X
সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১, ৬ বৈশাখ ১৪২৮

সেকশনস

অবৈধভাবে ভারতে প্রবেশের সময় আটক ২২

আপডেট : ২৮ জানুয়ারি ২০২১, ১৭:২৯

দালাল চক্রের মাধ্যমে অবৈধভাবে ভারতের প্রবেশের প্রস্তুতিকালে পাসপোর্টবিহীন ২২বাংলাদেশিকে আটক করেছে সাতক্ষীরা সদর থানা পুলিশ। এসময় পাচারকারী চক্রের কাউকে আটক করা যায়নি। তবে চক্রের সহযোগী ভ্যানচালক মোখলেছুরের স্ত্রী নাসিমা বেগমকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে পুলিশ। বুধবার দিবাগত রাতে (২৮ জানুয়ারি) সাতক্ষীরার বাঁশদহ ইউনিয়নের কুলিয়াডাঙ্গা গামেরর মোখলেছুর রহমানের বাড়ি থেকে ওই ২২ জনকে আটক করা হয়। আটকদের মধ্যে ১০ জন পুরুষ, ১০ জন নারী ও দুই জন অপ্রাপ্ত বয়স্ক শিশুকন্যা রয়েছে। যাদের মধ্যে লড়াইল জেলার ১৫ জন, খুলনার তিন জন, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার দুই জন, রংপুরের একজন ও মুন্সীগঞ্জের একজন রয়েছেন।

আটকরা জানান, তারা কাজের জন্য ভারতে যাওয়ার উদ্দেশ্যে এসেছিল। টাকার বিনিময়ে পাসপোর্ট ছাড়াই ভারতে পার করে দিবে বলে গত মঙ্গলবার তাদেরকে সাতক্ষীরা বাশদহ ইউনিয়নের কুলিয়াডাঙ্গার মোখলেছুরের বাড়িতে নিয়ে আসা হয়। তাদের কাছ থেকে বিভিন্ন অঙ্কের টাকা নিয়ে বুধবার ভোররাতে ভারতে প্রবেশের কথা থাকলেও সুযোগ না হওয়ায় বৃহস্পতিবার ভোর রাতে তলুইগাছা সীমান্ত দিয়ে ভারতে পার করে দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু এরআগেই পুলিশ তাদের আটক করে।

এদিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক মোখলেছুরের স্ত্রী নাছিমা বেগম জানান, তার স্বামী মোখলেছুর একজন ভ্যানচালক। তিনি এই দালাল চক্রের সঙ্গে জড়িত নয়। তার স্বামী শুধু মাত্র যাত্রী বহন করে। তাদের বাড়িতে এই ২২ জন কেন অবস্থান করছে এমন প্রশ্নের জবাবে নাসিমা বেগম বলেন, সাতক্ষীরা কলারোয়া কেড়াগাছির আব্দুল হামিদের পুত্র আনারুল ইসলাম ও একই গ্রামের কাশেম সরদারের পুত্র কাজিরুল ইসলাম এবং বাঁশদহ ইউনিয়নের তলুইগাছা গ্রামের বাবলু এই ২২ জনকে তাদের বাড়িতে রেখে গেছে। তাদেরকে খাওয়া বাবদ ৫০ টাকা করে দেয় দালালেরা। এর বাইরে আর কিছু জানেন না তিনি।

সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আসাদুজ্জামন বলেন, সাতক্ষীরা বাঁশদহ ইউনিয়নের কুলিয়াডাঙ্গা গ্রামের মোখলেছুরের বাড়িতে বিভিন্ন জেলা থেকে আগত কিছু লোকজন অবৈধভাবে ভারতে প্রবেশ করবে বলে অবস্থান করছে, এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালানো হয়। পরে তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে সবাই স্বীকার করেন তারা কেউ ১০ হাজার, কেউ ১৭ হাজার কেউবা ১৮ হাজার টাকার বিনিময়ে ভারতে প্রবেশ করবে বলে ওই বাড়িতে এসেছে। তবে তারা কেউ দালাল চক্রের সদস্যদের চেনেন না। মোবাইলফোনের মাধ্যমে যোগাযোগ করে তারা এসেছে।

পুলিশ কর্মকর্তা আরও জানান, এ ঘটনায় বাড়ির মালিক মোখলেছুরের স্ত্রী নাসিমাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় আনা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইননানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

চায়ের দোকানি লিটন হত্যায় ২ জনের স্বীকারোক্তি

চায়ের দোকানি লিটন হত্যায় ২ জনের স্বীকারোক্তি

উপকূলজুড়ে মাছ চাষিদের বোবা কান্না

উপকূলজুড়ে মাছ চাষিদের বোবা কান্না

বরখাস্ত কারারক্ষী মাদকসহ আটক

বরখাস্ত কারারক্ষী মাদকসহ আটক

বেকারির কারখানায় আগুনে একজনের মৃত্যু

বেকারির কারখানায় আগুনে একজনের মৃত্যু

সোনালী ধান কাটার উৎসব কৃষকের ঘরে

সোনালী ধান কাটার উৎসব কৃষকের ঘরে

ইট মেরে শেখ রাসেলের ভাস্কর্য ক্ষতিগ্রস্ত,  আটক ১

ইট মেরে শেখ রাসেলের ভাস্কর্য ক্ষতিগ্রস্ত, আটক ১

স্কুলছাত্রীর ফেসবুক আইডিতে আপত্তিকর ছবি পোস্ট, তরুণ গ্রেফতার

স্কুলছাত্রীর ফেসবুক আইডিতে আপত্তিকর ছবি পোস্ট, তরুণ গ্রেফতার

‘হেফাজত, জামায়াত-বিএনপির বিষদাঁত ভেঙে দেওয়া হবে’

‘হেফাজত, জামায়াত-বিএনপির বিষদাঁত ভেঙে দেওয়া হবে’

পিকআপে ট্রাকের ধাক্কায় দুই শ্রমিক নিহত, আহত ২২

পিকআপে ট্রাকের ধাক্কায় দুই শ্রমিক নিহত, আহত ২২

মাঠ থেকে কৃষকের লাশ উদ্ধার

মাঠ থেকে কৃষকের লাশ উদ্ধার

সর্বশেষ

বরাদ্দ ৫শ কোটি, যেভাবে ঋণ নিতে পারবেন নতুন উদ্যোক্তারা

বরাদ্দ ৫শ কোটি, যেভাবে ঋণ নিতে পারবেন নতুন উদ্যোক্তারা

পুলিশকে ফাঁকি দিলেই যেন করোনা থেকে রক্ষা পাবে

পুলিশকে ফাঁকি দিলেই যেন করোনা থেকে রক্ষা পাবে

সকালের যেসব অভ্যাস বাড়তি ওজনের জন্য দায়ী

সকালের যেসব অভ্যাস বাড়তি ওজনের জন্য দায়ী

যুবদলের সাবেক সভাপতি মজনু রিমান্ড শেষে কারাগারে

যুবদলের সাবেক সভাপতি মজনু রিমান্ড শেষে কারাগারে

সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষার আবেদনের সময় বাড়লো

সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষার আবেদনের সময় বাড়লো

ইউপি ভবনে মামুনুল সমর্থকদের হামলা, গ্রেফতার ৩

ইউপি ভবনে মামুনুল সমর্থকদের হামলা, গ্রেফতার ৩

পানি ও বিদ্যুৎ সুবিধা নেই উপহারের ঘরে

পানি ও বিদ্যুৎ সুবিধা নেই উপহারের ঘরে

হাতিরঝিল রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব চান মেয়র আতিক

হাতিরঝিল রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব চান মেয়র আতিক

জেএমবির ভারপ্রাপ্ত আমির রেজাউল হক কারাগারে

জেএমবির ভারপ্রাপ্ত আমির রেজাউল হক কারাগারে

করোনার ভ্যাকসিন প্রয়োগে যুক্তরাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ অর্জন

করোনার ভ্যাকসিন প্রয়োগে যুক্তরাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ অর্জন

ব্যাংক কর্মকর্তা করোনায় মারা গেলে পরিবার পাবে ৫০ লাখ টাকা

ব্যাংক কর্মকর্তা করোনায় মারা গেলে পরিবার পাবে ৫০ লাখ টাকা

‘ওই চিকিৎসকের শব্দ প্রয়োগ অত্যন্ত অরুচিকর ও লজ্জাজনক’

‘ওই চিকিৎসকের শব্দ প্রয়োগ অত্যন্ত অরুচিকর ও লজ্জাজনক’

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

চায়ের দোকানি লিটন হত্যায় ২ জনের স্বীকারোক্তি

চায়ের দোকানি লিটন হত্যায় ২ জনের স্বীকারোক্তি

উপকূলজুড়ে মাছ চাষিদের বোবা কান্না

উপকূলজুড়ে মাছ চাষিদের বোবা কান্না

বরখাস্ত কারারক্ষী মাদকসহ আটক

বরখাস্ত কারারক্ষী মাদকসহ আটক

বেকারির কারখানায় আগুনে একজনের মৃত্যু

বেকারির কারখানায় আগুনে একজনের মৃত্যু

সোনালী ধান কাটার উৎসব কৃষকের ঘরে

সোনালী ধান কাটার উৎসব কৃষকের ঘরে

ইট মেরে শেখ রাসেলের ভাস্কর্য ক্ষতিগ্রস্ত,  আটক ১

ইট মেরে শেখ রাসেলের ভাস্কর্য ক্ষতিগ্রস্ত, আটক ১

স্কুলছাত্রীর ফেসবুক আইডিতে আপত্তিকর ছবি পোস্ট, তরুণ গ্রেফতার

স্কুলছাত্রীর ফেসবুক আইডিতে আপত্তিকর ছবি পোস্ট, তরুণ গ্রেফতার

‘হেফাজত, জামায়াত-বিএনপির বিষদাঁত ভেঙে দেওয়া হবে’

‘হেফাজত, জামায়াত-বিএনপির বিষদাঁত ভেঙে দেওয়া হবে’

পিকআপে ট্রাকের ধাক্কায় দুই শ্রমিক নিহত, আহত ২২

পিকআপে ট্রাকের ধাক্কায় দুই শ্রমিক নিহত, আহত ২২

Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.
© 2021 Bangla Tribune