X
সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১, ৫ বৈশাখ ১৪২৮

সেকশনস

এলপিজি মাদার টার্মিনাল নির্মাণে শিগগিরই সমঝোতা স্মারক সই

আপডেট : ০৯ মার্চ ২০২১, ০০:২৮

বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশনের (বিপিসি) সঙ্গে তরলীকৃত পেট্রোলিয়াম গ্যাসের (এলপিজি) মাদার টার্মিনাল নির্মাণের জন্য শিগগিরই সমঝোতা স্মারক সই হতে যাচ্ছে। জ্বালানি বিভাগের সিনিয়র কর্মকর্তা সূত্রে এ খবর জানা গেছে। মহেশখালীতে টার্মিনালটি যৌথভাবে বিপিসি, মারুবিনি এবং ভিটল পাওয়ারকো নির্মাণ করবে।

জ্বালানি বিভাগের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কর্মকর্তা জানান, বিপিসি সমঝোতা স্মারক সই করার জন্য অনুমোদন চেয়েছিল। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত ৩ মার্চ অনুমোদন দিয়েছিলেন। সোমবার (৮ মার্চ) প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদনের চিঠি জ্বালানি বিভাগে এসেছে।

জ্বালানি বিভাগ সূত্র বলছে, টার্মিনালটি নির্মাণ হলে টন প্রতি এলপিজির পরিবহন ব্যয় কমবে ৪০ ডলারের মতো। এতে গ্রাহকের কাছে আরও সাশ্রয়ী দরে এলপিজি পৌঁছানো যাবে। এখন এলপিজি পরিবহনের জন্য টনপ্রতি ব্যয় হচ্ছে সর্বোচ্চ ১১০ ডলার পর্যন্ত। এই টার্মিনাল নির্মাণ হলে এলপিজি পরিবহন ব্যয় নেমে আসবে ৬৫ ডলারে।

প্রকল্পটির নির্মাণ ব্যয় হবে ৩০৫ মিলিয়ন ডলার। প্রকল্পটিতে বিপিসি এবং ভিটল পাওয়ারকোর ৩০ শতাংশ করে ৬০ শতাংশ এবং মারুবিনির ৪০ শতাংশ অংশীদারিত্ব থাকছে। প্রকল্পটি আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরুর ১০ বছর পর বিপিসির কাছে শতভাগ শেয়ার হস্তান্তর করবে ভিটল এবং মারুবিনি। অর্থাৎ তখন প্রকল্পটির পুরো মালিকানা সরকারের হাতে চলে আসবে।

বিপিসি সূত্র জানায়, প্রস্তাবিত এলপিজি টার্মিনালের অপারেশন ক্ষমতা হবে বার্ষিক প্রায় ১০ থেকে ১২ লাখ মেট্রিক টন। টার্মিনালের জেটিতে প্রায় ৪০ হাজার মেট্রিক টন ধারণ ক্ষমতার এলপি গ্যাসবাহী জাহাজ নোঙর করার ব্যবস্থা থাকবে। টার্মিনালের মজুত ক্ষমতা হবে ন্যূনতম ৫০ হাজার মেট্রিক টন। এখান থেকে প্রায় এক হাজার ৫০০ থেকে চার হাজার মেট্রিক টন ধারণ ক্ষমতাসম্পন্ন জাহাজ দিয়ে দেশের এলপি গ্যাস কোম্পানিতে সরবরাহ করা হবে।

জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ সম্প্রতি সাংবাদিকদের বলেন, এতে করে এলপিজি ব্যবসা সরকারের নিয়ন্ত্রণে চলে আসবে। সরকার বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে এলপিজি কিনবে এবং বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কাছে এলপিজি সরবরাহ করবে। এতে যেহেতু পরিবহন ব্যয় কমে আসবে তাই গ্রাহক কম দামে এলপিজি পাবে। গ্রাহকের সেবা করাই সরকারের প্রধান উদ্দেশ্য বলে জানান তিনি।

বর্তমানে দেশে ২৭টি এলপিজি বোতলজাতকরণ কারখানা রয়েছে। এরমধ্যে ২৭টির জেটি থাকলেও বাকিগুলোর নেই। দেশে আরও ছয়টি এলপিজি বোটলিং প্ল্যাট শিগগিরই উৎপাদনে আসবে। আমদানির সুযোগ সুবিধাসম্পন্ন এলপিজি বোটলিং প্ল্যাটগুলো মোংলায় এবং চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে অবস্থিত। এখানে নদীর গভীরতা কম হওয়ায় বড় আকারের জেটি নির্মাণ করা সম্ভব নয়। এজন্য সব কোম্পানি ছোট আকারের জাহাজে এলপিজি আমদানি করে। যাতে পরিবহন ব্যয় বেড়ে যায়। এই বাড়তি পরিবহন ব্যয়ও যোগ হয়ে যায় গ্রাহকের দামের সঙ্গে।

/এমআর/

সর্বশেষ

‘আগামী ৪৮ ঘন্টা জ্বর না আসলে খালেদা জিয়া শঙ্কামুক্ত হবেন’

‘আগামী ৪৮ ঘন্টা জ্বর না আসলে খালেদা জিয়া শঙ্কামুক্ত হবেন’

টর্নেডো ইনিংসে দিল্লির নায়ক ধাওয়ান

টর্নেডো ইনিংসে দিল্লির নায়ক ধাওয়ান

সোয়া কোটি মানুষের জন্য মোটে ২৬টি আইসিইউ বেড!

সোয়া কোটি মানুষের জন্য মোটে ২৬টি আইসিইউ বেড!

ভিপি নুরের বিরুদ্ধে তথ্য-প্রযুক্তি আইনে মামলা

ভিপি নুরের বিরুদ্ধে তথ্য-প্রযুক্তি আইনে মামলা

লন্ডনে তালা ভেঙে অর্থমন্ত্রী মুস্তফা কামালের জামাতার লাশ উদ্ধার

লন্ডনে তালা ভেঙে অর্থমন্ত্রী মুস্তফা কামালের জামাতার লাশ উদ্ধার

ডিবি কার্যালয়ে মামুনুল হক

ডিবি কার্যালয়ে মামুনুল হক

করোনায় বিপর্যস্ত ভারত, মোদিকে মনমোহনের ৫ পরামর্শ

করোনায় বিপর্যস্ত ভারত, মোদিকে মনমোহনের ৫ পরামর্শ

ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে ভিক্ষুক নিহত

ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে ভিক্ষুক নিহত

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

প্রণোদনা প্যাকেজের একটা অংশ ‘অনুদান’ হিসেবে চান ব্যবসায়ীরা

প্রণোদনা প্যাকেজের একটা অংশ ‘অনুদান’ হিসেবে চান ব্যবসায়ীরা

আবারও দোকান খুলে দেওয়ার দাবি মালিক সমিতির 

আবারও দোকান খুলে দেওয়ার দাবি মালিক সমিতির 

বাংলাদেশে ‘সিকেডি প্ল্যান্ট’ স্থাপন করবে মিতসুবিশি

বাংলাদেশে ‘সিকেডি প্ল্যান্ট’ স্থাপন করবে মিতসুবিশি

কান ধরে ব্যবসা ছেড়ে দিতে চাই, বললেন অ্যাপেক্স এমডি

কান ধরে ব্যবসা ছেড়ে দিতে চাই, বললেন অ্যাপেক্স এমডি

নির্ধারিত দামে এলপিজি বিক্রি মনিটরিং করবে জ্বালানি মন্ত্রণালয়

নির্ধারিত দামে এলপিজি বিক্রি মনিটরিং করবে জ্বালানি মন্ত্রণালয়

Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.
© 2021 Bangla Tribune