ই-ক্যাব সদস্যদের সহজ শর্তে অর্থায়ন করবে প্রাইম ব্যাংক

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ০৩:১২, জুন ২৫, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০৩:১৫, জুন ২৫, ২০২০

দেশের ই-কমার্স খাতের উদ্যোক্তাদের অর্থায়নসহ যাবতীয় ব্যাংকিং সেবা প্রদানরে লক্ষ্যে প্রাইম ব্যাংক লিমিটেড এবং ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ই-ক্যাব) এর মধ্যে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে। বুধবার (২৪ জুন) ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে প্রাইম ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রাহেল আহমেদ এবং ই-ক্যাবের প্রেসিডেন্ট শমী কায়সার আনুষ্ঠানিকভাবে এই অ্যালায়েন্সের উদ্বোধন করেন। অনুষ্ঠানে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার প্রধান অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন।
ই-কমার্স খাতের দ্রুত সম্প্রসারণের লক্ষ্যে ই-ক্যাব ও প্রাইম ব্যাংকের উদ্যোগে এই সহজ অর্থায়ন সুবিধা ই-কমার্স কোম্পানিগুলোকে সহায়তা করবে। এ চুক্তি মোতাবেক ই-ক্যাবের সদস্য প্রতিষ্ঠানগুলো প্রাইম ব্যাংক থেকে জামানতবিহীন সর্বোচ্চ ৫০ লাখ টাকা পর্যন্ত লোন এবং অন্যান্য আর্থিক সেবা পাবে। যার ফলে এই উদীয়মান এই খাতের প্রবৃদ্ধি আরও ত্বরান্বিত হবে। সৃষ্টি হবে নতুন কর্মসংস্থান।
ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার বলেন, ই-কমার্স খাতে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে ব্যাংকিং সেক্টরের দূরত্বটা প্রাইম ব্যাংকের এই উদ্যোগের মাধ্যমে দূর হয়ে গেল। শুধু স্থাবর সম্পত্তি নয়, একজন উদ্যোক্তার মেধা ও জ্ঞান অত্যন্ত মূল্যবান সম্পদ। আমি আশা করি প্রাইম ব্যাংকের এই উদ্যোগের মাধ্যমে ই-কমার্সকে অনুধাবনে ব্যাংকিং খাতের যে সমস্যা ছিল তা কেটে যাবে।
এই চুক্তি ফলে ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলো ওয়ার্কিং ক্যাপিটাল (সিসি, ওডি ও ডিমান্ড লোন), ফিক্সড অ্যাসেট ক্রয় ও ক্যাপিটাল এক্সপেন্ডিচারের জন্য টার্ম লোন, ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড সল্যুশন (এলসি এলএটিআর, আইডিবিপি), ব্যাংক গ্যারান্টি, ওয়ার্ক অর্ডার ইত্যাদি অর্থায়ন সুবিধা পাবে। ডিপোজিট সুবিধা ও ই-ট্রানজেকশনরে জন্য ইন্টারনেট ব্যাংকিং, অ্যালটুচিড সার্ভিস পাবে। লোনের জন্য দুই বছরের ব্যবসার অভিজ্ঞতা ও ই-ক্যাবের সুপারিশ পত্রের প্রয়োজন হবে। ই-ক্যাবের সদস্যরা যাতে বাসায় বা অফিসে বসেই অনায়াসে লোনের আবেদনসহ যাবতীয় ব্যাংকিং সেবা গ্রহণ করতে পারে সেজন্য প্রাইম ব্যাংক রিলেশনশিপ ম্যানেজার নিয়োগ করেছে।

/সিএ/এমআর/

লাইভ

টপ