X
বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১, ১৪ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের আবেদন করেছেন সিআইডি প্রধান

আপডেট : ১২ জুন ২০২১, ০৮:৪০

চাকরির মেয়াদ শেষ হওয়ার পথে। এর মাঝে নতুন করে আরও এক বছরের চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের আবেদন করেছেন সিআইডির প্রধান হিসেবে দায়িত্বরত পুলিশের অতিরিক্ত আইজিপি ব্যারিস্টার মাহবুবুর রহমান।

৩০ জুলাই পুলিশের এই শীর্ষ কর্মকর্তার অবসরে যাওয়ার কথা ছিল। ৩১ জুলাই থেকে এক বছরের জন্য চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের আবেদন করেছেন তিনি। পুলিশ সদর দফতরের অতিরিক্ত ডিআইজি (পারসোন্যাল ম্যানেজমেন্ট-১) কাজী জিয়া উদ্দিন সেই আবেদন স্বরাষ্ট্র সচিবের কাছে পাঠিয়েছেন।

বিষয়টি নিয়ে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের মধ্যে কিছুটা ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে। তারা বলছেন, চাকারির বয়স শেষ হওয়ার পর আবারও চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ মানে অধস্তন কর্মকর্তাদের পদোন্নতি থেকে বঞ্চিত করা। এমনটি করা হলে অধস্তনদের মধ্যে হতাশা তৈরি হয়।

পুলিশ সদর দফতর সূত্রে জানা গেছে, সিআইডি প্রধান ব্যারিস্টার মাহবুবুর রহমান অতিরিক্ত আইজিপি হিসেবে এক বছরের চুক্তিভিত্তিক আবেদন করেছেন। গত ১ জুন তার আবেদনটি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিবের কাছে পাঠানো হয়েছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে এ বিষয়ে পরে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

চিঠি পাঠানোর বিষয়টি নিশ্চিত করে অতিরিক্ত ডিআইজি কাজী জিয়া উদ্দিন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘চিঠি পাঠানো হয়েছে। তবে এটি একটি অভ্যন্তরীণ বিষয়। এ বিষয়ে বিস্তারিত বলা যাবে না।’

পুলিশ সদর দফতর সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে বাংলাদেশে অতিরিক্ত আইজিপির পদ রয়েছে ১৮টি। এর মধ্যে পুলিশ সদর দফতরে রয়েছেন পাঁচজন। এসবির প্রধান, সিআইডি প্রধান, ডিএমপি কমিশনার, এপিবিএন প্রধান, র‌্যাবের প্রধান, পুলিশ স্টাফ কলেজের অধ্যক্ষ, ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশের প্রধান, হাইওয়ে পুলিশের প্রধান, রেলওয়ে পুলিশের প্রধান, অ্যান্টি টেরোরিজম ইউনিটের প্রধান, পুলিশ একাডেমির প্রধান, টেলিকম ইউনিটের প্রধানরা অতিরিক্ত আইজিপি পদমর্যাদায় নিয়োগপ্রাপ্ত হন।

অতিরিক্ত আইজিপি পদমর্যাদার একজন কর্মকর্তা জানান, ‘এখনও পুলিশের সপ্তম, অষ্টম ও বারোতম ব্যাচের অনেকেই অ্যাডিশনাল আইজি হতে পারেননি। সেখানে একজন কর্মকর্তা চাকরির বয়স শেষে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ পেলে নিচের প্রতিটি ব্যাচের কর্মকর্তা বঞ্চিত হবেন।’

পুলিশের ব্যাচভিত্তিক কর্মকর্তাদের কর্মস্থল ও নিয়োগের নথিপত্র ঘেঁটে দেখা গেছে, এখনো সপ্তম ব্যাচের কর্মকর্তাদের অনেকেই ডিআইজি পদমর্যাদায় চাকরি করছেন। এর পরের তিনটি ব্যাচের (অষ্টম, ১২তম ও ১৫তম) ব্যাচের কর্মকর্তাও অতিরিক্ত আইজি হিসেবে পদোন্নতি পেয়েছেন। অষ্টম ও ১২তম ব্যাচের অনেক কর্মকর্তা এসপি ও অতিরিক্ত ডিআইজি হিসেবে কাজ করছেন।

পুলিশের এক কর্মকর্তা বলেন, ব্যারিস্টার মাহবুবুর রহমান ১৯৮৯ সালে অষ্টম ব্যাচের এএসপি হিসেবে বাংলাদেশ পুলিশে যোগদান করেন। কর্মজীবনের শুরুতেই তিনি খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশ ও ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশে চাকরি করেন। ২০০২ সালের ১৬ এপ্রিল থেকে ২০০৩ সালের ২৫ আগস্ট পর্যন্ত টাঙ্গাইলের পুলিশ সুপার, ২০০৩ সালের ২৬ আগস্ট থেকে ২০০৫ সালের ১৭ এপ্রিল পর্যন্ত চট্টগ্রাম জেলার পুলিশ সুপার ও পরে পুলিশ হেড কোয়ার্টার্সের গুরুত্বপূর্ণ বিভাগ ইকুইপমেন্ট অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট শাখায় এআইজি হিসেবে কাজ করেছেন।

ওয়ান ইলেভেনের সময় ঢাকা জেলার পুলিশ সুপার হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন তিনি। ২০১৮ সালের জাতীয় নির্বাচনের আগে পুলিশ সদর দফতরের ডিআইজি অপারেশনন্স হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তবে নির্বাচনের আগ-মুহূর্তে তাকে ওই পদ থেকে অন্যত্র বদলি করা হয়।

এর আগে তিনি কিছুদিন রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার ও ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন।

ওই কর্মকর্তা বলেন, ব্যারিস্টার মাহবুবুর রহমান বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের আমলেও ভালো ভালো পদে দায়িত্ব পালন করেছেন। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পরও ভালো পদে ছিলেন। তারপরও চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের আবেদন করেছেন। একজনই যদি সবসময় ভালো পদ ধরে রাখতে চান, তবে অন্যরা সুযোগ পাবে কী করে?

পুলিশের দায়িত্বশীল ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তার ভাষ্য, ‘৩২ বছর চাকরির পর আবারও চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের জন্য আবেদন করাটা সমীচীন নয়। এতে অধস্তনদের মনোবল ভেঙে যায়। যদি কোনও কর্মকর্তা একটি বিশেষ কাজের জন্য অপরিহার্য হয়ে পড়েন তবে সরকার বিবেচনা করে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দিতে পারেন। তা ছাড়া অবসরের আগমুহূর্তে নিজ থেকে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের আবেদন করাটা একেবারেই অনুচিত।



 

/এফএ/এনএইচ/

সম্পর্কিত

১৯ আগস্টের মধ্যে এসএসসির অ্যাসাইনমেন্টের তথ্য পাঠানোর নির্দেশ

১৯ আগস্টের মধ্যে এসএসসির অ্যাসাইনমেন্টের তথ্য পাঠানোর নির্দেশ

সুন্দরবন যেমন আছে তেমনই থাকতে দিন: সুলতানা কামাল

সুন্দরবন যেমন আছে তেমনই থাকতে দিন: সুলতানা কামাল

সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে: খেলাফত মজলিস

সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে: খেলাফত মজলিস

এসএসসি-এইচএসসির অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে জরুরি নির্দেশ

এসএসসি-এইচএসসির অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে জরুরি নির্দেশ

১৯ আগস্টের মধ্যে এসএসসির অ্যাসাইনমেন্টের তথ্য পাঠানোর নির্দেশ

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ২০:১৯

২০২১ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের জন্য পুনর্বিন্যাস করা পাঠ্যসূচির আলোকে অ্যাসাইনমেন্ট মূল্যায়ন মনিটরিংয়ের নির্দেশ দিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতর। একইসঙ্গে আগামী ১৯ আগস্টের মধ্যে তিন সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট জমা দেওয়ার যাবতীয় তথ্য মনিটরিং অ্যান্ড ইভ্যালুয়েশান উইংয়ে নিশ্চিতভাবে পাঠাতে হবে।  বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতর এই এ সংক্রান্ত আদেশ জারি করে। আদেশে সব অঞ্চলের উপপরিচালকদের নির্দেশনা বাস্তবায়ন করতে বলা হয়।

আদেশে জানানো হয়,  ২০২১ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের জন্য পুনর্বিন্যাস করা পাঠ্যসূচির আলোকে প্রণয়ন করা অ্যাসাইনমেন্ট প্রথম ধাপে তিন সপ্তাহের জন্য গত ১৮ জুলাই মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের মাধ্যমিক শাখা থেকে ওয়েবসাইটে একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। ওই নির্দেশনা পত্রের আলোকে মাঠ পর্যায়ে শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্টের কার্যক্রম যথাযথভাবে পরিচালিত হচ্ছে কিনা তা সংযুক্ত ছক অনুযায়ী মনিটরিং কমিটি করা প্রয়োজন।

আদেশে বলা হয়, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের আওতাধীন সকল আঞ্চলিক উপপরিচালকরা (মাধ্যমিক) তাদের নিজ নিজ অঞ্চলের সকল উপজেলা/থানা থেকে প্রথম তিন সপ্তাহের শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট জমাদানের মোট সংখ্যা উপজেলাভিত্তিক, জেলাভিত্তিক এবং পরিশেষে নিজ নিজ অঞ্চলের তথ্য সার-সংক্ষেপ আকারে সংযুক্ত ছক মোতাবেক প্রস্তুত করে আগামী ১৯ আগস্টের মধ্যে মনিটরিং অ্যান্ড ইভ্যালুয়েশান উইংয়ের ই-মেইলে ([email protected]) পাঠানো নিশ্চিত করবেন।

মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতর থেকে দেওয়া বিজ্ঞপ্তির নির্দেশনাগুলো যথাযথভাবে অনুসরণ করতে হবে এবং কোভিড-১৯ অতিমারির কারণে স্বাস্থ্যবিধিকে কোনওক্রমেই উপেক্ষা করা যাবে না বলে আদেশে উল্লেখ করা হয়।

আদেশে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের আওতাধীন সকল আঞ্চলিক উপ-পরিচালকদের (মাধ্যমিক) তাদের নিজ নিজ অঞ্চলের সার-সংক্ষেপ করা তথ্য সংযুক্ত ছক অনুযায়ী ইমেইলে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে পাঠানোর জন্য অনুরোধ করা করা হয়।

সার-সংক্ষেপের ছক

২০২১ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট জমাদান সংক্রান্ত তথ্য নির্ধারিত ছকে পাঠাতে হবে। এতে অঞ্চলের নাম, ই-মেইল আইডি, মোবাইল ফোন নম্বর, মোট জেলার সংখ্যা, মোট উপজেলার সংখ্যা উল্লেখ করতে হবে।

পুনর্বিন্যাস করা পাঠ্যসূচির ভিত্তিতে নির্ধারিত অ্যাসাইনমেন্ট গ্রিড অনুসারে নির্ধারিত ছকে তথ্য পাঠাতে হবে। এতে আওতাধীন সরকারি ও বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সংখ্যা, ২০২১ সালে এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে এমন মোট সংখ্যা, প্রথম তিন সপ্তাহে অ্যাসাইনমেন্ট গ্রহণকারী শিক্ষার্থীর সংখ্যা, প্রথম তিন সপ্তাহে অ্যাসাইনমেন্ট জমাদানকারী শিক্ষার্থীর সংখ্যা এবং প্রথম তিন সপ্তাহে অ্যাসাইনমেন্ট জমা দেয়নি এমন শিক্ষার্থীর সংখ্যা উল্লেখ করে ছক তথ্য পাঠাতে হবে।

/এসএমএ/এমআর/

সম্পর্কিত

এসএসসি-এইচএসসির অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে জরুরি নির্দেশ

এসএসসি-এইচএসসির অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে জরুরি নির্দেশ

ভিকারুননিসা অধ্যক্ষের আরেকটি ফোনালাপ ফাঁস

ভিকারুননিসা অধ্যক্ষের আরেকটি ফোনালাপ ফাঁস

প্রযুক্তি সহায়ক শিক্ষাব্যবস্থা প্রবর্তনের আহ্বান ইউজিসির

প্রযুক্তি সহায়ক শিক্ষাব্যবস্থা প্রবর্তনের আহ্বান ইউজিসির

সুন্দরবন যেমন আছে তেমনই থাকতে দিন: সুলতানা কামাল

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ২০:০৬

বাঘ রক্ষায় সরকারসহ সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন সুন্দরবন রক্ষা জাতীয় কমিটির সভাপতি সুলতানা কামাল। তিনি বলেন, ‘কথা ছিল ১০ বছরে বাঘের সংখ্যা দ্বিগুণ করবো। তা হয়নি। নানা অজুহাত দেওয়া হয়েছে। শুভংকরের ফাঁকি দেওয়া হয়েছে। সরকারের পক্ষ থেকে বরাবর অবহেলার শিকার হয়ে আসছে বাঘ। এ জন্য সাংস্কৃতিক, সামাজিক উন্নয়নের প্রয়োজন হয়।’

বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা)’র উদ্যোগে ‘বাঘ দিবসে বাঘের গল্প’ শীর্ষক এক বিশেষ ওয়েবিনারে সুলতানা কামাল এসব কথা বলেন।

সুন্দরবন রক্ষা জাতীয় কমিটির সভাপতি বলেন, ‘আগে আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলো আমাদের কথা শুনতো। এখন এসব সংস্থা আর আগের মতো নেই। সরকারের পক্ষে কথা বলতে থাকে। তবে এখন একটি প্রজন্ম সচেতন হয়েছে, সংবেদনশীল হয়েছে। এটাও একটি ভালো দিক।’

তিনি বলেন, ‘সুন্দরবনকে যেভাবে আছে সেভাবেই থাকতে দেন। বাংলাদেশের শুরুই হয়েছিল সম্পদ, সংস্কৃতি রক্ষার জন্য। এখনও সেই দায়িত্ব পালন করে যেতে হবে। বাঘ রক্ষায় শুধু সরকার নয়, আমাদেরও ভূমিকা পালন করতে হবে।’

বাপার সাধারণ সম্পাদক শরীফ জামিলের সঞ্চালনায় ওয়েবিনারে অন্যদের মধ্যে বাপা’র বন, জীববৈচিত্র্য, প্রাকৃতিক সম্পদ ও জ্বালানি বিষয়ক কমিটির সহ-আহ্বায়ক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক ড. মনিরুল হাসান খান ও অধ্যাপক ড. এম এ আজিজ, মোংলার স্থানীয় বনজীবী বেলায়েত সরদার, মোংলার জয়মনির ভিলেজ টাইগার রেসপন্স টিমের নান্টু গাজী, পশুর রিভার ওয়াটারকিপার নূর আলম শেখ উপস্থিত ছিলেন।

ওয়েবিনারে সংযুক্ত অন্য আলোচকরা পশুর রিভার ওয়াটারকিপার নূর আলম শেখ স্বাগত বক্তব্যে বলেন, ‘২০১০ সালে রাশিয়ার বাঘ সম্মেলনের মধ্য দিয়ে এই দিবসটির সূচনা হয়। সেই সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও ছিলেন। সে সম্মেলনে ২০২২ সালের মধ্যে বাঘের সংখ্যা দ্বিগুণ করার অঙ্গীকার করা হয়। কিন্তু বাস্তবে তা হয়নি। ২০০৪ সালে বাঘ ছিল ৪৪০টি। এখন ২০১৫ সালে এসে ১০৬টি, ২০১৮ সালে বলা হলো ১১৪টি। এতে দেখা যায়, মাত্র ৮টি বাঘ বেড়েছে। এর মধ্যে আবার ৩টি বাঘ মারাও গিয়েছে। এছাড়া ভারত থেকে একটি বাঘ এসেছে বলে জানা যায়।’ তিনি বলেন, ‘বাঘের যে খাদ্য তা এখন সংকটে সুন্দরবনে। সুন্দরবনে এখন অনুকূল পরিবেশ নেই বাঘের জন্য। নানা কারণে আজ সুন্দরবন বিপদে আছে। এখন বলা হচ্ছে সুন্দরবন বাঁচলে বাঘ বাঁচবে। তাই বাঘ বাঁচাতে হলে সুন্দরবনকে বাঁচাতেই হবে।’

ফরিদ উদ্দিন বলেন, ‘তাদের আবসস্থল রক্ষা করতে হবে। হরিণ মেরে ফেললে ওরা কী খাবে। সুন্দরবনকে সুন্দরবনের মতো রাখতেই দিন। বরং যারা এই বনের ওপর জীবীকা নির্বাহ করেন, তাদের অন্য উপায়ে জীবীকার ব্যবস্থা করতে হবে। অত্যাচারটা না করি।’

 

/এসএনএস/আইএ/

সম্পর্কিত

সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে: খেলাফত মজলিস

সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে: খেলাফত মজলিস

ডিএনসিসিতে দেড় হাজার কর্মহীন পরিবহন শ্রমিকের মাঝে ত্রাণ বিতরণ

ডিএনসিসিতে দেড় হাজার কর্মহীন পরিবহন শ্রমিকের মাঝে ত্রাণ বিতরণ

কত প্রকার মাদক আছে দেশে?

কত প্রকার মাদক আছে দেশে?

মাস্ক সঙ্গে থাকলেই হবে?

মাস্ক সঙ্গে থাকলেই হবে?

সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে: খেলাফত মজলিস

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ২০:০৩

খেলাফত মজলিসের আমির মাওলানা মোহাম্মদ ইসহাক বলেছেন, করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব থেকে মুক্তির জন্য আল্লাহর সাহায্য চাইতে হবে। একই সঙ্গে সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি পালনে সতর্ক হতে হবে। বৃহস্পতিবার বিকালে অনলাইনে এক আলোচনা সভায় মাওলানা মোহাম্মদ ইসহাক এসব কথা বলেন।

মাওলানা মোহাম্মদ ইসহাক বলেন, দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যুর হার বেড়েই চলছে। দিনের পর দিন লকডাউন দিয়েও কোন কাজ হচ্ছে না। এরমধ্যে যুক্ত হয়েছে ডেঙ্গুর প্রকোপ। হাসপাতালগুলোতে আইসিইউ সংকট, অক্সিজেন সংকট মারাত্মক আকার ধারণ করেছে। প্রয়োজনীয় প্রস্তুতির অভাব ও অব্যবস্থাপনার কারণে মানুষ যথাযথ চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। সরকারকে যথাযথ চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করতে হবে।

মোহাম্মদ ইসহাক বলেন, লকডাউনে ক্ষতিগ্রস্ত সীমিত আয়ের মানুষের জন্য সরকারের পক্ষ থেকে দীর্ঘমেয়াদি খাদ্য সহায়তা কর্মসূচি চালু করতে হবে। সমাজের সামর্থ্যবানদেরও দুর্দশাগ্রস্ত মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে।

খেলাফত মজলিসের কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদের ভার্চুয়াল বৈঠকে দলের মহাসচিব ড. আহমদ আবদুল কাদেরসহ গ্রেফতারকৃতদের অবিলম্বে মুক্তি দাবি জানানো হয়। বৈঠকে ক্রমবর্ধমান করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব থেকে মুক্তির জন্য ও করোনায় মৃত্যুবরণকারীদের মাগফিরাত কামনা করে আক্রান্তদের আশু আরোগ্য কামনা করে বিশেষ দোয়া করা হয়।

 

/সিএ/এফএএন/এমওএফ/

সম্পর্কিত

সুন্দরবন যেমন আছে তেমনই থাকতে দিন: সুলতানা কামাল

সুন্দরবন যেমন আছে তেমনই থাকতে দিন: সুলতানা কামাল

ডিএনসিসিতে দেড় হাজার কর্মহীন পরিবহন শ্রমিকের মাঝে ত্রাণ বিতরণ

ডিএনসিসিতে দেড় হাজার কর্মহীন পরিবহন শ্রমিকের মাঝে ত্রাণ বিতরণ

কত প্রকার মাদক আছে দেশে?

কত প্রকার মাদক আছে দেশে?

মাস্ক সঙ্গে থাকলেই হবে?

মাস্ক সঙ্গে থাকলেই হবে?

এসএসসি-এইচএসসির অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে জরুরি নির্দেশ

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ১৯:২৪

গ্রুপভিত্তিক নৈর্বাচনিক ৩টি বিষয়ে ২০২১ সালের এসএসসি ও সমমান এবং এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে জরুরি নির্দেশ দিয়েছে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক উপ-কমিটি।

বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) আন্তঃশিক্ষা বোর্ড পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক সমন্বয় উপ-কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক এস এম আমিরুল আসলাম স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে এই নির্দেশ দেওয়া হয়। মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ের সব স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রধানদের এই নির্দেশ দেওয়া হয়। 

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২০২১ সালের এসএসসি/সমমান ও এইচএসসি সমমান পরীক্ষার্থী ও সংশ্লিষ্ট সকলকে জানানো যাচ্ছে যে, বিশ্বব্যাপী কোভিড-১৯ অতিমারির কারণে ২০২১ সালের এসএসসি/সমমান ও এইচএসসি সমমান পরীক্ষা পুনর্বিন্যাস করা সিলেবাস অনুযায়ী শুধু গ্রুপভিত্তিক তিনটি নৈর্বাচনিক বিষয়ের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।  পরীক্ষার সময় ও নম্বর কমিয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষা নেওয়া হবে।

২০২১ সালের ২০২১ সালের এসএসসি/সমমান ও এইচএসসি সমমান পরীক্ষার নিয়মিত, অনিয়মিত, আংশিক বিষয়ে অকৃতকার্য, প্রাইভেট পরীক্ষার্থী, ও জিপিএ উন্নয়ন পরীক্ষার প্রস্তুতির অংশ হিসেবে অ্যাসাইনমেন্ট কার্যক্রমে অংশগ্রহণ আবশ্যক।

২০২১ সালের এসএসসি/সমমান ও এইচএসসি সমমান পরীক্ষার নিয়মিত, অনিয়মিত, প্রাইভেট পরীক্ষার্থী ও জিপিএ উন্নয়ন পরীক্ষার্থীকে শুধু তিনটি নৈর্বাচনিক বিষয়ের অ্যাসাইনমেন্ট কার্যক্রমে অংশ নিতে হবে।

আংশিক বিষয়ে অকৃতকার্য (এক বা দুই বিষয়ে) পরীক্ষার্থী যদি নৈর্বাচনিক বিষয়ে অকৃতকার্য হয়ে থাকে সেক্ষেত্রে পরীক্ষার্থীকে তার অকৃতকার্য নৈর্বাচনিক বিষয়ে অ্যাসাইনমেন্ট গ্রহণ করতে হবে। উদাহরণস্বরূপ একজন আংশিক বিষয়ে অকৃতকার্য পরীক্ষার্থী বাংলা (আবশ্যিক বিষয়) ও রসায়নে (নৈর্বাচনিক বিষয়) অকৃতকার্য হলে সেক্ষেত্রে শুধু রসায়ন বিষয়ে অ্যাসাইনমেন্ট কার্যক্রমে অংশ নিতে হবে। 

আবশ্যিক ও চতুর্থ বিষয়ে বিষয়ে অকৃতকার্য পরীক্ষার্থীকে অ্যাসাইনমেন্ট কার্যক্রমে অংশ নিতে হবে না।      

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতরের ওয়েবসাইট থেকে শিক্ষার্থীদের জন্য দেওয়া অ্যাসাইনমেন্ট সংগ্রহ করে নির্দেশিকা মোতাবেক সম্পন্ন করবে এবং সংশ্লিষ্ট শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে জমা দেবে।বিষয়টি অতীব জরুরি।

 

/এসএমএ/এমআর/

সম্পর্কিত

ভিকারুননিসা অধ্যক্ষের আরেকটি ফোনালাপ ফাঁস

ভিকারুননিসা অধ্যক্ষের আরেকটি ফোনালাপ ফাঁস

প্রযুক্তি সহায়ক শিক্ষাব্যবস্থা প্রবর্তনের আহ্বান ইউজিসির

প্রযুক্তি সহায়ক শিক্ষাব্যবস্থা প্রবর্তনের আহ্বান ইউজিসির

শিক্ষাপ্রযুক্তির উন্নয়নে ১৩ লাখ মার্কিন ডলার পেলো ‘শিখো’ 

শিক্ষাপ্রযুক্তির উন্নয়নে ১৩ লাখ মার্কিন ডলার পেলো ‘শিখো’ 

প্রাথমিকের আউট সোর্সিং কর্মচারীদের টিকার ব্যবস্থা করতে নির্দেশ

প্রাথমিকের আউট সোর্সিং কর্মচারীদের টিকার ব্যবস্থা করতে নির্দেশ

৯৯ জনকে জরিমানা র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালতের

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ১৯:২৩

দেশব্যাপী লকডাউন অমান্য করে বাইরে বের হওয়ার কারণে ৯৯ জনকে জরিমানা করেছেন র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। ১৯টি ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে এক লাখ ৭ হাজার ৪৫০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) সন্ধ্যায় বাংলা ট্রিবিউনকে এ তথ্য জানান র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন।

তিনি বলেন, ‘দেশব্যাপী র‌্যাবের ১৭৯টি টহল ও ১৮২টি চেকপোস্ট পরিচালিত হয়। র‌্যাব জেলা প্রশাসনের সঙ্গে সমন্বয় করে দেশব্যাপী ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করছে।’

খন্দকার আল মঈন বলেন, ‘বিনা প্রয়োজনে মানুষের চলাচল নিয়ন্ত্রণে র‌্যাবের জনসচেতনতামূলক মাইকিং, লিফলেট বিতরণ ও বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণ কর্মসূচি চলমান রয়েছে। বিধিনিষেধ কার্যকর করতে নিয়মিত টহল ও চেকপোস্টের পাশাপাশি ছিল অতিরিক্ত টহল ও চেকপোস্ট। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে উদ্বুদ্ধকরণে বিনামূল্যে চার হাজারের বেশি মাস্ক বিতরণ এবং বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে হ্যান্ড স্যানিটাইজার সরবরাহ করা হয় র‌্যাবের পক্ষ থেকে।’

 

/আরটি/আইএ/

সম্পর্কিত

লকডাউন অমান্য করায় রাজধানীতে গ্রেফতার ৫৬৮

লকডাউন অমান্য করায় রাজধানীতে গ্রেফতার ৫৬৮

ইউনাইটেড হাসপাতালে আগুনে মৃত্যু: চার পরিবার পেলো ১ কোটি টাকা

ইউনাইটেড হাসপাতালে আগুনে মৃত্যু: চার পরিবার পেলো ১ কোটি টাকা

অন্তঃসত্ত্বা নারীদের অগ্রাধিকার-ভিত্তিতে টিকা দিতে আইনি নোটিশ

অন্তঃসত্ত্বা নারীদের অগ্রাধিকার-ভিত্তিতে টিকা দিতে আইনি নোটিশ

চাঁদাবাজির মামলায় বহিষ্কৃত সেই ছাত্রলীগ নেতা রিমান্ড শেষে কারাগারে

চাঁদাবাজির মামলায় বহিষ্কৃত সেই ছাত্রলীগ নেতা রিমান্ড শেষে কারাগারে

সর্বশেষ

জনদুর্ভোগ কমাতে এসিল্যান্ডদের নির্দেশ দিয়ে পরিপত্র জারি

জনদুর্ভোগ কমাতে এসিল্যান্ডদের নির্দেশ দিয়ে পরিপত্র জারি

১৯ আগস্টের মধ্যে এসএসসির অ্যাসাইনমেন্টের তথ্য পাঠানোর নির্দেশ

১৯ আগস্টের মধ্যে এসএসসির অ্যাসাইনমেন্টের তথ্য পাঠানোর নির্দেশ

সরকারি ৮ হাসপাতালের আইসিইউতে বেড ফাঁকা নেই

সরকারি ৮ হাসপাতালের আইসিইউতে বেড ফাঁকা নেই

প্রথমবারের মতো কাতারে অনুষ্ঠিত হবে আইনসভার নির্বাচন

প্রথমবারের মতো কাতারে অনুষ্ঠিত হবে আইনসভার নির্বাচন

৭১ বছরের বৃদ্ধের সঙ্গে বিয়ে দেওয়ায় তরুণীর আত্মহত্যা

৭১ বছরের বৃদ্ধের সঙ্গে বিয়ে দেওয়ায় তরুণীর আত্মহত্যা

সুন্দরবন যেমন আছে তেমনই থাকতে দিন: সুলতানা কামাল

সুন্দরবন যেমন আছে তেমনই থাকতে দিন: সুলতানা কামাল

কুমিল্লায় লকডাউনের ছয় দিনে ১২ লাখ টাকা জরিমানা আদায় 

কুমিল্লায় লকডাউনের ছয় দিনে ১২ লাখ টাকা জরিমানা আদায় 

স্বাগতিকদের কাঁদিয়ে সেমিতে জোকোভিচ 

স্বাগতিকদের কাঁদিয়ে সেমিতে জোকোভিচ 

বিমানবন্দরেই করোনার বিশাল হাসপাতাল

বিমানবন্দরেই করোনার বিশাল হাসপাতাল

মোটরসাইকেল চালককে টেনে-হিঁচড়ে ৫ কিলোমিটার নিয়ে গেলো ট্রাকটি

মোটরসাইকেল চালককে টেনে-হিঁচড়ে ৫ কিলোমিটার নিয়ে গেলো ট্রাকটি

সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে: খেলাফত মজলিস

সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে: খেলাফত মজলিস

২৪ ঘণ্টায় আরও ২৩৯ মৃত্যু

২৪ ঘণ্টায় আরও ২৩৯ মৃত্যু

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

১৯ আগস্টের মধ্যে এসএসসির অ্যাসাইনমেন্টের তথ্য পাঠানোর নির্দেশ

১৯ আগস্টের মধ্যে এসএসসির অ্যাসাইনমেন্টের তথ্য পাঠানোর নির্দেশ

সুন্দরবন যেমন আছে তেমনই থাকতে দিন: সুলতানা কামাল

সুন্দরবন যেমন আছে তেমনই থাকতে দিন: সুলতানা কামাল

সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে: খেলাফত মজলিস

সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে: খেলাফত মজলিস

এসএসসি-এইচএসসির অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে জরুরি নির্দেশ

এসএসসি-এইচএসসির অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে জরুরি নির্দেশ

৯৯ জনকে জরিমানা র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালতের

৯৯ জনকে জরিমানা র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালতের

‘করোনাকালে মানুষের উপদ্রব কমায় সুন্দরবনে বাঘের সংখ্যা বেড়েছে’

‘করোনাকালে মানুষের উপদ্রব কমায় সুন্দরবনে বাঘের সংখ্যা বেড়েছে’

ডিএনসিসিতে দেড় হাজার কর্মহীন পরিবহন শ্রমিকের মাঝে ত্রাণ বিতরণ

ডিএনসিসিতে দেড় হাজার কর্মহীন পরিবহন শ্রমিকের মাঝে ত্রাণ বিতরণ

লকডাউন অমান্য করায় রাজধানীতে গ্রেফতার ৫৬৮

লকডাউন অমান্য করায় রাজধানীতে গ্রেফতার ৫৬৮

ইউনাইটেড হাসপাতালে আগুনে মৃত্যু: চার পরিবার পেলো ১ কোটি টাকা

ইউনাইটেড হাসপাতালে আগুনে মৃত্যু: চার পরিবার পেলো ১ কোটি টাকা

অন্তঃসত্ত্বা নারীদের অগ্রাধিকার-ভিত্তিতে টিকা দিতে আইনি নোটিশ

অন্তঃসত্ত্বা নারীদের অগ্রাধিকার-ভিত্তিতে টিকা দিতে আইনি নোটিশ

© 2021 Bangla Tribune