X
শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১, ১৫ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

দেশে আড়াই লাখ ডোজ ‘কোভিশিল্ড’ ভ্যাকসিন অবশিষ্ট আছে

আপডেট : ২৭ মে ২০২১, ২১:৪৪

দেশে করোনাভাইরাসের টিকাদান কর্মসূচি শুরুর পর এখন পর্যন্ত ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে ৯৯ লাখ ৪১ হাজার ৩৩২ ডোজ। এর পুরোটাই অক্সফোর্ডের অ্যাস্ট্রাজেনেকার ফর্মুলায় ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটের তৈরি কোভিশিল্ড ভ্যাকসিন। এখন পর্যন্ত দেশে ১ কোটি ২ লাখ ডোজ ভ্যাকসিন এসেছে। সেই অনুযায়ী এখন মাত্র ২ লাখ ৫৮ হাজার ৬৬৮ ডোজ ভ্যাকসিন অবশিষ্ট আছে। বৃহস্পতিবার (২৭ মে) স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে পাঠানো টিকাদান বিষয়ক সংবাদ বিজ্ঞপ্তি থেকে এসব তথ্য জানা যায়।     

স্বাস্থ্য অধিদফতর জানায়, এখন পর্যন্ত ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ নিয়েছেন ৫৮ লাখ ২০ হাজার ১৫ জন। আর দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন ৪১ লাখ ২১ হাজার ৩১৭ জন। আর আজ ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন ৩৭ হাজার ২৮৭ জন।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের পাঠানো তথ্য থেকে আরও জানা যায়,  প্রথম ডোজ নেওয়া ৫৮ লাখ ২০ হাজার ১৫ জনের মধ্যে ১৪ লাখের বেশি মানুষের দ্বিতীয় ডোজ নেওয়া নিয়ে তৈরি হয়েছে সংকট। এদের সবাইকে অক্সফোর্ড অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকারই দ্বিতীয় ডোজ দিতে হবে। কেননা, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এখনও দুই কোম্পানির দুই ডোজের টিকা গ্রহণের কোনও সিদ্ধান্ত দেয়নি। 

প্রসঙ্গত, দেশে গত ৭ ফেব্রুয়ারি জাতীয়ভাবে করোনার টিকাদান কর্মসূচি শুরু হয়। প্রতিদিন সকাল সাড়ে ৮টা থেকে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত এই কার্যক্রম চলে। টিকার সংকট দেখা দেওয়ায় ২৬ এপ্রিল থেকে প্রথম ডোজ দেওয়া বন্ধ ঘোষণা করে স্বাস্থ্য অধিদফতর। এতে ২ মে’র পর থেকে বন্ধ করে দেওয়া হয় টিকার নিবন্ধন।

 

/এসও/এফএএন/এমওএফ/

সম্পর্কিত

দেশে পৌঁছেছে সিনোফার্মের ৩০ লাখ ডোজ টিকা

দেশে পৌঁছেছে সিনোফার্মের ৩০ লাখ ডোজ টিকা

‘মানবপাচার মামলার প্রসিকিউশনে ত্রুটিগুলোর দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে’

‘মানবপাচার মামলার প্রসিকিউশনে ত্রুটিগুলোর দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে’

সৌদি আরব থেকে ফেরত পাঠালে হজ-ওমরাহ ছাড়া প্রবেশ করা যাবে না

সৌদি আরব থেকে ফেরত পাঠালে হজ-ওমরাহ ছাড়া প্রবেশ করা যাবে না

প্রতি শনিবার সকাল ১০টায় ১০ মিনিট সময় চাই: আতিকুল ইসলাম

আপডেট : ৩০ জুলাই ২০২১, ১৩:৩৮

সপ্তাহের প্রতি শনিবার সকাল ১০টায় নিজ নিজ বাসা-বাড়ি পরিচ্ছন্ন রাখতে নগরবাসীকে অন্তত ১০ মিনিট সময় দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম। আজ শুক্রবার (৩০ জুলাই) সকালে গুলশানের নগর ভবন থেকে ডিএনসিসির বিভিন্ন এলাকার সার্বিক অবস্থা সম্পর্কে খোঁজখবর নিতে গিয়ে ডিএনসিসি মেয়র এ আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রমকে একটি  সামাজিক আন্দোলনে রূপ দিতে হবে এবং এডিস মশার বংশবিস্তাররোধে আমাদের সকলকেই লজ্জা পরিহার করে প্রতি শনিবার সকাল ১০টায় ১০ মিনিট স্বতঃস্ফূর্তভাবে নিজ নিজ বাসাবাড়ি পরিষ্কার করতে হবে।

আতিকুল ইসলাম জানান, তিনি নিজেও আগামীকাল শনিবার সকাল ১০টায় ১০ মিনিট নিজের বাসাবাড়ি পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করবেন এবং তার ফেসবুক ভেরিফাইড পেইজ থেকেও তা শেয়ার করবেন। ডিএনসিসি মেয়র নগরবাসীকেও একযোগে এক‌ই সময়ে নিজ নিজ বাসাবাড়ি পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করতে এবং তা ফেসবুকে শেয়ার দিতে আহ্বান জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ইতোমধ্যে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের আওতাভুক্ত মসজিদের ইমামগণ যাতে শুক্রবারের জুম্মার নামাজের খুতবায় মুসল্লিদের উদ্দেশে ‘১০টায় ১০ মিনিট প্রতি শনিবার, নিজ নিজ বাসাবাড়ি করি পরিষ্কার’ স্লোগানটির গুরুত্ব ও তাৎপর্য তুলে ধরে কমপক্ষে পাঁচ মিনিট আলোচনা করেন সেজন্য অনুরোধপত্র প্রেরণ করা হয়েছে।
 
এডিস মশা, ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া প্রতিরোধকল্পে সমাজের সর্বস্তরের মানুষকে এগিয়ে আসতে হবে, নিজেদের বাসাবাড়ি ও আশেপাশের পরিবেশকে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখার আহ্বান জানান আতিকুল ইসলাম। ডিএনসিসি মেয়র বলেন, নিজেদের বাসাবাড়িতে ফুলের টব, যানবাহনের অব্যবহৃত টায়ার, ডাবের খোসা, বিভিন্ন ধরনের খোলা প্যাকেট বা পাত্র, ছাদ কিংবা অন্য কিছুতে যাতে তিন দিনের বেশি পানি জমে না থাকে সে বিষয়ে খেয়াল রাখতে হবে।

তিনি বলেন, করোনা মহামারিকালে যেন ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়ায় কার‌ও মৃত্যু না হয়, সেজন্যই ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের ১০টি অঞ্চলের ৫৪টি ওয়ার্ডে একযোগে ২৭ জুলাই থেকে ৭ আগস্ট পর্যন্ত শুক্রবার ব্যতীত ১০ দিনব্যাপী মশক নিধনে চিরুনি অভিযানসহ জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে।

নগরবাসীর কল্যাণে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ৪৪টি নগর স্বাস্থ্যকেন্দ্রেই ফ্রি ডেঙ্গু পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হয়েছে বলেও জানান মেয়র।

/এসএস/ইউএস/

সম্পর্কিত

সাপ্তাহিক ছুটির দিনে ঢিলেঢালা চেকপোস্ট

সাপ্তাহিক ছুটির দিনে ঢিলেঢালা চেকপোস্ট

অধস্তন আদালতের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কালো ব্যাজ পরিধানের নির্দেশ

অধস্তন আদালতের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কালো ব্যাজ পরিধানের নির্দেশ

ইউনাইটেড হাসপাতালে আগুনে মৃত্যু: চার পরিবার পেলো ১ কোটি টাকা

ইউনাইটেড হাসপাতালে আগুনে মৃত্যু: চার পরিবার পেলো ১ কোটি টাকা

ডিএনসিসিতে ৩৬ মামলায় সাড়ে ৪ লাখ টাকা জরিমানা

ডিএনসিসিতে ৩৬ মামলায় সাড়ে ৪ লাখ টাকা জরিমানা

সাপ্তাহিক ছুটির দিনে ঢিলেঢালা চেকপোস্ট

আপডেট : ৩০ জুলাই ২০২১, ১৩:১২

করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে চলমান কঠোর লকডাউনে প্রতিদিনই রাজধানীর সড়কগুলোতে ব্যক্তিগত ও জরুরি পরিষেবার গাড়ি এবং রিকশার চাপ লক্ষ্য করা যাচ্ছে। তবে আজ শুক্রবার (৩০ জুলাই) সাপ্তাহিক ছুটির দিনে সড়কে মানুষের চলাচল কম লক্ষ্য করা গেছে। চেকপোস্টে দায়িত্বরত আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা বলছেন, এমনিতেই সাপ্তাহিক ছুটির দিন, তারওপর সকাল থেকে বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টি হওয়ায় লোকজন খুব একটা বাইরে বের হননি।

নগরীর মালিবাগ, শান্তিনগর, মৌচাক ও রামপুরাস্থ সড়কে থাকা পুলিশের চেকপোস্ট ঘুরে দেখা গেছে, কিছু মানুষ আজও রিকশা, মোটরসাইকেল বা প্রাইভেট কারে করে বাইরে বের হচ্ছেন। তাদের কেউ হাসপাতালে যাচ্ছেন বা কাঁচাবাজারের উদ্দেশে বেরিয়েছেন। তবে সন্দেহ হলে চেকপোস্টে তাদের বাইরে বের হওয়ার বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

শান্তিনগর চেক পোস্টের পুলিশ সার্জেন্ট মো. ইউসুফ পাটোয়ারি বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, আজ এমনিতেই শুক্রবার। তাই ব্যাংক, বিমাসহ অন্যান্য সব অফিসই বন্ধ। বিশেষ করে এই এলাকা থেকে মতিঝিল, দিলকুশা ও এর আশপাশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে কর্মরতরা বেশি চলাচল করে থাকে। আজ ছুটির দিন হওয়ায় তাদের উপস্থিতি কম। এদিকে পাশেই রাজারবাগ পুলিশ লাইন থাকায় পুলিশ সদস্যদের এ এলাকা দিয়ে চলাচলটা বেশি। তবে সকাল থেকে এ পর্যন্ত কাউকে আটক বা জরিমানা করা হয়নি।

রামপুরা চেকপোস্টের পুলিশ সার্জেন্ট মো. আরিফুর রহমান বাংলা ট্রিবিউনকে জানালেন, অনেকেই জরুরি প্রয়োজনেই সড়কে চলাচল করছেন। বিশেষ করে মধ্যবিত্তরা বেশি অসহায় পড়েছেন। আবার অনেকেই অযৌক্তিক কারণেও বাইরে বেরোচ্ছেন, আমরা সন্দেহ হলেই জিজ্ঞাসাবাদ করছি। বাইরে বের হওয়ার উপযুক্ত কারণ দেখাতে না পারলে জরিমানা করছি। সকাল থেকে এ পর্যন্ত ১০ জনকে প্রায় ১৯ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

কী কী কারণে লোকজন বাইরে বের হচ্ছেন- জানতে চাইলে তিনি বলেন, যাদের জরিমানা করা হয়েছে একজন সিগন্যাল অমান্য করেছেন এবং কয়েকজনের গাড়ির কাগজ ঠিক ছিল না। আর কেউ কেউ টিকা নেওয়ার জন্য বের হচ্ছেন, কেউ আবার ছুটির দিনেও জরুরি পরিষেবার অফিস খোলা থাকায় বাইরে বেরিয়েছেন।

/বিআই/ইউএস/

সম্পর্কিত

লকডাউনে বন্ধ মার্কেট ও দোকানে চলছে ‘বিকল্প’ লেনদেন

লকডাউনে বন্ধ মার্কেট ও দোকানে চলছে ‘বিকল্প’ লেনদেন

অধস্তন আদালতের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কালো ব্যাজ পরিধানের নির্দেশ

অধস্তন আদালতের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কালো ব্যাজ পরিধানের নির্দেশ

ডিএনসিসিতে দেড় হাজার কর্মহীন পরিবহন শ্রমিকের মাঝে ত্রাণ বিতরণ

ডিএনসিসিতে দেড় হাজার কর্মহীন পরিবহন শ্রমিকের মাঝে ত্রাণ বিতরণ

লকডাউন অমান্য করায় রাজধানীতে গ্রেফতার ৫৬৮

লকডাউন অমান্য করায় রাজধানীতে গ্রেফতার ৫৬৮

দেশে পৌঁছেছে সিনোফার্মের ৩০ লাখ ডোজ টিকা

আপডেট : ৩০ জুলাই ২০২১, ১৩:২৭

চীনের সিনোফার্মের আরও ৩০ লাখ ডোজ করোনার টিকা দেশে পৌঁছেছে।

শুক্রবার (৩০ জুলাই) স্বাস্থ্য অধিদফতরের ভ্যাকসিন ডেপ্লয়মেন্ট কমিটির সদস্য সচিব ডা. শামসুল হক বাংলা ট্রিবিউনকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

অধিদফতরের একটি সূত্র জানায়, এসব টিকার ১০ লাখ ডোজ স্বাস্থ্য অধিদফতরের কেন্দ্রীয় সম্প্রসারিত টিকাদান কর্মসূচির (ইপিআই) কোল্ড স্টোরে সংরক্ষণ করা হয়েছে। আর ২০ লাখ ডোজ টিকা রাখা হয়েছে বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালসের কোল্ড স্টোরেজে।

এর আগে, গত বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) দিনগত রাতে পৃথক ফ্লাইটে চীন থেকে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে টিকাগুলো এসে পৌঁছায়।

উল্লেখ্য, সিনোফার্মের দেড় কোটি ডোজ টিকা কিনতে চীনের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়েছে সরকার। তিন মাসের মধ্যে এগুলো পর্যায়ক্রমে দেশে আসবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

এর আগে চুক্তির আওতায় গত ৩ জুলাই দিনে এবং ওইদিন রাতে দুই দফায় ২০ লাখ ডোজ সিনোফার্মের টিকা চীন থেকে দেশে পৌঁছায়। এরপর গত ১৭ জুলাই ১০ লাখ এবং ১৮ জুলাই আরও ১০ লাখ, মোট ২০ লাখ ডোজ টিকা দেশে আসে।

তারও আগে গত ১২ মে পাঁচ লাখ এবং ১৩ জুন ছয় লাখ ডোজ সিনোফার্মের টিকা উপহার হিসেবে বাংলাদেশকে দেয় চীন সরকার।

সেই হিসেবে উপহার এবং কেনা চুক্তির আওতায় মোট ৫১ লাখ ডোজ সিনোফার্মের টিকা দেশে এসেছে। বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) দিনগত রাতে আসা ৩০ লাখ ডোজসহ এ পর্যন্ত মোট ৮১ লাখ সিনোফার্মের টিকা পেয়েছে বাংলাদেশ। 

আরও পড়ুন: সিনোফার্মের আরও ৩০ লাখ ডোজ টিকা আসছে রাতে

/জেএ/এমএস/

সম্পর্কিত

অন্তঃসত্ত্বা নারীদের অগ্রাধিকার-ভিত্তিতে টিকা দিতে আইনি নোটিশ

অন্তঃসত্ত্বা নারীদের অগ্রাধিকার-ভিত্তিতে টিকা দিতে আইনি নোটিশ

‘সবাইকে নিয়ে সেই বিপদেই পড়তে হলো’

‘সবাইকে নিয়ে সেই বিপদেই পড়তে হলো’

কোথায় গেলে একটা সিট পাবো?

কোথায় গেলে একটা সিট পাবো?

‘হতভম্ব’ জাতীয় কমিটি এবার ‘হতাশ’

‘হতভম্ব’ জাতীয় কমিটি এবার ‘হতাশ’

লকডাউনে বন্ধ মার্কেট ও দোকানে চলছে ‘বিকল্প’ লেনদেন

আপডেট : ৩০ জুলাই ২০২১, ১৩:১৮

করোনাভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে গত ২৩ জুলাই থেকে কঠোর বিধিনিষেধ জারি করা হয়। জরুরি সেবা ব্যতীত বন্ধ ঘোষণা করা হয় সকল শপিং মল ও দোকানপাট। আগামী ৫ আগস্ট পর্যন্ত বিধিনিষেধ জারি করা থাকলেও এরইমধ্যে নানা কৌশলে যে যেভাবে পারছেন দোকান খোলা রাখা ও কেনাবেচা চালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছেন।

রাজধানীতে মোবাইল বিক্রি ও সারাইয়ের অন্যতম বড় মার্কেট মোতালেব প্লাজা। চলমান লকডাউনে বন্ধ থাকলেও সকাল ১০টার পর থেকেই এই মার্কেটের সামনে দোকানের কর্মচারীদের আনাগোনা দেখা যায়। নতুন মোবাইল লাগবে? কিংবা ভেঙে গেছে মোবাইলের স্ক্রিন? ‑ মার্কেটের সামনে গেলে মিলবে সমাধান। কিংবা অনলাইনে কেনাবেচা চলছে? শাড়ি লাগবে কিংবা কাপড়ের থান? শপিং মলের ভেতর থেকে অথবা গোডাউন থেকে তাও পৌঁছে যাবে আপনার বাসায় ঠিকঠাক।

আবার আবাসিক এলাকা কিংবা পুরান ঢাকার সারি সারি দোকানে নেওয়া হয়েছে আরেক কৌশল। শংকর, মোহাম্মদপুর, মিরপুরের নানা এলাকা ঘুরে দেখা যায় দোকানের শাটার অর্ধেক খোলা থাকে। কোনওটা বা পুরো বন্ধ। কিন্তু দোকানের সামনে বা আশেপাশে রয়েছেন দোকানি। ক্রেতা দেখলে প্রয়োজন জেনে নিয়ে টুপ করে দোকানের ভেতর থেকে পাঠিয়ে দিচ্ছেন সদাই।

একদিকে করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে নেওয়া হচ্ছে নানা উদ্যোগ, আরেকদিকে জীবিকার তাগিদে মানুষের এই চোর-পুলিশ খেলা। এতে করে সংক্রমণ আসলে কমবে না বলে শঙ্কা জনস্বাস্থ্যবিদদের। তারা বলছেন, যাদের জন্য এতো বিধিনিষেধ তারাই যদি বিষয়ের গুরুত্ব না বুঝতে চান তাহলে সবাই মিলেই বিপদে পড়তে হবে।

গত ২৪ ঘণ্টায় (স্বাস্থ্য অধিদফতরের ২৯ জুলাইয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী) করোনাতে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ২৩৯ জন। তাদের নিয়ে করোনাতে সরকারি হিসাবে মোট মারা গেলেন ২০ হাজার ২৫৫ জন।

একই সময়ে করোনাতে শনাক্ত হয়েছেন ১৫ হাজার ২৭১ জন। দেশে সরকারি হিসেবে করোনাতে মোট শনাক্ত হলেন ১২ লাখ ২৬ হাজার ২৫৩ জন।

স্বাস্থ্য অধিদফতর জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ২৩৯ জনের মধ্যে শনাক্ত হওয়া ১৫ হাজার ২৭১ জনের মধ্যে সবচেয়ে বেশী রোগীর মৃত্যু এবং সবচেয়ে বেশি রোগী শনাক্ত হয়েছেন ঢাকা বিভাগে।

কথা হয় মোতালিব প্লাজার এক দোকানীর সঙ্গে। তিনি জানান, পরিচিতদের মধ্যে, অনলাইনে যারা যোগাযোগ করতে পারছেন তারা সেবা পাচ্ছেন। দিনের পর দিন দোকান বন্ধ রাখলে তাদের চাকরি থাকবে না বলে কর্মচারীরা রিস্ক নিয়ে মার্কেটের সামনে থাকেন।

মোহাম্মদপুরের এক ইলেক্ট্রিকের যন্ত্রপাতির দোকানের কর্মচারী বসে ছিলেন দোকানের সামনে। শুরুতে ক্রেতা ভেবে এগিয়ে এলেও সাংবাদিক শুনে আর কথা বলতে চাননি। পরে নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, আমাদের শাটার লাগিয়ে সামনে থাকতে বলা হয়েছে। ফোনে অর্ডার করা হলে দোকানে ঢুকে মাল নিয়ে আবার শাটার ফেলে দেওয়া হয়। পুলিশ টহলে এলে আশেপাশের গলিতে অবস্থান নেন সকলে।

ঘোষণা অনুযায়ী বন্ধ থাকার কথা থাকলেও লুকিয়ে দোকান-শপিং মল খোলার চেষ্টা হওয়ার কথা অস্বীকার করছেন না খোদ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মওদুদ হাওলাদার বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী শপিং মলগুলো বন্ধ রয়েছে। তবে অনেক সময় আমরা শুনতে পাই শপিং মল খোলা রাখা হচ্ছে এবং পুলিশের তৎপরতা দেখলে বন্ধ করে তারা সরে যাচ্ছেন। মোতালেব প্লাজার বিষয়ে আপনি যে বিষয়টি আমাদেরকে অবহিত করেছেন সে বিষয়ে আমরা আরও খোঁজ-খবর নিচ্ছি। অনেক সময় আমরা দেখতে পাই‑ আমাদের উপস্থিতি টের পেয়ে অনেকে আমাদের সাথে চোর-পুলিশ খেলা শুরু করে।

/এমএস/

সম্পর্কিত

সাপ্তাহিক ছুটির দিনে ঢিলেঢালা চেকপোস্ট

সাপ্তাহিক ছুটির দিনে ঢিলেঢালা চেকপোস্ট

লকডাউন অমান্য করায় রাজধানীতে গ্রেফতার ৫৬৮

লকডাউন অমান্য করায় রাজধানীতে গ্রেফতার ৫৬৮

এখনও ভেঙে ভেঙে রাজধানীতে আসছে মানুষ

এখনও ভেঙে ভেঙে রাজধানীতে আসছে মানুষ

ঢাকায় গ্রেফতার বেড়েছে

ঢাকায় গ্রেফতার বেড়েছে

ঝরে পড়াদের শিক্ষায় ফিরিয়ে আনার আহ্বান বাউবি ভিসির

আপডেট : ৩০ জুলাই ২০২১, ১১:২৮

ঝরে পড়া শিক্ষার্থীদের শিক্ষায় ফিরিয়ে আনার আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাউবি) উপাচার্য (ভিসি) অধ্যাপক ড. সৈয়দ হুমায়ুন আখতার। দেশের ১২টি আঞ্চলিক কেন্দ্রের আঞ্চলিক পরিচালকদের সঙ্গে ভার্চুয়াল মতবিনিময় সভায় সংশ্লিষ্টদের তিনি এ আহ্বান জানান।

বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঠানো প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, বুধবার (২৮ জুলাই) রাতে মতবিনিময় সভায় উপাচার্য আঞ্চলিক পরিচালকদের ঝরে পড়া শিক্ষার্থীদের শিক্ষায় ফেরানোর বিষয়ে উদ্যোগ নিতে বলেন।

মতবিনিময় সভায় বাউবি উপাচার্য বলেন, “জাতির পিতার  ‘সোনার বাংলা’ গড়ার স্বপ্ন বাস্তবায়নে বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারকে দৃঢ় প্রত্যয় ও অঙ্গীকার নিতে হবে। এই লক্ষ্যে দক্ষ জনশক্তি সৃজনে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় সারাদেশে শিক্ষা সুবিধা বিস্তরণ করে চলেছে।”

মতবিনিময়কালে উপাচার্য মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের নিষ্ঠা ও সততার সঙ্গে কাজ করার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, ‘দেশের আর্থসামাজিক অবস্থার কথা বিবেচনা করে প্রান্তিক জনগোষ্ঠী, পিছিয়ে পড়া নারী ও ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর জনগণকে শিক্ষায় ফেরাতে হবে। পিছিয়ে পড়া অঞ্চলের চাহিদার সঙ্গে মিল রেখে বাউবিতে নীড বেজ এডুকেশন, গণশিক্ষা, কর্মমুখী শিক্ষা ও জীবনব্যাপী শিক্ষা চালু করতে হবে।’

মতবিনিময় সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ড. মহা. শফিকুল আলম বক্তব্য রাখেন।

/এসএমএ/এমএস/

সম্পর্কিত

এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা নিতে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই পরিকল্পনা

এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা নিতে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই পরিকল্পনা

এলএলএম-এ ভর্তির সুযোগ পাচ্ছেন না উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা

এলএলএম-এ ভর্তির সুযোগ পাচ্ছেন না উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা

সর্বশেষ

প্রতি শনিবার সকাল ১০টায় ১০ মিনিট সময় চাই: আতিকুল ইসলাম

প্রতি শনিবার সকাল ১০টায় ১০ মিনিট সময় চাই: আতিকুল ইসলাম

সাপ্তাহিক ছুটির দিনে ঢিলেঢালা চেকপোস্ট

সাপ্তাহিক ছুটির দিনে ঢিলেঢালা চেকপোস্ট

টানা বৃষ্টিতে সাতক্ষীরায় ব্যাপক ক্ষতি, বাঁধ ভাঙার শঙ্কা

টানা বৃষ্টিতে সাতক্ষীরায় ব্যাপক ক্ষতি, বাঁধ ভাঙার শঙ্কা

দেশে পৌঁছেছে সিনোফার্মের ৩০ লাখ ডোজ টিকা

দেশে পৌঁছেছে সিনোফার্মের ৩০ লাখ ডোজ টিকা

সিলেট-৩ আসনের উপনির্বাচন ৪ সেপ্টেম্বর

সিলেট-৩ আসনের উপনির্বাচন ৪ সেপ্টেম্বর

লকডাউনে বন্ধ মার্কেট ও দোকানে চলছে ‘বিকল্প’ লেনদেন

লকডাউনে বন্ধ মার্কেট ও দোকানে চলছে ‘বিকল্প’ লেনদেন

গৃহবধূর সঙ্গে পুলিশ সদস্যের অনৈতিক সম্পর্কের অভিযোগ, বাড়ি ঘেরাও 

গৃহবধূর সঙ্গে পুলিশ সদস্যের অনৈতিক সম্পর্কের অভিযোগ, বাড়ি ঘেরাও 

গাছের সঙ্গে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় প্রাণ গেল দুই বন্ধুর

গাছের সঙ্গে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় প্রাণ গেল দুই বন্ধুর

সাঁতারে বিশ্ব রেকর্ড গড়ে দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম সোনা

টোকিও অলিম্পিকসাঁতারে বিশ্ব রেকর্ড গড়ে দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম সোনা

ইয়াবাসহ গ্রেফতার পুলিশ সদস্য রিমান্ডে

ইয়াবাসহ গ্রেফতার পুলিশ সদস্য রিমান্ডে

করোনায় অসহায় মানুষের পাশে মৌসুমী ও সুমি  (ভিডিও)

করোনায় অসহায় মানুষের পাশে মৌসুমী ও সুমি  (ভিডিও)

খুলনার হাসপাতালে মৃত্যু কমেছে

খুলনার হাসপাতালে মৃত্যু কমেছে

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

দেশে পৌঁছেছে সিনোফার্মের ৩০ লাখ ডোজ টিকা

দেশে পৌঁছেছে সিনোফার্মের ৩০ লাখ ডোজ টিকা

‘মানবপাচার মামলার প্রসিকিউশনে ত্রুটিগুলোর দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে’

‘মানবপাচার মামলার প্রসিকিউশনে ত্রুটিগুলোর দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে’

সৌদি আরব থেকে ফেরত পাঠালে হজ-ওমরাহ ছাড়া প্রবেশ করা যাবে না

সৌদি আরব থেকে ফেরত পাঠালে হজ-ওমরাহ ছাড়া প্রবেশ করা যাবে না

অধস্তন আদালতের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কালো ব্যাজ পরিধানের নির্দেশ

অধস্তন আদালতের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কালো ব্যাজ পরিধানের নির্দেশ

সুন্দরবন যেমন আছে তেমনই থাকতে দিন: সুলতানা কামাল

সুন্দরবন যেমন আছে তেমনই থাকতে দিন: সুলতানা কামাল

সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে: খেলাফত মজলিস

সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে: খেলাফত মজলিস

ডিএনসিসিতে দেড় হাজার কর্মহীন পরিবহন শ্রমিকের মাঝে ত্রাণ বিতরণ

ডিএনসিসিতে দেড় হাজার কর্মহীন পরিবহন শ্রমিকের মাঝে ত্রাণ বিতরণ

অন্তঃসত্ত্বা নারীদের অগ্রাধিকার-ভিত্তিতে টিকা দিতে আইনি নোটিশ

অন্তঃসত্ত্বা নারীদের অগ্রাধিকার-ভিত্তিতে টিকা দিতে আইনি নোটিশ

কত প্রকার মাদক আছে দেশে?

মাদক ভয়ংকর-৪কত প্রকার মাদক আছে দেশে?

© 2021 Bangla Tribune