সেকশনস

সাজার বদলে হাতে তুলে দেওয়া হলো বই, মুক্তি পেলো ৪৯ শিশু-কিশোর

আপডেট : ২০ জানুয়ারি ২০২১, ১৫:৩২

সুনামগঞ্জে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে একসঙ্গে ৩৫টি মামলার রায় দিয়েছেন আদালত। রায়ে ৪৯ জন অভিযুক্ত শিশু-কিশোরকে সাজার বদলে সুন্দর জীবনে ফিরে আসার সুযোগ দিয়ে পরিবারের কাছে হস্তান্তরের আদেশ দেওয়া হয়। বুধবার (২০ জানুয়ারি) ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. জাকির হোসেন অভিযুক্ত শিশু, তাদের অভিবাবক ও আইনজীবীদের উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন।

এসময় আদালতের পক্ষ থেকে প্রত্যেকের হাতে ১০০ মনীষীর জীবন নামে বই উপহার দেওয়া হয়। বিচারক জাকির হোসেন রায়ের পাশাপাশি পরিবারের সদস্যদের শিশু-কিশোরদের অপরাধ প্রবণতা থেকে দূরে রাখতে ও সুন্দর পরিবেশ দেওয়ার আহবান জানান। অন্যদিকে আগামীর বাংলাদেশের নেতৃত্ব দিতে তাদের প্রস্তুত হওয়ার জন্য উৎসাহ দেন।

আদালত সূত্র জানায়, মামলাগুলো দীর্ঘদিন ধরেই চলমান ছিল। রায়ে বাদী এবং বিবাদী পক্ষ সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।

এদিকে অভিযুক্ত শিশু-কিশোররা জানান, তাদের নামে মামলা থাকার কারণে প্রতিমাসে আদালতে হাজিরা দিতে হতো। লেখাপড়া বাদ দিয়ে আদালতে হাজির হওয়ায় তাদের পড়ার ক্ষতি হচ্ছিলো। এখন আদালতের আদেশে স্বাভাবিক জীবন যাপন করা সম্ভব হবে বলে আশা প্রকাশ করে তারা।

অন্যদিকে প্রবেশন কর্মকর্তা শাহ মোহাম্মদ শফিউর রহমান বলেন, শিশুদের শর্ত মেনে চলার বিষয়টি দেখভাল করা হবে।

সুনামগঞ্জ সনাকের সভাপতি এড আইনুল ইসলাম বাবলু বলেন, সামাজিক ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা ও শিশুদের অধিকার রক্ষায় আদালতের রায় দেশের বিচারিক ইতিহাসে একটি মাইল ফলক হয়ে থাকবে। সম্প্রতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে প্রায় প্রতিটি মামলায় শিশুদের অভিযুক্ত করা হয়। দেশের বিভিন্নস্থানে লেখাপড়ায় থাকা শিশুদের বাড়ির ঘটনার সঙ্গে জড়িয়ে মামলা দেওয়া হচ্ছে। এটি মূলত দুই কারণে করা হয়। একটি হলো শিশুর জীবনকে নষ্ট করে দেওয়া ও পরিবারের সুন্দর আগামীকে অন্ধাকর করে দিতে এমন করা হচ্ছে। মামলায় আসামি করার আগে তদন্ত কর্মকর্তাদের আরও দায়িত্বশীল ভূমিকা পালনের আহ্বান জানান তিনি।

শিশু আদালতের পিপি নান্টু রায় বলেন, পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে থেকে সুষ্ঠু জীবনে ফিরে আসার সুযোগ করে দিতে আদালত রায় দিয়েছেন। শিশু আদালতের বিচারক মো. জাকির হোসেন এর আগেও ১৪ জন শিশুকে শর্তযুক্ত মুক্তি দিয়েছেন।

আদালত রায়ের পর্যবেক্ষণে বলেন, শিশুরা হলো জাতির ভবিষ্যত। তারা বিভিন্ন অভিযোগে অভিযুক্ত হয়ে নানান মামলায় জড়িত ছিল। আদালত শিশু আইনের বাস্তবায়ন ও শিশু অধিকার রক্ষায় এ রায় দিয়েছে। শিশুদের প্রতি বিশেষভাবে খেয়াল রাখার জন্য অভিবাবকদের আদেশ দেওয়া হলো। যাতে শিশুরা আবারও অপরাধে জড়িয়ে না পড়ে।

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

শুল্ক কর ‘ই-পেমেন্টে’ পরিশোধ করা বাধ্যতামূলক

শুল্ক কর ‘ই-পেমেন্টে’ পরিশোধ করা বাধ্যতামূলক

ইনজেকশন পুশ করে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগে স্বামী আটক

ইনজেকশন পুশ করে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগে স্বামী আটক

এক বছরে শনাক্ত সাড়ে পাঁচ লাখ ছাড়ালো

এক বছরে শনাক্ত সাড়ে পাঁচ লাখ ছাড়ালো

৭ মার্চের ভাষণ নিয়ে অনেক ষড়যন্ত্র হয়েছে: তথ্যমন্ত্রী

৭ মার্চের ভাষণ নিয়ে অনেক ষড়যন্ত্র হয়েছে: তথ্যমন্ত্রী

৪১তম বিসিএস পরীক্ষার প্রস্তুতি বিষয়ে নির্দেশনা দিয়েছে পিএসসি

৪১তম বিসিএস পরীক্ষার প্রস্তুতি বিষয়ে নির্দেশনা দিয়েছে পিএসসি

স্বীকৃতি পেতে ৫০ বছর অপেক্ষা

স্বীকৃতি পেতে ৫০ বছর অপেক্ষা

এমসি কলেজে তরুণী ধর্ষণ মামলার শুনানি হয়নি

এমসি কলেজে তরুণী ধর্ষণ মামলার শুনানি হয়নি

৭ মার্চ বাঙালি জাতির জন্য অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ: তাপস

৭ মার্চ বাঙালি জাতির জন্য অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ: তাপস

বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে এমপি কাজী নাবিল আহমেদের শ্রদ্ধার্ঘ্য

বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে এমপি কাজী নাবিল আহমেদের শ্রদ্ধার্ঘ্য

এবারের নারী দিবসে সম্মাননা পাচ্ছেন ৫ জয়িতা

এবারের নারী দিবসে সম্মাননা পাচ্ছেন ৫ জয়িতা

কত বাধা পেরিয়ে এলো ৭ মার্চের ভাষণ!

কত বাধা পেরিয়ে এলো ৭ মার্চের ভাষণ!

‘কানে শুনতে হলে কার্টুনিস্ট কিশোরকে যন্ত্র ব্যবহার করতে হবে’

‘কানে শুনতে হলে কার্টুনিস্ট কিশোরকে যন্ত্র ব্যবহার করতে হবে’

সর্বশেষ

আপন জুয়েলার্সের মালিকের বিরুদ্ধে করা রমনা থানার মামলাটি বিচারের জন্য প্রস্তুত

আপন জুয়েলার্সের মালিকের বিরুদ্ধে করা রমনা থানার মামলাটি বিচারের জন্য প্রস্তুত

আপন জুয়েলার্সের মালিকের বিরুদ্ধে করা রমনা থানার মামলাটি বিচারের জন্য প্রস্তুত

আপন জুয়েলার্সের মালিকের বিরুদ্ধে করা রমনা থানার মামলাটি বিচারের জন্য প্রস্তুত

‘মিয়ানমারের  অনেক নাগরিক ভারতে আশ্রয় চাইছে’

‘মিয়ানমারের  অনেক নাগরিক ভারতে আশ্রয় চাইছে’

শাহীন আফ্রিদির শ্বশুর হচ্ছেন শহীদ আফ্রিদি

শাহীন আফ্রিদির শ্বশুর হচ্ছেন শহীদ আফ্রিদি

নতুন কৃষি আইন সংশোধনে প্রস্তুত আছে সরকার: ভারতের কৃষিমন্ত্রী

নতুন কৃষি আইন সংশোধনে প্রস্তুত আছে সরকার: ভারতের কৃষিমন্ত্রী

শুল্ক কর ‘ই-পেমেন্টে’ পরিশোধ করা বাধ্যতামূলক

শুল্ক কর ‘ই-পেমেন্টে’ পরিশোধ করা বাধ্যতামূলক

ইনজেকশন পুশ করে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগে স্বামী আটক

ইনজেকশন পুশ করে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগে স্বামী আটক

৭ মার্চ উদযাপন: জাতীয় মসজিদে বিশেষ দোয়া

৭ মার্চ উদযাপন: জাতীয় মসজিদে বিশেষ দোয়া

১২ এপ্রিল শ্রীলঙ্কা সফরে যাবে বাংলাদেশ

১২ এপ্রিল শ্রীলঙ্কা সফরে যাবে বাংলাদেশ

ক্রিকেটারদের পর এবার টিকা নিচ্ছেন শুটাররা

ক্রিকেটারদের পর এবার টিকা নিচ্ছেন শুটাররা

এক বছরে শনাক্ত সাড়ে পাঁচ লাখ ছাড়ালো

এক বছরে শনাক্ত সাড়ে পাঁচ লাখ ছাড়ালো

প্রশাসনের উপসচিব পদে পদোন্নতি পেলেন ৩৩৭ কর্মকর্তা

প্রশাসনের উপসচিব পদে পদোন্নতি পেলেন ৩৩৭ কর্মকর্তা

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ইনজেকশন পুশ করে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগে স্বামী আটক

ইনজেকশন পুশ করে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগে স্বামী আটক

এমসি কলেজে তরুণী ধর্ষণ মামলার শুনানি হয়নি

এমসি কলেজে তরুণী ধর্ষণ মামলার শুনানি হয়নি

বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে এমপি কাজী নাবিল আহমেদের শ্রদ্ধার্ঘ্য

বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে এমপি কাজী নাবিল আহমেদের শ্রদ্ধার্ঘ্য

কক্সবাজার সৈকতে বঙ্গবন্ধু

কক্সবাজার সৈকতে বঙ্গবন্ধু

কক্সবাজারের কলাতলীতে ট্রাকচাপায় নারীসহ নিহত ২

কক্সবাজারের কলাতলীতে ট্রাকচাপায় নারীসহ নিহত ২

ক্যাম্পাসের বাইরে নিরাপত্তাহীনতায় শাবি শিক্ষার্থীরা

ক্যাম্পাসের বাইরে নিরাপত্তাহীনতায় শাবি শিক্ষার্থীরা

ইউপি নির্বাচনে নৌকায় ভোট চাইলেন পলক

ইউপি নির্বাচনে নৌকায় ভোট চাইলেন পলক

সুনামগঞ্জের বনগাঁও সীমান্তে বিজিবি-চোরাকারবারী সংঘর্ষ, নিহত ১

সুনামগঞ্জের বনগাঁও সীমান্তে বিজিবি-চোরাকারবারী সংঘর্ষ, নিহত ১


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.