X
শনিবার, ১৫ মে ২০২১, ৩১ বৈশাখ ১৪২৮
Bangla Tribune Eid

সেকশনস

এস আলমের বিদ্যুৎকেন্দ্রে সংঘর্ষ, ৫ জন নিহত

আপডেট : ১৭ এপ্রিল ২০২১, ২৩:৫৭

চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার গন্ডামারা এলাকায় এস আলম গ্রুপের কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্রে শ্রমিকদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষে পাঁচ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও অন্তত ২৩ জন। শনিবার (১৭ এপ্রিল) সকালে বেতন-ভাতাসহ বিভিন্ন দাবি নিয়ে শ্রমিকরা আন্দোলন শুরু করলে পুলিশের সঙ্গে এ সংঘর্ষ হয়। পুলিশ ও শ্রমিকরা সহিংসতার জন্য পরস্পরকে দায়ী করছেন। এলাকাবাসীও শ্রমিকদের সঙ্গে আন্দোলনে যোগ দিয়েছিলেন বলে একাধিক সূত্রে জানা গেছে।

নিহতরা হলেন আহমদ রেজা (১৮), রনি হোসেন (২২), শুভ (২৪), মো. রাহাত (২৪) ও রায়হান (২৫)। তারা সবাই শ্রমিক নাকি এলাকাবাসীও রয়েছেন তা প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত করা যায়নি।

. এর আগে ২০১৬ সালের ৪ এপ্রিল বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপনকে কেন্দ্র করে গ্রামবাসীদের দুটি পক্ষ ও পুলিশের মধ্যে সংঘর্ষে চার জন নিহত হন। বাঁশখালী উপজেলার গন্ডামারা এলাকায় দেশের শীর্ষস্থানীয় শিল্প প্রতিষ্ঠান এস আলম গ্রুপ কয়লাভিত্তিক এই বিদ্যুৎকেন্দ্রটি স্থাপন করছে। এখনও এর নির্মাণকাজ শেষ হয়নি। 

বাঁশখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইদুজ্জামান চৌধুরী বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে আমি জানতে পেরেছি, বিদ্যুৎকেন্দ্রে শ্রমিকরা বেতনভাতা নিয়ে বিক্ষোভ করেন। ওই বিক্ষোভের জের ধরে সংঘর্ষে পাঁচ জন নিহত হয়েছেন। সংঘর্ষে স্থানীয় গ্রামবাসীও অংশ নেয়। নিহতরা শ্রমিক নাকি গ্রামবাসী, তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।’

স্থানীয় একটি সূত্র জানিয়েছে, সংঘর্ষে আরও অন্তত ২৩ জন আহত হয়েছেন। তাদের বেশিরভাগই গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। হতাহতের হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়িতে কর্মরত এএসআই আলাউদ্দিন তালুকদার বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, 'বাঁশখালীর ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১৪ জনকে হাসপাতালে আনা হয়েছে। তাদের অধিকাংশের শরীরে গুলির আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এদের মধ্যে গুলিবিদ্ধ একজনকে হাসপাতালে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেছেন। তার নাম রায়হান। তিনি নোয়াখালীর হাতিয়া উপজেলার আদর্শ গ্রামের আবদুল মতিনের ছেলে।'

শ্রমিকরা বলছেন, নিজেদের দাবি নিয়ে শুক্রবারও তারা আন্দোলন করেছেন। শনিবার সকালে আবার বিক্ষোভ করতে জড়ো হলে পুলিশ তাদের ওপর চড়াও হয়। এক পর্যায়ে গুলি চালায়। তবে পুলিশের ভাষ্য, শ্রমিকরা আগুন জ্বালিয়ে সহিংসতা শুরু করে এবং পুলিশ সদস্যদের লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল ছোড়ে। ফলে বাধ্য হয়ে গুলি চালায় তারা। 

বাঁশখালী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আজিজুল ইসলাম বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘সকালে শ্রমিকরা বিক্ষোভ শুরু করলে পুলিশ তাদের থামানোর চেষ্টা করে। এ সময় তারা পুলিশের ওপর হামলা করলে পুলিশ আত্মরক্ষার্থে গুলি চালাতে বাধ্য হয়। শ্রমিকদের হামলায় আমাদের তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন।’

চট্টগ্রাম রেঞ্জ ডিআইজি আনোয়ার হোসেন বলেন, ‘পুলিশ কখনও আগে গুলি করে না। গন্ডামারায় শনিবার কেন সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে, সেটি জানতে পুলিশের পক্ষ থেকে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তাদের সাত দিনের মধ্যে প্রতিবেদন প্রদান করার নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে। প্রতিবেদনে সংঘর্ষের মূল কারণ উঠে আসবে।’

/আইএ/এফএস/

সম্পর্কিত

আসামের হিমন্তকে অভিনন্দনে শেখ হাসিনার কুশলী কূটনীতি

আসামের হিমন্তকে অভিনন্দনে শেখ হাসিনার কুশলী কূটনীতি

গাজায় ইসরায়েলি বর্বরতা (ফটো স্টোরি)

গাজায় ইসরায়েলি বর্বরতা (ফটো স্টোরি)

ঈদের দিনেও ঠায় দাঁড়িয়ে ডিউটিতে যারা

ঈদের দিনেও ঠায় দাঁড়িয়ে ডিউটিতে যারা

নিখোঁজ, কারাবন্দি ও করোনায় মৃত নেতাকর্মীদের বাসায় বিএনপি নেতারা

নিখোঁজ, কারাবন্দি ও করোনায় মৃত নেতাকর্মীদের বাসায় বিএনপি নেতারা

ইউনিফর্মেই তাদের ঈদ আনন্দ

ইউনিফর্মেই তাদের ঈদ আনন্দ

বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরতে বেরিয়ে প্রাণ গেলো কিশোরের

বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরতে বেরিয়ে প্রাণ গেলো কিশোরের

মহীসোপান নিয়ে মিয়ানমার ও ভারতের বিরোধিতার ভিত্তি নেই

মহীসোপান নিয়ে মিয়ানমার ও ভারতের বিরোধিতার ভিত্তি নেই

‘জন্মগত কালো’কে সাদা করে দেওয়ার রমরমা ব্যবসা!

‘জন্মগত কালো’কে সাদা করে দেওয়ার রমরমা ব্যবসা!

ঈদে স্বজনদের সঙ্গে বাড়তি কথা বলার সুযোগ পেলেন বন্দিরা

ঈদে স্বজনদের সঙ্গে বাড়তি কথা বলার সুযোগ পেলেন বন্দিরা

কোয়ারেন্টিনে থাকা ভারতফেরত ২৫২ জনের মাঝে খাদ্য বিতরণ

কোয়ারেন্টিনে থাকা ভারতফেরত ২৫২ জনের মাঝে খাদ্য বিতরণ

২ মাস পর শনাক্ত হাজারের নিচে

২ মাস পর শনাক্ত হাজারের নিচে

নেতা চলে যাওয়ার পর ফাঁকা

নেতা চলে যাওয়ার পর ফাঁকা

সর্বশেষ

ঈদের দ্বিতীয় দিন: গান শোনাবেন তারা...

ঈদের দ্বিতীয় দিন: গান শোনাবেন তারা...

অক্সিজেন লাগবে, অক্সিজেন?

অক্সিজেন লাগবে, অক্সিজেন?

শনিবার সারপ্রাইজ: মুখোমুখি বসছেন তাহসান-মিথিলা!

শনিবার সারপ্রাইজ: মুখোমুখি বসছেন তাহসান-মিথিলা!

ইন্টারনেটের আওতায় মহেশখালীর ৫০ হাজার মানুষ

ডিজিটাল উপকূল-৫ইন্টারনেটের আওতায় মহেশখালীর ৫০ হাজার মানুষ

ঈদের দ্বিতীয় দিন: ভিন্ন আয়োজনে ‘ইত্যাদি’ ও অন্যান্য

ঈদের দ্বিতীয় দিন: ভিন্ন আয়োজনে ‘ইত্যাদি’ ও অন্যান্য

রংপুর মেডিক্যালে ঈদে রোগীদের চিকিৎসাসেবা না পাওয়ার অভিযোগ

রংপুর মেডিক্যালে ঈদে রোগীদের চিকিৎসাসেবা না পাওয়ার অভিযোগ

ঈদের দ্বিতীয় দিন: যত নাটক টেলিছবি ও স্বল্পদৈর্ঘ্য

ঈদের দ্বিতীয় দিন: যত নাটক টেলিছবি ও স্বল্পদৈর্ঘ্য

আসামের হিমন্তকে অভিনন্দনে শেখ হাসিনার কুশলী কূটনীতি

আসামের হিমন্তকে অভিনন্দনে শেখ হাসিনার কুশলী কূটনীতি

গাজায় ইসরায়েলি বর্বরতা (ফটো স্টোরি)

গাজায় ইসরায়েলি বর্বরতা (ফটো স্টোরি)

ঈদের দিনেও ঠায় দাঁড়িয়ে ডিউটিতে যারা

ঈদের দিনেও ঠায় দাঁড়িয়ে ডিউটিতে যারা

কর্মচারীদের গাফিলতিতে হাসপাতাল থেকে পালায় করোনা রোগীরা

কর্মচারীদের গাফিলতিতে হাসপাতাল থেকে পালায় করোনা রোগীরা

ঘরে গৃহবধূর মরদেহ ফেলে রেখে পালালো শ্বশুরবাড়ির লোকজন

ঘরে গৃহবধূর মরদেহ ফেলে রেখে পালালো শ্বশুরবাড়ির লোকজন

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ঈদের দিনেও ঠায় দাঁড়িয়ে ডিউটিতে যারা

ঈদের দিনেও ঠায় দাঁড়িয়ে ডিউটিতে যারা

বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরতে বেরিয়ে প্রাণ গেলো কিশোরের

বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরতে বেরিয়ে প্রাণ গেলো কিশোরের

কোয়ারেন্টিনে থাকা ভারতফেরত ২৫২ জনের মাঝে খাদ্য বিতরণ

কোয়ারেন্টিনে থাকা ভারতফেরত ২৫২ জনের মাঝে খাদ্য বিতরণ

নীলাচলে লেগেছে প্রকৃতির ছোঁয়া

নীলাচলে লেগেছে প্রকৃতির ছোঁয়া

ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের প্রথমবারের মতো খুশির ঈদ

ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের প্রথমবারের মতো খুশির ঈদ

ফিলিস্তিনিদের ওপর ইসরায়েলি হামলার প্রতিবাদে রাঙামাটিতে বিক্ষোভ

ফিলিস্তিনিদের ওপর ইসরায়েলি হামলার প্রতিবাদে রাঙামাটিতে বিক্ষোভ

ইসরায়েলি সন্ত্রাস বন্ধে পদক্ষেপ নিতে বিশ্ব সম্প্রদায়ের প্রতি বাবুনগরীর আহ্বান

ইসরায়েলি সন্ত্রাস বন্ধে পদক্ষেপ নিতে বিশ্ব সম্প্রদায়ের প্রতি বাবুনগরীর আহ্বান

মেঘনায় নিখোঁজের তিন দিন পর লাশ উদ্ধার

মেঘনায় নিখোঁজের তিন দিন পর লাশ উদ্ধার

বাবুলের বাবার দাবি, বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কের বিষয়টি জানতো না পরিবার

বাবুলের বাবার দাবি, বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কের বিষয়টি জানতো না পরিবার

নোয়াখালীর তিন গ্রামে ঈদ উদযাপন

নোয়াখালীর তিন গ্রামে ঈদ উদযাপন

© 2021 Bangla Tribune