X
বুধবার, ১৬ জুন ২০২১, ২ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

ইলিশ সব গেলো কোথায়?

আপডেট : ১২ মে ২০২১, ০৯:০০

চাহিদা ব্যাপক। কিন্তু বাজারে নেই। নদীতে ধরা পড়ছে না কাঙ্ক্ষিত ইলিশ। মুখ কালো করে জাল নিয়ে পাড়ে ফিরছেন জেলেরা। নদীতে পানি কম। স্রোতও নেই। গরম পড়ায় ইলিশের ঝাঁক উজানের দিকে আসছে না। তাই ধরাও পড়ছে না। এমনটাই জানিয়েছেন পিরোজপুর ও চাঁদপুরের জেলেরা।

তবে ভোলা ও বরগুনার জেলেরা জানিয়েছেন, বছরের এই সময় যদি বৃষ্টি না হলে নদীতে পানি কম থাকে। এ সময় ইলিশের ঝাঁক সাগরেই ঘোরাফেরা করে। বৈশাখ-জৈষ্ঠ্য মাসে বৃষ্টি না হলে নদীতে ইলিশের আনাগোনা কমে যাওয়াটা স্বাভাবিক ঘটনা।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বৈশাখের শেষ সময়ে বঙ্গোপসাগরসহ উপকূলীয় নদ-নদীতেও ইলিশের দেখা মিলছে না। সারাদিনে যা ওঠে তা দিয়ে সংসার বা মহাজন কাউকেই খুশি রাখা সম্ভব নয় বলে জানান জেলেরা।

জেলেরা জানিয়েছেন, মা ইলিশের নিরাপদ বিচরণ নিশ্চিত করতে সাগরের মোহনা এবং ইলিশ চলাচলকারী নদ-নদীতে মাছ ধরায় দুই মাসের নিষেধাজ্ঞা ছিল। ৩০ এপ্রিল শুক্রবার মধ্যরাতের পর থেকে আবার মাছ শিকারে নামার অনুমতি পান জেলেরা।

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, ইলিশ সম্পদের উন্নয়নে জাটকা সংরক্ষণের জন্য ১ মার্চ থেকে ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত দুই মাস ৬ জেলার ৫টি ইলিশ অভয়াশ্রমে ইলিশসহ সব ধরনের মাছ ধরা নিষিদ্ধ করা হয়েছিল। নিষেধাজ্ঞার আওতায় ছিল বরিশাল, চাঁদপুর, লক্ষ্মীপুর, ভোলা, শরীয়তপুর ও পটুয়াখালীর ইলিশ অভয়াশ্রম ও সংশ্লিষ্ট নদী।

কাওরানবাজারের ব্যবসায়ী সিরাজ মিয়া জানিয়েছেন, বাজারে ইলিশের চাহিদা আছে। কাস্টমার বড় ইলিশ খোঁজে। দিতে পারি না। মোকাম থেকেই ইলিশ আসছে না। ভোলা, পটুয়াখালী, মহিপুর, পিরোজপুর বরগুনা থেকে ইলিশ না এলে কাওরানবাজারে কী করে আসবে?

জানতে চাইলে বরগুনার জেলে ফোরকান মিয়া জানিয়েছেন, ইলিশের ঝাঁক সাগর থেকে নদীতে আসছে না। পিরোজপুরের জেলে মোকলেছ জানিয়েছেন, নদীতে পানি কম। এ কারণে ইলিশ নাই। বৃষ্টি হলেই পাওয়া যাবে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে খুলনার উপপরিচালক (মৎস্য পরিদর্শক ও মান নিয়ন্ত্রক) মোহম্মদ মজিনুর রহমান জানিয়েছেন, বড় ইলিশ পেতে হলে ছোট ইলিশকে বড় হওয়ার সুযোগ দিতে হবে। খুলনা, রাজবাড়ী, চাঁদপুর, এমনকি বরিশলেও টন টন জাটকা ধরা হচ্ছে। এমন অবস্থা হলে বড় ইলিশ আসবে না। অবশ্যই জাটকা নিধন বন্ধ করতে হবে।

এ বিষয়ে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ.ম. রেজাউল করিম বাংলা ট্রিবিউনকে জানিয়েছেন, ‘ইলিশ সংরক্ষণে সরকার ব্যাপক কর্মসূচি নিয়েছে। আশা করছি এ সিজনে পাঁচ লাখ টনের বেশি ইলিশ পাওয়া যাবে। মা ইলিশ সংরক্ষণ কর্মসূচি শতভাগ বাস্তবায়ন করেছি। তালিকাভুক্ত জেলেদের ভিজিএফএর আওতায় খাদ্য সহায়তা দিয়েছি। আশা করছি, জেলেদের মুখে এবছর হাসি ফুটবে। এখন ধরা না পড়লেও মৌসুমে ঠিকই বড় ইলিশ ধরা পড়বে।’

 

/এফএ/

সম্পর্কিত

হঠাৎ কেন ‘হারিয়ে গেলো’ ইলিশ?

হঠাৎ কেন ‘হারিয়ে গেলো’ ইলিশ?

ইলিশ ধরার উৎসব হলো শুরু

ইলিশ ধরার উৎসব হলো শুরু

নৌকার ওপর নির্ভর করে ইলিশের দাম!

নৌকার ওপর নির্ভর করে ইলিশের দাম!

সর্বশেষ

গাজায় আবারও ইসরায়েলি বিমান হামলা

গাজায় আবারও ইসরায়েলি বিমান হামলা

মিয়ানমারের কাছে সামরিক প্রযুক্তি বিক্রি করছে ভারত

মিয়ানমারের কাছে সামরিক প্রযুক্তি বিক্রি করছে ভারত

সংক্রমণ ঠেকাতে সীমান্ত পাহারায় ভুটানের রাজা

সংক্রমণ ঠেকাতে সীমান্ত পাহারায় ভুটানের রাজা

রোনালদোর এক কথায় কোকা-কোলার সর্বনাশ!

রোনালদোর এক কথায় কোকা-কোলার সর্বনাশ!

আরও ২৭০ কোটি ডলার দান করলেন ম্যাকেঞ্জি

আরও ২৭০ কোটি ডলার দান করলেন ম্যাকেঞ্জি

জার্মানির আত্মঘাতী গোলে ফ্রান্সের উৎসব

জার্মানির আত্মঘাতী গোলে ফ্রান্সের উৎসব

পাকিস্তানের পার্লামেন্টে আইনপ্রণেতাদের লঙ্কাকাণ্ড

পাকিস্তানের পার্লামেন্টে আইনপ্রণেতাদের লঙ্কাকাণ্ড

ওমানের কাছেও হারলো বাংলাদেশ

বিশ্বকাপ বাছাইওমানের কাছেও হারলো বাংলাদেশ

করোনায় রক্ত জমাটের কারণ জানালেন আইরিশ বিজ্ঞানীরা

করোনায় রক্ত জমাটের কারণ জানালেন আইরিশ বিজ্ঞানীরা

রোনালদোর রেকর্ডময় রাতে উজ্জ্বল পর্তুগাল

রোনালদোর রেকর্ডময় রাতে উজ্জ্বল পর্তুগাল

সংঘবদ্ধ ধর্ষণ মামলায় গ্রেফতার ২

সংঘবদ্ধ ধর্ষণ মামলায় গ্রেফতার ২

আমি সব সময় প্রস্তুত: জেনেভায় পৌঁছে বাইডেন

আমি সব সময় প্রস্তুত: জেনেভায় পৌঁছে বাইডেন

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ইলিশ ধরার উৎসব হলো শুরু

ইলিশ ধরার উৎসব হলো শুরু

© 2021 Bangla Tribune