X
রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

পটুয়াখালীর ফার্মেসিতে প্যারাসিটামল জাতীয় ওষুধের সংকট

আপডেট : ১২ জুলাই ২০২১, ১৯:৪৪

পটুয়াখালীর ফার্মেসিগুলোতে প্যারাসিটামল জাতীয় ওষুধের সংকট দেখা দিয়েছে। করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতিতে এই ওষুধ কিনতে না পারায় দুর্ভোগে পড়ছেন রোগীরা। এ বিষয়ে ফার্মেসি মালিকরা জানান, চাহিদা অনুযায়ী ওষুধের সরবরাহ নেই বলে তারা বিক্রি করতে পারছেন না। 

এদিকে, জেলায় দিন দিন করোনা সংক্রমণ ভয়াবহ আকার ধারণ করছে। সংক্রমণের হার ৪০ দশমিক ৪২ ভাগ। এমন পরিস্থিতিতে হাসপাতালগুলোতে বেড়েই চলেছে রোগীর চাপ, সেই সঙ্গে বাড়ছে প্যারাসিটামল জাতীয় ওষুধের চাহিদা। এতে করোনায় আক্রান্ত রোগীর পাশাপাশি সাধারণ রোগীর চাহিদা অনুযায়ী নাপা, নাপা এক্সট্রা, নাপা এক্সটেন্ড, এইস প্লাস, নাপা সিরাপসহ প্যারাসিটামল এই জাতীয় ওষুধের সংকট দেখা দিয়েছে জেলার ফার্মেসিগুলোতে।

রবিবার সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, চাহিদা অনুযায়ী প্যারাসিটামল জাতীয় ওষুধের সরবরাহ না থাকায় ভোগান্তিতে পড়েছেন সাধারণ মানুষ। মাদার বুনিয়া ইউনিয়নের বাসিন্দা মো. সবুজ মিয়া বলেন, ‘আমার রোগী হাসপাতালে ভর্তি আছে। রবিবার (১১ জুলাই) সকালে জ্বরের ওষুধ নাপার জন্য হাসপাতালের সামনের ফার্মেসিতে যাই। পাঁচটি ফার্মেসি ঘুরে তারপরে ওষুধ পেয়েছি। তাও আবার দাম বেশি রেখেছে।’

গলাচিপা উপজেলার বাসিন্দা আসমা বেগম বলেন, ‘আমার ১০ বছরের ছেলে মো. আরিফ হোসেনের টাইফয়েড হয়েছে। তাকে নিয়ে রবিবার সকালে ডাক্তার দেখতে এসেছি পটুয়াখালীতে। বেশ কয়েকটি ফার্মেসি ঘুরেও প্রেসক্রিপশনের সব ওষুধ পাইনি। বিশেষ করে জ্বরের জন্য নাপা খুঁজে পায়নি।’

জ্বরের ওষুধ খুঁজতে ছিলেন স্কুল শিক্ষক রহমান। তিনি বলেন, ‘কলেজ রোড এলাকা থেকে ওষুধ খুঁজতে খুঁজতে সদর রোডে এসেছি, এরপরে এক পাতা নাপা ওষুধ সংগ্রহ করেছি। কিন্তু দোকানি দাম বেশি নিয়েছেন।’

পটুয়াখালী পৌরশহরের নিউমার্কেটের ফার্মেসি মায়ের দোয়া মেডিক্যাল হলের মালিক মো. মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘জ্বরের ওষুধ এইস, এইস প্লাস, এইস এক্সআর ট্যাবলেট, ফাস্ট, ফাস্ট এক্সআর ওষুধের সঙ্কট আছে। কোম্পানি যে পরিমাণ ওষুধ সরবরাহ করে তা চাহিদার তুলনায় একেবারে অপ্রতুল। গত কয়েকদিন ধরে এই সমস্যা দেখা দিয়েছে। প্রতিদিনই কোম্পানিগুলোতে ওষুধের জন্য অর্ডার দিচ্ছি। আমি আজ দুই বক্স ওষুধ পেয়েছি। তা সকালেই বিক্রি হয়ে গেছে। সরবরাহ না থাকায় আমাদের কিছু করার থাকছে না।’

পটুয়াখালী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সামনে জামাল ফার্মেসির মালিক জামাল জানান, হঠাৎ করে স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে জ্বরের ওষুধের চাহিদা প্রায় তিনগুণ বেড়েছে। এতে প্যারাসিটামল জাতীয় ওষুধের সংকট দেখা দিয়েছে। এই সময় নাপা ও এইস ট্যাবলেট ও সিরাপের সরবরাহ না থাকলে ভোগান্তি আরও বাড়বে।’

নতুন বাজার এলাকার সোনালি মেডিক্যাল হলের মালিক মলয় কুমার কর্মকার বলেন, ‘বর্তমানে যার এক পাতা প্যারাসিটামল ওষুধ প্রয়োজন সে ১০ পাতা ওষুধ কিনছে। প্যারাসিটামল ওষুধ সংকট দেখা দেওয়ার এটাই মূল কারণ। যাদের প্রয়োজন নেই তারাও ওষুধ কিনে ঘরে রেখে দিয়েছে।’

এ বিষয়ে পটুয়াখালী জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ সেলিম বলেন, ‘বিষয়টা আমি শুনেছি কিন্তু ওষুধ সংকট হওয়ার কোনও কারণ দেখছি না। এ বিষয়ে তদন্ত করে দেখবো।’

সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম শিপন বলেন, ‘আমাদের সরকারি ওষুধের কোনও সংকট নেই। কেন ফার্মেসিতে ওষুধ সংকট দেখা দিয়েছে সে বিষয়ে ড্রাগ সুপার ভালো বলতে পারবেন।’

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামাল হোসেন জানান, কোনও ফার্মেসি এই ওষুধগুলোর কৃত্রিম সংকট তৈরি করলে এবং বেশি দামে বিক্রির প্রমাণ পেলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

/এমএএ/

সম্পর্কিত

পরীক্ষায় ‘নকল উৎসব’, শিক্ষকদের সহায়তার অভিযোগ

পরীক্ষায় ‘নকল উৎসব’, শিক্ষকদের সহায়তার অভিযোগ

কর্তৃপক্ষের গাফিলতির কারণে বিআরটিসির এ অবস্থা: চেয়ারম্যান

কর্তৃপক্ষের গাফিলতির কারণে বিআরটিসির এ অবস্থা: চেয়ারম্যান

‘ডিসেম্বরের মধ্যে অর্ধেকের বেশি মানুষকে টিকার আওতায় আনা হবে’

‘ডিসেম্বরের মধ্যে অর্ধেকের বেশি মানুষকে টিকার আওতায় আনা হবে’

এক ইলিশের দাম ৩২০০ টাকা

এক ইলিশের দাম ৩২০০ টাকা

রাজশাহী কলেজিয়েট স্কুলের ছাত্র করোনায় আক্রান্ত

আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:৩৪

রাজশাহী কলেজিয়েট স্কুলের ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্র করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। বর্তমানে সে বাসায় থেকে চিকিৎসা নিচ্ছে।

রবিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে স্কুলের প্রধান শিক্ষক ড. নূরজাহান বেগম জানান, ওই ছাত্রের পরিবার আগে থেকে করোনায় আক্রান্ত। সেখান থেকে সে আক্রান্ত হয়ে থাকতে পারে। গত ১৮ সেপ্টেম্বর তার করোনা শনাক্ত হয়। এর আগে সে স্কুলে এসেছিলো। 

তিনি আরও জানান, ওই শিক্ষার্থীর দাদিসহ পরিবারের আরও দুইজন করোনা রোগী বাড়িতে ছিলেন। তাদের মাধ্যমেই সে আক্রান্ত হতে পারে। এ জন্য তাকে ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে বলা হয়েছে। স্কুলের অন্যদের মধ্যে এখনও করোনার উপসর্গ দেখা যায়নি। তাই নিয়ম অনুযায়ী ক্লাস চলবে।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

রাষ্ট্রদ্রোহ মামলায় বিএনপির তিন শীর্ষ নেতার জামিন

রাষ্ট্রদ্রোহ মামলায় বিএনপির তিন শীর্ষ নেতার জামিন

৪ ঘণ্টা পর পাবনা-রাজশাহী রেল যোগাযোগ স্বাভাবিক

৪ ঘণ্টা পর পাবনা-রাজশাহী রেল যোগাযোগ স্বাভাবিক

রামেকের করোনা ইউনিটে ২৬ দিনে ১৫০ জনের মৃত্যু

রামেকের করোনা ইউনিটে ২৬ দিনে ১৫০ জনের মৃত্যু

পদ্মার ৩৭ কেজির বাগাড় ৪৮ হাজারে বিক্রি

আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:১৪

রাজবাড়ির গোয়ালন্দে পদ্মা নদীতে ৩৭ কেজি ওজনের একটি বিশাল বাগাড় মাছ ধরা পড়েছে। পরে মাছটি ৪৮ হাজার টাকায় বিক্রি করা হয়। রবিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) ভোর রাতে দৌলতদিয়া চর কর্ণেশনা কলাবাগান এলাকার পদ্মা নদী থেকে মাছটি ধরা হয়।

মানিকগঞ্জ জেলার জাফরগঞ্জের জেলে গোবিন্দ হালদারের জালে মাছটি ধরা পড়ে।

জানা গেছে, জেলে গোবিন্দ হালদার সকাল ৯টার দিকে মাছটি বিক্রির উদ্দেশ দৌলতদিয়া বাইপাস সড়কের পাশে দুলাল মণ্ডলের মৎস্য আড়তে আনেন। সেখানে উন্মুক্ত নিলামে সর্বোচ্চ দরদাতা হিসেবে স্থানীয় মৎস্য ব্যবসায়ী চাঁদনী-আরিফা মৎস্য আড়তের মালিক মো. চান্দু মোল্লা এক হাজার ৩০০ টাকা কেজি দরে ৪৮ হাজার ১০০ টাকায় মাছটি কিনে নেন।

চান্দু মোল্লা বলেন, ‘সকালে ঘাটে এসেই দেখি একটি বড় বাগাড় নিলামে উঠেছে। পদ্মার মাছের চাহিদা বেশি, তার ওপর এত বড় বাগাড়। তাই সর্বোচ্চ দাম দিয়ে কিনে নিই। আশা করছি, বেশ লাভে বিকালের মধ্যেই মাছটি বিক্রি করতে পারবো।’

এ বিষয়ে জেলা মৎস্য কর্মকর্তা রোকোনুজ্জামান জানান, পদ্মায় আজকাল নিয়মিতই বড় বড় মাছ ধরা পড়ছে। এতে জেলে ও ব্যবসায়ীরা খুব খুশি।

/এমএএ/

সম্পর্কিত

পদ্মায় কম থাকলেও বাজার ভরে গেছে ‘পদ্মার ইলিশে’

পদ্মায় কম থাকলেও বাজার ভরে গেছে ‘পদ্মার ইলিশে’

জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের কর্মীর হয়রানি থেকে বাঁচতে আবেদন 

জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের কর্মীর হয়রানি থেকে বাঁচতে আবেদন 

‘পদ্মা সেতু এলাকায় সোনারগাঁ হোটেলকে সম্প্রসারণ করার পরিকল্পনা আছে’

‘পদ্মা সেতু এলাকায় সোনারগাঁ হোটেলকে সম্প্রসারণ করার পরিকল্পনা আছে’

যুবদলের পকেট কমিটি বাতিলের দাবিতে ঝাড়ু ও জুতা মিছিল

আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৭:৫৫

ব্রাহ্মণবাড়িয়া আখাউড়া উপজেলা ও পৌর যুবদলের পকেট কমিটি বাতিলের দাবিতে ঝাড়ু ও জুতা মিছিল করেছেন যুবদলের নেতাকর্মীরা। রবিবার বেলা সোয়া ১১টার দিকে আখাউড়া পৌর এলাকার তারাগন এলাকায় এই বিক্ষোভ মিছিল করা হয়।

এ সময় যুবদলের নেতাকর্মীরা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের একান্ত সচিব আব্দুর রহমান সানী এবং তার বড় ভাই ভূঁইয়া ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান কবির আহমেদ ভূঁইয়ার কুশপুত্তলিকা দাহ করেন।

জানা গেছে, পূর্ব ঘোষিত বিক্ষোভ কর্মসূচি অনুযায়ী বেলা ১১টার দিকে আখাউড়া যুবদলের নেতাকর্মীরা তারাগন মাঝার এলাকা থেকে ব্যানার ফেস্টুনসহ এই মিছিল বের করেন। পরে মিছিলটি এলাকার গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

বিক্ষোভ মিছিলে আখাউড়া উপজেলা যুবদল নেতা মামুন আহমেদ, জাহাঙ্গীর আলম রানা, মোবাশ্বির আহসান, এফ এ ফোরকান জানান, গত ১২ জুন আখাউড়া উপজেলা যুবদলের পকেট কমিটি অনুমোদন করা হয়। এর তিন মাস পর ১২ সেপ্টেম্বর কমিটি ফেসবুকের মাধ্যমে যুবদলের নতুন কমিটি ঘোষণা করে। তারা এ ঘটনার জন্য আব্দুর রহমান সানী এবং তার বড় ভাই কবির আহমেদ ভূঁইয়াকে দায়ী করে বলেন, ‘মোটা অংকের অর্থ বাণিজ্যের মাধ্যমে সানীর মাধ্যমে তারেক রহমানের নাম ভাঙিয়ে কবির আহমেদ ভূঁইয়া আখাউড়া উপজেলা যুবদলের নতুন কমিটি ঘোষণা করেছেন। কমিটিতে যাদের নাম আছে আখাউড়া উপজেলায় তাদের কোনও অবস্থান নেই।’ তারা অবিলম্বে আগামী সাত দিনের মধ্যে এই পকেট কমিটি বাতিলের দাবি জানান। তা না হলে কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দেন তারা।

এ সময় আব্দুর রহমান সানী এবং কবির আহমেদ ভূঁইয়াকে আখাউড়ায় অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেন উপজেলা যুবদলের নেতারা। পরে সাংবাদিক সম্মেলনে তারা বিভিন্ন দাবি-দাওয়া পেশ করেন।

 

/এমএএ/

সম্পর্কিত

রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের হাতে অপহৃত ৩ বাংলাদেশিকে উদ্ধার

রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের হাতে অপহৃত ৩ বাংলাদেশিকে উদ্ধার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৫৮০ মণ্ডপে হবে দুর্গাপূজা

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৫৮০ মণ্ডপে হবে দুর্গাপূজা

১০ মিনিটে আদালতের কাজ শেষে কারাগারে মামুনুল-সাইফুল্লাহ 

১০ মিনিটে আদালতের কাজ শেষে কারাগারে মামুনুল-সাইফুল্লাহ 

এমসি কলেজ ছাত্রাবাস খুলছে ১ অক্টোবর

আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৭:৩২

প্রায় দেড় বছর বন্ধ থাকার পর সিলেটের এমসি কলেজের ছাত্রাবাস খুলছে। আগামী ১ অক্টোবর থেকে ছাত্রাবাসে উঠতে পারবেন শিক্ষার্থীরা। তাদেরকে কলেজ কর্তৃপক্ষের কঠোর নির্দেশনা মানতে হবে। 

এমসি কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক মো. সালেহ আহমদ জানান, এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে শিক্ষার্থী ছাড়া বহিরাগতদের প্রবেশ ও অবস্থান সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। কোনও হোস্টেলে বহিরাগত পাওয়া গেলে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করবে কলেজ প্রশাসন। 

তিনি আরও জানান, করোনা পরীক্ষার ফলাফল নেগেটিভ এলে শিক্ষার্থীরা ছাত্রাবাসে উঠতে পারবেন। হোস্টেলে ওঠা শিক্ষার্থীদের ব্যক্তিগত জিনিসপত্র জীবাণুমুক্ত রাখা, স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ এবং ডেঙ্গু সংক্রমণ ও এডিস মশা বিস্তাররোধে স্বাস্থ্য অধিদফতরের গাইডলাইন অনুসরণসহ মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতর কর্তৃক আরোপিত ১০টি নির্দেশনা উল্লেখ করা হয়েছে।

এদিকে, করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে ছাত্রাবাসের ফি কমানো হয়েছে। শিক্ষার্থীরা ২০২০-২১ অর্থবছরে ৫৪৪ টাকা ফি দিয়ে থাকতে পারবেন। এ ছাড়া ২০২১-২২ অর্থবছরের জন্য সাড়ে তিন হাজার টাকা ফি নির্ধারণ করা হয়েছে।

এমসি কলেজ ছাত্রাবাসের তত্ত্বাবধায়ক মো. জামাল উদ্দিন জানান, ছাত্রাবাস খোলার পর শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার বিষয়টি গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। সেই সঙ্গে স্বাস্থ্যবিধিসহ ছাত্রাবাসের সার্বিক বিষয় কঠোর নজরদারি করা হবে। 

আরও পড়ুন—
এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গৃহবধূ ধর্ষণ: নতুন করে হবে অভিযোগ গঠন

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

পুকুরে ডুবে ২ বোনের মৃত্যু

পুকুরে ডুবে ২ বোনের মৃত্যু

ট্রাকচাপায় প্রাণ গেলো ২ পথচারীর

ট্রাকচাপায় প্রাণ গেলো ২ পথচারীর

৫ মিনিটে দুই ডোজ টিকা পেলেন যুবক 

৫ মিনিটে দুই ডোজ টিকা পেলেন যুবক 

এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গৃহবধূ ধর্ষণ: নতুন করে হবে অভিযোগ গঠন 

এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গৃহবধূ ধর্ষণ: নতুন করে হবে অভিযোগ গঠন 

পুকুরে ডুবে ২ বোনের মৃত্যু

আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৭:১৭

হবিগঞ্জের লাখাই উপজেলায় পুকুরে ডুবে দুই বোনের মৃত্যু হয়েছে। রবিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে উপজেলার বামৈ ইউনিয়নের গোপীহাটি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মৃতরা হলো—গোপীহাটি গ্রামের উজ্জল মিয়ার মেয়ে মাহি (৮) ও তিশা (৭)। 

স্থানীয়রা জানায়, রবিবার সকালে মাহি ও তিশা মায়ের সঙ্গে পুকুরে যায়। মা কাপড় ধোয়া শেষে বাড়ি ফিরে আসে। এদিকে গোসলে নেমে পানিতে ডুবে যায় তিশা। তাকে উদ্ধার করতে মাহিও ডুবে যায়। বাড়িতে ফিরে মা দেখেন, তারা বাড়ি ফেরেনি। পরে অনেক খোঁজাখুঁজির পর দুপুরে তাদের লাশ ভাসতে দেখে স্থানীয়রা।

লাখাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইদুল ইসলাম জানান, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। দুই শিশুর লাশ উদ্ধার করে সুরতহাল প্রতিবেদন করেছে পুলিশ।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

এমসি কলেজ ছাত্রাবাস খুলছে ১ অক্টোবর

এমসি কলেজ ছাত্রাবাস খুলছে ১ অক্টোবর

ট্রাকচাপায় প্রাণ গেলো ২ পথচারীর

ট্রাকচাপায় প্রাণ গেলো ২ পথচারীর

৫ মিনিটে দুই ডোজ টিকা পেলেন যুবক 

৫ মিনিটে দুই ডোজ টিকা পেলেন যুবক 

এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গৃহবধূ ধর্ষণ: নতুন করে হবে অভিযোগ গঠন 

এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গৃহবধূ ধর্ষণ: নতুন করে হবে অভিযোগ গঠন 

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

পরীক্ষায় ‘নকল উৎসব’, শিক্ষকদের সহায়তার অভিযোগ

পরীক্ষায় ‘নকল উৎসব’, শিক্ষকদের সহায়তার অভিযোগ

কর্তৃপক্ষের গাফিলতির কারণে বিআরটিসির এ অবস্থা: চেয়ারম্যান

কর্তৃপক্ষের গাফিলতির কারণে বিআরটিসির এ অবস্থা: চেয়ারম্যান

‘ডিসেম্বরের মধ্যে অর্ধেকের বেশি মানুষকে টিকার আওতায় আনা হবে’

‘ডিসেম্বরের মধ্যে অর্ধেকের বেশি মানুষকে টিকার আওতায় আনা হবে’

এক ইলিশের দাম ৩২০০ টাকা

এক ইলিশের দাম ৩২০০ টাকা

তাবলিগে আসা ১৩ মুসল্লি অচেতন অবস্থায় হাসপাতালে

তাবলিগে আসা ১৩ মুসল্লি অচেতন অবস্থায় হাসপাতালে

মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় প্রাণ গেলো শ্রমিকলীগ নেতার

মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় প্রাণ গেলো শ্রমিকলীগ নেতার

জাহাজের ধাক্কায় ডুবলো মাছের ট্রলার, ২ জেলের লাশ উদ্ধার

জাহাজের ধাক্কায় ডুবলো মাছের ট্রলার, ২ জেলের লাশ উদ্ধার

হাসপাতালের ছাদের পলেস্তারা খসে পড়ে ২ কর্মচারী আহত

হাসপাতালের ছাদের পলেস্তারা খসে পড়ে ২ কর্মচারী আহত

সৈকতে ভেসে এলো আরও এক মৃত ডলফিন

সৈকতে ভেসে এলো আরও এক মৃত ডলফিন

সর্বশেষ

বাংলাদেশকে বুঝতে শুরু করেছে তুরস্ক

বাংলাদেশকে বুঝতে শুরু করেছে তুরস্ক

সিনেমার অ্যানিমেশন টিজার, বাংলাদেশে প্রথম!

সিনেমার অ্যানিমেশন টিজার, বাংলাদেশে প্রথম!

চলন্ত ট্রেনে পাথর ছোড়া রোধে আরও জনবল চায় রেল

চলন্ত ট্রেনে পাথর ছোড়া রোধে আরও জনবল চায় রেল

জাতীয় লিগে ইয়ো ইয়ো টেস্ট দিয়ে ফিটনেস পরীক্ষা

জাতীয় লিগে ইয়ো ইয়ো টেস্ট দিয়ে ফিটনেস পরীক্ষা

সঞ্চয়পত্রের মুনাফা নিয়ে এবার বাংলাদেশ ব্যাংকের সার্কুলার

সঞ্চয়পত্রের মুনাফা নিয়ে এবার বাংলাদেশ ব্যাংকের সার্কুলার

© 2021 Bangla Tribune