মধ্যে পাকিস্তানে আরেকটি বড় ধাক্কা লেগেছে করাচির বিমান দুর্ঘটনা। ক্রিকেট বিশ্বেও ধাক্কাটা কম জোরে লাগেনি। গুজব ওঠে, এই দুর্ঘটনায় পাকিস্তানি লেগ স্পিনার ইয়াসির শাহ মারা গেছেন! এমনকি তার ‘মৃতদেহের’ একটি ছবিও ভাইরাল হয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। যদিও খবরটি যে পুরোপুরি ভুয়া, সেটি ইয়াসির নিশ্চিত করেছেন নিজেই।

শুক্রবার পাকিস্তান ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইন্সের (পিআইএ) একটি বিমান অবতরণের ঠিক আগমুহূর্তে বিধ্বস্ত হয় করাচিতে। মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় বিমানের বেশিরভাগ যাত্রী মারা গেছেন বলে জানিয়েছে পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যমগেুলো। তাদের খবর, আবাসিক এলাকায় বিমান বিধ্বস্ত হওয়ায় যাত্রীর সঙ্গে সাধারণ মানুষ মিলিয়ে মৃত্যুর সংখ্যা ৯৭।

লাহোর থেকে ছেড়ে আসা বিমানটি বেশ কয়েকবার করাচির জিন্নাহ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দনে অবতরণের চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়। বিধ্বস্ত বিমানে ইয়াসিরও ছিলেন বলে গুজব ছড়ায়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে একটি পোস্ট, ‘পাকিস্তানি টেস্ট ক্রিকেটার ইয়াসির শাহ করাচির বিমান দুর্ঘটনায় মারা গেছেন। বিসিসি নিউজের খবর অনুযায়ী, এই দুর্ঘটনার সময় ইয়াসির বিমানেই ছিলেন। সর্বশক্তিমান আল্লাহ তাকে জান্নাতের সর্বোচ্চ জায়গা দান করুন।’

যেহেতু অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট, তাই গুজব একেবারে উড়িয়ে দেওয়া কঠিন ছিল। তার ওপর আবার তার ‘মৃতদেহের’ একটি ছবি ভাইরাল হলে গুঞ্জনে আরও ডালপালা গজায়। অবশেষে সে সব ছেঁটে দিয়েছেন ইয়াসির নিজেই। নিজের টুইটারে ৩৪ বছর বয়সী এই লেগ স্পিনার নিশ্চিত করেছেন তিনি ওই ফ্লাইটে ছিলেন না, ‘সর্বশক্তিমান আল্লাহর প্রতি কৃতজ্ঞতা, আমি বাড়িতে আছি, নিরাপদে আছি। বিমান দুর্ঘটনায় যারা মারা গেছেন, আমরা তাদের জন্য প্রার্থনা করি। আল্লাহ তাদের জান্নাতুল ফিরদৌস দান করুন।’

এর আগেই অবশ্য নিশ্চিত হওয়া গিয়েছিল বিধ্বস্ত বিমানে ছিলেন না ইয়াসির। পাকিস্তানের দুই সংবাদমাধ্যম ‘জিও’ এবং ‘দ্য ডন’ লাহোর থেকে ছেড়ে আসা বিমানের যাত্রী তালিকা প্রকাশ করেছিল, সেখানে ইয়াসিরের নাম ছিল না। পাকিস্তানি লেগ স্পিনার গত ফেব্রুয়ারিতে সবশেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন বাংলাদেশের বিপক্ষে।

/কেআর/

লাইভ

টপ