X
রবিবার, ২৫ জুলাই ২০২১, ১০ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

চ্যাম্পিয়নস লিগে অ্যাওয়ে গোল থাকছে না

আপডেট : ২৫ জুন ২০২১, ১৫:০০

প্রতিপক্ষের মাঠে গোল দিয়ে আসলে পরের রাউন্ডে যাওয়ার পথ সুগম হয়। তখন নিজেদের মাঠে হিসাব কষে খেললেই হলো। অ্যাওয়ে গোলের গুরুত্ব এতটাই। আসলে প্রতিপক্ষের মাঠে ১ গোল ২ গোলের সমান বিবেচিত হয়। চ্যাম্পিয়নস লিগ কিংবা উয়েফার আয়োজিত ফুটবলে দেখে আসা এই নিয়মটা আর থাকছে না। আগামী মৌসুম থেকে ইউরোপিয়ান ক্লাব টুর্নামেন্টের সব প্রতিযোগিতা থেকে অ্যাওয়ে গোলের হিসাব বাদ দিচ্ছে উয়েফা।

অ্যাওয়ে গোলের সমালোচনা অনেক পুরনো। অনেকবারই এই নিয়ম বদলানোর দাবি উঠেছে। শেষ পর্যন্ত উয়েফা ৫৬ বছরের পুরনো নিয়মটা বদলেই ফেললো। ১৯৫৬ সাল থেকে ইউরোপিয়ান ক্লাব প্রতিযোগিতায় চলে আসা অ্যাওয়ে গোলের হিসাব বাদ দিয়ে দিয়েছে ইউরোপিয়ান ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রণ সংস্থাটি। এখন থেকে দুই লেগের খেলায় হোম-অ্যাওয়ে গোল সমান হিসেবে বিবেচনা করা হবে।

উয়েফা জানিয়েছে, এখন থেকে ইউরোপিয়ান ক্লাবের সব প্রতিযোগিতার নকআউট পর্বে অ্যাওয়ে গোল থাকছে না। অর্থাৎ, চ্যাম্পিয়নস লিগ, ইউরোপা লিগ ও উয়েফা সুপার কাপে ঘরের মাঠ-পরের মাঠ বলে কিছু থাকছে না। উয়েফার প্রধান আলেক্সান্দার সেফেরিন মনে করছেন, এই নিয়ম বাতিলের মাধ্যমে দুই লেগেই আক্রমণাত্মক ফুটবল উপভোগ করতে পারবেন দর্শকরা।

দুই লেগে স্কোর সমান হলে কী হবে?

এখন কথা হলো, দুই লেগে স্কোরলাইন সমান হলে জয়ী দল নির্বাচন করা হবে কীভাবে? এতদিন নিয়ম ছিল, দুই দলের স্কোরলাইন সমান থাকলে অ্যাওয়ে গোলের সুবিধা নিয়ে পরের রাউন্ডে চলে যেত সংশ্লিষ্ট দলটি। তবে এখন স্কোর সমান হলে ৩০ মিনিটের অতিরিক্ত সময়ে গড়াবে ম্যাচ (দ্বিতীয় লেগ)। দুই অর্ধে খেলা হবে ১৫ মিনিট করে। সেখানে এগিয়ে থাকা দল হবে বিজয়ী। কিন্তু অতিরিক্ত সময়েও স্কোরলাইন সমান থাকলে তখন ফল নিষ্পত্তিতে ম্যাচ গড়াবে টাইব্রেকারে।

অতীতে এরকম অনেক ম্যাচ আছে, যেখানে অ্যাওয়ে গোলের কারণে এক দলের কপাল ‍পুড়েছে, অন্য দল উৎসব করেছে। যার সবশেষ বড় উদাহরণ ২০১৮-১৯ চ্যাম্পিয়নস লিগ মৌসুমে টটেনহাম। কোয়ার্টার ফাইনালে ম্যানচেস্টার সিটির বিপক্ষে অ্যাওয়ে গোলে জেতার পর স্পাররা সেমিফাইনালে একইভাবে সুবিধা পায় আয়াক্সের বিপক্ষে। আমস্টারডামে ৩-২ গোলের জয়ে তারা চলে যায় ফাইনালে।

নতুন নিয়ম কবে থেকে কার্যকর?

অ্যাওয়ে গোল বাতিলের নিয়ম আগামী মৌসুম, মানে ২০২১-২২ থেকে চালু হবে। নিয়মটি শুধুমাত্র উয়েফার আয়োজিত ক্লাব ফুটবলের নকআউট পর্বের জন্য। ফিফার টুর্নামেন্টেও অ্যাওয়ে গোল বাতিল করা হবে কিনা, তা এখনও নিশ্চিত নয়। যেমন বিশ্বকাপ বাছাইয়ে প্রতিপক্ষের মাঠে গোলের হিসাব আমলে নেওয়া হয়।

/কেআর/

সম্পর্কিত

অলিম্পিক ইতিহাসে একই দিনে সোনা জিতলেন ভাই-বোন

অলিম্পিক ইতিহাসে একই দিনে সোনা জিতলেন ভাই-বোন

স্বস্তির জয়ে সিরিজ বাংলাদেশের

স্বস্তির জয়ে সিরিজ বাংলাদেশের

সৌম্যর বিদায়ের পর চাপে বাংলাদেশ 

সৌম্যর বিদায়ের পর চাপে বাংলাদেশ 

প্রত্যাশা পূরণ করতে পারলেন না সাকিব

প্রত্যাশা পূরণ করতে পারলেন না সাকিব

অলিম্পিক ইতিহাসে একই দিনে সোনা জিতলেন ভাই-বোন

আপডেট : ২৫ জুলাই ২০২১, ২১:১৫

জাপানের আবে পরিবারের জন্য দিনটা ভীষণ আনন্দের। কারণ এক ঘণ্টার ব্যবধানে অলিম্পিকে অনন্য কীর্তি গড়েছেন এই পরিবারের দুই ভাই-বোন! জুডোতে সোনা জিতে চমকে দিয়েছেন সবাইকে। রবিবার টোকিও অলিম্পিকে সোনা জিতে চারদিকে হইচই ফেলে দেওয়া এই দু’জন হলেন- হিফুমি ও উতা আবে। অলিম্পিক ইতিহাসে দুই ভাই-বোনের একই দিনে সোনার পদক জেতার ঘটনা এবারই প্রথম!

৫২ কেজিতে প্রথম সোনার পদক জেতেন ছোট বোন ২১ বছর বয়সী উতা। ঠিক এক ঘণ্টা পর বড় ভাই ২৩ বছর বয়সী হিফুমিও সোনা জিতে পরিবারের আনন্দ আরও বাড়িয়ে দেন। তিনি জেতেন ৬৬ কেজি ওজন শ্রেণিতে।

অনন্য এই কীর্তি গড়ার পর উচ্ছ্বসিত দুজনেই। এদের মাঝে বড় ভাই হিফুমির তো অলিম্পিকে অংশ নেওয়া কিছুটা অনিশ্চিতও ছিল! শেষ পর্যন্ত সোনা জিততে পেরে হিফুমি বলেছেন, ‘আমার মনে হয় আমরা ইতিহাসের পাতায় নাম উঠিয়েছি। আমাদের সামর্থ্য আছে ইতিহাস বদলে ফেলার। অলিম্পিক গেমস একটি অবস্থার মধ্যে দিয়ে শুরু হয়েছে। এর জন্য অনেককে ধন্যবাদ দিতে হয়।’

উতা শেষ চার বছর ধরে কঠোর পরিশ্রম করে আসছিলেন। অলিম্পিকে এসে তার পরিশ্রম স্বার্থক হয়েছে। তাই উতা বলেছেন, ‘সত্যি বলতে চার বছর অনেক পরিশ্রম করেছি। এখন সোনা জিতে ভালো লাগছে। আমার ভাইও সোনা জিতেছে। নিজেকে নির্ভার মনে হচ্ছে। একে অন্যকে এর জন্য আমরা অভিনন্দনও জানিয়েছি।’

/টিএ/এফআইআর/

সম্পর্কিত

স্বস্তির জয়ে সিরিজ বাংলাদেশের

স্বস্তির জয়ে সিরিজ বাংলাদেশের

সৌম্যর বিদায়ের পর চাপে বাংলাদেশ 

সৌম্যর বিদায়ের পর চাপে বাংলাদেশ 

প্রত্যাশা পূরণ করতে পারলেন না সাকিব

প্রত্যাশা পূরণ করতে পারলেন না সাকিব

নাঈম ফিরলেও রানের চাকা সচল রেখেছেন সৌম্য-সাকিব

নাঈম ফিরলেও রানের চাকা সচল রেখেছেন সৌম্য-সাকিব

স্বস্তির জয়ে সিরিজ বাংলাদেশের

আপডেট : ২৫ জুলাই ২০২১, ২০:৫২

টি-টোয়েন্টি সিরিজটা হাত ফসকে যাওয়ার সম্ভাবনা ছিল। দ্বিতীয় ম্যাচ হেরে যাওয়াতে তৃতীয় টি-টোয়েন্টিটা হয়ে দাঁড়ায় সিরিজ নির্ধারণী। শেষ পর্যন্ত দলগত ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ শেষ ম্যাচে ৫ উইকেটে হারিয়েছে জিম্বাবুয়েকে। তাতে তিন ম্যাচের সিরিজ ২-১ ব্যবধানেও নিশ্চিত করেছে সফরকারীরা।

শুরুতে বোলারদের উদারতায় জিম্বাবুয়ে ১৯৪ রানের লক্ষ্য ছুড়ে দেওয়ায় ম্যাচটা যে জমজমাট হতে যাচ্ছে সেটি টের পাওয়া যাচ্ছিল। হলোও তা-ই। ৫ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশ জয় পেয়েছে ৪ বল হাতে রেখে।  

অবশ্য দুই ওপেনারে শুরুটা খারাপ ছিল না। সৌম্য সরকার কিছুটা মেরে খেলার চেষ্টায় ছিলেন। তৃতীয় ওভারে মুজারাবানির বলে নাঈম হাত খুলতে গিয়ে তালুবন্দি হন মিডঅফে। ৭ বলে নাঈম ফেরেন ৩ রান করে। এরপর সৌম্য-সাকিব মিলে পাওয়ার প্লেতে রানের চাকা সচল রেখেছেন।

সাকিব মেরে খেলতে থাকেন বেশ কিছুক্ষণ। এই মেরে খেলতে গিয়েই বিপদ ডেকে আনেন অষ্টম ওভারে। এই ওভারে লুক জংউইর বলে দুটি ছক্কা মারলেও চতুর্থ বলে ক্যাচ তুলে দিয়েছেন বদলি ফিল্ডার মুসাকান্দাকে। সাকিবের ১৩ বলের ইনিংসে ছিল ১টি চার ও দুটি ছয়।

প্রয়োজনের এই সময় সৌম্য-মাহমুদউল্লাহ মিলেই এগিয়ে নেন স্কোরবোর্ড। সৌম্য ফিফটি তুলে ক্যারিয়ার সেরা ইনিংসে পৌঁছানোর পর ভেঙে যায় ৬৩ রানের এই জুটি। যেটি গড়ে দেয় জয়ের মূল ভিত। ম্যাচসেরা ইনিংস খেলা সৌম্য ৬৮ রানে ফেরেন। তার ৪৯ বলের ইনিংসে ছিল ৯টি চার ও ১টি ছয়।

আফিফ নামার পর স্কোরবোর্ড দ্রুত সমৃদ্ধ করতে সচেষ্ট ছিলেন। ৫ বলে ১৪ রান করে বোল্ড হয়ে ফিরেছেন মাসাকাদজার স্পিনে। তার বিদায়ে চাপেই পড়ে গিয়েছিল সফরকারীরা। দলকে সেখান থেকেই উদ্ধার করেছেন মূলত অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ ও শামীম। দলকে জয়ের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে মাহমুদউল্লাহ ২৮ বলে ফিরে যান ৩৪ রানে। তাতে ছিল ১টি চার ও দুটি ছয়। এই ঘুরে দাঁড়ানো পরিস্থিতিতে শামীমের অবদানও কম নয়। ১৫ বলে ঝড়ো গতির ৩১ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন বাংলাদেশকে। তার ইনিংসে ছিল ৬টি চারের মার।

জিম্বাবুয়ের হয়ে দুটি করে উইকেট নেন মুজারাবানি ও জংউই।

এর আগে টানা দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশের বোলিংয়ের ওপর ছড়ি ঘোরায় জিম্বাবুয়ে। টস জিতে ব্যাট করে ৫ উইকেটে তারা সংগ্রহ করে ১৯৩! হারারেতে এই বড় স্কোরের পেছনে তিন জনের বড় অবদান! তাসকিন আহমেদ, নাসুম আহমেদ ও সাইফউদ্দিন। উদার হস্তে চার ওভারে রান দেওয়াতেই ফুলেফুঁপে উঠে স্বাগতিকদের সংগ্রহ। সবচেয়ে বেশি ব্যয়বহুল ছিলেন সাইফউদ্দিন। এদের মাঝে তাসকিনের চতুর্থ ওভারে আসে ৩০ রান। এরপর ১১তম ওভারে নাসুমের ওভারে ২১ ও সাইফের ১৮তম ও ২০তম ওভারে উঠেছে ১৯ ও ১৬ রান! টি-টোয়েন্টিতে এমন কয়েকটি ওভারই জয়ের পুঁজি পেতে যথেষ্ট।

তবে সবচেয়ে বেশি আগ্রাসী রেজিস চাকাভা ও ওয়েসলে মেধেভেরেকে ফিরিয়ে রাশ টেনে ধরার সুযোগ ছিল সফরকারীদের। কিন্তু বোলিং ব্যর্থতায় সেটি সম্ভব হয়নি। মেধেভেরের ৫৪, চাকাভার ৪৮ ও শেষ দিকে রায়ান বার্লের ঝড়োগতির ৩১ রান বড় পুঁজি পেতে ভূমিকা রাখে জিম্বাবুয়ের। 

সবচেয়ে বেশি ব্যয়বহুল সাইফ ৪ ওভারে ১ উইকেটের বিনিময়ে দিয়েছেন ৫০ রান। সৌম্য ৩ ওভারে ১৯ রান দিয়ে নেন ২টি উইকেট। শরিফুল ২৭ রানে একটি ও সাকিব ২৪ রানে নিয়েছেন সমসংখ্যক উইকেট। ম্যাচসেরার সঙ্গে সিরিজ সেরাও হয়েছেন সৌম্য সরকার। 

/এফআইআর/এমওএফ/

সম্পর্কিত

সৌম্যর বিদায়ের পর চাপে বাংলাদেশ 

সৌম্যর বিদায়ের পর চাপে বাংলাদেশ 

প্রত্যাশা পূরণ করতে পারলেন না সাকিব

প্রত্যাশা পূরণ করতে পারলেন না সাকিব

নাঈম ফিরলেও রানের চাকা সচল রেখেছেন সৌম্য-সাকিব

নাঈম ফিরলেও রানের চাকা সচল রেখেছেন সৌম্য-সাকিব

বোলারদের উদারতায় ফুলে-ফেঁপে উঠলো জিম্বাবুয়ের স্কোরবোর্ড

বোলারদের উদারতায় ফুলে-ফেঁপে উঠলো জিম্বাবুয়ের স্কোরবোর্ড

সৌম্যর বিদায়ের পর চাপে বাংলাদেশ 

আপডেট : ২৫ জুলাই ২০২১, ১৯:৪৮

সিরিজ জিততে ১৯৪ রানের লক্ষ্যে শুরুটা স্বস্তিদায়ক ছিল না বাংলাদেশের। তৃতীয় ওভারেই হারায় ওপেনার মোহাম্মদ নাঈমের উইকেট। এর পর সাকিব ফিরলেও বাংলাদেশকে ভালো জায়গায় পৌঁছে দেওয়ার প্রত্যয় দেখা যাচ্ছিল সৌম্য সরকারের মাঝে। মাহমুদউল্লাহকে সঙ্গে নিয়ে সেই পথেই এগুচ্ছিলেন। কিন্তু ক্যারিয়ার সেরা স্কোর করে আর থিতু হলেন না। বাংলাদেশের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ১৫.৪ ওভারে ১৫০ রান। ক্রিজে আছেন মাহমুদউল্লাহ (২৪) ও শামীম (০)। 

দুই ওপেনারে শুরুটা খারাপ ছিল না। সৌম্য সরকার কিছুটা মেরে খেলার চেষ্টায় ছিলেন। তৃতীয় ওভারে মুজারাবানির বলে নাঈম হাত খুলতে গিয়ে তালুবন্দি হন মিডঅফে। ৭ বলে নাঈম ফেরেন ৩ রান করে। এর পর সৌম্য-সাকিব মিলে পাওয়ার প্লেতে রানের চাকা সচল রেখেছেন। 

ষষ্ঠ ওভারে ক্যাচ দিয়েছিলেন সৌম্য সরকার। কিন্তু কঠিন সুযোগ লুফে নিতে পারেননি মিড অনে থাকা সিকান্দার রাজা।  

এর পর সাকিব মেরে খেলতে থাকেন বেশ কিছুক্ষণ। এই মেরে খেলতে গিয়েই বিপদ ডেকে আনেন অষ্টম ওভারে। এই ওভারে লুক জংউইর বলে দুটি ছক্কা মারলেও চতুর্থ বলে ক্যাচ তুলে দিয়েছেন বদলি ফিল্ডার মুসাকান্দাকে। সাকিবের ১৩ বলের ইনিংসে ছিল ১টি চার ও দুটি ছয়। 

এর পর সৌম্য-মাহমুদউল্লাহ মিলেই এগিয়ে নেন দলকে। সৌম্য ফিফটি তুলে ক্যারিয়ার সেরা ইনিংসে পৌঁছানোর পরই ভেঙে যায় ৬৩ রানের এই জুটি। লুক জংউইর বলে মারতে গিয়ে ক্যাচ আউটে ফেরেন ৬৮ রানে। তার ৪৯ বলের ইনিংসে ছিল ৯টি চার ও ১টি ছয়। 

আফিফ নামার পর স্কোরবোর্ড সমৃদ্ধ করতে সচেষ্ট ছিলেন। দুটি ছয়ও মারেন তিনি। ৫ বলে ১৪ রান করেই বোল্ড হয়ে ফিরেছেন মাসাকাদজার স্পিনে। 

এর আগে টানা দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশের বোলিংয়ের ওপর ছঁড়ি ঘোরায় জিম্বাবুয়ে। তাতে সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচটিও হয়ে উঠে জমজমাট। সিরিজ জিততে তৃতীয় টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশকে ১৯৪ রানের লক্ষ্য ছুঁড়ে দেয় স্বাগতিকরা। টস জিতে ব্যাট করে ৫ উইকেটে তারা সংগ্রহ করে ১৯৩!

/এফআইআর/ 

সম্পর্কিত

স্বস্তির জয়ে সিরিজ বাংলাদেশের

স্বস্তির জয়ে সিরিজ বাংলাদেশের

প্রত্যাশা পূরণ করতে পারলেন না সাকিব

প্রত্যাশা পূরণ করতে পারলেন না সাকিব

নাঈম ফিরলেও রানের চাকা সচল রেখেছেন সৌম্য-সাকিব

নাঈম ফিরলেও রানের চাকা সচল রেখেছেন সৌম্য-সাকিব

বোলারদের উদারতায় ফুলে-ফেঁপে উঠলো জিম্বাবুয়ের স্কোরবোর্ড

বোলারদের উদারতায় ফুলে-ফেঁপে উঠলো জিম্বাবুয়ের স্কোরবোর্ড

প্রত্যাশা পূরণ করতে পারলেন না সাকিব

আপডেট : ২৫ জুলাই ২০২১, ১৯:১৭

সিরিজ জিততে ১৯৪ রানের লক্ষ্যে শুরুটা স্বস্তিদায়ক হয়নি বাংলাদেশের। তৃতীয় ওভারেই হারায় ওপেনার মোহাম্মদ নাঈমের উইকেট। এর পরেও পাওয়ার প্লেতে সচল ছিল রানচাকা। সাকিব আল হাসান-সৌম্য সরকার মিলে রান তোলায় মনোযোগী ছিলেন। কিন্তু আগ্রাসী হতে গিয়ে সাজঘরে ফিরেছেন সাকিবও। তৃতীয় টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের সংগ্রহ দাঁড়িয়েছে ১০ ওভার শেষে ২ উইকেটে ৯০ রান। ক্রিজে আছেন সৌম্য সরকার (৩৭) ও মাহমুদউল্লাহ (১০)।

দুই ওপেনারে শুরুটা খারাপ ছিল না। সৌম্য সরকার কিছুটা মেরে খেলার চেষ্টায় ছিলেন। তৃতীয় ওভারে মুজারাবানির বলে নাঈম হাত খুলতে গিয়ে তালুবন্দি হন মিডঅফে। ৭ বলে নাঈম ফেরেন ৩ রান করে। এর পর সৌম্য-সাকিব মিলে পাওয়ার প্লেতে রানের চাকা সচল রেখেছেন। 

ষষ্ঠ ওভারে ক্যাচ দিয়েছিলেন সৌম্য সরকার। কিন্তু কঠিন সুযোগ লুফে নিতে পারেননি মিড অনে থাকা সিকান্দার রাজা।  

এর পর সাকিব মেরে খেলতে থাকেন বেশ কিছুক্ষণ। এই মেরে খেলতে গিয়েই বিপদ ডেকে আনেন অষ্টম ওভারে। এই ওভারে লুক জংউইর বলে দুটি ছক্কা মারলেও চতুর্থ বলে ক্যাচ তুলে দিয়েছেন বদলি ফিল্ডার মুসাকান্দাকে। সাকিবের ১৩ বলের ইনিংসে ছিল ১টি চার ও দুটি ছয়। 

এর আগে টানা দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশের বোলিংয়ের ওপর ছঁড়ি ঘোরায় জিম্বাবুয়ে। তাতে সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচটিও হয়ে উঠে জমজমাট। সিরিজ জিততে তৃতীয় টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশকে ১৯৪ রানের লক্ষ্য ছুঁড়ে দেয় স্বাগতিকরা। টস জিতে ব্যাট করে ৫ উইকেটে তারা সংগ্রহ করে ১৯৩!

/এফআইআর/

সম্পর্কিত

স্বস্তির জয়ে সিরিজ বাংলাদেশের

স্বস্তির জয়ে সিরিজ বাংলাদেশের

সৌম্যর বিদায়ের পর চাপে বাংলাদেশ 

সৌম্যর বিদায়ের পর চাপে বাংলাদেশ 

নাঈম ফিরলেও রানের চাকা সচল রেখেছেন সৌম্য-সাকিব

নাঈম ফিরলেও রানের চাকা সচল রেখেছেন সৌম্য-সাকিব

বোলারদের উদারতায় ফুলে-ফেঁপে উঠলো জিম্বাবুয়ের স্কোরবোর্ড

বোলারদের উদারতায় ফুলে-ফেঁপে উঠলো জিম্বাবুয়ের স্কোরবোর্ড

নাঈম ফিরলেও রানের চাকা সচল রেখেছেন সৌম্য-সাকিব

আপডেট : ২৫ জুলাই ২০২১, ১৯:০১

সিরিজ জিততে ১৯৪ রানের লক্ষ্যে শুরুটা স্বস্তিদায়ক হয়নি বাংলাদেশের। তৃতীয় ওভারেই হারিয়েছে ওপেনার মোহাম্মদ নাঈমের উইকেট। এর পরেও পাওয়ার প্লেতে সচল ছিল রানচাকা। তৃতীয় টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের সংগ্রহ দাঁড়িয়েছে ৬ ওভার শেষে ১ উইকেটে ৫০ রান। ক্রিজে আছেন সৌম্য সরকার (২৭) ও সাকিব (১২)।

দুই ওপেনারে শুরুটা খারাপ ছিল না। সৌম্য সরকার কিছুটা মেরে খেলার চেষ্টায় ছিলেন। তৃতীয় ওভারে মুজারাবানির বলে নাঈম হাত খুলতে গিয়ে তালুবন্দি হন মিডঅফে। ৭ বলে নাঈম ফেরেন ৩ রান করে। এর পর সৌম্য-সাকিব মিলে পাওয়ার প্লেতে রানের চাকা সচল রেখেছেন। 

ষষ্ঠ ওভারে ক্যাচ দিয়েছিলেন সৌম্য সরকার। কিন্তু কঠিন সুযোগ লুফে নিতে পারেননি মিড অনে থাকা সিকান্দার রাজা।  

এর আগে টানা দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশের বোলিংয়ের ওপর ছঁড়ি ঘোরায় জিম্বাবুয়ে। তাতে সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচটিও হয়ে উঠে জমজমাট। সিরিজ জিততে তৃতীয় টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশকে ১৯৪ রানের লক্ষ্য ছুঁড়ে দেয় স্বাগতিকরা। টস জিতে ব্যাট করে ৫ উইকেটে তারা সংগ্রহ করে ১৯৩!

/এফআইআর/

সম্পর্কিত

স্বস্তির জয়ে সিরিজ বাংলাদেশের

স্বস্তির জয়ে সিরিজ বাংলাদেশের

সৌম্যর বিদায়ের পর চাপে বাংলাদেশ 

সৌম্যর বিদায়ের পর চাপে বাংলাদেশ 

প্রত্যাশা পূরণ করতে পারলেন না সাকিব

প্রত্যাশা পূরণ করতে পারলেন না সাকিব

বোলারদের উদারতায় ফুলে-ফেঁপে উঠলো জিম্বাবুয়ের স্কোরবোর্ড

বোলারদের উদারতায় ফুলে-ফেঁপে উঠলো জিম্বাবুয়ের স্কোরবোর্ড

সর্বশেষ

ঈদ বার্তায় এরদোয়ানের ‘ঘুমিয়ে পড়া’র ভিডিও ভাইরাল

ঈদ বার্তায় এরদোয়ানের ‘ঘুমিয়ে পড়া’র ভিডিও ভাইরাল

প্রতিদিন রান্না করা খাবার তুলে দেবো কর্মহীনদের: বিদিশা

প্রতিদিন রান্না করা খাবার তুলে দেবো কর্মহীনদের: বিদিশা

চাঁদপুরে করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে অক্সিজেন সংকট

চাঁদপুরে করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে অক্সিজেন সংকট

অলিম্পিক ইতিহাসে একই দিনে সোনা জিতলেন ভাই-বোন

অলিম্পিক ইতিহাসে একই দিনে সোনা জিতলেন ভাই-বোন

তালেবান নেতা আখুন্দজাদাকে নিয়ে যা বললেন ট্রাম্প

তালেবান নেতা আখুন্দজাদাকে নিয়ে যা বললেন ট্রাম্প

বিয়ের ৬ দিনের মাথায় শ্বশুরবাড়ির সামনে জামাইয়ের গলাকাটা লাশ

বিয়ের ৬ দিনের মাথায় শ্বশুরবাড়ির সামনে জামাইয়ের গলাকাটা লাশ

নিশো-মেহজাবীনের ‘ঘটনা সত্য’ প্রত্যাহার, ক্ষমা প্রার্থনা

নিশো-মেহজাবীনের ‘ঘটনা সত্য’ প্রত্যাহার, ক্ষমা প্রার্থনা

উগ্রবাদী বইসহ জেএমবি সদস্য গ্রেফতার

উগ্রবাদী বইসহ জেএমবি সদস্য গ্রেফতার

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে তিন বাহিনী প্রধানের সাক্ষাৎ

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে তিন বাহিনী প্রধানের সাক্ষাৎ

বিমান হামলায় ২৬২ তালেবান যোদ্ধাকে হত্যার দাবি আফগানিস্তানের

বিমান হামলায় ২৬২ তালেবান যোদ্ধাকে হত্যার দাবি আফগানিস্তানের

চামড়া নিয়ে এবার কোনও অভিযোগ পাইনি: শিল্পমন্ত্রী

চামড়া নিয়ে এবার কোনও অভিযোগ পাইনি: শিল্পমন্ত্রী

স্ত্রীর প্রতি সন্দেহে শিশুসন্তানকে হত্যা

স্ত্রীর প্রতি সন্দেহে শিশুসন্তানকে হত্যা

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

অলিম্পিক ইতিহাসে একই দিনে সোনা জিতলেন ভাই-বোন

স্বস্তির জয়ে সিরিজ বাংলাদেশের

সৌম্যর বিদায়ের পর চাপে বাংলাদেশ 

প্রত্যাশা পূরণ করতে পারলেন না সাকিব

নাঈম ফিরলেও রানের চাকা সচল রেখেছেন সৌম্য-সাকিব

বোলারদের উদারতায় ফুলে-ফেঁপে উঠলো জিম্বাবুয়ের স্কোরবোর্ড

অলিম্পিক হকিস্টিক দিয়ে মাথায় মেরে বসলেন আর্জেন্টিনার এক খেলোয়াড়!

নাসুমকে তিন ছক্কা মারা চাকাভাকে ফেরালেন সৌম্য 

অলিম্পিক টেনিসশ্রেষ্ঠত্ব আর থাকছে না মারের

সাইফউদ্দিন উইকেট নিলেও জিম্বাবুয়ের আগ্রাসী ব্যাটিং

© 2021 Bangla Tribune