মেসি-ডেম্বেলের গোলে জুভেন্টাসের মাঠে বার্সার প্রথম জয়

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ১১:১৬, অক্টোবর ২৯, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১১:২১, অক্টোবর ২৯, ২০২০

করোনাভাইরাস পজিটিভ ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো খেলতে পারেননি। তবে ছিলেন লিওনেল মেসি। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীর সঙ্গে লড়াই না হলেও আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডকে পাওয়া গেল চেনা রূপে। তাই কপাল পুড়লো জুভেন্টাসের। মেসির পেনাল্টি গোলের আগে উসমান ডেম্বেলে বল জালে জড়ালে প্রথমবার জুভেন্টাসের মাঠে জয় উৎসব করেছে বার্সেলোনা। ভিএআরে আলভারো মোরাতার তিনটি গোল বাতিল হওয়া ও শেষ দিকে লাল কার্ড দেখে ১০ জনের দলে পরিণত হওয়া ইতালিয়ান চ্যাম্পিয়নদের ২-০ গোলে হারিয়েছে কাতালানরা।

মঙ্গলবার বার্সেলোনার সভাপতি পদ থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন জোসেপ মারিয়া বার্তোমেউ। অনেকদিন ধরে চলে আসা খেলোয়াড় ও সমর্থকদের দাবি পূরণ হওয়ার পর প্রথম ম্যাচেই পাওয়া গেল দুর্দান্ত বার্সেলোনাকে। এবারের চ্যাম্পিয়নস লিগের সবচেয়ে জমজমাট ম্যাচটিতে দাপুট পারফরম্যান্সে রোনাল্ড কোম্যানের দল জানিয়ে রাখলো, ইউরোপ জয়ে তারা প্রস্তুত।

এর আগে চ্যাম্পিয়নস লিগে কখনোই জুভেন্টাসের মাঠ থেকে জিতে ফেরার রেকর্ড ছিল না বার্সেলোনার। মেসি-ডেম্বেলের গোলে সেই রেকর্ড পাল্টে গেল। ১৪তম মিনিটে ফরাসি ফরোয়ার্ডের পর দ্বিতীয়ার্ধের যোগ করা সময়ের প্রথম মিনিটে স্পট কিক থেকে মেসি বল জালে জড়িয়ে নিশ্চিত করেন কাতালানদের জয়।

জুভেন্টাসের আলিয়েঞ্জ স্টেডিয়ামের দ্বিতীয় মিনিটেই এগিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছিল বার্সেলোনার। কিন্তু আতোঁয়া গ্রিজমানের জোরালো শট পোস্ট কাঁপিয়ে দিলে হতাশ হতে হয়। যদিও গোলের জন্য বেশিক্ষণ অপেক্ষা করতে হয়নি শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলা কাতালানদের। বাঁ প্রান্ত থেকে মেসির আড়াআড়ি লম্বা মাপা পাস খুঁজে নেয় ডেম্বেলেকে। ফরাসি ফরোয়ার্ড কয়েক ধাপ এগিয়ে গোল মুখে শট নিলে জুভেন্টাসের এক খেলোয়াড়ের পায়ে লেগে দিক পাল্টে জড়িয়ে যায় জালে।

খানিক পরই কিন্তু সমতা ফেরানোর আনন্দে মেতেছিল জুভেন্টাস। কিন্তু ভিএআরে সেই উৎসব মাটি হয়ে যায়। অফসাইডে থাকায় ম্যাচে প্রথমবার গোল বাতিলের হতাশায় ডোবেন মোরাতা। আতলেতিকো মাদ্রিদ থেকে ধারে জুভেন্টাসে খেলতে যাওয়া এই স্ট্রাইকার আরও দুইবার একই কারণে বল জালে জড়িয়েও স্কোরশিটে নাম তুলতে পারেননি।

অন্যদিকে দ্বিতীয় গোলের লক্ষ্যে বেশ কয়েকটি ভালো সুযোগ তৈরি করেছে বার্সেলোনা। বিশেষ করে, মেসি নিজে কিছু সুযোগ নষ্ট করার পাশাপাশি তার দারুণ কিছু পাস সতীর্থরা কাজে লাগাতে না পারায় ব্যবধান বাড়ছিল না। এরই মধ্যে দ্বিতীয় হলুদের সঙ্গে লাল কার্ড দেখে মেরিহ দেমিরাল মাঠ ছাড়লে আরও বিপদে পড়ে জুভেন্টাসে। একে একজন কম নিয়ে খেলছিল, তার ওপর আবার নির্ধারিত সময় শেষ হওয়ার আগমুহূর্তে আনসু ফাতিকে নিজেদের সীমানায় ফাউল করে বসেন ফেদেরিকো বেরনারদেস্কি। সঙ্গে সঙ্গে রেফারি বাজান পেনাল্টির বাঁশি। স্পট কিক থেকে লক্ষ্যভেদ করতে কোনও অসুবিধাই হয়নি মেসির।

এতে জুভেন্টাসের মাঠ থেকে প্রথম জয়ের কীর্তি গড়ে কোম্যানের দল। মাত্র দ্বিতীয় স্প্যানিশ ক্লাব হিসেবে তুরিনের মাঠ জয় করলো তারা। এর আগে জিতে ফিরেছিল রিয়াল মাদ্রিদ (৩-০, এপ্রিল ২০১৮) ও দেপোর্তিভো লা করুনা (১-০, মার্চ ২০০৪)।  

/কেআর/

লাইভ

টপ