X
মঙ্গলবার, ০৩ আগস্ট ২০২১, ১৯ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

মির্জা আব্বাসের কাছে ব্যাখ্যা চেয়েছে বিএনপি

আপডেট : ২২ এপ্রিল ২০২১, ১৯:২৫

দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসের কাছে ব্যাখ্যা চেয়ে চিঠি দিয়েছে বিএনপি। বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের পক্ষে মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সই করা চিঠিটি তার কাছে পৌঁছানো হয়েছে। বিএনপির স্থায়ী কমিটির একাধিক সদস্য বাংলা ট্রিবিউনকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তবে দলীয়ভাবে ‘অতি-গোপনীয় ও সেনসেটিভ হওয়ার’ কারণে কোনও নেতাই এ নিয়ে উদ্ধৃত হতে রাজি হননি।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির একাধিক সদস্য জানিয়েছেন, দলের সাংগঠনিক সম্পাদক এম ইলিয়াস আলী নিখোঁজের ৯ বছর উপলক্ষে গত শনিবার (১৭ এপ্রিল) অনুষ্ঠিত ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় দেওয়া বক্তব্যের ব্যাখ্যা জানতে চিঠি দেওয়া হয়েছে মির্জা আব্বাসকে। বৃহস্পতিবার চিঠি ইস্যু করা হয়। আজই তার কাছে এ চিঠি পৌঁছানো হবে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিকাল পৌনে চারটার দিকে বাংলা ট্রিবিউনকে মির্জা আব্বাস বলেন, ‘আমি চিঠি পাইনি।’ আজকে ইস্যু করা হয়েছে চিঠি এমনটা উল্লেখ করা হলে  তিনি বলেন, ‘নাহ, না তো।’

পরে বিকাল সাড়ে পাঁচটার দিকে বাংলা ট্রিবিউনকে ফোন করে মির্জা আব্বাস বলেন, ‘আমি অ্যাকচুয়ালি কোনও চিঠি আশা করি না। কোনও চিঠিপত্র, যাই হোক। যদি সেটা হয়েই যায়, হুমম, তাহলে আমার জন্য দুর্ভাগ্যজনক হবে আরকি।’

সেক্ষেত্রে আপনার ভূমিকা কী হবে প্রশ্নে মির্জা আব্বাস বলেন, ‘তাহলে সেটা জানবেন। ওরকম কিছু হলে জানবেন।’

পরে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুলকে ফোন করা হলে তিনি মিটিংয়ে আছেন বলে জানান। 

বিএনপির স্থায়ী কমিটির একাধিক সদস্য বলছেন, ইলিয়াস আলী গুমসহ সারা দেশে বিএনপির অন্তত চার শতাধিক নেতাকর্মী গুমের পেছনে গত ১০ বছর ধরে দলীয়ভাবে আওয়ামী লীগ সরকারের প্রতিই অভিযোগ করা হয়েছে। অনেকটা হঠাৎ করে ‘নতুন তথ্য’ সামনে আনলেন মির্জা আব্বাস। দলের ‘পলিসি মেকার’ হিসেবে তার বক্তব্য বিগত দিনে দলের অবস্থানকেই প্রথমত অভিযুক্ত করা হয়েছে। দ্বিতীয়ত, আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠনগুলো বরাবরই গুম-খুনের পেছনে বর্তমান সরকারকেই দায়ী করে আসছে। সেদিক থেকেও আন্তর্জাতিকভাবে বিএনপি সম্পর্কে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয়েছে। সে কারণে মির্জা আব্বাসের অবস্থান বিএনপির দলীয় কোনও অবস্থান নয়, এই বার্তা দিতেই তাকে চিঠি দেওয়া হয়েছে।

দলের স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্যের যুক্তি, মির্জা আব্বাসের বক্তব্যের পর যদি দলীয়ভাবে অবস্থান স্পষ্ট না করা হয়, তাতে অন্য সিনিয়র নেতাদের মধ্যেও অসন্তোষ সৃষ্টি হবে। বিশেষ করে গত বছরের ১৪ ডিসেম্বর দুই ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ ও শওকত মাহমুদকে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ এনে চিঠি দিয়েছিল বিএনপি। সেদিক বিবেচনায় নিয়েও মির্জা আব্বাসের বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে ব্যাখ্যার দাবি রাখে।

যদিও গত শনিবার ভার্চুয়াল সভার বক্তব্যের বিষয়ে গণমাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশ হলে পরদিন নিজের শাজাহানপুরের বাড়িতে সাংবাদিকদের ডেকে নিয়ে ব্যাখ্যা করেন মির্জা আব্বাস। সেখানে তিনি বলেন, ‘‘আমি গতকাল ইলিয়াস আলীর গুম দিবসে বক্তব্য রেখেছি। বক্তব্য দেওয়ার একঘণ্টার মধ্যে ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া, প্রিন্ট মিডিয়া ফোন করেছে। আমি তো বুঝতেই পারলাম না, আমি আবার কী কথা বললাম। আমি নিউজ দেখি নাই। তো, বাংলা ট্রিবিউন লিখেছে, ‘মির্জা আব্বাসের সাত ঘণ্টার মধ্যে ইউটার্ন।’ মির্জা আব্বাসরা ইউটার্ন নিতে শেখে নাই, সত্য কথা বলতে শিখেছে। আমরা কখনও ইউটার্ন নিই না। বাস্তবটা বলি। আপনারা যদি সেই বাস্তবটাকে পেঁচিয়ে তুলে ধরেন, আমার তো কিছু করার নাই।’ (‘মির্জা আব্বাস ইউটার্ন নিতে শেখে নাই’) স্থায়ী কমিটির একজন সদস্য বলেন, মির্জা আব্বাসের বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে বিএনপির নেতাকর্মীরা যে নিখোঁজ, সেটিও প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে। সেজন্যই তার বক্তব্য যে ‘তার নিজেরই কেবল’ সেটি পরিষ্কার করতেই ব্যাখ্যা চাওয়া হয়েছে।’

মির্জা আব্বাসের মতো প্রভাবশালী নেতাকে ব্যাখ্যা চেয়ে দেওয়া চিঠির প্রতিক্রিয়া কেমন হতে পারে, এমন প্রশ্নে স্থায়ী কমিটির একাধিক সদস্য বলেন, ‘মির্জা আব্বাস বিএনপির একজন নেতা। দলীয়ভাবে তার বক্তব্যের ব্যাখ্যা পাওয়া গেলে, শোকজ করা না হলে স্বয়ং দলের নেতৃত্বই প্রশ্নবিদ্ধ হয়।’

বিএনপির দায়িত্বশীল ও নির্ভরযোগ্য একাধিক সূত্রে জানা গেছে, মির্জা আব্বাসকে পাঠানো চিঠিতে গত শনিবার ‘ইলিয়াস আলী গুমের বিষয়ে’ দেওয়া বক্তব্যের বিষয়ে তার ব্যাখ্যা চাওয়া হয়েছে। তার এই বক্তব্যের কারণে জাতীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে যে রাজনৈতিক ক্ষতির শিকার হয়েছে বিএনপি, তাকে উপজীব্য করে আগামী তিন দিনের মধ্যে দলের মহাসচিবের কাছে ব্যাখ্যা জানাতে বলা হয়েছে।

চিঠির বিষয়ে বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে চারটার দিকে জানতে চাইলে স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আমি এ বিষয়টি শুনিনি’। এছাড়া, দফতরের দায়িত্বপ্রাপ্ত কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এমরান সালেহ প্রিন্সকে একাধিকবার ফোন করা হলেও তিনি রেসপন্স করেননি।

টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন মির্জা আব্বাস

মির্জা আব্বাসের সহকারী সোহেল বাংলা ট্রিবিউনকে জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার মির্জা আব্বাস ও তার স্ত্রী আফরোজা আব্বাস করোনা টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন।

/এপিএইচ/এমওএফ/

সম্পর্কিত

ঢাকায় বিএনপির নতুন কমিটি: ওপরে উষ্ণতা, ভেতরে আক্ষেপ

ঢাকায় বিএনপির নতুন কমিটি: ওপরে উষ্ণতা, ভেতরে আক্ষেপ

জিয়াউর রহমানকে সম্পৃক্ত করতেই ‘নতুন গীত’ গাইছে সরকার: ফখরুল

জিয়াউর রহমানকে সম্পৃক্ত করতেই ‘নতুন গীত’ গাইছে সরকার: ফখরুল

‘গায়েবি মামলার মতো গায়েবি বেড, রোগী উড়ে যাচ্ছে’

‘গায়েবি মামলার মতো গায়েবি বেড, রোগী উড়ে যাচ্ছে’

করোনা নিয়ে সরকার মিথ্যা তথ্য দিচ্ছে: মির্জা ফখরুল

করোনা নিয়ে সরকার মিথ্যা তথ্য দিচ্ছে: মির্জা ফখরুল

মির্জা ফখরুলের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন বিএনপির ঢাকা মহানগরের নেতারা

আপডেট : ০৩ আগস্ট ২০২১, ০০:৫৮

সাক্ষাৎ করতে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বাসায় যাবেন ঢাকা মহানগর বিএনপির নব মনোনীত নেতারা। মঙ্গলবার (৩ আগস্ট) সকাল ১১টায় রাজধানীর উত্তরার বাসভবনে যাবেন তারা।

সোমবার (২ আগস্ট) রাত পৌনে ১২টার দিকে বাংলা ট্রিবিউনকে এ তথ্য জানান বিএনপির চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইং সদস্য শায়রুল কবির খান।

এর আগে, রবিবার বিকালে বিএনপি’র মেয়াদোত্তীর্ণ ঢাকা মহানগর দক্ষিণ এবং ঢাকা মহানগর উত্তর শাখার নির্বাহী কমিটি বিলুপ্ত করে নতুন আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়। ঢাকা দক্ষিণে আহ্বায়ক আবদুস সালাম ও উত্তরে আহ্বায়ক হয়েছেন আমান উল্লাহ আমান। দক্ষিণে সদস্য সচিব করা হয়েছে রফিকুল আলম মজনু ও আমিনুল হককে উত্তরের। ৪৯ জন বিশিষ্ট দক্ষিণ ও ৪৭ জন বিশিষ্ট উত্তরের কমিটিতে মাত্র তিন-চারজন নারী সদস্য মনোনীত হয়েছেন।

শায়রুল কবির খান বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের আহ্বায়ক কমিটির দুই আহ্বায়ক ও দুই সদস্য সচিবসহ কমিটির সিনিয়র কয়েকজন নেতা বিএনপির মহাসচিবের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে মঙ্গলবার সকাল ১১টায় উত্তরায় তার বাসায় যাবেন।

আরও পড়ুন: ঢাকায় বিএনপির নতুন কমিটি: ওপরে উষ্ণতা, ভেতরে আক্ষেপ

/এসটিএস/এনএইচ/

সম্পর্কিত

ঢাকায় বিএনপির নতুন কমিটি: ওপরে উষ্ণতা, ভেতরে আক্ষেপ

ঢাকায় বিএনপির নতুন কমিটি: ওপরে উষ্ণতা, ভেতরে আক্ষেপ

সবাইকে দ্রুত টিকা দেওয়ার আহ্বান চরমোনাই পীরের

সবাইকে দ্রুত টিকা দেওয়ার আহ্বান চরমোনাই পীরের

বিএনপির ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের আহ্বায়ক কমিটি গঠন

বিএনপির ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের আহ্বায়ক কমিটি গঠন

জিয়াউর রহমানকে সম্পৃক্ত করতেই ‘নতুন গীত’ গাইছে সরকার: ফখরুল

জিয়াউর রহমানকে সম্পৃক্ত করতেই ‘নতুন গীত’ গাইছে সরকার: ফখরুল

ঢাকায় বিএনপির নতুন কমিটি: ওপরে উষ্ণতা, ভেতরে আক্ষেপ

আপডেট : ০৩ আগস্ট ২০২১, ০০:৩২

বিএনপির ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণে মনোনীত নতুন আহ্বায়ক কমিটিকে কেন্দ্র করে দলে মিশ্র প্রতিক্রিয়া তৈরি হয়েছে। সোমবার (২ আগস্ট) বিকালে কমিটি ঘোষণা আসার পর দুই আহ্বায়ক ও দুই সদস্য সচিবের বাসায় নেতাকর্মীরা ভিড় করলেও দলের মধ্যে নানা আক্ষেপ শুরু হয়েছে। বিশেষ করে দক্ষিণের সদস্য সচিব রফিকুল আলম মজনু ও উত্তরের সদস্য সচিব আমিনুল ইসলামকে কেন্দ্র করে এই ক্ষোভ তৈরি হয়েছে অনেক বেশি। তবে কমিটি ঘোষণার পর সোমবার সন্ধ্যা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ছিল উষ্ণ পরিবেশ। নেতাকর্মীদের অবস্থান ও কার্যালয়ের সামনে পুলিশ ও গোয়েন্দাদের অবস্থানকে ঘিরে এ পরিস্থিতি দেখা যায় সরেজমিনে।

সালামের বাসায় ভিড়, মজনু গেলেন নয়া পল্টনে

সরেজমিনে সোমবার সন্ধ্যা সাতটার দিকে রাজধানীর নয়া পল্টনে দেখা যায়, কমিটির ঘোষণা আসার পরই বিএনপির কেন্দ্রীয় কাযালয়ের সামনে অবস্থান নেয় পুলিশ ও গোয়েন্দাবাহিনীর সদস্যরা। পথচারী ও ফুটপাত দিয়ে হেঁটে যাওয়া অনেককেই পড়তে হয়েছে তাদের জিজ্ঞাসাবাদের মুখে।

রাত ৮টা ২০ মিনিটের দিকে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আসেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সদস্য সচিব রফিকুল আলম মজনু। গাড়ি থেকে নেমেই নেতাকমীদের উদ্দেশে তার মন্তব্য, ‘কেউ বাইরে থাকবেন না। সবাই অফিসে চলে আসেন।’ এর আগে রাত পৌনে ৮টার দিকে রফিকুল আলম মজনু শান্তিনগরে কমিটির আহ্বায়ক আব্দুস সালামের বাসায় যান। সেখানে তারা সালামের বাসভবনের পঞ্চম তলায় একান্তে কিছু সময় কথা বলেন।

বিএনপি মহানগর দক্ষিণের আহ্বায়ক আব্দুস সালাম ও সদস্য সচিব রফিকুল আলম মজনু
ওই সময় আবদুস সালামের বাসায় অন্তত শতাধিক নেতাকর্মী ও মহানগর দক্ষিণের বিভিন্ন এলাকার বিএনপি, যুবদল, ছাত্রদল, স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতাকর্মীরা ভিড় করেন। কেউ কেউ ফুলের তোড়া, কেউ হাতে মিষ্টি নিয়ে নেতার সঙ্গে দেখা করতে আসেন। কোনও কোনও ব্যক্তিকে নতুন কমিটির বিষয়ে জানতে চাইলেও তারা নিজেদের পরিচয় ও এ প্রসঙ্গে মুখ খুলতেই নারাজ দেখান।

নতুন কমিটির বিষয়ে জানতে চাইলে মহানগর দক্ষিণের আহ্বায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সালাম বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘প্রথমত দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও মহাসচিবকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই, আমার ওপরে আস্থা রাখার জন্য। আমরা যত দ্রুত সম্ভব কমিটি পূর্ণাঙ্গ করবো।’

আব্দুস সালাম বলেন, ‘আমরা ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সবগুলো কমিটি করে সম্মেলনের মধ্য দিয়ে মহানগর কমিটি করার চেষ্টা করবো। যেন সাংগঠনিকভাবে বিএনপিকে শক্তিশালী করা সম্ভব হয়৷’

আব্দুস সালাম জানান, তার মূল টাগেট হচ্ছে— গণতন্ত্রকে ছিনিয়ে আনা। তিনি বলেন, ‘গণতান্ত্রিক আন্দোলনকে তরান্বিত করাই হচ্ছে আমাদের মূল টার্গেট। এরমধ্য দিয়ে খালেদা জিয়াকে আবারও প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ও তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনবো। সবচেয়ে বড় কথা, করোনা মোকাবিলায় যারা ব্যর্থ হয়েছে, তারা দেশের মানুষের প্রতি কোনও কমিটমেন্ট দেখাতে পারেনি।’

দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে নেতাকর্মীদের উদ্দেশে বক্তব্য রাখছেন দক্ষিণের সদস্য সচিব রফিকুল আলম মজনু
রফিকুল আলম মজনু তার অনুসারীদের নিয়ে কার্যালয়ের হল কক্ষে অবস্থান গ্রহণ করেন। সেখানে শতাধিক নেতাকর্মী স্লোগান দেন। এসময় তিনি তার নতুন পদায়নের জন্য বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে ধন্যবাদ জানান। বক্তব্যে তিনি সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলনের প্রতিশ্রুতি দেন কর্মীদের। সেখানে তিনি যুবদলের ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতির পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার কথা জানান।

মহানগর দক্ষিণের একজন গুরুত্বপূর্ণ নেতা বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, কমিটি ঘোষণার পর তারেক রহমানের সঙ্গে কমিটির আহ্বায়ক আবদুস সালাম ও সদস্য সচিব রফিকুল আলমের কথা হয়েছে। সেখান থেকে মজনুকে কার্যালয়ে আসার নির্দেশনা দেওয়া হয়।

কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে পুলিশের সতর্ক পাহারা ওপরে উষ্ণতা, ভেতরে আক্ষেপ

আবদুস সালামকে আহ্বায়ক ও রফিকুল আলম মজনুকে সদস্য সচিব করে ঢাকা মহানগর দক্ষিণে ৪৯ জনের কমিটি করা হয়। সদস্য সচিব রফিকুল আলম মজনু বর্তমানে যুবদলের ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতির দায়িত্বে রয়েছেন। মির্জা আব্বাসের অনুসারী হিসেবেই তাকে কমিটিতে সামনে রাখা হয়েছে বলে দলীয় সূত্র জানায়।

তবে এই কমিটিতে সদ্য বিলুপ্ত কমিটির ‘সভাপতি হাবিবুন নবী খান সোহেল ও সাধারণ সম্পাদক আবুল বাশার’ কমিটির গুরুত্বপূর্ণ কয়েকজন সদস্যকে বাদ দেওয়ার কারণে ‘নেপথ্যে রহস্য’ খুঁজে পাচ্ছেন না নেতারা। 

প্রায় সমর্ধমী রহস্য সৃষ্টি হয়েছে ঢাকা মহানগর উত্তরের সদস্য সচিব আমিনুল ইসলামের মনোনয়নকে কেন্দ্র করে। জাতীয় ফুটবল দলের সাবেক এই অধিনায়ক দীর্ঘদিন ধরে বিএনপির কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করলেও তাকে মহানগর কমিটির সদস্য সচিব হিসেবে মনোনীত করার নেপথ্য কারণ নিয়ে দলের মধ্যে নানা প্রশ্নের উদয় হয়েছে।

বিএনপির ঘনিষ্ঠ একটি সূত্রের দাবি, বিএনপির উচ্চপর্যায়ের সঙ্গে সম্পৃক্ত কারাগারে থাকা একজনের তত্ত্বাবধানে আমিনুল ইসলামকে মনোনীত করা হয়েছে। আর এ কারণেই দলের নেতাকর্মীরা বিষয়টি টের পেলেও মুখে এঁটেছেন কুলুপ।

এ বিষয়ে জানতে চেয়ে ঢাকা মহানগর উত্তর কমিটির আহ্বায়ক আমান উল্লাহ আমানকে কয়েকবার চেষ্টা করেও ফোনে পাওয়া যায়নি।

সোমবার রাত সোয়া ১০টার দিকে বিএনপির একজন দায়িত্বশীল বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, উত্তর কমিটির সদস্য সচিব আমিনুল ইসলাম রাত ১০টার দিকে আমান উল্লাহ’র বাসায় যাচ্ছেন। সেখানে তারা আলোচনা করে ঠিক করবেন পরবর্তী করণীয়।

আহ্বায়ক কমিটি গঠিত হলেও মহানগর অফিস ছিল তালাবদ্ধ মহানগর অফিস বন্ধ

বিএনপির ঢাকা মহানগরের উত্তর ও দক্ষিণে আহ্বায়ক কমিটি গঠিত হলেও মহানগরের মূল কার্যালয় ছিল অনেকটাই পরিত্যক্ত। সোমবার সন্ধ্যায় গিয়ে দেখা গেছে, নয়া পল্টনের ভাসানী ভবনটি তালাবদ্ধ। ভবনের নিচে একটি ক্ষুদ্র চা দোকান থাকলেও জনসমাগম প্রায় ছিলোই না।

/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

জিয়াউর রহমানকে সম্পৃক্ত করতেই ‘নতুন গীত’ গাইছে সরকার: ফখরুল

জিয়াউর রহমানকে সম্পৃক্ত করতেই ‘নতুন গীত’ গাইছে সরকার: ফখরুল

‘গায়েবি মামলার মতো গায়েবি বেড, রোগী উড়ে যাচ্ছে’

‘গায়েবি মামলার মতো গায়েবি বেড, রোগী উড়ে যাচ্ছে’

করোনা নিয়ে সরকার মিথ্যা তথ্য দিচ্ছে: মির্জা ফখরুল

করোনা নিয়ে সরকার মিথ্যা তথ্য দিচ্ছে: মির্জা ফখরুল

দড়ি লাফে রাসেলের বিশ্ব রেকর্ড, মির্জা ফখরুলের অভিনন্দন

দড়ি লাফে রাসেলের বিশ্ব রেকর্ড, মির্জা ফখরুলের অভিনন্দন

সবাইকে দ্রুত টিকা দেওয়ার আহ্বান চরমোনাই পীরের

আপডেট : ০২ আগস্ট ২০২১, ২২:১৭

ইসলামী আন্দোলনের আমির ও  চরমোনাই পীর সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম বলেছেন, অতি দ্রুত সময়ের মধ্যে দেশের সকল জনশক্তিকে ভ্যাকসিনের আওতায় নিয়ে আসতে হবে। তিনি বলেন, ‘যে দামেই ভ্যাকসিন পাওয়া যাক, সে দামেই আমাদের ভ্যাকসিন কেনা  উচিত। কেননা, লকডাউনের আর্থিক ক্ষতি ভ্যাকসিনের আপাত উচ্চ দামের চেয়ে অনেক বহুগুণ বেশি। সোমাবার (২ আগস্ট) এক বিবৃতিতে তিনি এসব কথা বলেন।

মুহাম্মদ রেজাউল করীম বলেন, ‘ভ্যাকসিন সংগ্রহ এই মুহূর্তে সরকারের প্রধান কাজ। ভ্যাকসিন কেনার স্বচ্ছতা নিশ্চিত করতে হবে। করোনা ভাইরাসের প্রতিরোধক টিকা প্রদানে সরকারের খরচে যে দুর্নীতি হচ্ছে, অবিলম্বে তা বন্ধ হওয়া প্রয়োজন। স্বাস্থ্যমন্ত্রী সামগ্রিকভাবে ব্যর্থ হয়েছেন। ক্ষমতায় থাকার তিনি নৈতিক অধিকার হারিয়েছেন।’

চরমোনাই পীর আরও বলেন, ‘সরকার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার ব্যাপারে লাগাতার টালবাহানা করে যাচ্ছে। সরকারের বিবেচনাহীন এই সিদ্ধান্ত কোটি কোটি শিক্ষার্থীর জীবনই কেবল ক্ষতিগ্রস্ত করেনি, গোটা শিক্ষা ব্যবস্থা এখন প্রায় ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে উপনীত। অবিলম্বে সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিয়ে শিক্ষার্থীদের অগ্রাধিকারভিত্তিতে ভ্যাকসিন দিতে হবে। প্রয়োজনে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ক্লাসের সময়সীমা এবং কর্মদিন কমিয়ে এনে হলেও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে হবে, এর কোনও বিকল্প নেই। শিক্ষার্থীরা ক্রমেই ঝরে যাচ্ছে। যার সুদূর প্রসারী প্রভাব পরতে শুরু করেছে।’

ইসলামী আন্দোলনের আমির বলেন, ‘এটা স্পষ্ট যে, সরকারের কাজের সমন্বয়হীনতা রয়েছে এবং এ সমন্বয়হীনতা হয়েছে গত বছরের শুরু থেকে। লকডাউন দেওয়া, গার্মেন্টস খোলা, শ্রমিকদের ঢাকায় আনা-নেওয়া নিয়ে অন্তত পাঁচবার এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এ ধরণের কর্মকাণ্ডে সরকারের ব্যর্থতা ক্রমেই ফুটে উঠছে।’

 

/সিএ/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

কারখানা খোলার প্রতিবাদে বামজোটের বিক্ষোভ

কারখানা খোলার প্রতিবাদে বামজোটের বিক্ষোভ

লকডাউন চলাকালে বেতনসহ ছুটি নিশ্চিতের দাবি

লকডাউন চলাকালে বেতনসহ ছুটি নিশ্চিতের দাবি

‘লকডাউনের মাঝে পোশাক কারখানা খুলে দেওয়া প্রতারণার শামিল’

‘লকডাউনের মাঝে পোশাক কারখানা খুলে দেওয়া প্রতারণার শামিল’

সাত দিনের মধ্যে শ্রমিকদের ভ্যাকসিন দেওয়ার দাবি মান্নার

সাত দিনের মধ্যে শ্রমিকদের ভ্যাকসিন দেওয়ার দাবি মান্নার

বিএনপির ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের আহ্বায়ক কমিটি গঠন

আপডেট : ০২ আগস্ট ২০২১, ১৯:০৫

বিএনপি’র মেয়াদোত্তীর্ণ ঢাকা মহানগর দক্ষিণ এবং ঢাকা মহানগর উত্তর শাখার নির্বাহী কমিটি বিলুপ্ত করে নতুন আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে। ঢাকা দক্ষিণে আহ্বায়ক করা হয়েছে আবদুস সালাম ও উত্তরে আহ্বায়ক হয়েছেন আমান উল্লাহ আমান। দক্ষিণে সদস্য সচিব করা হয়েছে রফিকুল আলম মজনু ও আমিনুল হককে উত্তরের।

সোমবার (২ আগস্ট) বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ঢাকা মহানগর দক্ষিণ এবং ঢাকা মহানগর উত্তর শাখার উল্লেখিত কমিটি দুটি অনুমোদন করেছেন।

বিএনপির কেন্দ্রীয় দফতর থেকে পাঠানো প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আহ্বায়ক কমিটির সদস্য সংখ্যা ৪৯ জন। যুগ্ম আহ্বায়করা হলেন‑ নবী উল্ল্যাহ নবী, ইউনুস মৃধা, মো. মোহন ,  মোশারফ হোসেন খোকন, আব্দুস সাত্তার, সিরাজুল ইসলাম সিরাজ, আ. ন. ম সাইফুল ইসলাম, হারুন উর রশিদ হারুন, তানভীর আহমেদ রবিন, লিটন মাহমুদ, মনির হোসেন চেয়ারম্যান।

সদস্যরা হলেন‑ ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেন, ফরিদ উদ্দিন, গোলাম হোসেন,  সাব্বির হোসেন আরিফ, ফারুকুল ইসলাম, মকবুল হোসেন টিপু, আবদুল হান্নান, আরিফুর রহমান নাদিম, আনোয়ার হোসেন বাদল,  কে. এম. জুবায়ের এজাজ, ফরহান হোসেন, লতিফ উল্লাহ জাফরু, মকবুল হোসেন সর্দার, মোহাম্মদ আলী চায়না,  আবদুল আজিজ, জামিলুর রহমান নয়ন, শহিদুল ইসলাম বাবুল, আকবর হোসেন নান্টু, শামছুল হুদা কাজল,  সাইদুর রহমান মিন্টু, এস এম আব্বাস, লোকমান হোসেন ফকির, জুম্মন হোসেন চেয়ারম্যান, ফজলে রুবায়েত পাপ্পু, আবদুল হাই পল্লব, মহি উদ্দিন চৌধুরী, আরিফা সুলতানা রুমা, সাইফুল্লাহ খালেদ রাজন, ওমর নবী বাবু, আবুল খায়ের লিটন, নাছরিন রশিদ পুতুল, নাদিয়া পাঠান পাপন, হাজী নাজিম, জাহাঙ্গীর হোসেন পাটোয়ারী, জামশেদুল আলম শ্যামল। 

বিএনপি-ঢাকা মহানগর উত্তর শাখার ৪৭ সদস্য বিশিষ্ট আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটির যুগ্ম আহ্বায়করা হলেন‑ আব্দুল আলী নকি, আনোয়ারুজ্জামান আনোয়ার , আতিকুল ইসলাম মতিন, মোস্তাফিজুর রহমান সেগুন, ফেরদৌসি আহমেদ মিষ্টি, এ জি এম শামসুল হক, মোয়াজ্জেম হোসেন মতি, আতাউর রহমান চেয়ারম্যান, আক্তার হোসেন, গোলাম মোস্তফা।

সদস্যরা হলেন‑ তাবিথ আউয়াল, ফয়েজ আহমেদ ফরু, শাহিনুর আলম মারফত, আবুল হাসেম, মাহফুজুর রহমান, আলাউদ্দিন সরকার টিপু, তুহিনুল ইসলাম তুহিন, হাফিজুর রহমান ছাগির, সোহেল রহমান,  মো. আক্তারুজ্জামান, আবুল হোসেন আব্দুল, মো. শাহ্ আলম, এল রহমান, আফাজ উদ্দিন, আহসান হাবিব মোল্লা, সালাম সরকার, গোলাম কিবরিয়া মাখন, এ বি এম রাজ্জাক, তারিকুল ইসলাম তালুকদার, হাজী মো. ইউসুফ, আলী আকবর আলী, আহসান উল্লা চৌধুরী হাসান, মিজানুর রহমান বাচ্চু, হুমায়ন কবির রওশন, আমজাদ হোসেন মোল্লা, রেজাউর রহমান ফাহিম, মাহবুব আলম মন্টু, হাফিজুর হাসান শুভ্র, জাহাঙ্গীর মোল্লা, আজহারুল ইসলাম, শফিকুল ইসলাম শাহিন, আফতাব উদ্দিন জসিম, মো. হানিফ মিয়া, মো. মোজাম্মেল হোসেন সেলিম, মো. জিয়াউর রহমান জিয়া।

/এসটিএস/এমএস/

সম্পর্কিত

নির্লজ্জ মিথ্যাচার করে জনগণকে বিভ্রান্ত করবেন না: হানিফ

নির্লজ্জ মিথ্যাচার করে জনগণকে বিভ্রান্ত করবেন না: হানিফ

সৈয়দ আশরাফের ম্যুরাল ভাঙচুরের ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার ও বিচার দাবি

সৈয়দ আশরাফের ম্যুরাল ভাঙচুরের ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার ও বিচার দাবি

দেশবাসীকে খালেদা জিয়ার ঈদের শুভেচ্ছা 

দেশবাসীকে খালেদা জিয়ার ঈদের শুভেচ্ছা 

নারায়ণগঞ্জে ‘জয় বাংলা নাগরিক কমিটি’র আত্মপ্রকাশ

নারায়ণগঞ্জে ‘জয় বাংলা নাগরিক কমিটি’র আত্মপ্রকাশ

জিয়াউর রহমানকে সম্পৃক্ত করতেই ‘নতুন গীত’ গাইছে সরকার: ফখরুল

আপডেট : ০২ আগস্ট ২০২১, ১৯:৩৬

জিয়াউর রহমানের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করতে সরকার ‘নতুন গীত’ গাইছে বলে মন্তব্য করেছেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ‘বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জিয়াউর রহমান সম্পৃক্ত’—ক্ষমতাসীন দলের শীর্ষ পর্য়ায়ের নেতাদের এরকম বক্তব্যের জবাব দিতে গিয়ে সোমবার (২ আগস্ট) এক ভার্চুয়াল আলোচনায় বিএনপি মহাসচিব এ মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, ‘এদের (আওয়ামী লীগ সরকার) কাজ কী? এদের কাজ হচ্ছে সারাক্ষণ বিএনপিকে দোষারোপ করা, শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান সাহেবকে কীভাবে হেয় করা যায়, তার চেষ্টা করা। কীভাবে খালেদা জিয়াকে খাটো করা যায়, তার চেষ্টা করা। কীভাবে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে মিথ্যা অপপ্রচার করা যায়, সেই চেষ্টাই তারা করছে।’

ফখরুল বলেন, ‘অত্যন্ত সম্মানিত নেতা শেখ মুজিবুর রহমানের ১৫ আগস্টের যে হত্যাকাণ্ড ১৯৭৫ সালে, আমাদের নেত্রী খালেদা জিয়া পার্লামেন্টে সব সময়েই এ ঘটনার নিন্দা জানিয়েছেন। আমরা কেউই কোনও হত্যাকাণ্ড সমর্থন করি না। এই হত্যাকাণ্ডের বিচার হয়েছে, বিচার করেছেন আপনারা (আওয়ামী লীগ সরকার)। সেই বিচার করার পরে সবকিছু শেষ হয়ে গেছে। অথচ আপনারা এখন শুরু করেছেন নতুন একটা গীত গাওয়া—জিয়াউর রহমান এটার সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিল।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘কোথাও প্রমাণ করতে পারেনি, কেউ না। আজ পর্যন্ত কেউ এই কথা বলে নাই যে জিয়াউর রহমান সাহেব সম্পৃক্ত ছিলেন। জিয়াউর রহমান সাহেব তো তখন ডেপুটি চিফ মার্শাল অ্যাডমিনিস্ট্রেটরও ছিলেন না। তিনি সেনাবাহিনীর উপ-প্রধান ছিলেন মাত্র।’

‘সেনাপ্রধান ছিলেন শফিউল্লাহ সাহেব (কে এম শফিউল্লাহ)। সেই শফিউল্লাহ সাহেব তো গিয়ে খন্দকার মোশতাককে স্যালুট করেছেন, একে খন্দকার সাহেব (বিমান বাহিনী প্রধান) স্যালুট করেছেন, নেভাল চিফ স্যালুট করেছেন। আপনাদের খন্দকার মোশতাক সাহেবের সঙ্গে পুরো ৩১ জনের মন্ত্রিসভা গিয়ে শেখ মুজিবুর রহমান সাহেবের রক্তের ওপর দিয়ে হেঁটে গিয়ে তারা মন্ত্রিত্বের শপথ নিয়েছেন।’

তিনি বলেন, ‘এই হত্যাকাণ্ড তো আপনারা ঘটিয়েছেন, আওয়ামী লীগ ঘটিয়েছে। অন্য কেউ তার সঙ্গে জড়িত ছিল না। যারা করেছে তারা সামরিক বাহিনীর লোক ছিল। তাদের সঙ্গে আপনারা যুক্ত ছিলেন বলেই আপনারা করেছেন।’

‘সুতরাং, ওই মাছ দিয়ে শাক ঢাকার চেষ্টা করবেন না। নিজেদের অপকর্ম ঢাকার জন্যে অন্যকে দোষারোপ করে লাভ নেই। নিজেরা পরিষ্কার হোন, নিজেরা পরিচ্ছন্ন হোন, পরিশুদ্ধ হোন। হত্যার রাজনীতি বাদ দেন এবং সন্ত্রাসের রাজনীতি বাদ দেন, জনগণকে প্রতারণা করার রাজনীতি বাদ দেন। বাদ দিয়ে আপনারা সঠিকভাবে জনগণের যে আকাঙ্ক্ষা, সেই আকাঙ্ক্ষাকে পূরণ করেন। ১৯৭২ সালের সেই সংবিধান মতো কাজ করেন’- যোগ করেন তিনি।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আজকে কী করেছেন? সব অধিকার খর্ব করে দিয়েছেন বাংলাদেশের মানুষের। যাতে লিখতে না পারেন সংবাদকর্মীরা, সেজন্য ডিজিটাল সিকিউরিটি অ্যাক্ট করেছেন। এখন কথায় কথায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে লেলিয়ে দেন। তারা ধরে নিয়ে এসে বিভিন্ন রকমের অত্যাচার-নিপীড়ন-নির্যাতন করে, তাদের বিরুদ্ধে মামলা দেয়।’

/এসটিএস/এপিএইচ/এমওএফ/

সম্পর্কিত

ঢাকায় বিএনপির নতুন কমিটি: ওপরে উষ্ণতা, ভেতরে আক্ষেপ

ঢাকায় বিএনপির নতুন কমিটি: ওপরে উষ্ণতা, ভেতরে আক্ষেপ

‘গায়েবি মামলার মতো গায়েবি বেড, রোগী উড়ে যাচ্ছে’

‘গায়েবি মামলার মতো গায়েবি বেড, রোগী উড়ে যাচ্ছে’

করোনা নিয়ে সরকার মিথ্যা তথ্য দিচ্ছে: মির্জা ফখরুল

করোনা নিয়ে সরকার মিথ্যা তথ্য দিচ্ছে: মির্জা ফখরুল

সর্বশেষ

ইউনেসকো'র বাংলাদেশ অফিসে চাকরি

ইউনেসকো'র বাংলাদেশ অফিসে চাকরি

উন্নত প্রযুক্তির নিরাপত্তা পণ্য ভালো শর্তে ক্রয়ে আগ্রহী বাংলাদেশ

উন্নত প্রযুক্তির নিরাপত্তা পণ্য ভালো শর্তে ক্রয়ে আগ্রহী বাংলাদেশ

শের-ই বাংলা মেডিক্যালে আরও ১৪ মৃত্যু

শের-ই বাংলা মেডিক্যালে আরও ১৪ মৃত্যু

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে একদিনে আরও ১৭ মৃত্যু

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে একদিনে আরও ১৭ মৃত্যু

মাদ্রাসায় রাতের খাবারের পর ছাত্রের মৃত্যু, হাসপাতালে ভর্তি ১৭

মাদ্রাসায় রাতের খাবারের পর ছাত্রের মৃত্যু, হাসপাতালে ভর্তি ১৭

বাংলাদেশের 'বিশ্বকাপ' শুরু তো আজ থেকেই!

বাংলাদেশের 'বিশ্বকাপ' শুরু তো আজ থেকেই!

ভালো মানের উপহারের ঘরে খুশি মুক্তাগাছার সুবিধাভোগীরা

ভালো মানের উপহারের ঘরে খুশি মুক্তাগাছার সুবিধাভোগীরা

চট্টগ্রামে করোনায় আরও ১০ মৃত্যু, বেড়েছে শনাক্ত

চট্টগ্রামে করোনায় আরও ১০ মৃত্যু, বেড়েছে শনাক্ত

৫০ বছরেও ভাগ্য বদলায়নি বীর মুক্তিযোদ্ধার

৫০ বছরেও ভাগ্য বদলায়নি বীর মুক্তিযোদ্ধার

কথা রাখেননি গার্মেন্টস মালিকরা

কথা রাখেননি গার্মেন্টস মালিকরা

শেষদিনে অফিসারের গাড়িতে বাড়ি ফিরলেন কনস্টেবল ফারুক

শেষদিনে অফিসারের গাড়িতে বাড়ি ফিরলেন কনস্টেবল ফারুক

কক্সবাজারে এক বছরে ১৬টি বাচ্চা দিলো বন্য হাতি

কক্সবাজারে এক বছরে ১৬টি বাচ্চা দিলো বন্য হাতি

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ঢাকায় বিএনপির নতুন কমিটি: ওপরে উষ্ণতা, ভেতরে আক্ষেপ

ঢাকায় বিএনপির নতুন কমিটি: ওপরে উষ্ণতা, ভেতরে আক্ষেপ

জিয়াউর রহমানকে সম্পৃক্ত করতেই ‘নতুন গীত’ গাইছে সরকার: ফখরুল

জিয়াউর রহমানকে সম্পৃক্ত করতেই ‘নতুন গীত’ গাইছে সরকার: ফখরুল

‘গায়েবি মামলার মতো গায়েবি বেড, রোগী উড়ে যাচ্ছে’

‘গায়েবি মামলার মতো গায়েবি বেড, রোগী উড়ে যাচ্ছে’

করোনা নিয়ে সরকার মিথ্যা তথ্য দিচ্ছে: মির্জা ফখরুল

করোনা নিয়ে সরকার মিথ্যা তথ্য দিচ্ছে: মির্জা ফখরুল

দড়ি লাফে রাসেলের বিশ্ব রেকর্ড, মির্জা ফখরুলের অভিনন্দন

দড়ি লাফে রাসেলের বিশ্ব রেকর্ড, মির্জা ফখরুলের অভিনন্দন

কারখানা খোলার প্রতিবাদে বামজোটের বিক্ষোভ

কারখানা খোলার প্রতিবাদে বামজোটের বিক্ষোভ

লকডাউন চলাকালে বেতনসহ ছুটি নিশ্চিতের দাবি

লকডাউন চলাকালে বেতনসহ ছুটি নিশ্চিতের দাবি

‘লকডাউনের মাঝে পোশাক কারখানা খুলে দেওয়া প্রতারণার শামিল’

‘লকডাউনের মাঝে পোশাক কারখানা খুলে দেওয়া প্রতারণার শামিল’

আবারও নয়া পল্টনে যাবে ‘আসল বিএনপি’

আবারও নয়া পল্টনে যাবে ‘আসল বিএনপি’

সরকারের এক মিনিটও ক্ষমতায় থাকার অধিকার নেই: টুকু

সরকারের এক মিনিটও ক্ষমতায় থাকার অধিকার নেই: টুকু

© 2021 Bangla Tribune