জাকারবার্গের নতুন বছরের চ্যালেঞ্জ কী?

Send
আসির আহবাব নির্ঝর
প্রকাশিত : ২০:২৩, জানুয়ারি ১২, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:২৩, জানুয়ারি ১২, ২০২০

মার্ক জাকারবার্গপ্রতি বছরের শুরুতে নতুন একটি চ্যালেঞ্জ গ্রহণের ঘোষণা দেন ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গ। এটা তার ব্যক্তিগত চ্যালেঞ্জ। কয়েক বছর ধরে এ ধরনের চ্যালেঞ্জের ঘোষণা দেওয়ায় এটা তার জন্য অনেকটা রীতি হয়েই দাঁড়িয়েছে।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এক প্রতিবেদনে জানায়,কয়েক বছর ধরে বিভিন্ন ধরনের চ্যালেঞ্জ নিয়ে আসছেন মার্ক জাকারবার্গ। এর মধ্যে ছিল মান্দারিন ভাষা শেখা, যুক্তরাষ্ট্রের সব অঙ্গরাজ্য ঘুরে দেখা এবং প্রযুক্তি নিয়ে জনপরিসরে আলোচনায় অংশ নেওয়া।

এবারও ধারণা করা হচ্ছিলো,জাকারবার্গ নতুন কোনও চ্যালেঞ্জের ঘোষণা দেবেন। কিন্তু সেই ধারা থেকে বেরিয়ে এসেছেন তিনি। কঠিন একটি বছর পার করার পর বার্ষিক চ্যালেঞ্জের পরিবর্তে দীর্ঘকালীন চ্যালেঞ্জের প্রতিই দৃষ্টি দিচ্ছেন এই প্রযুক্তি বিলিয়নিয়ার।

জাকারবার্গ বলেছেন, ব্যক্তিগত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ভবিষ্যতে কেমন হবে সেটি নিয়ে খুবই উত্তেজিত তিনি। এক ব্লগপোস্টে ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা লেখেন, প্রতি বছর চ্যালেঞ্জ নেওয়ার চেয়ে ২০৩০ সালে বিশ্ব ও আমার অবস্থা কেমন হবে সেটি নিয়ে ভাবছি আমি।

তিনি লেখেন,কেউ একজন কোথায় অবস্থান করছে সেটি কোনও বিষয় নয়। আমরা চাইলেই একসঙ্গে থাকার মতো অনুভূতি পাবো। প্রযুক্তি আমাদের জন্য সেই সুবিধা নিয়ে আসছে। এরই মধ্যে বৈজ্ঞানিক গবেষণা অনেক রোগের প্রতিষেধক ও প্রতিরোধক উদ্ভাবনে সাহায্য করবে। ফলে আমাদের প্রত্যাশিত আয়ু বেড়ে যাবে আরও প্রায় আড়াই বছর।

ফেসবুক প্রতিষ্ঠাতা লেখেন,পরবর্তী পাঁচ বছরের পর ডিজিটাল সামাজিক পরিবেশ আমাদের কাছে একেবারেই ভিন্ন মনে হবে। ওই পোস্টে জাকারবার্গ তার ছেলে বেলার কিছু ঘটনাও তুলে ধরেছেন।

/এইচএএইচ/

লাইভ

টপ