X
শুক্রবার, ২৫ জুন ২০২১, ১০ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

মধ্যরাতে বাড়ি থেকে সাংবাদিককে ধরে নিয়ে মোবাইল কোর্টে এক বছরের জেল

আপডেট : ১৪ মার্চ ২০২০, ১৬:০২


আরিফুল ইসলাম মধ্যরাতে বাড়িতে হানা দিয়ে ধরে নিয়ে অনলাইন নিউজ পোর্টাল বাংলা ট্রিবিউনের কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি আরিফুল ইসলামকে এক বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন জেলা প্রশাসনের মোবাইল কোর্ট। শুক্রবার (১৩ মার্চ) মধ্য রাতে ডিসি অফিসের দুই-তিন জন ম্যাজিস্ট্রেট ১৫-১৬ জন আনসার সদস্যকে নিয়ে দরজা ভেঙে তার বাসায় প্রবেশ করেন। তবে তারা কোনও তল্লাশি অভিযান চালাননি। পরে ডিসি অফিসে নেওয়ার পর তারা দাবি করেন, আরিফুলের বাসায় আধা বোতল মদ ও দেড়শ’ গ্রাম গাঁজা পাওয়া গেছে।

আরিফুল ইসলামকে কারাদণ্ড দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কুড়িগ্রামের জেলার লুৎফর রহমান। তাকে কুড়িগ্রাম জেলা কারাগারে রাখা হয়েছে।

‘তুই অনেক জ্বালাচ্ছিস’ বলে ধরে নিয়ে যায়

সাংবাদিক আরিফুলের স্ত্রী মোস্তারিমা সরদার নিতু জানান, ‘শুক্রবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে খাওয়া শেষে ঘুমানোর প্রস্তুতি নিচ্ছিলাম। এ সময় হঠাৎ কয়েকজন দরজা ধাক্কাধাক্কি শুরু করলে আমার স্বামী ফোনে স্বজনদের বিষয়টি জানান। সদর থানার ওসি মাহফুজুর ইসলামকেও ফোন করেন। এসময় তারা বাইরে থেকে গালাগাল করতে করতে একপর্যায়ে দরজা ভেঙে ঘরে ঢোকে। তারা আমার স্বামীকে মারধর শুরু করে। আমি বাধা দিতে গেলে তারা আমাকেও মারতে উদ্ধত হয়। পরে আমার স্বামীকে তুলে নিয়ে যায়। তাকে একটা শার্ট পরারও সময় দেওয়া হয়নি। মাত্র পাঁচ-সাত মিনিটের মধ্যে এই ঘটনা ঘটে যায়। বাসায় কোনও তল্লাশি অভিযানও চালানো হয়নি। অথচ দাবি করা হয়েছে তার কাছে মদ ও গাঁজা পেয়েছে।’

তিনি জানান, ভোকেশনাল মোড় চড়ুয়াপাড়ায় তাদের বাসা থেকে ডিসি অফিস যেতে ১৫ মিনিটের মতো লাগে।

আরিফুলের স্ত্রী বলেন, ‘তুই অনেক জ্বালাচ্ছিস−এই কথা বলেই মারধর শুরু করে আরিফকে। বাড়িতে আমার স্বামী, আমি আর আমার দুই শিশু সন্তান ছাড়া আর কেউ ছিল না তখন। তাকে ধরে নিয়ে যাওয়ার পর এডিশনাল এসপি ও ওসি সাহেব আমাদের বাসা পরিদর্শন করেছেন। তারা বলেছেন, এ বিষয়ে কিছুই জানেন না।’

তিনি আরও জানান, বাড়িতে প্রবেশ করা ৭/৮ জন আনসার বাহিনীর পোশাক পরা ছিল। এছাড়া বাইরে আরও ৪০ থেকে ৫০ জন দাঁড়িয়েছিল। আশপাশের লোকজন যাতে বাইরে বেরুতে না পারে, সেজন্য প্রতিটি বাড়ির গেটের সামনে ২/৪ জন করে দাঁড়িয়েছিল।

আরিফুলের স্ত্রী জানান, ‘ডিসি অফিসে রাত ২টার সময় মোবাইল কোর্ট বসানো হয়। এক বছরের কারাদণ্ড দিয়ে তাকে রাত আড়াইটার দিকে জেলখানায় পঠিয়ে দেয়।’ কুড়িগ্রাম সদর থানার ওসি মাহফুজুর ইসলাম বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আমরা জানতে পেরেছি ডিসি অফিসের লোকজন মোবাইল কোর্টের জন্য আরিফুলকে নিয়ে যায়।’

এর আগে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, জেলা প্রশাসক মোছা. সুলতানা পারভীন একটি পুকুর সংস্কার করে নিজের নামে নামকরণ করতে চেয়েছিলেন। আরিফুল এ বিষয়ে নিউজ করার পর থেকেই তার ওপর ক্ষুব্ধ ছিলেন ডিসি। এছাড়া, সম্প্রতি জেলা প্রশাসনের বিভিন্ন অনিয়ম ও মুজিববর্ষের টানা নয়-ছয় নিয়ে রিপোর্ট করতে চেয়েছিলেন সাংবাদিক আরিফ। এ বিষয়ে জানতে পেরে জেলা প্রশাসকের অফিস থেকে তাকে বেশ কয়েকবার ডেকে নিয়ে সতর্ক করা হয়। তবে জেলা প্রশাসক সুলতানা পারভীন সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। 

আরও পড়ুন- 
মধ্যরাতে সাংবাদিক আরিফুলকে তুলে নিয়ে গেলো মোবাইল কোর্ট

কাবিখা’র টাকায় পুকুর সংস্কার করে ডিসি’র নামে নামকরণ!

/এফএস/এমএমজে/

সম্পর্কিত

মাদকসেবীদের‌ ‌মধ্যে‌ ‌ইয়াবাই‌ ‌সবচেয়ে‌ ‌জনপ্রিয়,‌ ‌পাওয়া‌ ‌যাচ্ছে‌ ‌অনলাইনেও‌

মাদকসেবীদের‌ ‌মধ্যে‌ ‌ইয়াবাই‌ ‌সবচেয়ে‌ ‌জনপ্রিয়,‌ ‌পাওয়া‌ ‌যাচ্ছে‌ ‌অনলাইনেও‌

সৌদি প্রবাসীদের সঙ্গে প্রতারণা, এভসেকের হাতে ধরা ২ প্রতারক

সৌদি প্রবাসীদের সঙ্গে প্রতারণা, এভসেকের হাতে ধরা ২ প্রতারক

২২ বছর কারাভোগের পর আবারও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে

২২ বছর কারাভোগের পর আবারও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে

লিবিয়ায় মানবপাচারকারী চক্রের এক সদস্যের জামিন স্থগিত

লিবিয়ায় মানবপাচারকারী চক্রের এক সদস্যের জামিন স্থগিত

বাবা, মা ও বোনকে হত্যা: মেহজাবিনের স্বীকারোক্তি

বাবা, মা ও বোনকে হত্যা: মেহজাবিনের স্বীকারোক্তি

অরিত্রীর আত্মহত্যা মামলা: সাক্ষ্যগ্রহণ ৪ জুলাই

অরিত্রীর আত্মহত্যা মামলা: সাক্ষ্যগ্রহণ ৪ জুলাই

থানায় সালিশ ডেকে আদালতে ক্ষমা চাইলেন ওসি

থানায় সালিশ ডেকে আদালতে ক্ষমা চাইলেন ওসি

রূপনগরে সিলিন্ডার বিস্ফোরণে ৬ শিশুর মৃত্যু: দুজনের বিরুদ্ধে চার্জশিট

রূপনগরে সিলিন্ডার বিস্ফোরণে ৬ শিশুর মৃত্যু: দুজনের বিরুদ্ধে চার্জশিট

হুমায়ুন আজাদ হত্যা মামলায় যুক্তি উপস্থাপন শুনানি ২৩ সেপ্টেম্বর

হুমায়ুন আজাদ হত্যা মামলায় যুক্তি উপস্থাপন শুনানি ২৩ সেপ্টেম্বর

ডিআইজি বজলুর রশীদের বিরুদ্ধে মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণ ১৮ জুলাই

ডিআইজি বজলুর রশীদের বিরুদ্ধে মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণ ১৮ জুলাই

হাইকোর্টে আরেকটি বড় জালিয়াতি ঘটনার নেপথ্যে

হাইকোর্টে আরেকটি বড় জালিয়াতি ঘটনার নেপথ্যে

সর্বশেষ

কোন দিকে মোড় নিচ্ছে রাশিয়া ও যুক্তরাজ্যের বিবাদ?

কোন দিকে মোড় নিচ্ছে রাশিয়া ও যুক্তরাজ্যের বিবাদ?

বেসরকারি পর্যায়ে অ্যান্টিজেন পরীক্ষার অনুমোদন দিচ্ছে সরকার

বেসরকারি পর্যায়ে অ্যান্টিজেন পরীক্ষার অনুমোদন দিচ্ছে সরকার

মৃত্যুর পর করোনা ইউনিটের মেঝেতেই লাশ পড়েছিলো ১৪ ঘণ্টা

মৃত্যুর পর করোনা ইউনিটের মেঝেতেই লাশ পড়েছিলো ১৪ ঘণ্টা

বিদেশ থেকে আনা মোবাইল ফোন নিবন্ধন করতে হবে যেভাবে

বিদেশ থেকে আনা মোবাইল ফোন নিবন্ধন করতে হবে যেভাবে

মাদকসেবীদের‌ ‌মধ্যে‌ ‌ইয়াবাই‌ ‌সবচেয়ে‌ ‌জনপ্রিয়,‌ ‌পাওয়া‌ ‌যাচ্ছে‌ ‌অনলাইনেও‌

মাদকসেবীদের‌ ‌মধ্যে‌ ‌ইয়াবাই‌ ‌সবচেয়ে‌ ‌জনপ্রিয়,‌ ‌পাওয়া‌ ‌যাচ্ছে‌ ‌অনলাইনেও‌

সৌদি প্রবাসীদের সঙ্গে প্রতারণা, এভসেকের হাতে ধরা ২ প্রতারক

সৌদি প্রবাসীদের সঙ্গে প্রতারণা, এভসেকের হাতে ধরা ২ প্রতারক

ইউজিসির সাবেক সদস্য মোহাম্মদ আলীর মৃত্যুতে শোক

ইউজিসির সাবেক সদস্য মোহাম্মদ আলীর মৃত্যুতে শোক

কানাডার পুরনো আদিবাসী স্কুলে মিলেছে ৭৫১টি কবর

কানাডার পুরনো আদিবাসী স্কুলে মিলেছে ৭৫১টি কবর

করোনা আক্রান্ত ব্যক্তিকে আমবাগান থেকে স্ত্রীসহ উদ্ধার করলো পুলিশ

করোনা আক্রান্ত ব্যক্তিকে আমবাগান থেকে স্ত্রীসহ উদ্ধার করলো পুলিশ

পোশাক শ্রমিককে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় ২ জনের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

পোশাক শ্রমিককে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় ২ জনের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

যুব বিশ্বকাপ জয়ী শামীম জেতালেন দোলেশ্বরকে

যুব বিশ্বকাপ জয়ী শামীম জেতালেন দোলেশ্বরকে

‘২০২৫ সালের মধ্যে সরকারের সব সেবা ডিজিটাল হচ্ছে’

‘২০২৫ সালের মধ্যে সরকারের সব সেবা ডিজিটাল হচ্ছে’

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

থানায় সালিশ ডেকে আদালতে ক্ষমা চাইলেন ওসি

থানায় সালিশ ডেকে আদালতে ক্ষমা চাইলেন ওসি

সড়ক থেকে তুলে নিয়ে নারী শ্রমিককে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ

সড়ক থেকে তুলে নিয়ে নারী শ্রমিককে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ

ঋণের টাকা দিতে না পেরে ব্যবসায়ীর আত্মহত্যা

ঋণের টাকা দিতে না পেরে ব্যবসায়ীর আত্মহত্যা

হিলিতে ফের বাড়লো পেঁয়াজের দাম

হিলিতে ফের বাড়লো পেঁয়াজের দাম

ডিউটিভ্যানেই মারা গেলেন পুলিশ কনস্টেবল

ডিউটিভ্যানেই মারা গেলেন পুলিশ কনস্টেবল

ভাসানচর থেকে পালানো ১৪ রোহিঙ্গা আটক

ভাসানচর থেকে পালানো ১৪ রোহিঙ্গা আটক

নির্বাচনি সহিংসতা: নবনির্বাচিত ইউপি সদস্যসহ কারাগারে ৩

নির্বাচনি সহিংসতা: নবনির্বাচিত ইউপি সদস্যসহ কারাগারে ৩

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সহিংসতা: হেফাজত নেতা মনির গ্রেফতার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সহিংসতা: হেফাজত নেতা মনির গ্রেফতার

বিপৎসীমার ওপরে তিস্তার পানি, গঙ্গাচড়ায় ২ হাজার পরিবার পানিবন্দি

বিপৎসীমার ওপরে তিস্তার পানি, গঙ্গাচড়ায় ২ হাজার পরিবার পানিবন্দি

© 2021 Bangla Tribune