এবার কি একটু ফেঁসেই গেলেন শোয়েব!

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ২৩:৩৪, জুন ০৪, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২৩:৪৬, জুন ০৪, ২০২০

শোয়েব আখতারসামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আক্রমণাত্মক কথাবার্তা বলে অতীতে অনেককেই চটিয়েছেন শোয়েব আখতার। সমালোচিতও হয়েছেন অনেক।  এবার মনে হচ্ছে একটু ঝামেলাতেই পড়ে গেলেন পাকিস্তানের সাবেক ফাস্ট বোলার। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) আইনি পরামর্শক তফাজ্জল রিজভী শোয়েবের বিরুদ্ধে সাইবার উত্যক্তকরণের অভিযোগ দায়ের করেছেন পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় অপরাধ তদন্ত সংস্থার (ফেডারেল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সি) সাইবারক্রাইম বিভাগের কাছে। এফআইএ শুক্রবার আত্মপক্ষ সমর্থনে তলব করেছে শোয়েবকে।

তবে শোয়েব স্থানীয় এক টিভি চ্যানেলকে জানিয়েছেন তিনি এখনও পর্যন্ত এফআইএর কোনও নোটিশ পাননি। আবার এফআইএর এক কর্মকর্তাকে সংবাদ সংস্থা পিটিআই উদ্ধৃত করেছে, ‘আমরা শোয়েব আখতারের বিরুদ্ধে আনা তফাজ্জল রিজভীর অভিযোগ খতিয়ে দেখছি, যাতে ইউটিউব চ্যানেলে শোয়েবের বিরুদ্ধে সাইবার-উত্যক্তকরণের অভিযোগ এনেছেন রিজভী।’

গত মাসে রিজভী শোয়েবের বিরুদ্ধে ১০ কোটি রুপি ক্ষতিপূরণ চেয়ে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছেন, যাতে তিনি বলেছেন শোয়েব তার ইউটিউব চ্যানেলে  ‘অশ্লীল ও অপমানজনক’ ভাষা ব্যবহার করে তাকে আক্রমণ করে তার সুনাম হানি করেছেন।

ক্রিকেটার উমর আকমলকে দেওয়া তিন বছরের নিষেধাজ্ঞা নিয়ে মন্তব্য করতে গিয়ে শোয়েব রিজভীকে বলেন ‘ একজন অযোগ্য লোক’ যিনি আকমলের ব্যাপারে কঠোর হয়েছেন মূল চুক্তিটা না বুঝেই।

‘পিসিবির আইন বিভাগের গোড়া থেকে পচন ধরেছে। বিশেষ করে তফাজ্জল রিজভী নিজেই সেরকম একজন ব্যক্তি। তার সম্পর্কের শিকড়টা অনেক গভীরে, তাই বোর্ডের সঙ্গে কাজ করছেন ১০-১৫ বছর ধরে’- রিজভী সম্পর্কে বলেন শোয়েব।

ক্রিকেট তারকাদের অবশ্যই সম্মান করতে হবে, এই দাবি জানিয়ে রিজভীর বিরুদ্ধে শোয়েব আরও বলেন, ‘এমন কোনও মামলা নেই যাতে তিনি (রিজভী) হারেননি। আমার বিশ্বাস তারকার জন্ম হয়, সুতরাং তাদের অবশ্যই সম্মান করতে হবে। এই আইনজীবীরা আমাদের মতো বড় নামগুলোকে জড়ানো মামলা থেকে নিজেরা নাম কামাতে চান।’ 

শোয়েব রিজভীর বিরুদ্ধে আরও তীব্র ভাষায় আক্রমণ করে বলেন, ‘রিজভী… আমার বিরুদ্ধে মামলায় হেরেছেন, আফ্রিদির বিরুদ্ধে হেরেছেন, হেরেছেন ডোপিং মামলা… সব। তিনি যা করেন তা হলো পিসিবিকে তার খেলোয়াড়দের বিরুদ্ধে লেলিয়ে দেন এবং সুবিধা নেন তাদের আইনি বিবাদ থেকে।’

/পিকে/

লাইভ

টপ