X
মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

ঈদে প্রবাসীদের দেশে আসার ঢল থামাতে বেবিচকের বিধি-নিষেধ

আপডেট : ০৭ জুলাই ২০২১, ০৫:০০

এ মাসের ঈদ। বিশ্বজুড়ে করোনার মহামারির কারণে দীর্ঘদিন আটকে থেকে দেশে আসতে পারছিলেন না অনেকেই।  ঈদকে কেন্দ্র করে দেশে আসার প্রস্তুতি লক্ষাধিক  প্রবাসীর। ঈদের সময় দেশে আসলে প্রবাসীদের ঘরে আটকে রাখা সম্ভব হবে না।  আবার একেবারে ফ্লাইট বন্ধ করলে বাড়বে প্রবাসী ক্ষোভ। এমন শঙ্কায় ফ্লাইট বন্ধ না করে কৌশলি পদক্ষেপ নিয়েছে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক)।

দেশে ভয়ঙ্কর রূপে বাড়ছে করোনায় মৃত্যু ও আক্রান্তের শঙ্কা। ৬ জুলাই সর্বোচ্চ শনাক্ত ছাড়িয়েছে ১১ হাজারের বেশি। এমন সময় প্রবাসীরা দেশে আসলে তাদের ঘরে রাখা, স্বাস্থ্যবিধি মানানো কঠিন হয়ে পড়বে। এছাড়া বিভিন্ন দেশ থেকে আসা প্রবাসীদের মাধ্যমে ছড়াতে পারে করোনার নতুন কোন ভ্যারিয়েন্ট। এমন শঙ্কায় সরকারের নির্দেশনা অনুসারে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধের কড়াকড়ি না করে,  কোয়ারেন্টিনের বিধি নিষেধ আরোপ করা হয়েছে।

৫ জুলাই নতুন বিধি নিষেধ আরোপ করেছে বেবিচক, যা পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত কার্যকর থাকবে। কয়েকদিন পরেই দেশে আসলে ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকলে ঈদের দিনে বাড়িতে থাকা সম্ভব হবে না। যাতে করে প্রবাসীরা হোটেলে কোয়ারেন্টিনে থাকতে অনগ্রাহী হয়ে ঈদের সময়ে দেশে আসার সিদ্ধান্ত বদলায়। আবার ফ্লাইট চালু থাকায় যাদের জরুরি প্রয়োজন তারা আসতে বাধা রইলো না।

এ প্রসঙ্গে বেবিচকের এক কর্মকর্তা বলেন,   বেবিচক একক সিদ্ধান্তে ফ্লাইট বন্ধ কখনওই করেনি। স্বাস্থ্যসহ অন্যান্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রনালয়ের নির্দেশনার আলোকেই বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়। বর্তমানে দেশে করোনা পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সুপারিশ ছিল, আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধ রাখার। তবে প্রবাসী কর্মীদের কাজে ফেরার বিষয়টি মাথায় রেখে ফ্লাইট চালুর সুপারিশ করে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়। বিদেশে কাজে ফেরা চালু রেখে, দেশে আসা রোধ করার কৌশল নিতে হয়েছে। এ কারণে একবারে ফ্লাইট বন্ধ করা হয়নি, তবে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনের সময়সীমা বাড়ানো হয়েছে। ফলে ১৪দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে আগ্রহী না হয়ে অনেকে দেশে আসতে চাইবে না। আবার যার জরুরি প্রয়োজন সে দেশে আসতে পারে। আবার যাদের টিকা দেওয়া আছে, তাদের ক্ষেত্রে প্রাতিষ্ঠান কোয়ারেন্টিনে ছাড় দেওয়া হয়েছে।

বেবিচক ২০টি দেশের ওপর কঠোর বিধি নিষেধ আরোপ করেছে। আর এই ২০ দেশের মধ্যে ৭টি দেশে প্রবাসী কর্মীদের অবস্থান বেশি। ২০ দেশের মধ্যে আট দেশ থেকে বাংলাদেশে আসার ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে। বেবিচকের নির্দেশনায় বলা হয়েছে, ভারত, নেপাল, বৎসোয়ানা, মঙ্গোলিয়া, নামিবিয়া, পানামা, দক্ষিণ আফ্রিকা ও তিউনিশিয়া– এই আট দেশ থেকে বাংলাদেশে আসা যাবে না। তবে বিশেষ অনুমতি নিয়ে এসব দেশ থেকে আসা যাবে।

প্রবাসী কর্মীদের কর্মস্থলেলে ফেরা নিশ্চিত করতে কোনও দেশের যাওয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা দেয়নি বেবিচক। ১২ দেশ থেকে আসলে ১৪ দিন সরকার নির্ধারিত হোটেলে নিজের খরচে কোয়ারেন্টিনে থাকতে বলা হয়েছে। দেশগুলো হলো, আর্জেন্টিনা, ব্রাজিল, কলোম্বিয়া, কোস্টারিকা, জর্জিয়া, কুয়েত, মালয়েশিয়া, মালদ্বীপ, ওমান, সংযুক্ত আরব আমিরাত, যুক্তরাজ্য, উরুগেয়ে। তবে এসব দেশ থেকে কেউ যদি করোনার ভ্যাকসিন গ্রহন করে আসেন, তাহলে হোটেলে কোয়ারেন্টিনে না থেকে বাড়িতে যেয়ে ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে বলা হয়েছে।

এর মধ্যে কুয়েত, মালয়েশিয়া, মালদ্বীপ, ওমান, সংযুক্ত আরব আমিরাত, যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশির সংখ্যা বেশি। সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে শুধু মাত্র এমিরেটস এয়ারলাইন্স সপ্তাহে ১৭টি ফ্লাইট যাত্রী বাংলাদেশে নিয়ে আসছে। এসব দেশে থেকেই ঈদের ছুটিতে দেশে আসবেন প্রবাসীরা। কোয়ান্টিনের বিধি নিষেধের কারণে অনেকেই

হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা (সহকারী পরিচালক) ডা. শাহরিয়ার সাজ্জাদ বলেন, বিমানবন্দরে সকল যাত্রীদের স্ক্রিনিং করা হয়। কারও যদি করোনার লক্ষণ দেখা যায়, তবে তাকে আইসোলেশন কিংবা হাসপাতালে পাঠানো হবে।

ডা. শাহরিয়ার সাজ্জাদ বলেন, ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকলে কেউ আক্রান্ত থাকলে তা নিশ্চিত হওয়া যাবে। আবার যারা ভ্যাকসিন দিয়ে আসবেন, তাদের ক্ষেত্রে ঝুঁকি কম। ফলে অতিরিক্ত মাত্রায় করোনার সংক্রমণ রোধ করা যাবে।

/এফএএন/

সম্পর্কিত

দ্বিতীয় ডোজের আওতায় ১ কোটি ৬৫ লাখ মানুষ

দ্বিতীয় ডোজের আওতায় ১ কোটি ৬৫ লাখ মানুষ

পাঁচটি ল্যাবের বিষয়ে সম্মতি জানায়নি আরব আমিরাত, যাচ্ছে আরও দুটি ফ্লাইট

পাঁচটি ল্যাবের বিষয়ে সম্মতি জানায়নি আরব আমিরাত, যাচ্ছে আরও দুটি ফ্লাইট

চানখার পুলে ঢাবি শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার

চানখার পুলে ঢাবি শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার

‌‘সয়াবিন মিল’ রফতানি বন্ধের দাবি

‌‘সয়াবিন মিল’ রফতানি বন্ধের দাবি

সেই চালককে মোটরসাইকেল উপহার দিতে চায় শামসুল হক ফাউন্ডেশন

আপডেট : ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:১৪

রাইড শেয়ার অ্যাপের সেই চালক শওকত আলম সোহেলকে একটি মোটরসাইকেল উপহার দিতে চায় আলহাজ শামসুল হক ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মুহাম্মদ নাছির উদ্দিন। শওকত রাজী থাকলে তিনি মোটরসাইকেলটি দ্রুত তাকে হস্তান্তর করবেন।

সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) রাতে ইঞ্জিনিয়ার মুহাম্মদ নাসির উদ্দিন বাংলা ট্রিবিউনকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘‘আলহাজ শামসুল হক ফাউন্ডেশন মানুষের জন্য কাজ করে। আমাদের অনেকগুলো কর্মসূচির মধ্যে অন্যতম কর্মসূচির একটি হলো ‘কর্জে হাসানা প্রজেক্ট’। এই প্রজেক্টের মাধ্যমে  অনেককেই সাইকেল, ভ্যান দেওয়া হয়েছে।’

এই প্রজেক্টের কাজের জন্য একটা মোটরসাইকেল নেওয়া হয়েছিল। সেটি তাদের অফিসেই রয়েছে। সোমবার দুপুরে বাড্ডা লিংক রোডে শওকতের মোটরসাইকেল পোড়ানোর দৃশ্য দেখে নাসির উদ্দিন মর্মাহত হয়েছেন। তাই এই মোটরসাইকেলটি তিনি শওকতকে দিতে চান, যাতে তার জীবন-জীবিকা নির্বাহ করতে পারেন।

নাছির উদ্দিন বলেন, ‘আমাদের প্রজেক্ট থেকে কেউ সহযোগিতা পেলে নিয়ম হচ্ছে সেটি ধীরে ধীরে শোধ করে দেওয়া। কিন্তু শওকতকে যেটি দেওয়া হবে, সেটার জন্য লোন শোধ করতে হবে না। আমি নিজেই তার দেনা শোধ করে দেবো। আমরা তাকে এটি উপহার দেবো।’

প্রসঙ্গত, সোমবার সকালে ট্রাফিক পুলিশের ওপর ক্ষুব্ধ হয়ে নিজের মোটরসাইকেলে পেট্রোল দিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয় শওকত। এরপর পুলিশ তাকে আটক করে থানায় জিজ্ঞাসাবাদ করেন। পুলিশের সঙ্গে কয়েক ঘণ্টা কথা বলার পর তিনি ছাড়া পেয়ে জানান, পুলিশ বারবার মামলা দেওয়ায় তিনি তার বাইকটি পুড়িয়ে দিয়েছেন। তিনি আর রাইড শেয়ার করবেন না। রাগ থেকেই তিনি এটি পুড়িয়েছেন। 

/এআরআর/এনএইচ/

সম্পর্কিত

ভবন থেকে ইট পড়ে পথচারীর মৃত্যু

ভবন থেকে ইট পড়ে পথচারীর মৃত্যু

বারডেমের কেবিনে ঝুলছিলো রোগীর মরদেহ

বারডেমের কেবিনে ঝুলছিলো রোগীর মরদেহ

নিম্নচাপ ও মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বৃষ্টি 

নিম্নচাপ ও মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বৃষ্টি 

‘করোনাকালে তথ্য অধিকারের সংকোচন ঘটেছে’

‘করোনাকালে তথ্য অধিকারের সংকোচন ঘটেছে’

কন্যা দিবস আর কন্যাশিশু দিবসের বিভ্রান্তি

আপডেট : ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:০৮

ফেসবুকে কন্যা সন্তানের ছবি দিয়ে কমেন্টে ‘আজ কন্যাশিশু দিবস না’ লেখা পেয়ে কেউ মুছে ফেলছেন। আবার কেউ তর্ক করছেন, সেপ্টেম্বরের শেষ রবিবারই কন্যাশিশু দিবস। কেউবা বলছেন, ৩০ সেপ্টেম্বর কন্যাশিশু দিবস। 

তবে বিভ্রান্তি অন্য জায়গায়। একটি কন্যা দিবস (ডটার্স ডে) সেপ্টেম্বরের শেষ রবিবার আরেকটি জাতীয় কন্যাশিশু দিবস (গার্ল চাইল্ড ডে), যার জন্য নির্ধারিত দিন ৩০ সেপ্টেম্বর। আর আন্তর্জাতিক কন্যাসন্তান দিবস ১১ অক্টোবর যেটি জাতিসংঘভুক্ত দেশগুলো পালন করে। 

জেনে রাখা ভালো, কন্যা দিবস বাংলাদেশ পালন করে না। এটি ভারত তাদের জন্য তৈরি করেছে। দ্বিতীয়টি জাতীয়ভাবে বাংলাদেশে পালন করা হয়। 

কন্যা দিবস

ডটার্স ডে বা কন্যা দিবস সেপ্টেম্বর মাসে পালন করা হয়। সেই হিসেবে এবছর ২৬ সেপ্টেম্বর ছিল কন্যা দিবস। ভারতে এদিন পালনের চল শুরু হয়। কন্যা সন্তানদের গুরুত্ব ও তাদের বিষয়ে সচেতনতা তৈরির জন্য দিবসের উৎপত্তি। মেয়ে সন্তান ছেলে সন্তানের চেয়ে অগুরুত্বপূর্ণ নয় এবং তাদের জন্ম উদযাপনের বিষয়- এটি অভিভাবকদের বুঝানোই দিনটির উদ্দেশ্য। 

আন্তর্জাতিক কন্যাশিশু দিবস 

বিশ্বজুড়ে জাতিসংঘ রাষ্ট্রসমূহ প্রতিবছর ১১ অক্টোবর তারিখে পালন করে। এই দিবসকে মেয়েদের দিনও বলা হয়। ২০১২ সালের ১১ অক্টোবর তারিখে প্রথম এই দিবস পালন করা হয়। প্ল্যান ইন্টারন্যাশনাল ‘কারণ আমি একজন মেয়ে’ (Because I Am a Girl) নামক আন্দোলনের ফলশ্রুতিতে এই দিবসের সূচনা ঘটে। ২০১১ সালের ১৯ ডিসেম্বর তারিখে এই প্রস্তাব রাষ্ট্রসংঘের সাধারণ সভায় গৃহীত হয় ও ২০১২ সালের ১১ অক্টোবর তারিখে প্রথম আন্তর্জাতিক কন্যা শিশু দিবস পালন করা হয়।

জাতীয় কন্যাশিশু দিবস

প্রতিবছর ২৯ সেপ্টেম্বর থেকে ৫ অক্টোবর পর্যন্ত আন্তর্জাতিক শিশু সপ্তাহ পালন করা হয়। শিশু সপ্তাহের দ্বিতীয় দিন ৩০ সেপ্টেম্বরকে জাতীয় কন্যাশিশু দিবস হিসেবে পালন করা হয়। 

কন্যাশিশু অ্যাডভোকেসি ফোরামের সম্পাদক নাসিমা আক্তার জলি বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, আন্তর্জাতিক কন্যাশিশু দিবস ১১ অক্টোবর, সেটি সার্বজনীন। এর বাইরে প্রতিটি দেশ নিজেদের সুবিধা মতো জাতীয়ভাবে আরেকটি দিন কন্যাশিশু দিবস পালন করে। ডটার্স ডে’টা হঠাৎ-ই কয়েক বছর ধরে বিভ্রান্তি তৈরি করছে। এই ডটার্স ডে জাতিসংঘের নির্ধারিত দিবস না। বাংলাদেশেও এটা পালনের চল কোনোদিনই ছিল না। 

‘আমরা যারা শিশুদের নিয়ে কাজ করি তাদের ৫৪টি সংগঠন একসঙ্গে হয়ে একটি দিবসের পরিকল্পনা ছিল। ১৯৯০ সালে কন্যাশিশু দশক নির্ধারিত হয়। ২০০০ পর্যন্ত সেই দশক শেষ হলে সে বছর থেকেই বেসরকারিভাবে দিবস আকারে পালন শুরু হয়। যেহেতু শিশু অধিকার সপ্তাহ শুরু হয় ২৯ সেপ্টেম্বর থেকে ৫ অক্টোবর। সেহেতু মনে রাখার সুবিধার্থে শিশু সপ্তাহ শুরুর দ্বিতীয় দিনে জাতীয় কন্যাশিশু দিবস নির্ধারণ করা হয়। ২০০৩ সালে মন্ত্রণালয় সার্কুলার দিয়ে এই দিনটিকে সরকারিভাবে পালনের কথা ঘোষণা করে। এরপর থেকে সরকারিভাবে পালন করা হচ্ছে। তবে কয়েক বছর ধরে এসময়টায় প্রধানমন্ত্রী দেশে না থাকার কারণে পরবর্তীতে অক্টোবরের শুরুতে সুবিধাজনক দিনে উদযাপন করা হয়।’

/এনএইচ/ 

সম্পর্কিত

সেই চালককে মোটরসাইকেল উপহার দিতে চায় শামসুল হক ফাউন্ডেশন

সেই চালককে মোটরসাইকেল উপহার দিতে চায় শামসুল হক ফাউন্ডেশন

ভবন থেকে ইট পড়ে পথচারীর মৃত্যু

ভবন থেকে ইট পড়ে পথচারীর মৃত্যু

বারডেমের কেবিনে ঝুলছিলো রোগীর মরদেহ

বারডেমের কেবিনে ঝুলছিলো রোগীর মরদেহ

বেশি মুনাফা পেতে মানহীন চিকিৎসা সামগ্রী বিক্রয় করতো মুন্না

বেশি মুনাফা পেতে মানহীন চিকিৎসা সামগ্রী বিক্রয় করতো মুন্না

ভবন থেকে ইট পড়ে পথচারীর মৃত্যু

আপডেট : ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:১৫

রাজধানীর সবুজবাগে নির্মাণাধীন ভবন থেকে ইট পড়ে ফুলি বেগম (৫৮) নামে এক পথচারীর মৃত্যু হয়েছে। 

সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) বিকাল সাড়ে পাঁচটার দিকে সবুজবাগের মায়াকানন মসজিদের পেছন দিয়ে হেঁটে যাওয়ার সময় নির্মাণাধীন একটি ভবনের ৫ম তলা থেকে ইট মাথায় পড়লে ঘটনাস্থলে প্রাণ হারান ফুলি। 

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন সবুজবাগ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আসলাম আলী।  

তিনি বলেন, খবর পেয়ে সেখান থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে আইনি প্রক্রিয়া শেষে রাতে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ মর্গে পাঠানো হয়। 

নিহত ফুলি জামালপুর জেলার দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার পশ্চিম নয়াপাড়া গ্রামের মৃত ছবেদ আলীর মেয়ে। ছেলেকে নিয়ে সবুজবাগ মায়াকানন এলাকায় থাকতো সে। 

/এআরআর/এআইবি/এনএইচ/

সম্পর্কিত

সেই চালককে মোটরসাইকেল উপহার দিতে চায় শামসুল হক ফাউন্ডেশন

সেই চালককে মোটরসাইকেল উপহার দিতে চায় শামসুল হক ফাউন্ডেশন

বারডেমের কেবিনে ঝুলছিলো রোগীর মরদেহ

বারডেমের কেবিনে ঝুলছিলো রোগীর মরদেহ

নিম্নচাপ ও মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বৃষ্টি 

নিম্নচাপ ও মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বৃষ্টি 

‘করোনাকালে তথ্য অধিকারের সংকোচন ঘটেছে’

‘করোনাকালে তথ্য অধিকারের সংকোচন ঘটেছে’

বারডেমের কেবিনে ঝুলছিলো রোগীর মরদেহ

আপডেট : ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:০৮

রাজধানীর বারডেম হাসপাতালের কেবিন থেকে আনজুম আরা (৭০) নামে এক রোগীর ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। 

সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) রাত ৮টার দিকে হাসপাতালের ১৫ তলার ১৫২৭ নম্বর কেবিন থেকে ওই নারীর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। পরে ময়না তদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ মর্গে পাঠানো হয়েছে।

রমনা থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) মো. মিজানুর রহমান জানান, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে জানা গেছে; গত ২৫ সেপ্টেম্বর ওই নারী ইউরিন ইনফেকশন, পেটে ব্যথা ও ডায়াবেটিকসহ কয়েকটি রোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালের কেবিনে ভর্তি হয়।

‘সন্ধ্যায় ওই নারীর স্বজনরা হাসপাতালের বাইরে ওষুধ কিনতে যায়। ফিরে এসে দেখে ভেতর থেকে দরজা বন্ধ। অনেক ডাকাডাকির পর কোনও সাড়া না পেলে লোকজন কেবিনের দরজা ভেঙে তাকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়।’

পুলিশের এই কর্মকর্তা আরও জানান, কেবিনের দরজার ডোর ক্লোজারের সঙ্গে ওড়না দিয়ে গলায় ফাঁস দেয়। ধারণা করা হচ্ছে, বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে সহ্য করতে না পেরে সে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। ওই নারী পরিবারের সঙ্গে ধানমন্ডি এলাকায় থাকতো। মৃতদেহ ময়না তদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। প্রতিবেদন আসলে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে।

/এআরআর/এনএইচ/

সম্পর্কিত

সেই চালককে মোটরসাইকেল উপহার দিতে চায় শামসুল হক ফাউন্ডেশন

সেই চালককে মোটরসাইকেল উপহার দিতে চায় শামসুল হক ফাউন্ডেশন

ভবন থেকে ইট পড়ে পথচারীর মৃত্যু

ভবন থেকে ইট পড়ে পথচারীর মৃত্যু

নিম্নচাপ ও মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বৃষ্টি 

নিম্নচাপ ও মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বৃষ্টি 

‘করোনাকালে তথ্য অধিকারের সংকোচন ঘটেছে’

‘করোনাকালে তথ্য অধিকারের সংকোচন ঘটেছে’

বেশি মুনাফা পেতে মানহীন চিকিৎসা সামগ্রী বিক্রয় করতো মুন্না

আপডেট : ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:০১

মিরপুর এলাকা থেকে বিপুল পরিমাণ মানহীন চিকিৎসা সরঞ্জামসহ কালোবাজারি চক্রের মূলহোতা কাওছার হামিদ মুন্নাকে (২৯) আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব-৪)। 

আটক মুন্না দীর্ঘদিন ধরেই পরিকল্পিতভাবে বেশি মুনাফা লাভের আশায় নিম্নমানের চিকিৎসা সামগ্রী প্রতারণার উদ্দেশে লোকজনের কাছে বিক্রয় করে বিপুল পরিমাণ অর্থ হাতিয়ে নিয়েছিল।

সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) র‌্যাব-৪ এর অধিনায়ক (সিও) অধিনায়ক অতিরিক্ত ডিআইজি মোজাম্মেক হক বিষয়টি নিশ্চিত করেন। 

আটক মুন্নার বাড়ি ফেনী। সে কালোবাজারি চক্রটির মূলহোতা। অভিযানে তাদের কাছ থেকে নিম্নমানের চিকিৎসা সরঞ্জামাদি ২ হাজার ৪৩০টি পালস্ অক্সিমিটার, ১৮৬টি ইনফারেড থার্মোমিটার জব্দ করা হয়।

রবিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-৪ এর একটি দল রাজধানীর মিরপুর মডেল থানাধীন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে এই কালোবাজারি চক্রের মূলহোতাকে আটক করে। 

জব্দকৃত মালামাল

র‍্যাব-৪ এর সিও জানান, জব্দ মালামাল সম্পর্কে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র, বোর্ডের অনুমোদন, ট্রেড লাইসেন্স কী ধরনের ব্যবসার উল্লেখ, জয়েন স্টক এক্সচেঞ্জের অনুমোদন, মহাপরিচালক ঔষধ প্রশাষন অধিদফতরের এনওসি, মহাপরিচালক ঔষধ প্রশাসন অধিদফতরের রেজিস্ট্রেশন সংক্রান্ত কোনও বৈধ কোন কাগজপত্র দেখাতে পারেনি। 

জিজ্ঞাসাবাদে করোনা পরবর্তী সময়ে স্কুল-কলেজ খুললে জব্দকৃত জাম্পার পালস্ অক্সিমিটার এবং মিডেক্স নন কন্ট্রাক্ট ইনফারেড থার্মোমিটারের ব্যাপক চাহিদা থাকায় অধিক মুনাফা লাভের আশায় মজুদ রেখে বিক্রি করে আসছিল। 

তিনি জানান, জব্দ করা মালামাল ঔষধ প্রশাসন অধিদফতরের একজন প্রতিনিধির মাধ্যমে পরীক্ষা করে জানা যায়; জাম্পার পালস্ অক্সিমিটার এবং মিডেক্স নন কন্ট্রাক্ট ইনফারেড থার্মোমিটার সকলের দেহে একই তাপমাত্রা প্রদর্শন করে।  

তিনি আরও জানান, জাম্পার পালস্ অক্সিমিটার এবং মিডেক্স নন কন্ট্রাক্ট ইনফারেড থার্মোমিটার নিম্নমানের, যা ব্যবহার যোগ্য নয়। 

আটক আসামির বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলেও জানান তিনি। 

/এআরআর/এনএইচ/

সম্পর্কিত

মাদক মামলায় মডেল পিয়াসার বিরুদ্ধে চার্জশিট

মাদক মামলায় মডেল পিয়াসার বিরুদ্ধে চার্জশিট

পদোন্নতিপ্রাপ্ত  ১৫৭ পুলিশ কর্মকর্তাকে বদলি

পদোন্নতিপ্রাপ্ত ১৫৭ পুলিশ কর্মকর্তাকে বদলি

পরীমণির গাড়িসহ জব্দ করা ১৬ আলামত ফেরত দিতে প্রতিবেদন

পরীমণির গাড়িসহ জব্দ করা ১৬ আলামত ফেরত দিতে প্রতিবেদন

‌এনআরবি ব্যাংকের পরিচালক বদিউজ্জামান ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে মামলা

‌এনআরবি ব্যাংকের পরিচালক বদিউজ্জামান ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে মামলা

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

দ্বিতীয় ডোজের আওতায় ১ কোটি ৬৫ লাখ মানুষ

দ্বিতীয় ডোজের আওতায় ১ কোটি ৬৫ লাখ মানুষ

পাঁচটি ল্যাবের বিষয়ে সম্মতি জানায়নি আরব আমিরাত, যাচ্ছে আরও দুটি ফ্লাইট

পাঁচটি ল্যাবের বিষয়ে সম্মতি জানায়নি আরব আমিরাত, যাচ্ছে আরও দুটি ফ্লাইট

চানখার পুলে ঢাবি শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার

চানখার পুলে ঢাবি শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার

‌‘সয়াবিন মিল’ রফতানি বন্ধের দাবি

‌‘সয়াবিন মিল’ রফতানি বন্ধের দাবি

মঙ্গলবার সারাদেশে রাইড শেয়ার চালকদের কর্মবিরতি

পুলিশি হয়রানির অভিযোগ মঙ্গলবার সারাদেশে রাইড শেয়ার চালকদের কর্মবিরতি

রাজধানীতে পিকআপের ধাক্কায় ২ পথচারী আহত

রাজধানীতে পিকআপের ধাক্কায় ২ পথচারী আহত

মেইল ট্রেনের নিরাপত্তায় পুলিশই থাকে না

মেইল ট্রেনের নিরাপত্তায় পুলিশই থাকে না

ভ্যাপসা গরমে অতিষ্ঠ জীবন

ভ্যাপসা গরমে অতিষ্ঠ জীবন

‘স্ত্রীর ষড়যন্ত্রের বিষে’ হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছেন স্বামী

‘স্ত্রীর ষড়যন্ত্রের বিষে’ হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছেন স্বামী

গভীর নিম্নচাপ ঘূর্ণিঝড় ‘গুলাব’-এ পরিণত, বাতাসের গতিবেগ ৬২ কিলোমিটার

গভীর নিম্নচাপ ঘূর্ণিঝড় ‘গুলাব’-এ পরিণত, বাতাসের গতিবেগ ৬২ কিলোমিটার

সর্বশেষ

এইচএসসি পাসেই চাকরি, বেতন ২২ হাজার ৫০০ টাকা

এইচএসসি পাসেই চাকরি, বেতন ২২ হাজার ৫০০ টাকা

সেই চালককে মোটরসাইকেল উপহার দিতে চায় শামসুল হক ফাউন্ডেশন

সেই চালককে মোটরসাইকেল উপহার দিতে চায় শামসুল হক ফাউন্ডেশন

শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দুর্বার গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে দেশ: জয়

শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দুর্বার গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে দেশ: জয়

কন্যা দিবস আর কন্যাশিশু দিবসের বিভ্রান্তি

কন্যা দিবস আর কন্যাশিশু দিবসের বিভ্রান্তি

ভবন থেকে ইট পড়ে পথচারীর মৃত্যু

ভবন থেকে ইট পড়ে পথচারীর মৃত্যু

© 2021 Bangla Tribune