X
বুধবার, ২১ এপ্রিল ২০২১, ৮ বৈশাখ ১৪২৮

সেকশনস

‘বাংলাদেশের মাটিতে পাকিস্তানি যুদ্ধাপরাধীদের বিচার হবে’

আপডেট : ০৩ মার্চ ২০২১, ০৮:০০

(বিভিন্ন সংবাদপত্রে প্রকাশিত তথ্যের ভিত্তিতে বঙ্গবন্ধুর সরকারি কর্মকাণ্ড ও তার শাসনামল নিয়ে মুজিববর্ষ উপলক্ষে ধারাবাহিক প্রতিবেদন প্রকাশ করছে বাংলা ট্রিবিউন। আজ পড়ুন ১৯৭৩ সালের ৩ মার্চের ঘটনা।)

‘পাকিস্তানি যুদ্ধাপরাধীদের বাংলাদেশের মাটিতে বিচার করা হবে। এখন এ ব্যাপারে তদন্ত চলছে। তদন্ত শেষ হওয়ার পর ভারত থেকে তাদের ফিরিয়ে এনে বিচার করা হবে। আন্তর্জাতিক কনভেনশন অনুযায়ী প্রখ্যাত আইনজ্ঞদের দ্বারা এই বিচার অনুষ্ঠিত হবে’—১৯৭৩ সালের এই দিনে একদল সাংবাদিকের সঙ্গে আলাপকালে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে তারা সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে গিয়েছিলেন। প্রথমে জনসভা শেষে প্রধানমন্ত্রী তার হেলিকপ্টারে আরোহণ করার পর এবং পরে ঢাকা বিমানবন্দরে অবতরণের পর ভিআইপি লাউঞ্জে সাংবাদিকদের এই কথা বলেন।

বাসস ও এনা পরিবেশিত এই খবরে বলা হয়, বঙ্গবন্ধু বলেন, ইতিহাসের জঘন্যতম যুদ্ধাপরাধের এই বিচার অত্যাবশ্যক, কেননা, এতে শুধু ন্যায়বিচারের প্রশ্নই নয় মানব জাতির প্রতি পবিত্র দায়িত্বের প্রশ্ন জড়িত। মানবতার খাতিরে এই বিচার করতে হবে। তিনি বলেন, পাকিস্তানিরা যেসব অপরাধ করেছে, ট্রাইব্যুনালে যখন তার বিবরণ পেশ করা হবে বিশ্ববাসী শুনে স্তম্ভিত হয়ে যাবে। দখলদার পাকবাহিনী শুধু ৩০ লাখ লোককে হত্যা করেনি, বহু অক্ষম বৃদ্ধ ও শিশু দেশ ছেড়ে পালানোর সময় অসহনীয় কষ্টে মারা গেছে। দখলদার বাহিনী তাদের মৃত্যুর জন্যও দায়ী।

বাংলাদেশে কোনও বিহারি নেই

এক প্রশ্নের জবাবে বঙ্গবন্ধু বলেন, বাংলাদেশে কোনও বিহারি নেই। বাংলাদেশে শুধু বাঙালি আর পাকিস্তানি রয়েছে। যারা পাকিস্তানে যাওয়ার জন্য অপশন দিয়েছে তারা পাকিস্তানি আর যারা দেড় লাখ লোক বাংলাদেশে থাকার জন্য অপশন দিয়েছে তারা বাংলাদেশের নাগরিক। প্রধানমন্ত্রী বলেন, যেসব অস্থানীয় বাংলাদেশে থাকার জন্য অপশন দিয়েছে বাংলাদেশের নাগরিক হিসেবে তারা চাকরির সুযোগ সুবিধাসহ সব রকম অধিকার ও সুযোগ সুবিধা ভোগ করছে। অপর এক প্রসঙ্গে বঙ্গবন্ধু বলেন, তৎকালীন পাকিস্তানের সংখ্যাগরিষ্ঠ ছিলাম, এখন আমরা একটি স্বাধীন ও সার্বভৌম জাতি। কোনও আন্তর্জাতিক এজেন্সি দ্বারা পাকিস্তানের যদি গণভোট গ্রহণের ব্যবস্থা করা হয় তাহলে পাঠান, বেলুচ ও সিন্ধিরা পাকিস্তানে না থাকার পক্ষে রায় দেবে। জাতীয় সমস্যাগুলোর মধ্যে কোনটি অগ্রগণ্য একজন প্রশ্নকর্তা যা তা জানতে চাইলে বঙ্গবন্ধু বলেন, সমস্ত সমস্যা পরস্পর যুক্ত। সমস্যাগুলো খাদ্য, যোগাযোগ, বন্যা নিয়ন্ত্রণ ও পুনর্বাসন, শিক্ষা প্রভৃতি সংক্রান্ত।

বাঙালিদের আটকে রাখার অধিকার পাকিস্তানের নেই

প্রধানমন্ত্রী বলেন, পাকিস্তানে আটকে পড়া যে ৪ লাখ বাঙালি বাংলাদেশে ফিরে আসার জন্য অপশন দিয়েছে তারা এ দেশের নাগরিক। এসব নিরীহ লোককে আটকে রাখার কোনও অধিকারই পাকিস্তানের নেই। বাংলাদেশে যারা গণহত্যা চালিয়েছে সেই পাকিস্তানি যুদ্ধবন্দিদের পর্যন্ত আন্তর্জাতিক রেডক্রস দেখাশোনা করছে। তারা জেনেভা কনভেনশন অনুযায়ী সমস্ত সুযোগ-সুবিধা পাচ্ছে। অথচ পাকিস্তানে আটক বাঙালিদের কোনও এজেন্সি দেখাশোনা করছে না।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক এজেন্সিগুলোকে পাকিস্তানে যাওয়ার জন্য অপশন দেওয়া ২ লাখ ৬০ হাজার অস্থানীয়কে দেখাশোনা করার অনুমতি দিয়েছে। এসব পাকিস্তানিকে ফিরিয়ে নেওয়ার দায়িত্ব পাকিস্তানের। পাকিস্তানকে অবশ্যই তাদের ফিরিয়ে নিতে হবে। এক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, পাকিস্তান কর্তৃক বাংলাদেশকে স্বীকৃতিদানের কথাবার্তা তিনি শুনে আসছেন। কিন্তু প্রশ্নটা হচ্ছে তিনি পাকিস্তানকে স্বীকার করে কিনা।

বিশ্ববিবেক নীরব কেন

একজন বিদেশি সাংবাদিকদের একটি প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী জানতে চান, বাংলাদেশে যারা গণহত্যা চালালো সেসব পাকিস্তানি যুদ্ধবন্দিদের জন্য যেখানে এতদূর আগ্রহ দেখানো হচ্ছে সেখানে পাকিস্তানে আটক বাঙালিদের স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের প্রশ্নে বিশ্ববিবেক চুপচাপ কেন?

খাদ্য ঘাটতি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, পাকিস্তানিরা আমাদের জন্য বহু সমস্যা সৃষ্টি করে গেছে। একটি জাতিসংঘ এজেন্সির হিসাব অনুযায়ী এ বছর আমাদের খাদ্য ঘাটতির পরিমাণ দাঁড়াবে ২৫ লাখ টনের মতো। এই খাদ্য ঘাটতির ব্যাপারে তিনি উদ্বিগ্ন কিনা জিজ্ঞেস করা হলে প্রধানমন্ত্রী বলেন, জনগণ এবং বিদেশি রাষ্ট্রগুলোর সহযোগিতায় আমরা সমস্ত সমস্যার বিরুদ্ধে দক্ষতার সঙ্গে লড়াই চালাচ্ছি। জাতীয় সংসদ অধিবেশন প্রসঙ্গে জিজ্ঞাসা করা হলে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সংবিধান অনুযায়ী সরকারিভাবে নির্বাচনের ফলাফল ঘোষিত হওয়ার এক মাসের মধ্যে সংসদের অধিবেশন আহ্বান করতে হবে।

 

/এমআর/এমওএফ/

সম্পর্কিত

মূল্য বৃদ্ধির জন্য দায়ী ব্যক্তিদের খুঁজে বের করতে বঙ্গবন্ধুর নির্দেশ

মূল্য বৃদ্ধির জন্য দায়ী ব্যক্তিদের খুঁজে বের করতে বঙ্গবন্ধুর নির্দেশ

‘বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী চুক্তিতে আপত্তিকর কিছু নেই’

‘বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী চুক্তিতে আপত্তিকর কিছু নেই’

বঙ্গবন্ধু কাতরকণ্ঠে  বলেন, মারাত্মক বিপর্যয়

বঙ্গবন্ধু কাতরকণ্ঠে  বলেন, মারাত্মক বিপর্যয়

বাংলাদেশ-পাকিস্তান ইস্যুতে কথা বলতে চাননি দুই কূটনীতিক

বাংলাদেশ-পাকিস্তান ইস্যুতে কথা বলতে চাননি দুই কূটনীতিক

১৯৫ জন যুদ্ধাপরাধীর বিচারের সিদ্ধান্ত

১৯৫ জন যুদ্ধাপরাধীর বিচারের সিদ্ধান্ত

খাদ্য সমস্যা সমাধানে সরকার দৃঢ়প্রতিজ্ঞ, জানালেন বঙ্গবন্ধু

খাদ্য সমস্যা সমাধানে সরকার দৃঢ়প্রতিজ্ঞ, জানালেন বঙ্গবন্ধু

চারদিকে নিশ্চুপ ক্ষুধার্ত মুখ, সর্বোচ্চটা করতে বঙ্গবন্ধুর নির্দেশ

চারদিকে নিশ্চুপ ক্ষুধার্ত মুখ, সর্বোচ্চটা করতে বঙ্গবন্ধুর নির্দেশ

দুখীজনের মাঝে বঙ্গবন্ধু

দুখীজনের মাঝে বঙ্গবন্ধু

বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে বিশ্বব্যাংক প্রতিনিধির বৈঠক

বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে বিশ্বব্যাংক প্রতিনিধির বৈঠক

মামলা হওয়া যুদ্ধবন্দিদের ফেরত পাঠাবে ভারত

মামলা হওয়া যুদ্ধবন্দিদের ফেরত পাঠাবে ভারত

আটক বাঙালিদের ফেরত আনতে বঙ্গবন্ধুর সুনির্দিষ্ট প্রস্তাব

আটক বাঙালিদের ফেরত আনতে বঙ্গবন্ধুর সুনির্দিষ্ট প্রস্তাব

স্বাধীন দেশের প্রথম রাষ্ট্রপতির সংসদে ভাষণ

স্বাধীন দেশের প্রথম রাষ্ট্রপতির সংসদে ভাষণ

সর্বশেষ

শিশুদের ডাটা ব্যবহারে অনিয়ম, আইনি চ্যালেঞ্জের মুখে টিকটক

শিশুদের ডাটা ব্যবহারে অনিয়ম, আইনি চ্যালেঞ্জের মুখে টিকটক

সিলেট থেকে অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট চালু

সিলেট থেকে অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট চালু

স্বাস্থ্যকর্মী ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর উদ্দেশে স্বাস্থ্য অধিদফতরের বার্তা

স্বাস্থ্যকর্মী ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর উদ্দেশে স্বাস্থ্য অধিদফতরের বার্তা

শেয়ার বাজারে টানা ৫ দিন ধরে উত্থান

শেয়ার বাজারে টানা ৫ দিন ধরে উত্থান

ময়মনসিংহের মামলায় রফিকুল মাদানীর একদিনের রিমান্ড

ময়মনসিংহের মামলায় রফিকুল মাদানীর একদিনের রিমান্ড

খালেদা জিয়ার সঙ্গে বাবুুনগরীর কখনও সাক্ষাৎ হয়নি: হেফাজত

খালেদা জিয়ার সঙ্গে বাবুুনগরীর কখনও সাক্ষাৎ হয়নি: হেফাজত

লিপ সার্ভিস না দিয়ে জনগণের পাশে দাঁড়ান: বিএনপিকে কাদের

লিপ সার্ভিস না দিয়ে জনগণের পাশে দাঁড়ান: বিএনপিকে কাদের

হেফাজত নেতা মাওলানা কোরবান আলী রিমান্ডে

হেফাজত নেতা মাওলানা কোরবান আলী রিমান্ডে

পাল্লেকেলেতে দ্বিতীয় সেশনেও বাংলাদেশের আধিপত্য

পাল্লেকেলেতে দ্বিতীয় সেশনেও বাংলাদেশের আধিপত্য

লকডাউনে ৬ বেঞ্চে চলবে হাইকোর্টের বিচারিক কাজ: সুপ্রিম কোর্ট

লকডাউনে ৬ বেঞ্চে চলবে হাইকোর্টের বিচারিক কাজ: সুপ্রিম কোর্ট

তৃতীয় সন্তান নিলেই কারাদণ্ড, দাবি কঙ্গনার

তৃতীয় সন্তান নিলেই কারাদণ্ড, দাবি কঙ্গনার

রফিকুল ইসলাম মাদানীর ফের ৪ দিনের রিমান্ড

রফিকুল ইসলাম মাদানীর ফের ৪ দিনের রিমান্ড

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মূল্য বৃদ্ধির জন্য দায়ী ব্যক্তিদের খুঁজে বের করতে বঙ্গবন্ধুর নির্দেশ

মূল্য বৃদ্ধির জন্য দায়ী ব্যক্তিদের খুঁজে বের করতে বঙ্গবন্ধুর নির্দেশ

‘বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী চুক্তিতে আপত্তিকর কিছু নেই’

‘বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী চুক্তিতে আপত্তিকর কিছু নেই’

বঙ্গবন্ধু কাতরকণ্ঠে  বলেন, মারাত্মক বিপর্যয়

বঙ্গবন্ধু কাতরকণ্ঠে  বলেন, মারাত্মক বিপর্যয়

বাংলাদেশ-পাকিস্তান ইস্যুতে কথা বলতে চাননি দুই কূটনীতিক

বাংলাদেশ-পাকিস্তান ইস্যুতে কথা বলতে চাননি দুই কূটনীতিক

১৯৫ জন যুদ্ধাপরাধীর বিচারের সিদ্ধান্ত

১৯৫ জন যুদ্ধাপরাধীর বিচারের সিদ্ধান্ত

খাদ্য সমস্যা সমাধানে সরকার দৃঢ়প্রতিজ্ঞ, জানালেন বঙ্গবন্ধু

খাদ্য সমস্যা সমাধানে সরকার দৃঢ়প্রতিজ্ঞ, জানালেন বঙ্গবন্ধু

চারদিকে নিশ্চুপ ক্ষুধার্ত মুখ, সর্বোচ্চটা করতে বঙ্গবন্ধুর নির্দেশ

চারদিকে নিশ্চুপ ক্ষুধার্ত মুখ, সর্বোচ্চটা করতে বঙ্গবন্ধুর নির্দেশ

দুখীজনের মাঝে বঙ্গবন্ধু

দুখীজনের মাঝে বঙ্গবন্ধু

বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে বিশ্বব্যাংক প্রতিনিধির বৈঠক

বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে বিশ্বব্যাংক প্রতিনিধির বৈঠক

মামলা হওয়া যুদ্ধবন্দিদের ফেরত পাঠাবে ভারত

মামলা হওয়া যুদ্ধবন্দিদের ফেরত পাঠাবে ভারত

Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.
© 2021 Bangla Tribune