X
রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৪ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

সাতক্ষীরায় করোনা উপসর্গে এ পর্যন্ত মৃত্যু ৩৯৬

আপডেট : ০৮ জুলাই ২০২১, ১৪:১২

সাতক্ষীরায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার উপসর্গ নিয়ে সাত নারীসহ ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। সাতক্ষীরা মেডিক্যাল কলেজ (সামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিভিন্ন সময়ে তাদের মৃত্যু হয়। এ নিয়ে জেলায় ৬ জুলাই পর্যন্ত করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন ৩৯৬ জন। পাশাপাশি করোনায় মারা গেছেন ৭৬ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার উপসর্গ নিয়ে মৃত ব্যক্তিরা হলেন সাতক্ষীরা শহরের দক্ষিণ পলাশপোল এলাকার মৃত এম এ করিমের স্ত্রী ফিরোজা খাতুন (৭৫), নিউমার্কেট এলাকার মৃত আমিন আলীর স্ত্রী লাইলি (৬০), পুরাতন সাতক্ষীরা এলাকার মৃত খোদাবক্সের স্ত্রী রমেছা খাতুন (৭৫), আশাশুনি উপজেলার মহিষডাঙা গ্রামের রনজিত সরকারের স্ত্রী নমিতা সরকার (৬৫), কালিগঞ্জ উপজেলার রতনপুর গ্রামের মতিয়ার রহমানের স্ত্রী মাহফুজা খাতুন (৬৫), একই উপজেলার মৌতলা গ্রামের মৃত আমির আলীর ছেলে আনছার আলী (৬৪), বসন্তপুর গ্রামের মৃত সোলায়মানের ছেলে মোস্তাফিজুর রহমান (৬০), তালা উপজেলার মাঝিয়াড়া গ্রামের গাজী বাহরুলের মেয়ে মিনা (১৭), সদর উপজেলার ফিংড়ি গ্রামের মুনসুর গাজীর স্ত্রী মালাতন বিবি (৫৫), ও তালা উপজেলার শারশা সেনেরগাতি গ্রামের পঞ্চানন দাশের ছেলে অনিল দাশ (৭০)।  

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্র জানায়, জ্বর, সর্দি, কাশি ও শ্বাসকষ্টসহ করোনার নানা উপসর্গ নিয়ে গত ২৮ জুন থেকে ৭ জুলাইয়ের মধ্যে সাতক্ষীরা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ভর্তি হন এসব ব্যক্তি। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাদের মৃত্যু হয়। 

এদিকে সাতক্ষীরায় কমেছে করোনা সংক্রমণের হার। গত ২৪ ঘণ্টায় সামেক হাসপাতালের পিসিআর ল্যাব ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৩৮২টি নমুনা পরীক্ষায় ৮৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়। শনাক্তের হার ২২ দশমিক ৫১ শতাংশ। আগের দিন শনাক্তের হার ছিল ২৭ দশমিক ৩৪ শতাংশ।

সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের মেডিক্যাল কর্মকর্তা ও জেলা করোনা বিষয়ক তথ্য কর্মকর্তা ডা. জয়ন্ত কুমার সরকার বলেন, এ পর্যন্ত সাতক্ষীরায় করোনা রোগীর সংখ্যা চার হাজার ৪০ জন। জেলায় সুস্থ হয়েছেন দুই হাজার ৯০৩ জন। বর্তমানে করোনা রোগী রয়েছেন এক হাজার ৬১ জন। হাসপাতালে ভর্তি করোনা রোগীর সংখ্যা ৩৯ জন। এদের মধ্যে সামেক হাসপাতালে ২১ জন ও বেসরকারি হাসপাতালে ১৮ জন ভর্তি আছেন। হোম আইসোলেশনে আছেন এক হাজার ২২ জন। উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি আছেন ৩৮৫ জন। এর মধ্যে সরকারি হাসপাতালে ভর্তি ২৭৬ জন এবং বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি ১৪৮ জন। সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা ৪২৪ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৬৭ জন। করোনায় এ পর্যন্ত মারা গেছেন ৭৬ জন। উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন ৩৯৬ জন।

/এএম/

সম্পর্কিত

দেড় বছর পর দর্শনা ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের কার্যক্রম শুরু

দেড় বছর পর দর্শনা ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের কার্যক্রম শুরু

যশোরে তিন ফুট উচ্চতার বর-কনের ধুমধামে বিয়ে

যশোরে তিন ফুট উচ্চতার বর-কনের ধুমধামে বিয়ে

এক ইউনিয়নের সব প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী

এক ইউনিয়নের সব প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী

বাগেরহাটে হার্ডবোর্ড কারখানায় আগুন

বাগেরহাটে হার্ডবোর্ড কারখানায় আগুন

দেড় বছর পর দর্শনা ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের কার্যক্রম শুরু

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩:৫৪

দেড় বছর পর চুয়াডাঙ্গার দর্শনা ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে এ কার্যক্রম শুরু হয়। তবে, সকালে কোনও যাত্রী দেশে আসেননি বলে জানিয়েছেন দর্শনা ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক আব্দুল আলিম।

আব্দুল আলিম জানান, এখন থেকে বাংলাদেশ ও ভারতে আসা-যাওয়ার ক্ষেত্রে কোনও অনাপত্তিপত্র (এনওসি) লাগবে না। ভারতে যাওয়ার আগে যথাযথ কর্তৃপক্ষকে জানানোর যে পত্র ছিল তাও আর থাকছে না। তবে এই চেকপোস্ট দিয়ে গমনের ক্ষেত্রে সব নাগরিককে যাত্রার আগে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে করা আরটিপিসিআর টেস্ট সার্টিফিকেট সঙ্গে রাখতে হবে।

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাস মহামারির কারণে গত বছর ১৪ মার্চ দর্শনা চেকপোস্টের সব কার্যক্রম বন্ধ করে দেওয়া হয়। চলতি বছরের ১৭ মে ভারতে চিকিৎসা করাতে গিয়ে আটকে পড়া বাংলাদেশিদের ফিরিয়ে আনতে সীমিত পরিসরে দর্শনা চেকপোস্টের কার্যক্রম শুরু করা হয়। এ সময় শুধু ভারতে আটকে পড়া বাংলাদেশিরা ভারতে অবস্থিত বাংলাদেশ হাই কমিশনের অনাপত্তিপত্র নিয়ে এ চেকপোস্ট দিয়ে দেশে ফিরেছেন।

 

/এমএএ/

সম্পর্কিত

যশোরে তিন ফুট উচ্চতার বর-কনের ধুমধামে বিয়ে

যশোরে তিন ফুট উচ্চতার বর-কনের ধুমধামে বিয়ে

এক ইউনিয়নের সব প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী

এক ইউনিয়নের সব প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী

বাগেরহাটে হার্ডবোর্ড কারখানায় আগুন

বাগেরহাটে হার্ডবোর্ড কারখানায় আগুন

মোংলা বন্দরে নির্মিত হচ্ছে আরও ৬টি জেটি

মোংলা বন্দরে নির্মিত হচ্ছে আরও ৬টি জেটি

যশোরে তিন ফুট উচ্চতার বর-কনের ধুমধামে বিয়ে

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩:০১

স্থানীয় লোকজন বেশ ঘটা করেই বিয়ে দিয়েছেন যশোর সদরের নরেন্দ্রপুর পোস্ট অফিস এলাকার আকবার আলীর ছেলে রবিউল ইসলাম এবং পাশের আন্দুলিয়া গ্রামের নাজির মোল্লার মেয়ে ময়না খাতুনের। তবে তারা দুজনই খর্বাকৃতির। বরের উচ্চতা তিন ফুট এবং কনের উচ্চতাও প্রায় তিন ফুট। গত ১৭ সেপ্টেম্বর বেশ ধুমধাম করে তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়।

রবিবার তাদের ফিরানি (বিয়ের পর মেয়েকে বাবার বাড়িতে নেওয়া) হবে। সে কারণে মেয়েপক্ষ একটি ঘোড়ার গাড়ি সাজিয়ে অন্যরকমভাবে নিয়ে যাওয়ার জন্যে আয়োজন করেছে। নরেন্দ্রপুর পোস্ট অফিসপাড়া ও আন্দুলিয়া গ্রামের দূরত্ব প্রায় দুই কিলোমিটার।

নরেন্দ্রপুর পোস্ট অফিস এলাকার বাসিন্দা অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মচারী মোতাহার হোসেন বুলবুল বলেন, ‘রবিউলের বাবা নেই। মা অন্য জায়গায় বিয়ে করে চলে গেছেন। রবিউল থাকতো খালু জাহাঙ্গীর হোসেনের কাছে।’

তিনি বলেন, ‘দু’পক্ষের অভিভাবকদের সম্মতিতে বিয়ের অনুষ্ঠান করা হয়েছে। বরযাত্রী হিসেবে আমরা দুটি মাইক্রোবাস আর ২০টি মোটরসাইকেল নিয়ে ৬০ জনের মতো যাই। পরদিন বৌভাতে সেখান থেকে ৪০-৪২ কনে যাত্রীসহ আমরা প্রায় দুইশ’ মানুষের জন্যে আয়োজন করি। সাদাভাতের সঙ্গে গরুর মাংস, খাসির মাংস, ডিম ইত্যাদি ছিল। খাওয়া-দাওয়ায় কোনও সমস্যা হয়নি।’

বিয়ের অন্যতম আয়োজক গাজী কামারুল ইসলাম বলেন, ‘সবার সহযোগিতায় আমরা তাদের বিয়ে দিয়েছি। সবাই দোয়া করবেন তাদের জন্য। এ ধরনের মানুষকে সমাজের মূলস্রোতে আনতে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে।’

বিয়ের অন্যতম আয়োজক আন্দুলিয়া গ্রামের মোদাচ্ছের মোল্লা বলেন, ‘মেয়েটির বাবা নেই। মা জুট মিলে কাজ করতেন। এখন কাজ নেই। মেয়েটার বয়সও হয়ে যাচ্ছিল। দু’পক্ষের দেখাশোনার মাধ্যমে আমরা বিয়ের আয়োজন করি। মেয়েপক্ষের যাবতীয় খরচ আমাদের গ্রামের ১০-১২ জন মিটিয়েছেন।’

তিনি সবার কাছে নবদম্পতির জন্যে দোয়া চেয়ে বলেন, ‘আজ (রবিবার) মেয়েকে আমরা তার মায়ের বাড়ি আনাবো। সেই কারণে একটু আলাদা ব্যবস্থা করেছি। একটি ঘোড়ার গাড়ি সাজিয়ে-গুছিয়ে তৈরি করা হয়েছে। বিয়েতে যিনি উকিল হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন, সেই তরিকুল ইসলাম যাবেন মেয়েকে আনতে।’

বরের খালু জাহাঙ্গীর হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, ‘রবিউলের জন্ম খুবই দরিদ্র পরিবারে। ছোট্ট অবস্থা থেকেই তার বাবা-মা কেউ নেই। আমরাই রবিউলকে মানুষ করেছি। কৃষিকাজ করেই সে জীবিকা নির্বাহ করে আসছে। তার বিয়ের বয়স হলেও অনেকদিন ধরে মেয়ে খুঁজে পাচ্ছিলাম না। অবশেষে পাশের আন্দুলিয়া গ্রামে একটি মেয়ে খুঁজে পাই। জানতে পারি, ওই গ্রামের নাজির মোল্লার মেয়েও কম উচ্চতার। স্থানীয় ব্যক্তিদের সার্বিক সহযোগিতায় তাদের বিয়ের কাজ সম্পন্ন হয়েছে।’

বর রবিউল বলেন, ‘আমাদের দুজনের সম্মতিতেই বিয়ে হয়েছে। বিয়ে করতে পেরে অনেক ভালো লাগছে।’ দেশবাসীর কাছে তিনি দোয়া চেয়েছেন।

কনে ময়না বলেন, ‘আমাদের বিয়ে খুব ধুমধামে হয়েছে। অনেক ভালো লাগছে। এভাবে বিয়ে হবে কখনও স্বপ্নেও ভাবিনি। বিয়েতে আসা দু’পক্ষই অনেক আনন্দ করেছে। আমাদের জন্য দোয়া করবেন সবাই।’

যশোর সদর উপজেলার নরেন্দ্রপুর ইউনিয়ন পরিষদের ১ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য সুজিত বিশ্বাস জানান, বর রবিউল ইসলামের বয়স ২৬ বছর, কনে ময়না খাতুনের ৩৬ বছর। এলাকাবাসীর সার্বিক সহযোগিতায় বিয়ের গেট সাজিয়ে, প্যান্ডেল নির্মাণ করে ধুমধাম করে বিয়ে দেওয়া হয়েছে। ইসলামিক শরিয়াহ অনুযায়ী সব আনুষ্ঠানিকতা শেষে এক হাজার এক টাকার কাবিনে তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়। 

 

/এমএএ/

সম্পর্কিত

দেড় বছর পর দর্শনা ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের কার্যক্রম শুরু

দেড় বছর পর দর্শনা ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের কার্যক্রম শুরু

এক ইউনিয়নের সব প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী

এক ইউনিয়নের সব প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী

বাগেরহাটে হার্ডবোর্ড কারখানায় আগুন

বাগেরহাটে হার্ডবোর্ড কারখানায় আগুন

মোংলা বন্দরে নির্মিত হচ্ছে আরও ৬টি জেটি

মোংলা বন্দরে নির্মিত হচ্ছে আরও ৬টি জেটি

এক ইউনিয়নের সব প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:১৬

বাগেরহাটের কচুয়া উপজেলার রাঢ়ীপাড়া ইউনিয়নে (ইউপি) বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন সব প্রার্থী। ওই ইউপিতে চেয়ারম্যান, সদস্য এবং সংরক্ষিত নারী সদস্যের ১৩টি পদের সব কয়টিতে একজন করে প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেন। তারা সবাই আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী।

রাঢ়ীপাড়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী নাজমা আক্তার।

জেলা নির্বাচন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, বাগেরহাট জেলার ৯ উপজেলার ৬৬টি ইউপিতে নির্বাচন হবে ২০ সেপ্টেম্বর। তবে ভোট হচ্ছে ৬৫টি ইউপিতে। রাঢ়ীপাড়া ইউপিতে ভোট হচ্ছে না।

বাগেরহাট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ভূঁইয়া হেমায়েত উদ্দীন বলেন, ‘রাঢ়ীপাড়া ইউপিতে চেয়ারম্যান এবং সদস্য পদগুলোতে দল সমর্থিত সদস্য ছাড়া অন্য কোনও প্রার্থী অংশ গ্রহণ করেননি। সে কারণে সবাই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।’

বাগেরহাট জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ফারাজী বেনজীর আহমেদ জানান, যাচাই-বাছাই ও প্রত্যাহারের পর একক প্রার্থী থাকায় সবাইকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত ঘোষণা করা হয়েছে।

/এমএএ/

সম্পর্কিত

দেড় বছর পর দর্শনা ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের কার্যক্রম শুরু

দেড় বছর পর দর্শনা ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের কার্যক্রম শুরু

যশোরে তিন ফুট উচ্চতার বর-কনের ধুমধামে বিয়ে

যশোরে তিন ফুট উচ্চতার বর-কনের ধুমধামে বিয়ে

বাগেরহাটে হার্ডবোর্ড কারখানায় আগুন

বাগেরহাটে হার্ডবোর্ড কারখানায় আগুন

বাগেরহাটে হার্ডবোর্ড কারখানায় আগুন

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩:১০

বাগেরহাটের যাত্রাপুর এলাকায় গ্রীনবোর্ড অ্যান্ড ফাইবার নামে টি কে গ্রুপের হার্ডবোর্ড কারখানায় আগুন লেগেছে। রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) সকালে লাগা এই আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করে ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট।

বাগেরহাট ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক (ডিএডি) মো. গোলাম সরোয়ার জানান, আগুনের খবর পেয়ে তারা পৌনে ১০টায় ঘটনাস্থলে পৌঁছান। কিছুক্ষণের মধ্যে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। কিন্তু তেলের একটা বড় ব্যারেলে আগুন নেভানো কঠিন হচ্ছিল। এজন্য খুলনা থেকে ফোমের গাড়ি আনা হয়।

ক্ষয়ক্ষতির বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আগুনে লোকজনের কোনও ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। তবে কারখানার মেশিনারিজ ও ঘর পুড়ে গেছে।’

/এমএএ/

সম্পর্কিত

দেড় বছর পর দর্শনা ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের কার্যক্রম শুরু

দেড় বছর পর দর্শনা ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের কার্যক্রম শুরু

যশোরে তিন ফুট উচ্চতার বর-কনের ধুমধামে বিয়ে

যশোরে তিন ফুট উচ্চতার বর-কনের ধুমধামে বিয়ে

এক ইউনিয়নের সব প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী

এক ইউনিয়নের সব প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী

রাজশাহী মেডিক্যালের করোনা ইউনিটে আরও ৪ মৃত্যু

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:১৬

রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের করোনা ইউনিটে একদিনে আরও চার জনের মৃত্যু হয়েছে। শনিবার সকাল ৮টা থেকে রবিবার সকাল ৮টার মধ্যে তাদের মৃত্যু হয়। তবে তারা কেউ করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়ে মারা যাননি।

রামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী জানান, মৃতদের মধ্যে করোনা উপসর্গ নিয়ে তিন জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া নেগেটিভ হওয়ার পরও অন্য জটিলতায় একজনের মৃত্যু হয়। মৃতদের মধ্যে দুজন নওগাঁর এবং জয়পুরহাট ও ঝিনাইদহ জেলার একজন করে আছেন।

তিনি আরও জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ইউনিটে নতুন রোগী ভর্তি হয়েছেন ২২ জন। এ নিয়ে ২৪০ বেডের বিপরীতে মোট ভর্তি রোগী আছেন ১৩০ জন।

/এমএএ/

সম্পর্কিত

বাসের ধাক্কায় সেনা সদস্য নিহত

বাসের ধাক্কায় সেনা সদস্য নিহত

ট্রাকের সঙ্গে সংঘর্ষে অটোরিকশার ২ যাত্রী নিহত

ট্রাকের সঙ্গে সংঘর্ষে অটোরিকশার ২ যাত্রী নিহত

রামেক হাসপাতালে মৃত্যু বেড়েছে

রামেক হাসপাতালে মৃত্যু বেড়েছে

চলন্ত ট্রেনে সন্তান জন্ম দিলেন সাবিনা 

চলন্ত ট্রেনে সন্তান জন্ম দিলেন সাবিনা 

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

দেড় বছর পর দর্শনা ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের কার্যক্রম শুরু

দেড় বছর পর দর্শনা ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের কার্যক্রম শুরু

যশোরে তিন ফুট উচ্চতার বর-কনের ধুমধামে বিয়ে

যশোরে তিন ফুট উচ্চতার বর-কনের ধুমধামে বিয়ে

এক ইউনিয়নের সব প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী

এক ইউনিয়নের সব প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী

বাগেরহাটে হার্ডবোর্ড কারখানায় আগুন

বাগেরহাটে হার্ডবোর্ড কারখানায় আগুন

মোংলা বন্দরে নির্মিত হচ্ছে আরও ৬টি জেটি

মোংলা বন্দরে নির্মিত হচ্ছে আরও ৬টি জেটি

এহসান গ্রুপে ৪০ লাখ টাকা রেখেছেন সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা

এহসান গ্রুপে ৪০ লাখ টাকা রেখেছেন সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা

ইভ্যালির রাসেলের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ

ইভ্যালির রাসেলের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ

বিস্ফোরণে মৃত যুবকের বাড়ির পাশে মিললো ৩০ ককটেল

বিস্ফোরণে মৃত যুবকের বাড়ির পাশে মিললো ৩০ ককটেল

এনওসি ছাড়াই সপ্তাহের ৭ দিন ফেরা যাবে ভারত থেকে

এনওসি ছাড়াই সপ্তাহের ৭ দিন ফেরা যাবে ভারত থেকে

স্কুল মাঠ দখল করে ম্যানেজিং কমিটির সভাপতির ধান চাষ  

স্কুল মাঠ দখল করে ম্যানেজিং কমিটির সভাপতির ধান চাষ  

সর্বশেষ

‘নতুন শিক্ষাক্রম বাস্তবায়নে আগে শিক্ষকদের প্রস্তুত করতে হবে’

‘নতুন শিক্ষাক্রম বাস্তবায়নে আগে শিক্ষকদের প্রস্তুত করতে হবে’

দেড় বছর পর দর্শনা ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের কার্যক্রম শুরু

দেড় বছর পর দর্শনা ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের কার্যক্রম শুরু

হাইকোর্টের রেজিস্ট্রারের গড়িমসির ব্যাখ্যা তলব

হাইকোর্টের রেজিস্ট্রারের গড়িমসির ব্যাখ্যা তলব

ই-কমার্সের প্রতারণা কমাতে জনস্বার্থে প্রচারণার পরামর্শ

ই-কমার্সের প্রতারণা কমাতে জনস্বার্থে প্রচারণার পরামর্শ

ইভ্যালির বিরুদ্ধে এবার ব্যবসায়ীর মামলা, রাসেলসহ ১২ জন আসামি

ইভ্যালির বিরুদ্ধে এবার ব্যবসায়ীর মামলা, রাসেলসহ ১২ জন আসামি

© 2021 Bangla Tribune