X
শুক্রবার, ২৩ জুলাই ২০২১, ৮ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

দিনাজপুর সদরে করোনা শনাক্তের হার ৩৬.৯৮ শতাংশ

আপডেট : ০৪ জুন ২০২১, ১৬:২৪

করোনা শনাক্তের হার ও মৃত্যুর সংখ্যা মারাত্মকভাবে বেড়েছে দিনাজপুর সদর উপজেলায়। এই উপজেলায় সর্বশেষ শুক্রবার (৪ জুন) করোনা শনাক্তের হার ৩৬ দশমিক ৯৮ শতাংশ।

সিভিল সার্জন কার্যালয়ের হিসাব বলছে, প্রতিদিন জেলার ১৩টি উপজেলাতে যে পরিমাণে মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয় তার অর্ধেকেরও বেশি পরিমাণ সদর উপজেলায়। গত দশ দিনের হিসাবে দেখা গেছে, জেলার ১৩টি উপজেলায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ২২৮ জন, যার মধ্যে সদর উপজেলাতে ১৬৮ জন। অর্থাৎ মোট আক্রান্তের ৭৩ দশমিক ৬৯ শতাংশ সদর উপজেলাতেই।

এখন পর্যন্ত দিনাজপুর জেলায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১৩১ জন, যার মধ্যে শুধু সদর উপজেলাতে রয়েছেন ৬৩ জন। অর্থাৎ মোট মৃত্যুর ৪৮.০৯ শতাংশই সদর উপজেলায়। বাকি ১২টি উপজেলায় ৫১.৯১ শতাংশ। এখন পর্যন্ত এই জেলায় করোনা শনাক্ত হয়েছে ৫ হাজার ৯২৫ জনের। যার মধ্যে শুধু সদর উপজেলাতেই ৩ হাজার ৩৩৮ জন। শনাক্তের ৫৬.৩৪ শতাংশই সদরে।

দিনাজপুর সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার এই জেলায় মোট নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১৪০টি আর শনাক্ত হয়েছে ৩২টি। করোনা শনাক্তের হার ২২.৮৫ শতাংশ। এর মধ্যে সদর উপজেলার নমুনা ছিল ৭৩টি আর শনাক্ত হয়েছে ২৭টি। অর্থাৎ এই উপজেলায় শনাক্তের হার ৩৬.৯৮ শতাংশ। এর আগে বৃহস্পতিবার এই উপজেলায় করোনা শনাক্তের হার ছিল ৪৮.৩৩ শতাংশ। ওইদিন সদর উপজেলায় করোনার নমুনা পরীক্ষা হয় ৬০টি। এর মধ্যে শনাক্ত হয় ২৯টি। ওইদিন পুরো জেলায় করোনার পরীক্ষা হয়েছিল ১৪০টি এবং শনাক্ত হয়েছিল ৩৫টি। শনাক্তের হার ছিল ২৫.০০ শতাংশ।

সদর উপজেলায় করোনার শনাক্তের হার বাড়ার বিষয়ে কথা হলে সিভিল সার্জন ও করোনা প্রতিরোধ কমিটির সদস্য সচিব ডা. আব্দুল কুদ্দুছ বলেন, ‘এখনও সদর উপজেলা লকডাউনের সময় হয়নি, দেরি আছে।’

 

/এমএএ/

সম্পর্কিত

মদপানে ২ জনের মৃত্যু, হাসপাতালে ৫

মদপানে ২ জনের মৃত্যু, হাসপাতালে ৫

লকডাউন অমান্য করায় ব্যবসায়ীর ৭ দিনের জেল

লকডাউন অমান্য করায় ব্যবসায়ীর ৭ দিনের জেল

ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে চলছে হালকা যানবাহন

ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে চলছে হালকা যানবাহন

খুলনা বিভাগে আরও ৩০ জনের মৃত্যু

খুলনা বিভাগে আরও ৩০ জনের মৃত্যু

মাছের ড্রামের ভেতরে লুকিয়ে বাড়ি যাচ্ছিলেন তারা

আপডেট : ২৩ জুলাই ২০২১, ২২:৪৬

করোনাভাইরাস রোধে সরকার আরোপিত কঠোর লকডাউনে জরুরি পণ্য পরিবহনের কাজে নিয়োজিত যানবাহন ছাড়া অন্যান্য যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। এতে মাছের ড্রামের ভেতরে ঢুকে পিকআপে চড়ে রাজধানী থেকে ময়মনসিংহ যাচ্ছিলেন ১০ যাত্রী।

শুক্রবার (২৩ জুলাই) সকালে ঢাকা থেকে রওনা হয় পিকআপটি। এটির মাছের ড্রামে থাকা মানুষগুলো আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের চোখ ফাঁকি দিয়ে মহাসড়কের বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ চেকপোস্ট পার হলেও গাজীপুরের রাজেন্দ্রপুরে এসে পুলিশের হাতে ধরা পড়েন।

পিকআপটি দেখে রাজেন্দ্রপুরে কর্তব্যরত ট্রাফিক পুলিশের সন্দেহ হলে দাঁড় করিয়ে তল্লাশি চালিয়ে মাছের ড্রামে লুকিয়ে থাকা যাত্রীদের বের করে আনা হয়। পরে তাদের ছেড়ে দেওয়া হলেও পিকআপ চালকের বিরুদ্ধে প্রচলিত আইনে মামলা দায়ের করা হয়।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন ট্রাফিক পুলিশের এসি (উত্তর) মেহেদী হাসান জানান, লকডাউনে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের রাজেন্দ্রপুর চৌরাস্তায় চেকপোস্ট বসিয়ে বিভিন্ন গাড়িতে তল্লাশি চালায় ট্রাফিক পুলিশ। এ সময় ঢাকা থেকে ময়মনসিংহগামী একটি মাছের ড্রাম ভর্তি পিকআপ দেখে সন্দেহ হলে থামিয়ে তল্লাশি করা হয়। পিকআপে থাকা মাছের ড্রামের ভেতর থেকে ১০ জন যাত্রীকে বের করে আনা হয়। পরে যাত্রীদের নামিয়ে ছেড়ে দেওয়া হলেও চালকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

এদিকে, লকডাউনের প্রথম দিনে গাজীপুরের সড়কগুলোতে হালকা যানবাহন ছাড়া অন্য কোনও যানবাহন চলাচল করতে দেখা যায়নি। মহাসড়কের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ মোড়ে মোড়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের উপস্থিতি ছিল লক্ষণীয়।

/এফআর/

সম্পর্কিত

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় রিসোর্টে ঘুরতে গিয়ে জরিমানা গুনলেন ২৫ জন

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় রিসোর্টে ঘুরতে গিয়ে জরিমানা গুনলেন ২৫ জন

চাকরির প্রলোভনে টঙ্গীতে তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগ

চাকরির প্রলোভনে টঙ্গীতে তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগ

বিয়ের রাত কাটলো লঞ্চের ডেকে

বিয়ের রাত কাটলো লঞ্চের ডেকে

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় রিসোর্টে ঘুরতে গিয়ে জরিমানা গুনলেন ২৫ জন

আপডেট : ২৩ জুলাই ২০২১, ২১:৪৩

করোনাভাইরাস রোধে সরকার আরোপিত কঠোর লকডাউন উপেক্ষা করে ঈদ পরবর্তী বিনোদনের জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়ার একটি রিসোর্টে ঘুরতে গিয়ে জরিমানা গুনেছেন ২৫ নারী-পুরুষ। শুক্রবার (২৩ জুলাই) দুপুরে জেলার কসবা উপজেলার কুটি ইউনিয়নের কাঠের পুল এলাকায় ‘কিং অব কসবা’ নামক রিসোর্টে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে তাদের জরিমানা করা হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন কসবা উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হাসিবা খান। তিনি বলেন, ‘সরকার ঘোষিত কঠোর লকডাউন বাস্তবায়নে প্রশাসন কাজ করে যাচ্ছে। এরই অংশ হিসেবে আজ দুপুরে কিং অফ কসবা রিসোর্টে ঘোরাঘুরি করতে আসা ২৫ জনকে ছয় হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।’

তিনি আরও বলেন, ‘লকডাউন বাস্তবায়নে আমরা প্রচার-প্রচারণা ও মাস্ক বিতরণের মাধ্যমে মানুষকে সচেতন করছি। আমাদের এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।’

অভিযানকালে সেনাবাহিনীসহ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

/এফআর/

সম্পর্কিত

পিকআপে থাকা মাছের ড্রাম থেকে বেরিয়ে এলো ১০ যাত্রী

পিকআপে থাকা মাছের ড্রাম থেকে বেরিয়ে এলো ১০ যাত্রী

বিয়ের রাত কাটলো লঞ্চের ডেকে

বিয়ের রাত কাটলো লঞ্চের ডেকে

লকডাউন অমান্য করায় ব্যবসায়ীর ৭ দিনের জেল

লকডাউন অমান্য করায় ব্যবসায়ীর ৭ দিনের জেল

মদপানে ২ জনের মৃত্যু, হাসপাতালে ৫

আপডেট : ২৩ জুলাই ২০২১, ২০:৫৪

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে মদপানে দুই যুবকের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন আরও পাঁচজন।

মৃতরা হলেন- মেহেদী হাসান সোহাগ (৩২) ও তৌফিকুজ্জামান সৈকত (৩০)। এর মধ্যে শুক্রবার (২৩ জুলাই) সকাল ১১টায় বগুড়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় সোহাগের। বৃহস্পতিবার (২২ জুলাই) রাত ১০টার দিকে হাসপাতালে নেওয়ার সময় মারা যান সৈকত।

সোহাগ গোবিন্দগঞ্জ পৌর শহরের চক গোবিন্দ পাঠানপাড়ার আলমগীর হোসেন প্রধানের ছেলে এবং সৈকত চক গোবিন্দ ঝিলপাড়ার মোশারফ হোসেনের ছেলে।

আহতরা হলেন- চক গোবিন্দ পশ্চিম চৌমাথা এলাকার নুরুল ইসলামের ছেলে রানা (৩২), সাজু মিয়ার ছেলে রানা (২৮), মৃত বাদল চন্দ্রের ছেলে বাঁধন সরকার (২৬), বাপ্পী (২৮) ও অভি (৩০)। 

বিষয়টি নিশ্চিত করে গোবিন্দগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) তাজুল ইসলাম জানান, মারা যাওয়ার কারণ উদ্ধারে পুলিশ তদন্তে নেমেছে। তবে মৃতদের পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় কোনও অভিযোগ করা হয়নি।

এ বিষয়ে মেহেদী ও সৈকতের পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও তারা বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে রাজি হয়নি। স্থানীয়রা জানান, সোহাগ, সৈকতসহ অসুস্থরা বৃহস্পতিবার রাতে একসঙ্গে বসে মদপান করেন। মদপানের প্রায় দুই ঘণ্টা পর তারা অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাদেরকে স্থানীয় হাসপাতালে নেওয়া হলে রাতে সৈকত এবং আজ সকালে সোহাগের মৃত্যু হয়। অসুস্থ অন্যরা বগুড়ার শজিমেক ও রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

গোবিন্দগঞ্জ হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. শরিফুল ইসলাম জানান, সোহাগ, সৈকত ও রানা নামের তিন যুবককে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। অ্যালকোহল জাতীয় কিছু পান করার ফলে তারা অসুস্থ হয়ে পড়েন।

/এফআর/

সম্পর্কিত

লকডাউন অমান্য করায় ব্যবসায়ীর ৭ দিনের জেল

লকডাউন অমান্য করায় ব্যবসায়ীর ৭ দিনের জেল

ময়লার ভাগাড় ও রাস্তায় পড়ে আছে চামড়া

ময়লার ভাগাড় ও রাস্তায় পড়ে আছে চামড়া

রংপুরে আরও ১৫ মৃত্যু, খালি নেই আইসিইউ বেড

রংপুরে আরও ১৫ মৃত্যু, খালি নেই আইসিইউ বেড

রেজিস্ট্রার অফিসের বারান্দায় সন্তান প্রসব!

রেজিস্ট্রার অফিসের বারান্দায় সন্তান প্রসব!

চাকরির প্রলোভনে টঙ্গীতে তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগ

আপডেট : ২৩ জুলাই ২০২১, ২০:৩১

গাজীপুরের টঙ্গীতে চাকরির প্রলোভনে এক তরুণীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ওই তরুণী শুক্রবার (২৩ জুলাই) দুপুরে টঙ্গী পূর্ব থানায় একটি মামলা করেছেন।

এর আগে, বৃহস্পতিবার (২২ জুলাই) দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে টঙ্গীর ভরান এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। টঙ্গী পূর্ব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাবেদ মাসুদ মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মামলার অভিযুক্ত আসামিরা হলো- টঙ্গীর ভরান এলাকার জয় (২৫), সৈকত (২৬) এবং তাদের এক সহযোগী।

মামলার এজাহারের বরাত দিয়ে ওসি জাবেদ মাসুদ জানান, বৃহস্পতিবার রাজধানীর উত্তরার একটি রেস্টুরেন্টে ভুক্তভোগীর সঙ্গে অভিযুক্তদের পরিচয় হয়। পরিচয়ের সূত্র ধরে চাকরি দেওয়ার কথা বলে ওই তরুণীকে টঙ্গীতে আসতে বলে অভিযুক্তরা। রাত সাড়ে ১২টায় টঙ্গীর ভরান এলাকায় গেলে স্থানীয় সাদিয়া ফার্নিচারের গোডাউনের পেছনে নিয়ে তরুণীকে জোরপূর্বক সংঘবদ্ধ ধর্ষণ করে।

তিনি আরও জানান, সকালে অভিযুক্তরা ভুক্তভোগীকে ফেলে রেখে চলে যায়। ভুক্তভোগীর লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে আজ দুপুরে মামলা নেওয়া হয়েছে। তাকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

/এফআর/

সম্পর্কিত

পিকআপে থাকা মাছের ড্রাম থেকে বেরিয়ে এলো ১০ যাত্রী

পিকআপে থাকা মাছের ড্রাম থেকে বেরিয়ে এলো ১০ যাত্রী

ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে চলছে হালকা যানবাহন

ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে চলছে হালকা যানবাহন

বিয়ের রাত কাটলো লঞ্চের ডেকে

আপডেট : ২৩ জুলাই ২০২১, ১৯:৫৫

ঈদের পরদিন বৃহস্পতিবার (২২ জুলাই) বিয়ে করেছেন মো. রাসেল ও সোনিয়া আক্তার। কিন্তু করোনা রোধে শুক্রবার (২৩ জুলাই) থেকে সরকার আরোপিত কঠোর লকডাউন শুরু হওয়ায় বিয়ের রাতে কর্মস্থলে ফিরতে নববধূকে নিয়ে লঞ্চের ডেকে বসেই ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেন বরিশালের উজিরপুর উপজেলার ওটরা ইউনিয়নের বাসিন্দা রাসেল। এতে করে বর-কনের সাজে তাদের বিয়ের রাত কেটেছে লঞ্চের ডেকে।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার রাতেই পারাবত-১০ লঞ্চের চতুর্থতলায় লঞ্চ মাস্টারের সামনের খোলা জায়গায় চাদর বিছিয়ে সেখানেই সারারাত কাটিয়ে দেন এ নবদম্পতি। রোজার ঈদের সময় রাসেল ও সোনিয়ার দেখাদেখি শেষে বিয়ের পাকা কথা হয়। বিয়ের তারিখ নির্ধারণ করা হয় ঈদুল আজহার পরদিন। সিদ্ধান্ত ছিল, করোনার কারণে হাতেগোনা কয়েকজনের উপস্থিতিতে বিয়ে হবে। আর লকডাউনের কারণে আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে নবদম্পতি চলে যাবে ঢাকায়।

ঢাকার একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করা রাসেল বলেন, ‘বসের সাফ কথা, কর্মস্থলে উপস্থিত থাকতে হবে। এ কারণে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে কোনোভাবে খাবার খেয়ে ঢাকায় যেতে বরিশাল নৌবন্দরে চলে আসি। কারণ মারাত্মক ভিড় হবে তাই আগেভাগেই আন্দাজ করেছি। বিকেলের মধ্যে বরিশাল নৌবন্দরে পৌঁছে পারাবত-১০ লঞ্চে উঠি। এর পূর্বে ঘাটে থাকা প্রতিটি লঞ্চে কেবিনের খোঁজ নিয়েছি। এমনকি স্টাফ কেবিনও খুঁজেছি। কিন্তু কোনও কিছুই ছিল না। ডেক থেকে শুরু করে ছাদেও যাত্রী ছিল। কোনোভাবে জায়গা ব্যবস্থা করতে না পেরে পারাবত লঞ্চের সারেংয়ের সামনে চাদর বিছিয়ে জায়গা করে নেই।’

রাসেল বলেন, ‘স্ত্রী বিয়ের কাপড়ে থাকায় বেশিরভাগ যাত্রীর দৃষ্টি ছিল আমাদের দিকে। বিয়ে করেই লঞ্চে ওঠার বিষয়টি সবাই বুঝতে পারে। এ নিয়ে একাধিক প্রশ্নের সম্মুখীনও হতে হয়েছে আমাকে। অনেকে আবার আস্তে আস্তে বলছিল, লকডাউনের মধ্যে বিয়ে। বিষয়গুলোর আমার কানে এলেও চুপচাপ থাকি।’

শুক্রবার ভোরবেলা সদরঘাট পৌঁছান তারা। হাসি দিয়ে সুমন বললেন, ‘বিয়ের রাতের ভিন্ন এক অভিজ্ঞতা হলো আমাদের দুইজনের।’

পারাবত-১০ লঞ্চের সুপারভাইজার মোখলেচুর রহমান বলেন, ‘আমারও তাদের কেবিন দেওয়ার চেষ্টা করেছি। কিন্তু এত যাত্রীর চাপ, এর মধ্যে কোনোভাবেই কেবিনের ব্যবস্থা করা যায়নি।’

/এফআর/

সম্পর্কিত

পিকআপে থাকা মাছের ড্রাম থেকে বেরিয়ে এলো ১০ যাত্রী

পিকআপে থাকা মাছের ড্রাম থেকে বেরিয়ে এলো ১০ যাত্রী

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় রিসোর্টে ঘুরতে গিয়ে জরিমানা গুনলেন ২৫ জন

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় রিসোর্টে ঘুরতে গিয়ে জরিমানা গুনলেন ২৫ জন

লকডাউন অমান্য করায় ব্যবসায়ীর ৭ দিনের জেল

লকডাউন অমান্য করায় ব্যবসায়ীর ৭ দিনের জেল

ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে চলছে হালকা যানবাহন

ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে চলছে হালকা যানবাহন

সম্পর্কিত

ঈদে হাজী দানেশের বিদেশি শিক্ষার্থীদের ভিন্নরকম অভিজ্ঞতা

ঈদে হাজী দানেশের বিদেশি শিক্ষার্থীদের ভিন্নরকম অভিজ্ঞতা

মদপানে ২ জনের মৃত্যু, হাসপাতালে ৫

মদপানে ২ জনের মৃত্যু, হাসপাতালে ৫

করোনারোধী পোশাক বিক্রির বিজ্ঞাপন দিয়ে বড় অংকের জরিমানা

করোনারোধী পোশাক বিক্রির বিজ্ঞাপন দিয়ে বড় অংকের জরিমানা

লকডাউন অমান্য করায় ব্যবসায়ীর ৭ দিনের জেল

লকডাউন অমান্য করায় ব্যবসায়ীর ৭ দিনের জেল

ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে চলছে হালকা যানবাহন

ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে চলছে হালকা যানবাহন

খুলনা বিভাগে আরও ৩০ জনের মৃত্যু

খুলনা বিভাগে আরও ৩০ জনের মৃত্যু

ময়লার ভাগাড় ও রাস্তায় পড়ে আছে চামড়া

ময়লার ভাগাড় ও রাস্তায় পড়ে আছে চামড়া

রংপুরে আরও ১৫ মৃত্যু, খালি নেই আইসিইউ বেড

রংপুরে আরও ১৫ মৃত্যু, খালি নেই আইসিইউ বেড

যশোর জেনারেল হাসপাতালে ৬ মৃত্যু

যশোর জেনারেল হাসপাতালে ৬ মৃত্যু

রাজশাহী মেডিক্যালে আরও ২২ জনের মৃত্যু 

রাজশাহী মেডিক্যালে আরও ২২ জনের মৃত্যু 

স্ত্রীর বেশ ধরে ইন্দোনেশীয় ফ্লাইটে করোনা আক্রান্ত ব্যক্তি

স্ত্রীর বেশ ধরে ইন্দোনেশীয় ফ্লাইটে করোনা আক্রান্ত ব্যক্তি

সর্বশেষ

৫ বছর পর হার, কারণটা জানালেন মাহমুদউল্লাহ 

৫ বছর পর হার, কারণটা জানালেন মাহমুদউল্লাহ 

মাছের ড্রামের ভেতরে লুকিয়ে বাড়ি যাচ্ছিলেন তারা

মাছের ড্রামের ভেতরে লুকিয়ে বাড়ি যাচ্ছিলেন তারা

বৌদ্ধ অধ্যুষিত তিব্বতে চীনের প্রেসিডেন্ট!

বৌদ্ধ অধ্যুষিত তিব্বতে চীনের প্রেসিডেন্ট!

লকডাউনে সীমিত পরিসরে চলবে হাইকোর্টের বিচার

লকডাউনে সীমিত পরিসরে চলবে হাইকোর্টের বিচার

চিকিৎসকদের কোয়ারেন্টিন বাতিল, আর কত হারাবেন তারা?

চিকিৎসকদের কোয়ারেন্টিন বাতিল, আর কত হারাবেন তারা?

ঈদে হাজী দানেশের বিদেশি শিক্ষার্থীদের ভিন্নরকম অভিজ্ঞতা

ঈদে হাজী দানেশের বিদেশি শিক্ষার্থীদের ভিন্নরকম অভিজ্ঞতা

সংক্রমণ ঠেকাতে ফাইজারের কার্যকারিতা কমছে: ইসরায়েলের গবেষণা

সংক্রমণ ঠেকাতে ফাইজারের কার্যকারিতা কমছে: ইসরায়েলের গবেষণা

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় রিসোর্টে ঘুরতে গিয়ে জরিমানা গুনলেন ২৫ জন

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় রিসোর্টে ঘুরতে গিয়ে জরিমানা গুনলেন ২৫ জন

হেরাতে তালেবান ঠেকানোর লড়াইয়ের নেতৃত্বে সাবেক মুজাহিদিন কমান্ডার

হেরাতে তালেবান ঠেকানোর লড়াইয়ের নেতৃত্বে সাবেক মুজাহিদিন কমান্ডার

করোনার মাঝেও অলিম্পিকের বর্ণাঢ্য উদ্বোধন

করোনার মাঝেও অলিম্পিকের বর্ণাঢ্য উদ্বোধন

অলিম্পিক গেমস উপলক্ষে গুগলের ডুডল

অলিম্পিক গেমস উপলক্ষে গুগলের ডুডল

দ্বিতীয় ঢেউয়েও বাংলাদেশের অর্থনীতির ঘুরে দাঁড়ানো অব্যাহত: এডিবি

দ্বিতীয় ঢেউয়েও বাংলাদেশের অর্থনীতির ঘুরে দাঁড়ানো অব্যাহত: এডিবি

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মদপানে ২ জনের মৃত্যু, হাসপাতালে ৫

মদপানে ২ জনের মৃত্যু, হাসপাতালে ৫

লকডাউন অমান্য করায় ব্যবসায়ীর ৭ দিনের জেল

লকডাউন অমান্য করায় ব্যবসায়ীর ৭ দিনের জেল

ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে চলছে হালকা যানবাহন

ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে চলছে হালকা যানবাহন

খুলনা বিভাগে আরও ৩০ জনের মৃত্যু

খুলনা বিভাগে আরও ৩০ জনের মৃত্যু

ময়লার ভাগাড় ও রাস্তায় পড়ে আছে চামড়া

ময়লার ভাগাড় ও রাস্তায় পড়ে আছে চামড়া

রংপুরে আরও ১৫ মৃত্যু, খালি নেই আইসিইউ বেড

রংপুরে আরও ১৫ মৃত্যু, খালি নেই আইসিইউ বেড

যশোর জেনারেল হাসপাতালে ৬ মৃত্যু

যশোর জেনারেল হাসপাতালে ৬ মৃত্যু

রাজশাহী মেডিক্যালে আরও ২২ জনের মৃত্যু 

রাজশাহী মেডিক্যালে আরও ২২ জনের মৃত্যু 

লকডাউন অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি

লকডাউন অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি

© 2021 Bangla Tribune