X
শনিবার, ১৯ জুন ২০২১, ৫ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

বাবুলের বাবার দাবি, বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কের বিষয়টি জানতো না পরিবার

আপডেট : ১৩ মে ২০২১, ১৮:২০

মাহমুদা খানম মিতু হত্যার ঘটনায় তার স্বামী সাবেক পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের বিরুদ্ধে ভারতীয় নারীর সঙ্গে বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্কের অভিযোগ এনেছেন মিতুর বাবা মোশাররফ হোসেন। তবে এ অভিযোগের বিষয়ে বাবুলের বাবা আবদুল ওয়াদুদ জানিয়েছেন, তার পরিবার এ সম্পর্কে কিছুই জানতো না। বাংলা ট্রিবিউনকে তিনি বলেন, ‘তার শ্বশুর (মোশাররফ হোসেন) এতদিন এ ধরনের কোনও অভিযোগ আনেননি। ঘটনার পাঁচ বছর পর এখন তিনি যা মন চাইছে তাই বলছেন। তিনি কেন এগুলো বলছেন আমার জানা নেই। আমাদের কিছু বলারও নেই। ওই সময় কী ঘটেছিল, সেটি আল্লাহ ভালো জানেন। আল্লাহ পাক এর বিচার করবেন।’

মিতু হত্যার ঘটনার পাঁচ বছর পর বুধবার (১২ মে) নগরীর পাঁচলাইশ থানায় মামলা দায়ের করেন মিতুর বাবা মোশাররফ হোসেন। মামলায় তিনি অভিযোগ করেছেন, এক নারী এনজিও কর্মকর্তার সঙ্গে বাবুলের অনৈতিক সম্পর্ক ছিল।

দাম্পত্য জীবনে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে সম্পর্কের অবনতি হলে সেটি সাধারণত দুই জনের অভিভাবকদের জানানো হয় উল্লেখ করে আব্দুল ওয়াদুদ বলেন, ‘বাবুল আক্তার আর মাহমুদা খানম মিতুর ক্ষেত্রে অন্য একজন নারীকে নিয়ে পারিবারিক অশান্তির বিষয়টি আমাদের জানানো হয়নি। মিতু হয়তো ইতস্ততবোধ থেকে জানায়নি, কিন্তু তার বাবা-মাকে জানানোর পর তারা তো আমাদের বলতে পারতেন। এ বিষয়ে তারাও আমাদের কিছু বলেননি। মোটকথা হলো, বাবুলের ওই সম্পর্কের বিষয়ে আমরা কিছুই জানতাম না।’

তিনি আরও বলেন, ‘ও তো (বাবুল আক্তার) গাজীপুর থাকতো। আমি নিজেও জব করতাম। সাব-ইন্সপেক্টর ছিলাম। অবসর নিয়েছি। তিনবার হজ করেছি। ওরা আমাদের থেকে অনেক দূরে ছিল। তাদের মধ্যে দাম্পত্য কলহ ছিল কিনা আমরা কিছুই জানতাম না।’

২০১৬ সালের ৫ জুন সকালে চট্টগ্রাম নগরীর জিইসি মোড়ে ছেলেকে স্কুল বাসে তুলে দিতে যাওয়ার সময় সড়কে খুন হন পুলিশ কর্মকর্তা বাবুল আক্তারের স্ত্রী মিতু। খুনিরা গুলি করার পাশাপাশি ছুরিকাঘাতে তাকে হত্যা করে। ঘটনার সময় বাবুল আক্তার ঢাকায় ছিলেন। হত্যাকাণ্ডের পর তিনি নিজে নগরীর পাঁচলাইশ থানায় অজ্ঞাত পরিচয় কয়েকজনকে আসামি করে মামলা করেন। ওই মামলার তদন্ত করতে গিয়ে বাবুল আক্তারের সম্পৃক্ততা পায় পুলিশ।

এ ঘটনায় বুধবার ৫৭৫ পৃষ্ঠার চূড়ান্ত প্রতিবেদন আদালতে জমা দেয় পিবিআই। প্রতিবেদনে পিবিআই বলছে, মিতু হত্যা ছিল কন্ট্রাক্ট কিলিং। বাবুল আক্তারের পরিকল্পনায় এটি সংঘটিত হয়। মিতুকে হত্যার জন্য তিন লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে বলে পিবিআই জানায়।

এরপর বুধবার নগরীর পাঁচলাইশ থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন মিতুর বাবা মোশাররফ হোসেন। মামলায় বাবুল আক্তার প্রধান আসামি করে আট জনকে আসামি করা হয়। বাবুল আক্তার ছাড়া অন্য সাত আসামি ঘটনার সময় দায়ের করা মামলায়ও অভিযুক্ত হয়েছিলেন।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, ২০১৩ সালে কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হিসেবে কর্মরত থাকার সময় এনজিওর ওই নারী ফিল্ড অফিসারের সঙ্গে বাবুল আক্তারের পরিচয় হয়। পরে ওই নারীর সঙ্গে বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন তিনি। বাবুল আক্তারের মোবাইল ফোনে ওই নারী মেসেজ পাঠিয়েছিল। মোবাইল ফোনটি বাসায় রেখে যাওয়ায় ওই মেসেজগুলো মিতু দেখতে পায়। তখন তাদের মধ্যে দাম্পত্য কলহ চরমে ওঠে। ওই ঘটনার জের ধরেই বাবুল তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে।

এজাহারে আরও বলা হয়, হত্যাকাণ্ডের এক মাস আগে বাবুল চীনে এক প্রশিক্ষণে গেলে স্ত্রী মিতু দুটি বই পান, সেগুলো ওই নারী বাবুলকে দিয়েছিলেন। ওই দুটি বইয়ের একাধিক পাতায় একজন আরেকজনকে উদ্দেশ্য করে কিছু চিরকূট লিখেছিলেন। তাতে মিতু তাদের ঘনিষ্ঠ সম্পর্কের কথা জানতে পারেন।

আরও খবর:

বাদী বাবুল আক্তার এবার স্ত্রী হত্যার প্রধান আসামি

এসপি বাবুলের অন্য নারীর সঙ্গে সম্পর্কের জেরে মিতুকে হত্যা: মামলার বাদী

স্ত্রী হত্যা মামলায় সাবেক এসপি বাবুল গ্রেফতার

 

/এমএএ/এমওএফ/

সম্পর্কিত

ভারত থেকে দেশে প্রবেশকালে ৩০ মামলার আসামি গ্রেফতার

ভারত থেকে দেশে প্রবেশকালে ৩০ মামলার আসামি গ্রেফতার

নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠনের ১ সক্রিয় সদস্য গ্রেফতার

নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠনের ১ সক্রিয় সদস্য গ্রেফতার

অমির দুই সহযোগী বাছির ও মশিউরের জামিন মঞ্জুর

অমির দুই সহযোগী বাছির ও মশিউরের জামিন মঞ্জুর

ওবায়দুল কাদেরের বিরুদ্ধে স্ট্যাটাস দেওয়ায় নোবিপ্রবির কর্মকর্তা আটক

ওবায়দুল কাদেরের বিরুদ্ধে স্ট্যাটাস দেওয়ায় নোবিপ্রবির কর্মকর্তা আটক

নাসির উদ্দিন মাহমুদের ৩ সহযোগী রিমান্ড শেষে কারাগারে

নাসির উদ্দিন মাহমুদের ৩ সহযোগী রিমান্ড শেষে কারাগারে

চট্টগ্রাম মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলন শুরু

চট্টগ্রাম মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলন শুরু

চট্টগ্রামের রাস্তায় হাঁটুপানি

চট্টগ্রামের রাস্তায় হাঁটুপানি

চট্টগ্রামে করোনায় আরও ২ মৃত্যু, আক্রান্ত ১৫৭

চট্টগ্রামে করোনায় আরও ২ মৃত্যু, আক্রান্ত ১৫৭

বাবাকে নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল, দুই ছেলে আটক

বাবাকে নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল, দুই ছেলে আটক

বংশালে কিশোর গ্যাং ফাইভ স্টারের দুই সদস্য গ্রেফতার

বংশালে কিশোর গ্যাং ফাইভ স্টারের দুই সদস্য গ্রেফতার

একে একে ৩ জনকে চাপা দিলো বাসটি

একে একে ৩ জনকে চাপা দিলো বাসটি

সর্বশেষ

বাঁশ বেঁধেও ঠেকানো যাচ্ছে না মানুষের চলাচল

বাঁশ বেঁধেও ঠেকানো যাচ্ছে না মানুষের চলাচল

গ্রিজমানের গোলে হার এড়ালো ফ্রান্স

গ্রিজমানের গোলে হার এড়ালো ফ্রান্স

ইরানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ইব্রাহিম রায়িসিকে বিজয়ী ঘোষণা

ইরানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ইব্রাহিম রায়িসিকে বিজয়ী ঘোষণা

ফতুল্লায় কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় প্রাণ গেলো রিকশার ২ যাত্রীর

ফতুল্লায় কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় প্রাণ গেলো রিকশার ২ যাত্রীর

ফিরোজায় ফিরেছেন খালেদা জিয়া

ফিরোজায় ফিরেছেন খালেদা জিয়া

শার্শায় ৪৩ নমুনা পরীক্ষায় ৩২ জনই আক্রান্ত

শার্শায় ৪৩ নমুনা পরীক্ষায় ৩২ জনই আক্রান্ত

কাবুলে মার্কিন দূতাবাসে করোনার তাণ্ডব: আক্রান্ত ১১৪

কাবুলে মার্কিন দূতাবাসে করোনার তাণ্ডব: আক্রান্ত ১১৪

মায়ের পর দগ্ধ মেয়েরও মৃত্যু

মায়ের পর দগ্ধ মেয়েরও মৃত্যু

ভারতে আসছে করোনার তৃতীয় ঢেউ

ভারতে আসছে করোনার তৃতীয় ঢেউ

ধোনিকে ছাড়িয়ে অধিনায়ক কোহলির রেকর্ড

ধোনিকে ছাড়িয়ে অধিনায়ক কোহলির রেকর্ড

গ্রুপ অ্যাডমিনদের জন্য নতুন ফিচার আনলো ফেসবুক

গ্রুপ অ্যাডমিনদের জন্য নতুন ফিচার আনলো ফেসবুক

বাগেরহাটের রেজাউল হত্যা মামলার দুই আসামি গ্রেফতার

বাগেরহাটের রেজাউল হত্যা মামলার দুই আসামি গ্রেফতার

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ভারত থেকে দেশে প্রবেশকালে ৩০ মামলার আসামি গ্রেফতার

ভারত থেকে দেশে প্রবেশকালে ৩০ মামলার আসামি গ্রেফতার

ওবায়দুল কাদেরের বিরুদ্ধে স্ট্যাটাস দেওয়ায় নোবিপ্রবির কর্মকর্তা আটক

ওবায়দুল কাদেরের বিরুদ্ধে স্ট্যাটাস দেওয়ায় নোবিপ্রবির কর্মকর্তা আটক

চট্টগ্রাম মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলন শুরু

চট্টগ্রাম মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলন শুরু

চট্টগ্রামের রাস্তায় হাঁটুপানি

চট্টগ্রামের রাস্তায় হাঁটুপানি

চট্টগ্রামে করোনায় আরও ২ মৃত্যু, আক্রান্ত ১৫৭

চট্টগ্রামে করোনায় আরও ২ মৃত্যু, আক্রান্ত ১৫৭

একে একে ৩ জনকে চাপা দিলো বাসটি

একে একে ৩ জনকে চাপা দিলো বাসটি

চট্টগ্রামে যাত্রীবাহী বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ২

চট্টগ্রামে যাত্রীবাহী বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ২

১৩১ জনের মৃত্যুর পরও দ্বিগুণ বসতি

১৩১ জনের মৃত্যুর পরও দ্বিগুণ বসতি

১ টাকার সালামিতে ঘর পাচ্ছে ১০৯ পরিবার

১ টাকার সালামিতে ঘর পাচ্ছে ১০৯ পরিবার

© 2021 Bangla Tribune