X
মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১, ১ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

স্বামীকে ৬ টুকরা করার ঘটনায় স্ত্রীর স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

আপডেট : ০৬ জুন ২০২১, ২০:১১

রাজধানীর মহাখালীতে  ময়না মিয়া নামে এক ব্যক্তির বস্তাবন্দি হাত, পা,  মাথা ও কাটা লাশ উদ্ধারের ঘটনায় তার প্রথম স্ত্রী ফাতেমা খাতুন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

রবিবার (৬ জুন) ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মাসুদ-উর-রহমানের আদালত তার জবানবন্দি রেকর্ড করেন। আদালতের সংশ্লিষ্ট থানার সাধারণ নিবন্ধন (জিআর) শাখা  এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

এদিন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক কাজী শরিফুল ইসলাম আসামি ফাতেমা খাতুনকে  ৫ দিনের রিমান্ড শেষে আদালতে হাজির করেন। এরপর আসামি স্বেচ্ছায় জবানবন্দি দিতে রাজি হওয়ায় তা রেকর্ড করার আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা। তার আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত আসামির স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ড করেন। এরপর তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এর আগে গত মঙ্গলবার (১ জুন) ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট রাজেশ চৌধুরীর আদালত আসামির  পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছিলেন।

উল্লেখ্য, গত  ৩১ মে ফাতেমাকে আটক করে মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ। ময়না মিয়াকে হত্যার ঘটনায় তার দ্বিতীয় স্ত্রী ইয়াসরিন বনানী থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলার এজাহারের ডিবির কর্মকর্তা হারুন অর রশিদ বলেন,  ‘দাম্পত্য কলহের জেরে ময়নাকে পানির সঙ্গে ঘুমের ওষুধ মিশিয়ে খাওয়ায় তার প্রথম স্ত্রী ফাতেমা। এ সময় ময়না মিয়ার সঙ্গে ফাতেমার ধস্তাধস্তি হয়। আবারও পানি চাইলে ঘুমের ওষুধ মেশানো পানি খাওয়ানো হয় তাকে।’

 তিনি বলেন,  ‘লাশ পাওয়ার ১২ ঘণ্টার মধ্যেই আমরা এ ঘটনার রহস্য উম্মোচন করতে সক্ষম হই। অভিযুক্ত প্রথম স্ত্রীকে আমরা গ্রেফতার করি। গ্রেফতারের পর জিজ্ঞাসাবাদে তিনি সব ঘটনা এবং দায় স্বীকার করেছেন। এরইমধ্যে ময়না মিয়ার দ্বিতীয় স্ত্রী বনানী থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। অল্প সময়ের মধ্যে আমরা এ ঘটনার চার্জশিট দাখিল করবো।’

সংবাদ সম্মেলনে হারুন অর রশিদ বলেন, ‘স্বামী ময়না মিয়াকে যেন খুঁজে না পাওয়া যায়, সেজন্য গুম করার উদ্দেশ্যে তার হাত-পা ও মাথা কাটা হয়। এ কাজটি করেন ফাতেমা নিজেই। ‌ হাত-পা ও মাথা কাটার পর তিনি নিজেই বিভিন্ন জায়গায় সেগুলো ফেলে দেন। শরীরের অংশ (দেহ) মহাখালী কাঁচা বাজারের পাশে মসজিদ গলিতে পাশে ফেলা হয়। দুই হাত ও দুই পা মহাখালী বাস টার্মিনালে ফেলেন। আর মাথাটি পরবর্তীতে পলিথিনে করে বনানী ১১ নম্বর ব্রিজের পাশে ফেলে দেন ফাতেমা।’

/এমএইচজে/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

আমি স্বস্তি নিয়ে বাঁচতে চাই: পরীমনি

আমি স্বস্তি নিয়ে বাঁচতে চাই: পরীমনি

সিপিবি-ভাঙা দলগুলো কেমন আছে?

ভাঙনের ২৮ বছরসিপিবি-ভাঙা দলগুলো কেমন আছে?

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ৩৩ লাখ গাছ লাগানো হবে

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ৩৩ লাখ গাছ লাগানো হবে

চার ব্যাংকের টাকা ঋণ নিয়ে ২ বছর পালিয়ে ছিলেন শহিদুল

চার ব্যাংকের টাকা ঋণ নিয়ে ২ বছর পালিয়ে ছিলেন শহিদুল

মিলাররা কেন চাল দিচ্ছেন না খতিয়ে দেখুন: খাদ্যমন্ত্রী

মিলাররা কেন চাল দিচ্ছেন না খতিয়ে দেখুন: খাদ্যমন্ত্রী

গার্ড অব অনার: সংসদীয় কমিটির চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় হাইকোর্ট

গার্ড অব অনার: সংসদীয় কমিটির চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় হাইকোর্ট

উচ্চশিক্ষা-গবেষণায় বঙ্গবন্ধুর আকাঙ্ক্ষা পূরণের অঙ্গীকার ইউজিসির

উচ্চশিক্ষা-গবেষণায় বঙ্গবন্ধুর আকাঙ্ক্ষা পূরণের অঙ্গীকার ইউজিসির

কক্সবাজারে ইয়াবা গিলে ঢাকায় এসে ধরা

কক্সবাজারে ইয়াবা গিলে ঢাকায় এসে ধরা

প্রথমবারের মতো ৬ বিলিয়ন ডলার লোকসানে এমিরেটস 

প্রথমবারের মতো ৬ বিলিয়ন ডলার লোকসানে এমিরেটস 

মুজিব আদর্শে বিশ্বাসীরা ৩টি করে গাছ লাগান: প্রধানমন্ত্রী

মুজিব আদর্শে বিশ্বাসীরা ৩টি করে গাছ লাগান: প্রধানমন্ত্রী

নাসিরের পক্ষে সংসদে জাপা এমপি চুন্নুর সাফাই

নাসিরের পক্ষে সংসদে জাপা এমপি চুন্নুর সাফাই

নাসির উদ্দিন মাহমুদসহ ৫ জন আদালতে

নাসির উদ্দিন মাহমুদসহ ৫ জন আদালতে

সর্বশেষ

এক কোটি ৭৭ হাজার ডোজ ‘কোভিশিল্ড' দেওয়া শেষ

এক কোটি ৭৭ হাজার ডোজ ‘কোভিশিল্ড' দেওয়া শেষ

এক ঘণ্টায় আম ডেলিভারি সুবিধা দিচ্ছে চালডাল ডটকম

এক ঘণ্টায় আম ডেলিভারি সুবিধা দিচ্ছে চালডাল ডটকম

আমি স্বস্তি নিয়ে বাঁচতে চাই: পরীমনি

আমি স্বস্তি নিয়ে বাঁচতে চাই: পরীমনি

‘আগাম সতর্কতায় অবজ্ঞার ফলেই ভারতে করোনার ভয়াবহতা’

‘আগাম সতর্কতায় অবজ্ঞার ফলেই ভারতে করোনার ভয়াবহতা’

শাবানার জন্মদিনে শাকিব খান শোনালেন দুর্ভাগ্যের কথা

শাবানার জন্মদিনে শাকিব খান শোনালেন দুর্ভাগ্যের কথা

নদীতে পড়ে শিশু ভাইবোনের মৃত্যু

নদীতে পড়ে শিশু ভাইবোনের মৃত্যু

আইডিএলসির এমডি ও সিইও হলেন জামাল উদ্দিন

আইডিএলসির এমডি ও সিইও হলেন জামাল উদ্দিন

নিপুণ রায়কে কারাগারে রাখা অমানবিক রাজনীতি: নজরুল ইসলাম খান

নিপুণ রায়কে কারাগারে রাখা অমানবিক রাজনীতি: নজরুল ইসলাম খান

দেশে অনুমোদন পেলো জনসন অ্যান্ড জনসনের সিঙ্গেল ডোজ ভ্যাকসিন

দেশে অনুমোদন পেলো জনসন অ্যান্ড জনসনের সিঙ্গেল ডোজ ভ্যাকসিন

সিপিবি-ভাঙা দলগুলো কেমন আছে?

ভাঙনের ২৮ বছরসিপিবি-ভাঙা দলগুলো কেমন আছে?

৫৫ কোটি টাকার বিদেশি ক্রেনে মোংলায় পণ্য খালাস দ্বিগুণ হবে

৫৫ কোটি টাকার বিদেশি ক্রেনে মোংলায় পণ্য খালাস দ্বিগুণ হবে

দ্বিতীয় অবস্থান নিয়ে দ্বিতীয় বছরে ই-ফুড

দ্বিতীয় অবস্থান নিয়ে দ্বিতীয় বছরে ই-ফুড

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

আমি স্বস্তি নিয়ে বাঁচতে চাই: পরীমনি

আমি স্বস্তি নিয়ে বাঁচতে চাই: পরীমনি

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ৩৩ লাখ গাছ লাগানো হবে

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ৩৩ লাখ গাছ লাগানো হবে

চার ব্যাংকের টাকা ঋণ নিয়ে ২ বছর পালিয়ে ছিলেন শহিদুল

চার ব্যাংকের টাকা ঋণ নিয়ে ২ বছর পালিয়ে ছিলেন শহিদুল

গার্ড অব অনার: সংসদীয় কমিটির চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় হাইকোর্ট

গার্ড অব অনার: সংসদীয় কমিটির চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় হাইকোর্ট

উচ্চশিক্ষা-গবেষণায় বঙ্গবন্ধুর আকাঙ্ক্ষা পূরণের অঙ্গীকার ইউজিসির

উচ্চশিক্ষা-গবেষণায় বঙ্গবন্ধুর আকাঙ্ক্ষা পূরণের অঙ্গীকার ইউজিসির

কক্সবাজারে ইয়াবা গিলে ঢাকায় এসে ধরা

কক্সবাজারে ইয়াবা গিলে ঢাকায় এসে ধরা

প্রথমবারের মতো ৬ বিলিয়ন ডলার লোকসানে এমিরেটস 

প্রথমবারের মতো ৬ বিলিয়ন ডলার লোকসানে এমিরেটস 

নাসির উদ্দিন মাহমুদসহ ৫ জন আদালতে

নাসির উদ্দিন মাহমুদসহ ৫ জন আদালতে

পরীমণিকে ধর্ষণ-হত্যাচেষ্টার মামলা: তদন্ত প্রতিবেদন ৮ জুলাই

পরীমণিকে ধর্ষণ-হত্যাচেষ্টার মামলা: তদন্ত প্রতিবেদন ৮ জুলাই

মাদক মামলায় নাসিরসহ ৫ জনের রিমান্ড চায় পুলিশ

মাদক মামলায় নাসিরসহ ৫ জনের রিমান্ড চায় পুলিশ

© 2021 Bangla Tribune