X
বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১, ১৪ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

‘কোভিশিল্ড’ আছে মাত্র একলাখ

আপডেট : ২১ জুন ২০২১, ২০:২৪

দেশে করোনাভাইরাসের টিকাদান কর্মসূচি শুরুর পর এখন পর্যন্ত ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে এক কোটি ৯৩ হাজার ৩৪০ ডোজ। এর পুরোটাই দেওয়া হয়েছে অক্সফোর্ডের অ্যাস্ট্রাজেনেকার ফর্মুলায় ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটের তৈরি কোভিশিল্ড ভ্যাকসিন।

এখন পর্যন্ত দেশে ১ কোটি ২ লাখ ডোজ ভ্যাকসিন এসেছে। সেই অনুযায়ী এখন মাত্র ১ লাখ ছয় হাজার ৬৬০ ডোজ ভ্যাকসিন অবশিষ্ট আছে। সোমবার ( ২১ জুন) স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে পাঠানো টিকাদান বিষয়ক সংবাদ বিজ্ঞপ্তি থেকে এসব তথ্য জানা যায়।

স্বাস্থ্য অধিদফতর জানায়, এখন পর্যন্ত ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ নিয়েছেন ৫৮ লাখ ২০ হাজার ১৫ জন। দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন ৪২ লাখ ৭৩ হাজার ৩২৫ জন।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের পাঠানো তথ্য থেকে আরও জানা যায়, প্রথম ডোজ নেওয়া ৫৮ লাখ ২০ হাজার ১৫ জনের মধ্যে ১৪ লাখের বেশি মানুষের দ্বিতীয় ডোজ নেওয়া নিয়ে সঙ্কট দেখা দিয়েছে। তাদের সবাইকেই অক্সফোর্ড অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকারই দ্বিতীয় ডোজ দিতে হবে। কেননা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এখনও দুই কোম্পানির দুই ডোজের টিকা গ্রহণের কোনও সিদ্ধান্ত দেয়নি।

দেশে গত ৭ ফেব্রুয়ারি জাতীয়ভাবে করোনার টিকাদান কর্মসূচি শুরু হয়। প্রতিদিন সকাল সাড়ে ৮টা থেকে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত এই কার্যক্রম চলে। টিকা সঙ্কট দেখা দেওয়ায় ২৬ এপ্রিল থেকে প্রথম ডোজ দেওয়া বন্ধ ঘোষণা করে স্বাস্থ্য অধিদফতর। ২ মে’র পর থেকে বন্ধ করে দেওয়া হয় টিকার জন্য নিবন্ধনও।

এছাড়া, এখন পর্যন্ত সিনোফার্মের ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে ১৬ হাজার ৩৪৩ ডোজ। যার মধ্যে আজ দেওয়া হয়েছে পাঁচ হাজার ৭৬৭ ডোজ।

কোভ্যাক্স থেকে পাওয়া ফাইজার-বায়োএনটেকের টিকার পরীক্ষামূলক প্রয়োগের মাধ্যমে আজ ২১ জুন আবারও শুরু হয়েছে করোনাভাইরাসের প্রথম ডোজের টিকাদান কর্মসূচি।

রাজধানী ঢাকার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়, কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল এবং শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভির ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে এই টিকাদান কর্মসূচি চালু হয়। প্রথম দিনে ফাইজারের টিকা নিয়েছেন ২৪০ জন। তাদের মধ্যে ১৩৮ জন পুরুষ আর ১০২ জন নারী।

/জেএ/এমআর/

সম্পর্কিত

অন্তঃসত্ত্বা নারীদের অগ্রাধিকার-ভিত্তিতে টিকা দিতে আইনি নোটিশ

অন্তঃসত্ত্বা নারীদের অগ্রাধিকার-ভিত্তিতে টিকা দিতে আইনি নোটিশ

ঢাকায় একদিনে রেকর্ড ডেঙ্গু রোগী

ঢাকায় একদিনে রেকর্ড ডেঙ্গু রোগী

অনুমোদন পেলো বুয়েট উদ্ভাবিত অক্সিজেট

অনুমোদন পেলো বুয়েট উদ্ভাবিত অক্সিজেট

‘সবাইকে নিয়ে সেই বিপদেই পড়তে হলো’

‘সবাইকে নিয়ে সেই বিপদেই পড়তে হলো’

১৯ আগস্টের মধ্যে এসএসসির অ্যাসাইনমেন্টের তথ্য পাঠানোর নির্দেশ

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ২০:১৯

২০২১ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের জন্য পুনর্বিন্যাস করা পাঠ্যসূচির আলোকে অ্যাসাইনমেন্ট মূল্যায়ন মনিটরিংয়ের নির্দেশ দিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতর। একইসঙ্গে আগামী ১৯ আগস্টের মধ্যে তিন সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট জমা দেওয়ার যাবতীয় তথ্য মনিটরিং অ্যান্ড ইভ্যালুয়েশান উইংয়ে নিশ্চিতভাবে পাঠাতে হবে।  বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতর এই এ সংক্রান্ত আদেশ জারি করে। আদেশে সব অঞ্চলের উপপরিচালকদের নির্দেশনা বাস্তবায়ন করতে বলা হয়।

আদেশে জানানো হয়,  ২০২১ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের জন্য পুনর্বিন্যাস করা পাঠ্যসূচির আলোকে প্রণয়ন করা অ্যাসাইনমেন্ট প্রথম ধাপে তিন সপ্তাহের জন্য গত ১৮ জুলাই মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের মাধ্যমিক শাখা থেকে ওয়েবসাইটে একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। ওই নির্দেশনা পত্রের আলোকে মাঠ পর্যায়ে শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্টের কার্যক্রম যথাযথভাবে পরিচালিত হচ্ছে কিনা তা সংযুক্ত ছক অনুযায়ী মনিটরিং কমিটি করা প্রয়োজন।

আদেশে বলা হয়, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের আওতাধীন সকল আঞ্চলিক উপপরিচালকরা (মাধ্যমিক) তাদের নিজ নিজ অঞ্চলের সকল উপজেলা/থানা থেকে প্রথম তিন সপ্তাহের শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট জমাদানের মোট সংখ্যা উপজেলাভিত্তিক, জেলাভিত্তিক এবং পরিশেষে নিজ নিজ অঞ্চলের তথ্য সার-সংক্ষেপ আকারে সংযুক্ত ছক মোতাবেক প্রস্তুত করে আগামী ১৯ আগস্টের মধ্যে মনিটরিং অ্যান্ড ইভ্যালুয়েশান উইংয়ের ই-মেইলে ([email protected]) পাঠানো নিশ্চিত করবেন।

মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতর থেকে দেওয়া বিজ্ঞপ্তির নির্দেশনাগুলো যথাযথভাবে অনুসরণ করতে হবে এবং কোভিড-১৯ অতিমারির কারণে স্বাস্থ্যবিধিকে কোনওক্রমেই উপেক্ষা করা যাবে না বলে আদেশে উল্লেখ করা হয়।

আদেশে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের আওতাধীন সকল আঞ্চলিক উপ-পরিচালকদের (মাধ্যমিক) তাদের নিজ নিজ অঞ্চলের সার-সংক্ষেপ করা তথ্য সংযুক্ত ছক অনুযায়ী ইমেইলে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে পাঠানোর জন্য অনুরোধ করা করা হয়।

সার-সংক্ষেপের ছক

২০২১ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট জমাদান সংক্রান্ত তথ্য নির্ধারিত ছকে পাঠাতে হবে। এতে অঞ্চলের নাম, ই-মেইল আইডি, মোবাইল ফোন নম্বর, মোট জেলার সংখ্যা, মোট উপজেলার সংখ্যা উল্লেখ করতে হবে।

পুনর্বিন্যাস করা পাঠ্যসূচির ভিত্তিতে নির্ধারিত অ্যাসাইনমেন্ট গ্রিড অনুসারে নির্ধারিত ছকে তথ্য পাঠাতে হবে। এতে আওতাধীন সরকারি ও বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সংখ্যা, ২০২১ সালে এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে এমন মোট সংখ্যা, প্রথম তিন সপ্তাহে অ্যাসাইনমেন্ট গ্রহণকারী শিক্ষার্থীর সংখ্যা, প্রথম তিন সপ্তাহে অ্যাসাইনমেন্ট জমাদানকারী শিক্ষার্থীর সংখ্যা এবং প্রথম তিন সপ্তাহে অ্যাসাইনমেন্ট জমা দেয়নি এমন শিক্ষার্থীর সংখ্যা উল্লেখ করে ছক তথ্য পাঠাতে হবে।

/এসএমএ/এমআর/

সম্পর্কিত

এসএসসি-এইচএসসির অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে জরুরি নির্দেশ

এসএসসি-এইচএসসির অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে জরুরি নির্দেশ

ভিকারুননিসা অধ্যক্ষের আরেকটি ফোনালাপ ফাঁস

ভিকারুননিসা অধ্যক্ষের আরেকটি ফোনালাপ ফাঁস

প্রযুক্তি সহায়ক শিক্ষাব্যবস্থা প্রবর্তনের আহ্বান ইউজিসির

প্রযুক্তি সহায়ক শিক্ষাব্যবস্থা প্রবর্তনের আহ্বান ইউজিসির

সুন্দরবন যেমন আছে তেমনই থাকতে দিন: সুলতানা কামাল

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ২০:০৬

বাঘ রক্ষায় সরকারসহ সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন সুন্দরবন রক্ষা জাতীয় কমিটির সভাপতি সুলতানা কামাল। তিনি বলেন, ‘কথা ছিল ১০ বছরে বাঘের সংখ্যা দ্বিগুণ করবো। তা হয়নি। নানা অজুহাত দেওয়া হয়েছে। শুভংকরের ফাঁকি দেওয়া হয়েছে। সরকারের পক্ষ থেকে বরাবর অবহেলার শিকার হয়ে আসছে বাঘ। এ জন্য সাংস্কৃতিক, সামাজিক উন্নয়নের প্রয়োজন হয়।’

বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা)’র উদ্যোগে ‘বাঘ দিবসে বাঘের গল্প’ শীর্ষক এক বিশেষ ওয়েবিনারে সুলতানা কামাল এসব কথা বলেন।

সুন্দরবন রক্ষা জাতীয় কমিটির সভাপতি বলেন, ‘আগে আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলো আমাদের কথা শুনতো। এখন এসব সংস্থা আর আগের মতো নেই। সরকারের পক্ষে কথা বলতে থাকে। তবে এখন একটি প্রজন্ম সচেতন হয়েছে, সংবেদনশীল হয়েছে। এটাও একটি ভালো দিক।’

তিনি বলেন, ‘সুন্দরবনকে যেভাবে আছে সেভাবেই থাকতে দেন। বাংলাদেশের শুরুই হয়েছিল সম্পদ, সংস্কৃতি রক্ষার জন্য। এখনও সেই দায়িত্ব পালন করে যেতে হবে। বাঘ রক্ষায় শুধু সরকার নয়, আমাদেরও ভূমিকা পালন করতে হবে।’

বাপার সাধারণ সম্পাদক শরীফ জামিলের সঞ্চালনায় ওয়েবিনারে অন্যদের মধ্যে বাপা’র বন, জীববৈচিত্র্য, প্রাকৃতিক সম্পদ ও জ্বালানি বিষয়ক কমিটির সহ-আহ্বায়ক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক ড. মনিরুল হাসান খান ও অধ্যাপক ড. এম এ আজিজ, মোংলার স্থানীয় বনজীবী বেলায়েত সরদার, মোংলার জয়মনির ভিলেজ টাইগার রেসপন্স টিমের নান্টু গাজী, পশুর রিভার ওয়াটারকিপার নূর আলম শেখ উপস্থিত ছিলেন।

ওয়েবিনারে সংযুক্ত অন্য আলোচকরা পশুর রিভার ওয়াটারকিপার নূর আলম শেখ স্বাগত বক্তব্যে বলেন, ‘২০১০ সালে রাশিয়ার বাঘ সম্মেলনের মধ্য দিয়ে এই দিবসটির সূচনা হয়। সেই সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও ছিলেন। সে সম্মেলনে ২০২২ সালের মধ্যে বাঘের সংখ্যা দ্বিগুণ করার অঙ্গীকার করা হয়। কিন্তু বাস্তবে তা হয়নি। ২০০৪ সালে বাঘ ছিল ৪৪০টি। এখন ২০১৫ সালে এসে ১০৬টি, ২০১৮ সালে বলা হলো ১১৪টি। এতে দেখা যায়, মাত্র ৮টি বাঘ বেড়েছে। এর মধ্যে আবার ৩টি বাঘ মারাও গিয়েছে। এছাড়া ভারত থেকে একটি বাঘ এসেছে বলে জানা যায়।’ তিনি বলেন, ‘বাঘের যে খাদ্য তা এখন সংকটে সুন্দরবনে। সুন্দরবনে এখন অনুকূল পরিবেশ নেই বাঘের জন্য। নানা কারণে আজ সুন্দরবন বিপদে আছে। এখন বলা হচ্ছে সুন্দরবন বাঁচলে বাঘ বাঁচবে। তাই বাঘ বাঁচাতে হলে সুন্দরবনকে বাঁচাতেই হবে।’

ফরিদ উদ্দিন বলেন, ‘তাদের আবসস্থল রক্ষা করতে হবে। হরিণ মেরে ফেললে ওরা কী খাবে। সুন্দরবনকে সুন্দরবনের মতো রাখতেই দিন। বরং যারা এই বনের ওপর জীবীকা নির্বাহ করেন, তাদের অন্য উপায়ে জীবীকার ব্যবস্থা করতে হবে। অত্যাচারটা না করি।’

 

/এসএনএস/আইএ/

সম্পর্কিত

সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে: খেলাফত মজলিস

সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে: খেলাফত মজলিস

ডিএনসিসিতে দেড় হাজার কর্মহীন পরিবহন শ্রমিকের মাঝে ত্রাণ বিতরণ

ডিএনসিসিতে দেড় হাজার কর্মহীন পরিবহন শ্রমিকের মাঝে ত্রাণ বিতরণ

কত প্রকার মাদক আছে দেশে?

কত প্রকার মাদক আছে দেশে?

মাস্ক সঙ্গে থাকলেই হবে?

মাস্ক সঙ্গে থাকলেই হবে?

সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে: খেলাফত মজলিস

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ২০:০৩

খেলাফত মজলিসের আমির মাওলানা মোহাম্মদ ইসহাক বলেছেন, করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব থেকে মুক্তির জন্য আল্লাহর সাহায্য চাইতে হবে। একই সঙ্গে সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি পালনে সতর্ক হতে হবে। বৃহস্পতিবার বিকালে অনলাইনে এক আলোচনা সভায় মাওলানা মোহাম্মদ ইসহাক এসব কথা বলেন।

মাওলানা মোহাম্মদ ইসহাক বলেন, দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যুর হার বেড়েই চলছে। দিনের পর দিন লকডাউন দিয়েও কোন কাজ হচ্ছে না। এরমধ্যে যুক্ত হয়েছে ডেঙ্গুর প্রকোপ। হাসপাতালগুলোতে আইসিইউ সংকট, অক্সিজেন সংকট মারাত্মক আকার ধারণ করেছে। প্রয়োজনীয় প্রস্তুতির অভাব ও অব্যবস্থাপনার কারণে মানুষ যথাযথ চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। সরকারকে যথাযথ চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করতে হবে।

মোহাম্মদ ইসহাক বলেন, লকডাউনে ক্ষতিগ্রস্ত সীমিত আয়ের মানুষের জন্য সরকারের পক্ষ থেকে দীর্ঘমেয়াদি খাদ্য সহায়তা কর্মসূচি চালু করতে হবে। সমাজের সামর্থ্যবানদেরও দুর্দশাগ্রস্ত মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে।

খেলাফত মজলিসের কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদের ভার্চুয়াল বৈঠকে দলের মহাসচিব ড. আহমদ আবদুল কাদেরসহ গ্রেফতারকৃতদের অবিলম্বে মুক্তি দাবি জানানো হয়। বৈঠকে ক্রমবর্ধমান করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব থেকে মুক্তির জন্য ও করোনায় মৃত্যুবরণকারীদের মাগফিরাত কামনা করে আক্রান্তদের আশু আরোগ্য কামনা করে বিশেষ দোয়া করা হয়।

 

/সিএ/এফএএন/এমওএফ/

সম্পর্কিত

সুন্দরবন যেমন আছে তেমনই থাকতে দিন: সুলতানা কামাল

সুন্দরবন যেমন আছে তেমনই থাকতে দিন: সুলতানা কামাল

ডিএনসিসিতে দেড় হাজার কর্মহীন পরিবহন শ্রমিকের মাঝে ত্রাণ বিতরণ

ডিএনসিসিতে দেড় হাজার কর্মহীন পরিবহন শ্রমিকের মাঝে ত্রাণ বিতরণ

কত প্রকার মাদক আছে দেশে?

কত প্রকার মাদক আছে দেশে?

মাস্ক সঙ্গে থাকলেই হবে?

মাস্ক সঙ্গে থাকলেই হবে?

এসএসসি-এইচএসসির অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে জরুরি নির্দেশ

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ১৯:২৪

গ্রুপভিত্তিক নৈর্বাচনিক ৩টি বিষয়ে ২০২১ সালের এসএসসি ও সমমান এবং এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে জরুরি নির্দেশ দিয়েছে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক উপ-কমিটি।

বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) আন্তঃশিক্ষা বোর্ড পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক সমন্বয় উপ-কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক এস এম আমিরুল আসলাম স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে এই নির্দেশ দেওয়া হয়। মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ের সব স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রধানদের এই নির্দেশ দেওয়া হয়। 

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২০২১ সালের এসএসসি/সমমান ও এইচএসসি সমমান পরীক্ষার্থী ও সংশ্লিষ্ট সকলকে জানানো যাচ্ছে যে, বিশ্বব্যাপী কোভিড-১৯ অতিমারির কারণে ২০২১ সালের এসএসসি/সমমান ও এইচএসসি সমমান পরীক্ষা পুনর্বিন্যাস করা সিলেবাস অনুযায়ী শুধু গ্রুপভিত্তিক তিনটি নৈর্বাচনিক বিষয়ের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।  পরীক্ষার সময় ও নম্বর কমিয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষা নেওয়া হবে।

২০২১ সালের ২০২১ সালের এসএসসি/সমমান ও এইচএসসি সমমান পরীক্ষার নিয়মিত, অনিয়মিত, আংশিক বিষয়ে অকৃতকার্য, প্রাইভেট পরীক্ষার্থী, ও জিপিএ উন্নয়ন পরীক্ষার প্রস্তুতির অংশ হিসেবে অ্যাসাইনমেন্ট কার্যক্রমে অংশগ্রহণ আবশ্যক।

২০২১ সালের এসএসসি/সমমান ও এইচএসসি সমমান পরীক্ষার নিয়মিত, অনিয়মিত, প্রাইভেট পরীক্ষার্থী ও জিপিএ উন্নয়ন পরীক্ষার্থীকে শুধু তিনটি নৈর্বাচনিক বিষয়ের অ্যাসাইনমেন্ট কার্যক্রমে অংশ নিতে হবে।

আংশিক বিষয়ে অকৃতকার্য (এক বা দুই বিষয়ে) পরীক্ষার্থী যদি নৈর্বাচনিক বিষয়ে অকৃতকার্য হয়ে থাকে সেক্ষেত্রে পরীক্ষার্থীকে তার অকৃতকার্য নৈর্বাচনিক বিষয়ে অ্যাসাইনমেন্ট গ্রহণ করতে হবে। উদাহরণস্বরূপ একজন আংশিক বিষয়ে অকৃতকার্য পরীক্ষার্থী বাংলা (আবশ্যিক বিষয়) ও রসায়নে (নৈর্বাচনিক বিষয়) অকৃতকার্য হলে সেক্ষেত্রে শুধু রসায়ন বিষয়ে অ্যাসাইনমেন্ট কার্যক্রমে অংশ নিতে হবে। 

আবশ্যিক ও চতুর্থ বিষয়ে বিষয়ে অকৃতকার্য পরীক্ষার্থীকে অ্যাসাইনমেন্ট কার্যক্রমে অংশ নিতে হবে না।      

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতরের ওয়েবসাইট থেকে শিক্ষার্থীদের জন্য দেওয়া অ্যাসাইনমেন্ট সংগ্রহ করে নির্দেশিকা মোতাবেক সম্পন্ন করবে এবং সংশ্লিষ্ট শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে জমা দেবে।বিষয়টি অতীব জরুরি।

 

/এসএমএ/এমআর/

সম্পর্কিত

১৯ আগস্টের মধ্যে এসএসসির অ্যাসাইনমেন্টের তথ্য পাঠানোর নির্দেশ

১৯ আগস্টের মধ্যে এসএসসির অ্যাসাইনমেন্টের তথ্য পাঠানোর নির্দেশ

ভিকারুননিসা অধ্যক্ষের আরেকটি ফোনালাপ ফাঁস

ভিকারুননিসা অধ্যক্ষের আরেকটি ফোনালাপ ফাঁস

প্রযুক্তি সহায়ক শিক্ষাব্যবস্থা প্রবর্তনের আহ্বান ইউজিসির

প্রযুক্তি সহায়ক শিক্ষাব্যবস্থা প্রবর্তনের আহ্বান ইউজিসির

৯৯ জনকে জরিমানা র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালতের

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ১৯:২৩

দেশব্যাপী লকডাউন অমান্য করে বাইরে বের হওয়ার কারণে ৯৯ জনকে জরিমানা করেছেন র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। ১৯টি ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে এক লাখ ৭ হাজার ৪৫০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) সন্ধ্যায় বাংলা ট্রিবিউনকে এ তথ্য জানান র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন।

তিনি বলেন, ‘দেশব্যাপী র‌্যাবের ১৭৯টি টহল ও ১৮২টি চেকপোস্ট পরিচালিত হয়। র‌্যাব জেলা প্রশাসনের সঙ্গে সমন্বয় করে দেশব্যাপী ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করছে।’

খন্দকার আল মঈন বলেন, ‘বিনা প্রয়োজনে মানুষের চলাচল নিয়ন্ত্রণে র‌্যাবের জনসচেতনতামূলক মাইকিং, লিফলেট বিতরণ ও বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণ কর্মসূচি চলমান রয়েছে। বিধিনিষেধ কার্যকর করতে নিয়মিত টহল ও চেকপোস্টের পাশাপাশি ছিল অতিরিক্ত টহল ও চেকপোস্ট। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে উদ্বুদ্ধকরণে বিনামূল্যে চার হাজারের বেশি মাস্ক বিতরণ এবং বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে হ্যান্ড স্যানিটাইজার সরবরাহ করা হয় র‌্যাবের পক্ষ থেকে।’

 

/আরটি/আইএ/

সম্পর্কিত

লকডাউন অমান্য করায় রাজধানীতে গ্রেফতার ৫৬৮

লকডাউন অমান্য করায় রাজধানীতে গ্রেফতার ৫৬৮

ইউনাইটেড হাসপাতালে আগুনে মৃত্যু: চার পরিবার পেলো ১ কোটি টাকা

ইউনাইটেড হাসপাতালে আগুনে মৃত্যু: চার পরিবার পেলো ১ কোটি টাকা

অন্তঃসত্ত্বা নারীদের অগ্রাধিকার-ভিত্তিতে টিকা দিতে আইনি নোটিশ

অন্তঃসত্ত্বা নারীদের অগ্রাধিকার-ভিত্তিতে টিকা দিতে আইনি নোটিশ

চাঁদাবাজির মামলায় বহিষ্কৃত সেই ছাত্রলীগ নেতা রিমান্ড শেষে কারাগারে

চাঁদাবাজির মামলায় বহিষ্কৃত সেই ছাত্রলীগ নেতা রিমান্ড শেষে কারাগারে

সর্বশেষ

শ্রমিক ছাঁটাই এবং কারখানা লে-অফ ঘোষণা না করার অনুরোধ

শ্রমিক ছাঁটাই এবং কারখানা লে-অফ ঘোষণা না করার অনুরোধ

বাগদাদে মার্কিন দূতাবাসের কাছে রকেট হামলা

বাগদাদে মার্কিন দূতাবাসের কাছে রকেট হামলা

সিনোফার্মের আরও ৩০ লাখ ডোজ টিকা আসছে রাতে

সিনোফার্মের আরও ৩০ লাখ ডোজ টিকা আসছে রাতে

পিপিপি কনসেপ্ট আমরা এখনও ভালোভাবে নিতে পারিনি: অর্থমন্ত্রী

পিপিপি কনসেপ্ট আমরা এখনও ভালোভাবে নিতে পারিনি: অর্থমন্ত্রী

এবার অভিযুক্ত নির্মাতা বান্নাহ, চাইলেন ক্ষমা

এবার অভিযুক্ত নির্মাতা বান্নাহ, চাইলেন ক্ষমা

জনদুর্ভোগ কমাতে এসিল্যান্ডদের নির্দেশ দিয়ে পরিপত্র জারি

জনদুর্ভোগ কমাতে এসিল্যান্ডদের নির্দেশ দিয়ে পরিপত্র জারি

১৯ আগস্টের মধ্যে এসএসসির অ্যাসাইনমেন্টের তথ্য পাঠানোর নির্দেশ

১৯ আগস্টের মধ্যে এসএসসির অ্যাসাইনমেন্টের তথ্য পাঠানোর নির্দেশ

সরকারি ৮ হাসপাতালের আইসিইউতে বেড ফাঁকা নেই

সরকারি ৮ হাসপাতালের আইসিইউতে বেড ফাঁকা নেই

প্রথমবারের মতো কাতারে অনুষ্ঠিত হবে আইনসভার নির্বাচন

প্রথমবারের মতো কাতারে অনুষ্ঠিত হবে আইনসভার নির্বাচন

৭১ বছরের বৃদ্ধের সঙ্গে বিয়ে দেওয়ায় তরুণীর আত্মহত্যা

৭১ বছরের বৃদ্ধের সঙ্গে বিয়ে দেওয়ায় তরুণীর আত্মহত্যা

সুন্দরবন যেমন আছে তেমনই থাকতে দিন: সুলতানা কামাল

সুন্দরবন যেমন আছে তেমনই থাকতে দিন: সুলতানা কামাল

কুমিল্লায় লকডাউনের ছয় দিনে ১২ লাখ টাকা জরিমানা আদায় 

কুমিল্লায় লকডাউনের ছয় দিনে ১২ লাখ টাকা জরিমানা আদায় 

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

অন্তঃসত্ত্বা নারীদের অগ্রাধিকার-ভিত্তিতে টিকা দিতে আইনি নোটিশ

অন্তঃসত্ত্বা নারীদের অগ্রাধিকার-ভিত্তিতে টিকা দিতে আইনি নোটিশ

ঢাকায় একদিনে রেকর্ড ডেঙ্গু রোগী

ঢাকায় একদিনে রেকর্ড ডেঙ্গু রোগী

অনুমোদন পেলো বুয়েট উদ্ভাবিত অক্সিজেট

অনুমোদন পেলো বুয়েট উদ্ভাবিত অক্সিজেট

‘সবাইকে নিয়ে সেই বিপদেই পড়তে হলো’

‘সবাইকে নিয়ে সেই বিপদেই পড়তে হলো’

ওমর ফারুকের ‘মানসিক সুস্থতা’ পরীক্ষা করবে বিএসএমএমইউ

ওমর ফারুকের ‘মানসিক সুস্থতা’ পরীক্ষা করবে বিএসএমএমইউ

মাস্ক সঙ্গে থাকলেই হবে?

মাস্ক সঙ্গে থাকলেই হবে?

ঢাকায় আরও ১৫০ ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত

ঢাকায় আরও ১৫০ ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত

মডার্না ও সিনোফার্মের প্রায় আড়াই লাখ ডোজ দেওয়া হয়েছে আজ  

মডার্না ও সিনোফার্মের প্রায় আড়াই লাখ ডোজ দেওয়া হয়েছে আজ  

কোথায় গেলে একটা সিট পাবো?

কোথায় গেলে একটা সিট পাবো?

ঢাকায় সরকারি আইসিইউ ফাঁকা মাত্র ২২টি

ঢাকায় সরকারি আইসিইউ ফাঁকা মাত্র ২২টি

© 2021 Bangla Tribune