X
মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১, ১ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

চাঁদপুরের ৪০ গ্রামে বৃহস্পতিবার ঈদ

আপডেট : ১১ মে ২০২১, ২৩:০৭

আরব দেশগুলোর সঙ্গে সঙ্গতি রেখে বৃহস্পতিবার (১৩ মে) চাঁদপুরের ৪০ গ্রামে ঈদুল ফিতর উদযাপিত হবে। সাদ্রা দরবার শরিফের অনুসারীরা ৯২ বছর ধরেই আরব দেশগুলোর সঙ্গে সঙ্গতি রেখে সাদ্রাসহ ৪০টি গ্রামে ঈদ উদযাপন করে থাকেন। ঈদকে ঘিরে এসব গ্রামে উৎসবমুখর পরিবেশ বিরাজ করছে। এবার আগাম ঈদে জেলার তিনটি উপজেলার ৩৪টি স্থানে ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

সাদ্রা ছাড়াও একদিন আগে ঈদ উদযাপন করা গ্রামগুলো হলো– হাজীগঞ্জ উপজেলার বলাখাল, শ্রীপুর, মণিহার, বড়কুল, অলিপুর, বেলচোঁ, রাজারগাঁও, জাকনি, কালচোঁ, মেনাপুর, ফরিদগঞ্জ উপজেলার শাচনমেঘ, খিলা, উভারামপুর, পাইকপাড়া, বিঘা, উটতলী, বালিথুবা, শোল্লা, রূপসা, বাসারা, গোয়ালভাওর, কড়ইতলী, নয়ারহাট, মতলবের মহনপুর, এখলাসপুর, দশানী, নায়েরগাঁও, বেলতলীসহ বেশ কয়েকটি গ্রাম। এছাড়া চাঁদপুরের পাশের নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর, ভোলা ও শরীয়তপুর জেলার কয়েকটি স্থানে মাওলানা ইছহাক খানের অনুসারীরা একদিন আগে ঈদ উদযাপন করেন।

সাদ্রার মরহুম পীরের ছেলে জাকারিয়া আল মাদানী বলেন, ‘সাদ্রা হামিদিয়া ফাজিল মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ আল্লামা মোহাম্মদ ইছহাক ইংরেজি ১৯২৮ সাল থেকে সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে এখানে ধর্মীয় রীতিনীতি প্রচলন শুরু করেন। তার মৃত্যুর পর থেকে তার ছয় ছেলে এ মতবাদের প্রচার চালিয়ে আসছেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা বিশ্বের যেকোনও স্থানে প্রথম চাঁদ দেখার ভিত্তিতে ঈদ উদযাপন করে থাকি। সৌদি আরবে ঈদ হবে বৃহস্পতিবার। তারপরও যদি এই রাতের যেকোনও সময় আমরা নির্ভরযোগ্য তথ্য পাই যে, বিশ্বের অন্য কোনও দেশে চাঁদ দেখা গেছে তাহলে আমরা বুধবারও ঈদ করতে পারি। না হলে বৃহস্পতিবারই উদযাপিত হবে ঈদ।’

চাঁদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কাজী আব্দুর রহীম জানিয়েছেন, চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ, হাজীগঞ্জ এবং মতলব উত্তরের বিভিন্ন এলাকায় আগাম ঈদ উদযাপন হয়। এসব এলাকায় ৩৪টি ঈদের স্থানে ঈদের জামাত হবে। এর মধ্যে ফরিদগঞ্জে ১৫টি, হাজীগঞ্জে ১৩টি এবং ছয়টি মতলব উত্তরে।

 

 

/এমএএ/

সম্পর্কিত

ইয়াবা-স্বর্ণ ও টাকাসহ তিন রোহিঙ্গা গ্রেফতার

ইয়াবা-স্বর্ণ ও টাকাসহ তিন রোহিঙ্গা গ্রেফতার

একসঙ্গে চার মেয়ে সন্তানের জন্ম

একসঙ্গে চার মেয়ে সন্তানের জন্ম

কুমিল্লা-৫ আসনের উপনির্বাচন: ৮ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র সংগ্রহ

কুমিল্লা-৫ আসনের উপনির্বাচন: ৮ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র সংগ্রহ

রোহিঙ্গা তরুণীর পরিচয়পত্র তৈরি, সাবেক কাউন্সিলরসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা

রোহিঙ্গা তরুণীর পরিচয়পত্র তৈরি, সাবেক কাউন্সিলরসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা

পাহাড়ে অভিযান চালিয়ে ৩৭০ বসতঘর উচ্ছেদ

পাহাড়ে অভিযান চালিয়ে ৩৭০ বসতঘর উচ্ছেদ

চট্টগ্রামে মিলেছে করোনার ভারতীয় ধরন, রোগী নিখোঁজ

চট্টগ্রামে মিলেছে করোনার ভারতীয় ধরন, রোগী নিখোঁজ

আলীকদমে ডায়রিয়ায় ৬ জনের মৃত্যু, পৌঁছেছে সেনাবাহিনীর মেডিক্যাল টিম

আলীকদমে ডায়রিয়ায় ৬ জনের মৃত্যু, পৌঁছেছে সেনাবাহিনীর মেডিক্যাল টিম

নাফ নদে ভেসে উঠলো আরও দুই রোহিঙ্গার লাশ

নাফ নদে ভেসে উঠলো আরও দুই রোহিঙ্গার লাশ

নদী দিয়ে ভেসে আসলো আরও দুই রোহিঙ্গা সদস্যের মরদেহ

নদী দিয়ে ভেসে আসলো আরও দুই রোহিঙ্গা সদস্যের মরদেহ

পাহাড় থেকে ঝুঁকিপূর্ণ বসতি সরাতে অভিযান শুরু

পাহাড় থেকে ঝুঁকিপূর্ণ বসতি সরাতে অভিযান শুরু

রাত ১২ টার মধ্যে কাদের মির্জাকে গ্রেফতারে দাবি মঞ্জুর

রাত ১২ টার মধ্যে কাদের মির্জাকে গ্রেফতারে দাবি মঞ্জুর

বিচার না পেলে বুধবার অবরোধের ডাক কাদের মির্জার

বিচার না পেলে বুধবার অবরোধের ডাক কাদের মির্জার

সর্বশেষ

ইউ‌কে-বাংলা প্রেসক্লাবের সভা অনুষ্ঠিত

ইউ‌কে-বাংলা প্রেসক্লাবের সভা অনুষ্ঠিত

উত্তর প্রদেশে হামলার শিকার বয়স্ক মুসলিম, কাটা হলো দাড়ি

উত্তর প্রদেশে হামলার শিকার বয়স্ক মুসলিম, কাটা হলো দাড়ি

আবার এসেছে আশার ‘আষাঢ়’

আবার এসেছে আশার ‘আষাঢ়’

মিসরে মুসলিম ব্রাদারহুডের ১২ সদস্যের মৃত্যুদণ্ড বহাল

মিসরে মুসলিম ব্রাদারহুডের ১২ সদস্যের মৃত্যুদণ্ড বহাল

মেসি গোল পেলেও জিততে পারেনি আর্জেন্টিনা

মেসি গোল পেলেও জিততে পারেনি আর্জেন্টিনা

সন্ত্রাসবাদে অভিযুক্ত কানাডার সেই হামলাকারী

সন্ত্রাসবাদে অভিযুক্ত কানাডার সেই হামলাকারী

গোল মিসের মহড়ায় পয়েন্ট হারালো স্পেন

গোল মিসের মহড়ায় পয়েন্ট হারালো স্পেন

ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের ঝুঁকি,  যুক্তরাজ্যে লকডাউন প্রত্যাহার হবে দেরিতে

ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের ঝুঁকি, যুক্তরাজ্যে লকডাউন প্রত্যাহার হবে দেরিতে

অবশেষে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ‘তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন’

পরীমণিকে ধর্ষণ-হত্যাচেষ্টাঅবশেষে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ‘তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন’

ইয়াবা-স্বর্ণ ও টাকাসহ তিন রোহিঙ্গা গ্রেফতার

ইয়াবা-স্বর্ণ ও টাকাসহ তিন রোহিঙ্গা গ্রেফতার

বায়ু শক্তিকে উদযাপনের দিন আজ

অপার সম্ভাবনায় গুরুত্ব কমবায়ু শক্তিকে উদযাপনের দিন আজ

স্পর্শকাতর সিদ্ধান্তের মুখে ইসরায়েলের নতুন সরকার

স্পর্শকাতর সিদ্ধান্তের মুখে ইসরায়েলের নতুন সরকার

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ইয়াবা-স্বর্ণ ও টাকাসহ তিন রোহিঙ্গা গ্রেফতার

ইয়াবা-স্বর্ণ ও টাকাসহ তিন রোহিঙ্গা গ্রেফতার

একসঙ্গে চার মেয়ে সন্তানের জন্ম

একসঙ্গে চার মেয়ে সন্তানের জন্ম

কুমিল্লা-৫ আসনের উপনির্বাচন: ৮ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র সংগ্রহ

কুমিল্লা-৫ আসনের উপনির্বাচন: ৮ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র সংগ্রহ

রোহিঙ্গা তরুণীর পরিচয়পত্র তৈরি, সাবেক কাউন্সিলরসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা

রোহিঙ্গা তরুণীর পরিচয়পত্র তৈরি, সাবেক কাউন্সিলরসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা

পাহাড়ে অভিযান চালিয়ে ৩৭০ বসতঘর উচ্ছেদ

পাহাড়ে অভিযান চালিয়ে ৩৭০ বসতঘর উচ্ছেদ

চট্টগ্রামে মিলেছে করোনার ভারতীয় ধরন, রোগী নিখোঁজ

চট্টগ্রামে মিলেছে করোনার ভারতীয় ধরন, রোগী নিখোঁজ

আলীকদমে ডায়রিয়ায় ৬ জনের মৃত্যু, পৌঁছেছে সেনাবাহিনীর মেডিক্যাল টিম

আলীকদমে ডায়রিয়ায় ৬ জনের মৃত্যু, পৌঁছেছে সেনাবাহিনীর মেডিক্যাল টিম

নাফ নদে ভেসে উঠলো আরও দুই রোহিঙ্গার লাশ

নাফ নদে ভেসে উঠলো আরও দুই রোহিঙ্গার লাশ

নদী দিয়ে ভেসে আসলো আরও দুই রোহিঙ্গা সদস্যের মরদেহ

নদী দিয়ে ভেসে আসলো আরও দুই রোহিঙ্গা সদস্যের মরদেহ

পাহাড় থেকে ঝুঁকিপূর্ণ বসতি সরাতে অভিযান শুরু

পাহাড় থেকে ঝুঁকিপূর্ণ বসতি সরাতে অভিযান শুরু

© 2021 Bangla Tribune