X
বৃহস্পতিবার, ১৫ এপ্রিল ২০২১, ২ বৈশাখ ১৪২৮

সেকশনস

১০ বছরেও শেষ হয়নি খুলনা-মোংলা রেলপথ প্রকল্প

আপডেট : ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ২২:১৭

খুলনা-মোংলা ৬৫ কিলোমিটার রেলপথ প্রকল্পের মেয়াদ ছিল ৩ বছর। তবে ১০ বছর পার হলেও এখনও শেষ হয়নি এ প্রকল্পের বাস্তবায়ন কাজ। প্রকল্পের তৃতীয়বার বাড়ানো সময় শেষ হবে ২০২১ সালের ডিসেম্বরে। তবে এখনও বাকি ২৫ শতাংশ কাজ এই সময়ের মধ্যে শেষ হবে কিনা তা নিয়ে সন্দিহান প্রকল্পের কর্মকর্তারা। যদিও নানা ঢিলেমি ও অসুবিধার কথা বলে সারাদেশে গৃহীত প্রকল্পগুলো নির্ধারিত শেষ করতে না পারায় ও বিভিন্ন কথা বলে বারবার বাজেট বাড়ানোর জন্য সম্প্রতি একনেক বৈঠকে কড়া প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রকল্প সূত্রে জানা গেছে, এই রেলপথ নির্মাণে প্রথম ব্যয় ধরা হয়েছিল ১ হাজার ৭২১ কোটি টাকা। সেই ব্যয় তিন দফায় এখন বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩ হাজার ৮০১ কোটি টাকায়। ২০১০ সালে এ প্রকল্পের কাজ শুরু হয়।

মোংলা বন্দর থেকে মালামাল ভারতসহ আশপাশের দেশগুলোতে পাঠাতে দ্বিতীয় মেয়াদে আসা শেখ হাসিনার আওয়ামী লীগ সরকার ২০১০ সালে এ প্রকল্প গ্রহণ করে। প্রকল্পটি শেষ হওয়ার কথা ছিল ২০১৩ সালে। তবে জমি অধিগ্রহণে বিলম্ব, যথাসময়ে মালামাল সরবরাহ না হওয়া, রূপসা নদীর ওপর রেল সেতু নির্মাণে দেরি হওয়া, জলপাইগুড়ি থেকে আনা রেললাইনের স্লিপার বাতিল হাওয়াসহ নানা কারণে এ সময়ক্ষেপণ হয়। তিনবার সময় বাড়িয়ে এ বছরের জানুয়ারি পর্যন্ত  প্রকল্পের অগ্রগতি ৭৫ শতাংশ।

প্রকল্পটির কাজে ধীরগতির কারণ অনুসন্ধানে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, খুলনা-মোংলা রেল লাইনের দ্বিতীয় প্যাকেজের জন্য জলপাইগুড়ি থেকে আনা স্লিপার ব্যবহার অযোগ্য বলে প্রতিবেদন দিয়েছে বাংলাদেশ প্রকৌশলী ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট)। মানহীন পণ্য ব্যবহার করা হবে না বলে পরামর্শক প্রতিষ্ঠান সাফ জানিয়ে দিয়েছে। ফলে এ রেল লাইনের কাজ শেষ হতে আরও সময় লাগার আশঙ্কা রয়েছে।

খুলনা-মোংলা রেললাইন প্রকল্পটি শেষ হওয়ার কথা ছিল ২০১৩ সালে। তবে ২০২১ সালেও শেষ হয়নি কাজ। বাড়ানো সময় শেষ হবে এই বছরের ডিসেম্বরেই।

পরামর্শক প্রতিষ্ঠান আইএমইডি’র সূত্র বলেছে, যেসব মালামাল পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে পারেনি তার মধ্যে রয়েছে ৪০ হাজার বিজি প্রিপেইড মনো ব্লক কনক্রিট (পিএসসি) স্লিপারস ফর ফিক্সিং ইউআইসি, ছয় সেট পিএসপি স্লিপারস ফর ওয়ান ইন টুয়েল্ভ টারমাউনটস উইথ ইউআইসি ৬০ কেজি রেলস, সিএমএস ক্রসিং অ্যান্ড কার্ভ সুইচ, ৩৫ সেট বিজি ওয়ান ইন টুয়েল্ভ টারমাউনটস উইথ ইউআইসি ৬০ কেজি রেলস অন পিএসসি স্লিপারস উইথ সিএমএস ক্রসিং, ২৩ সেট বিজি ওয়ান ইন ৮ দশমিক ৫ টারমাউনটস উইথ ইউআইসি ৬০ কেজি রেলস অন পিএসসি স্লিপারস উইথ সিএমএস ক্রসিং। ভারতের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান লারসেন অ্যান্ড টু ব্রো-এলটি লিমিটেড স্লিপারস সরবরাহের দায়িত্ব পালন করছে।

পরামর্শক প্রতিষ্ঠান আরও জানায়, এর পাশাপাশি ভূমি অধিগ্রহণ জটিলতা এখনও দূর হয়নি। করোনার কারণেও প্রকল্পটির কাজ কয়েক মাস বন্ধ ছিল।

প্রকল্পের পরিচালক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, জলপাইগুড়ি থেকে আনা মানহীন স্লিপার বুয়েট বাতিল করেছে। যাচাই-বাছাই করেই বিভিন্ন সরঞ্জাম রেল লাইনে স্থাপন করা হবে।

তিনি বলেন, আইএমইডি’র পরিবেক্ষণ সমীক্ষা শেষে তথ্য দেওয়া হয়েছে, জলপাইগুড়ি থেকে আনা স্লিপার এই রেল লাইনে ব্যবহারের উপযোগী নয়।

প্রকল্প পরিচালক জানান, ইতোমধ্যে ৭৫ শতাংশ কাজ শেষ হয়েছে। যথাযথ মান বজায় রেখে প্রকল্পের কাজ শেষ করা হবে। ছোটখাটো বেশ কিছু প্রতিবন্ধকতা দ্রুত সমাধানের চেষ্টা চলছে। প্রকল্প বাস্তবায়নে বিলম্ব ও নকশা প্রণয়নের জন্য ব্যয় বেড়েছে। প্রকল্পের কার্যক্রমে পাইলিংয়ে জটিলতা মেটাতে প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতির অভাব রয়েছে। ৮টি স্টেশনের মধ্যে আড়ংঘাটা ও মোহাম্মদনগর স্টেশনের ছাদ শেষ হয়েছে। অন্যান্য স্টেশনের পাইলিংয়ের কাজ চলছে। ট্র্যাক নির্মাণ ও সিগন্যাল লাইনের কাজ এখনও শুরু হয়নি।  

সময় মতো কাজ শেষ না হওয়ার পেছনে অনভিজ্ঞ সাব-কন্ট্রাক্টর নিয়োগ দেওয়াকেও দায়ী করেন তিনি। খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে, দলীয় তদবির ও চাপের কারণে ইচ্ছা থাকলেও পেশাদার সাব-কন্ট্রাক্টর নিয়োগ করা সম্ভব হয়নি। তবে এ বিষয়ে বিস্তারিত বলার জন্য মুখ খুলতে চাননি কোনও পক্ষ।  

আইএমইডি’র সচিব প্রদীপ রঞ্জন চক্রবর্তী জানান, জনগণের টাকার সর্বোচ্চ ব্যবহার ও দক্ষতার মাধ্যমে মানসম্পন্ন প্রকল্প সম্পন্ন করার চেষ্টা করবো। আইএমইডি এ প্রকল্পের নিবিড় পরিবীক্ষণ প্রতিষ্ঠান। বাংলাদেশ রেলওয়ে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছে। গুণগত মান ঠিক রেখে গতি বাড়িয়ে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে কাজ শেষ করার জন্য ঠিকাদারদের আইটিসি পরিষদ ও পরামর্শকদের বিল পরিশোধ করতে বলা হয়েছে।

/টিএন/এমওএফ/

সম্পর্কিত

কুষ্টিয়ায় পানিতে ডুবে প্রাণ গেলো দুই শিশুর

কুষ্টিয়ায় পানিতে ডুবে প্রাণ গেলো দুই শিশুর

কুড়িয়ে পাওয়া বোমা বিস্ফোরণে শিশু নিহত, আহত ২

কুড়িয়ে পাওয়া বোমা বিস্ফোরণে শিশু নিহত, আহত ২

পাঁচবার রঙ বদলায় তুলসীমালা, চাষ হচ্ছে খুলনাতেও

পাঁচবার রঙ বদলায় তুলসীমালা, চাষ হচ্ছে খুলনাতেও

মাগুরায় সড়কে নিহত ২

মাগুরায় সড়কে নিহত ২

প্রথমদিনে সারাদেশে লকডাউন মোটামুটি সফল

প্রথমদিনে সারাদেশে লকডাউন মোটামুটি সফল

সুন্দরবনে বাঘের আক্রমণে মৌয়াল নিহত, আহত ১

সুন্দরবনে বাঘের আক্রমণে মৌয়াল নিহত, আহত ১

নববর্ষ উপলক্ষে হিলি ও বেনাপোল দিয়ে আমদানি-রফতানি বন্ধ

নববর্ষ উপলক্ষে হিলি ও বেনাপোল দিয়ে আমদানি-রফতানি বন্ধ

চৌগাছায় দিনে-দুপুরে লক্ষাধিক টাকা ছিনতাই

চৌগাছায় দিনে-দুপুরে লক্ষাধিক টাকা ছিনতাই

আগুনে পুড়লো ২০ বিঘা জমির পানবরজ

আগুনে পুড়লো ২০ বিঘা জমির পানবরজ

নিজেকে জীবিত প্রমাণে সরকারি দফতরে ঘুরছেন হাসিনা বানু

নিজেকে জীবিত প্রমাণে সরকারি দফতরে ঘুরছেন হাসিনা বানু

প্রতিবন্ধী তরুণীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ: গ্রেফতার ২

প্রতিবন্ধী তরুণীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ: গ্রেফতার ২

পোশাকের দোকানে ভিড়, স্বাস্থ্যবিধি মানার বালাই নেই

পোশাকের দোকানে ভিড়, স্বাস্থ্যবিধি মানার বালাই নেই

সর্বশেষ

মামলা নিতে অসহযোগিতার অভিযোগ পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে

স্বর্ণালংকার ছিনিয়ে নেওয়ার পর নারীকে ধর্ষণচেষ্টা  

নারায়ণগঞ্জ ক্লাবের বিরুদ্ধে ভ্যাট ফাঁকির অভিযোগ

নারায়ণগঞ্জ ক্লাবের বিরুদ্ধে ভ্যাট ফাঁকির অভিযোগ

পুকুরে পাওয়া গেলো শুটারগান

পুকুরে পাওয়া গেলো শুটারগান

মিয়ানমারে মসজিদে ঢুকে সেনাদের গুলিবর্ষণ, নিহত ১

মিয়ানমারে মসজিদে ঢুকে সেনাদের গুলিবর্ষণ, নিহত ১

টিসিবির পচা পেঁয়াজ কিনতে বাধ্য করা হচ্ছে ক্রেতাদের!

টিসিবির পচা পেঁয়াজ কিনতে বাধ্য করা হচ্ছে ক্রেতাদের!

শ্রীলঙ্কার গরমে মানিয়ে নিতে যা করতে চায় বাংলাদেশ

শ্রীলঙ্কার গরমে মানিয়ে নিতে যা করতে চায় বাংলাদেশ

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অনুমতি ছাড়া ডিসি-ইউএনওদের আমন্ত্রণ নয়

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অনুমতি ছাড়া ডিসি-ইউএনওদের আমন্ত্রণ নয়

মামুনুলকে খুঁজে পাচ্ছে না পুলিশ

মামুনুলকে খুঁজে পাচ্ছে না পুলিশ

খালেদা জিয়ার সিটি স্ক্যান করানো হবে: চিকিৎসক দল

খালেদা জিয়ার সিটি স্ক্যান করানো হবে: চিকিৎসক দল

ব্যক্তিগত কাজে সরকারি গাড়ি ব্যবহারের অভিযোগ স্বাস্থ্য কর্মকর্তার বিরুদ্ধে

ব্যক্তিগত কাজে সরকারি গাড়ি ব্যবহারের অভিযোগ স্বাস্থ্য কর্মকর্তার বিরুদ্ধে

করোনা পরিস্থিতি, ভারত কিংবা মালদ্বীপে খেলতে হতে পারে আবাহনীকে

করোনা পরিস্থিতি, ভারত কিংবা মালদ্বীপে খেলতে হতে পারে আবাহনীকে

একদিনে দ্বিতীয় ডোজ নিলেন প্রায় ২ লাখ মানুষ

একদিনে দ্বিতীয় ডোজ নিলেন প্রায় ২ লাখ মানুষ

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

কুষ্টিয়ায় পানিতে ডুবে প্রাণ গেলো দুই শিশুর

কুষ্টিয়ায় পানিতে ডুবে প্রাণ গেলো দুই শিশুর

কুড়িয়ে পাওয়া বোমা বিস্ফোরণে শিশু নিহত, আহত ২

কুড়িয়ে পাওয়া বোমা বিস্ফোরণে শিশু নিহত, আহত ২

পাঁচবার রঙ বদলায় তুলসীমালা, চাষ হচ্ছে খুলনাতেও

পাঁচবার রঙ বদলায় তুলসীমালা, চাষ হচ্ছে খুলনাতেও

মাগুরায় সড়কে নিহত ২

মাগুরায় সড়কে নিহত ২

প্রথমদিনে সারাদেশে লকডাউন মোটামুটি সফল

প্রথমদিনে সারাদেশে লকডাউন মোটামুটি সফল

সুন্দরবনে বাঘের আক্রমণে মৌয়াল নিহত, আহত ১

সুন্দরবনে বাঘের আক্রমণে মৌয়াল নিহত, আহত ১

নববর্ষ উপলক্ষে হিলি ও বেনাপোল দিয়ে আমদানি-রফতানি বন্ধ

নববর্ষ উপলক্ষে হিলি ও বেনাপোল দিয়ে আমদানি-রফতানি বন্ধ

চৌগাছায় দিনে-দুপুরে লক্ষাধিক টাকা ছিনতাই

চৌগাছায় দিনে-দুপুরে লক্ষাধিক টাকা ছিনতাই

আগুনে পুড়লো ২০ বিঘা জমির পানবরজ

আগুনে পুড়লো ২০ বিঘা জমির পানবরজ

নিজেকে জীবিত প্রমাণে সরকারি দফতরে ঘুরছেন হাসিনা বানু

নিজেকে জীবিত প্রমাণে সরকারি দফতরে ঘুরছেন হাসিনা বানু

Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.
© 2021 Bangla Tribune