ব্যবহারকারীদের লোকেশন ডেটা শেয়ার করছে আইফোন

Send
শরীফ এ চৌধুরী
প্রকাশিত : ২১:৩০, ডিসেম্বর ০৮, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:৩২, ডিসেম্বর ০৮, ২০১৯

আইফোনডেটা ব্যবহারকারীদের অজান্তেই অ্যাপলের আইফোন ১১ থেকে লোকেশন শেয়ার করা হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। বিশেষ করে ডেটা ব্যবহারের সুবিধা বন্ধ করে রাখার পরও এমন ঘটছে। অবশেষে এ বিষয়ে ব্যাখ্যা দিয়েছে অ্যাপল। প্রযুক্তি পণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে, আইফোন ১১ থেকে ব্যবহারকারীর লোকেশন ডেটা শেয়ার করলেও এ ধরনের তথ্য সংরক্ষণে রাখা হচ্ছে না।

অ্যাপলে নিজের ব্যক্তিগত লোকেশন ডেটা শেয়ারের অভিযোগ করেন নিরাপত্তা বিষয়ক সাংবাদিক ব্রিয়ান ক্রেবস। লোকেশন ডেটা শেয়ার বন্ধ রাখার অপশন সক্রিয় থাকার পরও এমন ঘটার অভিযোগ তুলেছেন এই সাংবাদিক। অ্যাপল কর্তৃপক্ষের অজান্তেই কোনও ধরনের কারিগরি ত্রুটির কারণে বিষয়টি ঘটছে কিনা তা খতিয়ে দেখার অনুরোধ জানান তিনি। এ বিষয়ে একটি ভিডিও তৈরি করেন ব্রিয়ান ক্রেবস। এতে দেখানো হয় বিভিন্ন অ্যাপে লোকেশন ডেটা বন্ধ করে রাখার পরও কীভাবে লোকেশনের অ্যারে চিহ্নটি সক্রিয় থাকে।

অভিযোগ পাওয়ার পর অ্যাপলের একজন প্রকৌশলী ব্রিয়ান ক্রেবসকে জানিয়েছেন, এ ধরনের কোনও নিরাপত্তা সংক্রান্ত ত্রুটি আইফোন ১১’তে নেই। এর কয়েকদিন পরেই আনুষ্ঠানিকভাবে অ্যাপল বিষয়টি নিয়ে বিস্তারিত ব্যাখ্যা দিলো।
অ্যাপলের তথ্যানুযায়ী, নতুন আইফোনগুলো আল্ট্রা ওয়াইডব্যান্ড প্রযুক্তি ব্যবহারের ফলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে লোকেশন ডেটা শেয়ার করছে। আইফেন ১১ প্রো ও ম্যাক্স-এ এমন হচ্ছে। তবে এ ধরনের কোনও ডেটা অ্যাপল সংরক্ষণ করে না। বন্ধ থাকার পরও লোকেশন ডেটা খোঁজার এই ব্যবস্থার কারণ সম্পর্কে বলা হয়– লোকেশনের অ্যারো চিহ্নটি সবসময় অন থাকে, কারণ ওয়াইডব্যান্ড প্রযুক্তিতে আইফোন সবসময় অন্য একটি আইফোন খুঁজতে থাকে যা একই প্রযুক্তিতে চলছে। বিশ্বের সব দেশে এখনও সুবিধাটি সক্রিয় নয় বলেও জানানো হয়।
আইফোনের পরবর্তী অপারেটিং সিস্টেম আইওএস আপডেটে বিষয়টি নিয়ে কাজ করা হবে বলেও অ্যাপলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

তথ্যসূত্র: ডিজিটাল ট্রেন্ড, দ্য ভার্জ

/এইচএএইচ/জেএইচ/

লাইভ

টপ