X
রবিবার, ২৫ জুলাই ২০২১, ১০ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

১৩ বছর পর ঘরে ঈদ গোলাপীর

আপডেট : ২২ জুলাই ২০২১, ২২:০২

শরীয়তপুরের ডামুড্যার জয়ন্তী নদীতে নৌকায় বসবাস করা গোলাপী বেগম ১৩ বছর পর প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া উপহারের ঘরে ঈদ উদযাপন করেছেন। বুধবার (২১ জুলাই) বাড়িতে গিয়ে দেখা যায় মাংস-পোলাও রান্না করছেন গোলাপী বেগমের ছেলে নুরু মিয়া।   

গত ২০ জুন সারাদেশে একযোগে সরকারি ঘর বিতরণ করা হয়। তখন গোলাপীকে ঘরের মালিকানা বুঝিয়ে দেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (অতিরিক্ত) মোহাম্মদ আলমগীর হুসাইন।

৯০ বছর বয়সী গোলাপী বেগমের বাড়ি ছিল ডামুড্যা উপজেলার পূর্ব ডামুড্যা ইউনিয়নে। তিনি ওই ইউনিয়নের মৃত মো. আশ্রাফ আলীর স্ত্রী। গত ১০ এপ্রিল তাকে নিয়ে বাংলা ট্রিবিউনে সংবাদ প্রকাশ হয়। সংবাদটি শরীয়তপুরের জেলা প্রশাসক পারভেজ হাসান ও সদ্য বিদায়ী ডামুড্যা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নজরে আসে। পরে প্রশাসনের উদ্যোগে তার বয়স্ক ভাতার কার্ডের ব্যবস্থা করা হয়। নগদ অর্থও পেয়েছিলেন এবং তাকে প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল শিগগিরই একটি পাকা ঘর উপহার দেওয়া হবে। প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী ২০ জুন পাকা ঘর ও জমির কাগজপত্র হাতে পান তিনি।

জানা যায়, স্ত্রীর সঙ্গে বনিবনা না হওয়ায় প্রায় ১৩ বছর ধরে গোলাপী বেগমকে নিয়ে নৌকায় বসবাস করেন ছেলে নুরু মিয়া (৫৩)। গ্রামে একাধিক সালিশ-দরবার করেও স্ত্রীর সঙ্গে সমস্যার সমাধান হয়নি। নুরু মিয়া জয়ন্তী নদীতে মাছ ধরেন। এতে যা রোজগার হয় তা দিয়ে মা-ছেলের চলে যায়।

তবে মা-ছেলের দীর্ঘদিনের স্বপ্ন ছিল ছোট্ট একটা ঘরে দু’জনে একসঙ্গে থাকবেন। এজন্য চেয়ারম্যান, মেম্বার, গণ্যমান্যদের কাছে কম ঘোরেননি নুরু মিয়া। গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার পর বয়স্ক ভাতার কার্ড আর নগদ অর্থ সহায়তা পান গোলাপী বেগম। 

গোলাপী বেগম বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ১৩ বছর নৌকায় থাকার পর এই প্রথম ডাঙায় ঈদ উদযাপন করছি। ঈদের দিন মাংস-পোলাও খেয়েছি। অনেক খাবার উপহার পেয়েছি।

নুরু মিয়া বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, নদীতে থাকতে কখনও ঈদের আনন্দ বুঝিনি। ১৩ বছর পর মাকে নিয়ে ঈদ উদযাপন করছি। মাংস উপহার পেয়েছি। খুব সুন্দরভাবে কাটছে ঈদ।

গোলাপী ও নুরু মিয়ার মতো নিজেদের ঘরে প্রথম ঈদ উদযাপন করেছেন উপজেলার দারুল আমান ইউনিয়নের কালিয়ারা আশ্রয়ণ প্রকল্পের উপকারভোগীরা। এবার ঈদে তাদের জন্য উপহার হিসেবে খাদ্য সামগ্রী নিয়ে গেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা। 

বুধবার (২১ জুলাই) বিকালে কালিয়ারা আশ্রয়ণ প্রকল্পে গিয়ে দেখা যায়, উপহারের ঘরে খুব সুন্দরভাবে ঈদ করছে পরিবারগুলো। কেউ ঘরের কাজ করছেন আবার কেউ মাংস-পোলাও রান্না করছেন। শিশুরা নতুন জামা পরে খেলাধুলা করছে। নিজের মতো করে ঈদের আনন্দ উপভোগ করছে তারা।

উপকারভোগী হাসিনা বেগম (৬৫) বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, প্রধানমন্ত্রী ঘর উপহার দিয়েছেন। ঘরে প্রথমবারের মতো ঈদ করছি। ইউএনও কোরবানির মাংস নিয়ে এসেছেন। আমরা অনেক খুশি। 

এদিকে জাজিরা উপজেলার আশ্রয়ণ প্রকল্পগুলো ঘুরে দেখা যায়, এখানে ৫৪ পরিবারকে উপহারের ঘর দেওয়া হয়েছে। এদের ঘরেও বইছে আনন্দের বন্যা। উপকারভোগীদের জন্য মাংস, সেমাই, চিনি, দুধ, পোলাও চাল নিয়ে গেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।

উপকারভোগী জামাল হোসেন বলেন, ভাড়া বাসায় থাকায় কোনও বছর ভালোভাবে ঈদ করতে পারতাম না। এবার উপহারের ঘরে ভালোভাবে ঈদ করছি। অনেক খাবারের আয়োজন করেছি। সবার ঘরে মাংস এবং ভালো খাবার রান্না হয়েছে। আমরা সবাই ভালো আছি।

নিজেদের ঘরে প্রথম ঈদ উদযাপন করেছেন উপজেলার দারুল আমান ইউনিয়নের কালিয়ারা আশ্রয়ণ প্রকল্পের উপকারভোগীরা

ধানকাটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক পিন্টু বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ঘর পাওয়ার এবারের ঈদের আনন্দ বেড়ে গেছে ওই পরিবারগুলোর। এই দরিদ্র মানুষগুলো যতদিন উপহারের ঘরে থাকবে ততদিন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্য দোয়া করবে। 

ডামুড্যা প্রেস ক্লাবের সভাপতি শফিকুল ইসলাম সোহেল বলেন, গোলাপী ও তার ছেলে উপহারের ঘর পেয়েছেন। সরকারি সুযোগ-সুবিধা পেয়েছেন। ১৩ বছর পর ঘরে ঈদ করেছেন তারা। 

ডামুড্যা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ সাদিকুর রহমান সবুজ বলেন, গোলাপী ১৩ বছর পর নিজ ঘরে ঈদ করেছেন। এটি সত্যিই আনন্দের। আশ্রয়ণ প্রকল্পের বাসিন্দাদের ঘরে সরকারি উপহার পৌঁছে দিয়েছি। তারা খুব সুন্দরভাবে ঈদ উদযাপন করেছেন।

জাজিরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মুহাম্মদ আশরাফুজ্জামান ভূঁইয়া বাংলা ট্রিবিউনকে  বলেন, উপজেলায় প্রথম পর্যায়ে ৫৪টি ঘর উপকারভোগীদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।  প্রথমবারের মতো নিজের বাড়িতে ঈদ উদযাপন করেছেন তারা। পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে উপহারের দুই কেজি মাংস, এক কেজি পোলাও চাল, এক কেজি চিনি, সেমাই ও দুধ তাদের কাছে পৌঁছে দিয়েছি। ঈদের দিন পরিবার-পরিজন থেকে দূরে থাকলেও এই অসহায় মানুষগুলোর জন্য কিছু করতে পারায় আনন্দ লাগছে।

/এএম/

সম্পর্কিত

পোশাক কারখানার বাইরে তালা ভেতরে চালু

পোশাক কারখানার বাইরে তালা ভেতরে চালু

প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ শিক্ষিকার

প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ শিক্ষিকার

জরিমানা ও ব্যবস্থাপকের কারাদণ্ডে যা বললো প্রিমিয়ার সিমেন্ট

জরিমানা ও ব্যবস্থাপকের কারাদণ্ডে যা বললো প্রিমিয়ার সিমেন্ট

অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা

আপডেট : ২৫ জুলাই ২০২১, ০২:০৬

কুমিল্লায় স্বামীর নির্মম নির্যাতনে পিংকি আক্তার (২২) নামে আট মাসের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীর মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার রাতে নগরীর ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের টিক্কাচর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। 

এ ঘটনায় স্বামী বিল্লাল হোসেনকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয়রা। বিল্লাল একই এলাকার বারেক মিয়ার ছেলে এবং পিংকি আক্তার সাহিদ মিয়ার মেয়ে।

পুলিশ ও নিহতের পরিবার জানায়, চার বছর আগে প্রেম করে বিল্লালকে বিয়ে করেন পিংকি। এর আগে একাধিক বিয়ের বিষয়টি গোপন রাখে বিল্লাল। বিয়ের পর থেকে যৌতুকের জন্য স্ত্রীকে নির্যাতন করতো। এরই মধ্যে গাড়ি কেনা ও ঘর তৈরির জন্য যৌতুক হিসেবে কয়েক দফায় তাকে টাকা দেওয়া হয়। এর আগে একাধিকবার স্ত্রী ও শাশুড়িকে কুপিয়ে আহত করেছে বিল্লাল।

শুক্রবার রাতে আবারও যৌতুকের জন্য স্ত্রীকে পিটিয়ে আহত করে। এতে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে স্থানীয়রা কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। গভীর রাতে সেখানে পিংকির মৃত্যু হয়।

কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) কমল কৃষ্ণ ধর বলেন, এ ঘটনায় নিহতের মা রেহেনা বেগম বাদী হয়ে বিল্লাল হোসেনকে আসামি করে মামলা করেছেন। শনিবার তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। 

/এএম/

সম্পর্কিত

স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়া, পিটিয়ে হত্যার পর ভাসিয়ে দিলেন লাশ

স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়া, পিটিয়ে হত্যার পর ভাসিয়ে দিলেন লাশ

স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়া, পিটিয়ে হত্যার পর ভাসিয়ে দিলেন লাশ

আপডেট : ২৫ জুলাই ২০২১, ০১:৩৯

চাঁদপুরের শাহরাস্তিতে একদিনেই বেলায়েত হোসেন রিপন নামে এক যুবক হত্যার রহস্য উন্মোচন করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় জড়িত দুই জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তারা হলেন শাহরাস্তির গঙ্গারামপুর গ্রামের মো. ফজলুর রহমান (৪৫) ও তার স্ত্রী আমেনা বেগম (৩০)।

শনিবার (২৪ জুলাই) তাদের গ্রেফতার করা হয়। দুপুরে পুলিশ সুপার কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান চাঁদপুরের পুলিশ সুপার মিলন মাহমুদ।

পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃতরা জানান, হত্যাকাণ্ডের শিকার বেলায়েত হোসেন রিপনের (৩৫) সঙ্গে আমেনা বেগমের পরকীয়া সম্পর্ক ছিল। সম্পর্কের সূত্র ধরে গত বৃহস্পতিবার রাতে আমেনার সঙ্গে দেখা করতে যান রিপন। আমেনার স্বামী ফজলুর রহমান দেখে ফেললে রিপন দৌড় দেন। এ সময় জালে আটকা পড়েন। সঙ্গে সঙ্গে ফজলুর তার হাতে থাকা বাঁশের লাঠি দিয়ে রিপনের মাথায় আঘাত করলে ঘটনাস্থলেই নিহত হন। এরপর ফজলুর ও আমেনা মিলে রিপনের গলায় রশি লাগিয়ে বিলের মধ্যে পানিতে ভাসিয়ে দেন।

পুলিশ সুপার মিলন মাহমুদ বলেন, শুক্রবার সকালে রিপনের লাশ উদ্ধার করা হয়। এরপর ঘটনার রহস্য উন্মোচনে কাজ শুরু করে পুলিশ। একদিনেই ঘটনার রহস্য জানা যায়। 

এর আগে শুক্রবার (২৩ জুলাই) উপজেলার রায়শ্রী উত্তর ইউনিয়নের উত্তর গঙ্গারামপুর মাঠ থেকে রিপনের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। রিপন বিবাহিত ছিলেন। তার দুই কন্যা ও এক ছেলে রয়েছে।

রিপনের ফুফাতো ভাই মো. আবুল কালাম বলেন, রিপন কৃষক ছিলেন। মাঝেমধ্যে মাটি ও চামড়ার ব্যবসা করতেন। হত্যাকাণ্ডের পর পরকীয়ার বিষয়টি জানতে পারি আমরা।

শাহরাস্তি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুল মান্নান বলেন, রিপনের গলায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। রশি কিংবা কাপড় দিয়ে শ্বাসরোধ করা হয়েছে। তার মাথায়ও আঘাতের চিহ্ন আছে।

/এএম/

সম্পর্কিত

অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা

অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা

লকডাউনের দ্বিতীয় দিনে ময়মনসিংহে ৪৩৫টি মামলা

আপডেট : ২৫ জুলাই ২০২১, ০১:৩৫

করোনাভাইরাস রোধে সরকার আরোপিত কঠোর লকডাউনের দ্বিতীয় দিনে শনিবার (২৪ জুলাই) ময়মনসিংহ জেলায় ৪৩৫ মামলায় দুই লাখ চার হাজার ৭০৫ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে।

এর মধ্যে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পরিচালিত ভ্রাম্যমাণ আদালত ১৮৩ মামলায় ৯৪ হাজার ৫০ টাকা, উপজেলা প্রশাসন পরিচালিত ভ্রাম্যমাণ আদালত ২২৩ মামলায় এক লাখ তিন হাজার ৪৫৫ টাকা এবং সিটি করপোরেশন ২৯ মামলায় সাত হাজার ২০০ টাকা জরিমানা আদায় করেছে।

এসব তথ্য নিশ্চিত করে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আয়েশা হক জানান, কঠোর লকডাউন সফল করতে এ ধরনের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। এবারের লকডাউন বাস্তবায়নে সব শ্রেণি-পেশার মানুষের সহযোগিতা চেয়েছেন তিনি।

/এফআর/

সম্পর্কিত

লকডাউনেও জমজমাট পশুর হাট

লকডাউনেও জমজমাট পশুর হাট

পোশাক কারখানার বাইরে তালা ভেতরে চালু

পোশাক কারখানার বাইরে তালা ভেতরে চালু

জরিমানা ও ব্যবস্থাপকের কারাদণ্ডে যা বললো প্রিমিয়ার সিমেন্ট

জরিমানা ও ব্যবস্থাপকের কারাদণ্ডে যা বললো প্রিমিয়ার সিমেন্ট

মাছটি বিক্রি হলো সাড়ে ৪ লাখ টাকায়

আপডেট : ২৫ জুলাই ২০২১, ০০:৫০

বঙ্গোপসাগরে জেলেদের জালে ধরা পড়েছে ২৮ কেজি ওজনের একটি ভোল মাছ। সেটি বিক্রি হয়েছে চার লাখ ৬২ হাজার ৭০০ টাকায়। শনিবার (২৪ জুলাই) দুপুরে বাংলাদেশের বৃহত্তম মৎস্য অবতরণ কেন্দ্র বরগুনার পাথরঘাটা বিএফডিসি মৎস্য ঘাটে ছয় লাখ ৬১ হাজার টাকা মণ হিসেবে ২৮ কেজি ওজনের এই ভোল মাছটি ডাকের মাধ্যমে বিক্রি করা হয়।

মৎস্য ঘাটের ব্যবসায়ীরা জানান, বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলার মাসুম কোম্পানির মালিকানাধীন এফবি আলাউদ্দিন হাফিজ ট্রলার বৃহস্পতিবার ২২ জুলাই বঙ্গোপসাগরের গভীরে মাছ শিকারের উদ্দেশে জাল পাতলে জেলেরা তাৎক্ষণিক ভোল মাছটির উপস্থিতি টের পান। সঙ্গে সঙ্গে জাল টেনে তুললে তারা বৃহৎ এই মাছটি পেয়ে মৎস্য অবতরণ কেন্দ্রে নিয়ে আসেন। এরপর আজ নিয়মিত ডাকে মাছটি বিক্রি করা হয়। বিভিন্ন স্থানের ব্যবসায়ীরা ডাকে অংশ নিলেও মাছটি শেষ পর্যন্ত কেনেন খুলনার মৎস্য ব্যবসায়ী মো. জুয়েল।

এফবি আলাউদ্দিন হাফিজ ট্রলারের মাঝি আবু জাফর বলেন, গভীর সমুদ্রে জাল ফেলার সঙ্গে সঙ্গেই জাল টানাটানি শুরু হয়। জাল টানা দেখে মনে হয়েছে বড় কোনও মাছ আটকা পড়েছে। তাই তাৎক্ষণিক আমরা জাল টানতেই বড় মাছটি পাই। আমরা আর দেরি না করে দ্রুত ঘাটে আসি। শনিবার সকাল থেকেই মাছ প্রকাশ্যে ডাক শুরু হলে দুপুর ১২টার দিকে ছয় লাখ ৬১ হাজার মণ দরে ২৮ কেজি ওজনের মাছটি চার লাখ ৬২ হাজার ৭০০ টাকায় বিক্রি করা হয়।

ক্রেতা মো. জুয়েল বলেন, আমি এই ঘাটে দীর্ঘদিন ধরে ব্যবসা করে আসছি, সচরাচর এত বড় ভোল মাছ আমি দেখিনি। তাই মাছটি দেখে লোভ সামলাতে পারলাম না। মাছটি প্রকাশ্যে ডাকে উঠলে আমিও কেনার উদ্দেশে দাম হাঁকাতে থাকি। একপর্যায়ে মাছটি আমি কিনতে সক্ষম হই। মাছটি খাবো না বিক্রি করবো সে বিষয়ে এখনও কোনও সিদ্ধান্ত নেইনি। দেখা যাক কী হয়।

বরগুনা জেলা মৎস্যজীবী ট্রলার মালিক সমিতির সভাপতি গোলাম মোস্তফা চৌধুরী বলেন, ভোল মাছ সচরাচর পাওয়া যায় না। মূলত এ মাছের বালিশের চাহিদা অনেক বেশি।

জানা গেছে, এ মাছের বালিশ দিয়ে বিদেশিরা জুস বানিয়ে খেয়ে থাকেন। তাই মাছটির দাম এত বেশি হাঁকানো হয়েছে।

/এফআর/

সম্পর্কিত

ট্রলারডুবির ১৮ ঘণ্টা পর ১৬ জেলে জীবিত উদ্ধার

ট্রলারডুবির ১৮ ঘণ্টা পর ১৬ জেলে জীবিত উদ্ধার

পাওনাদারের লাশ নিয়ে দেনাদারের বাড়িতে স্বজনরা

পাওনাদারের লাশ নিয়ে দেনাদারের বাড়িতে স্বজনরা

শের-ই-বাংলা মেডিক্যালে ১১ জনের মৃত্যু

শের-ই-বাংলা মেডিক্যালে ১১ জনের মৃত্যু

তরুণীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে যুবকের গলায় জুতার মালা

তরুণীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে যুবকের গলায় জুতার মালা

শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে ৭০ বছরের বৃদ্ধ গ্রেফতার

আপডেট : ২৫ জুলাই ২০২১, ০০:৪৫

খুলনার পাইকগাছার মানিকতলা এলাকায় চার বছরের শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে করা মামলায় মোক্তার গোলদার (৭০) নামে এক বৃদ্ধকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ভুক্তভোগী শিশুটিকে উদ্ধার করে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করা হয়েছে।

পাইকগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এজাজ শফী বলেন, অভিযোগ পেয়ে শিশুটিকে উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। সেখান থেকে চিকিৎসকের পরামর্শে শুক্রবার রাতে শিশুটিকে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে ভর্তি করা হয়। শিশুটি বর্তমানে ওসিসিতে রয়েছে। একই সঙ্গে অভিযুক্ত মোক্তারকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ ঘটনায় শিশুটির বাবা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেছেন।

মামলার এজাহারের বরাত দিয়ে ওসি এজাজ শফী বলেন, ‘শুক্রবার বিকাল ৪টার দিকে শিশুটি মানিকতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে সহপাঠীদের সঙ্গে খেলা করছিল। বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে মোক্তার গোলদার চকলেট দেওয়ার প্রলোভন দিয়ে শিশুটিকে তার বাড়ি নিয়ে যায়। এরপর বাড়ির ছাদে শিশুটিকে ধর্ষণ করে। শিশুর চিৎকারে প্রতিবেশীরা বিষয়টি জেনে যায়। শুক্রবার সন্ধ্যায় মোক্তারকে গ্রেফতার করে থানায় আনে পুলিশ। একই সঙ্গে শিশুকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।’

/এএম/

সম্পর্কিত

অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা

অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা

স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়া, পিটিয়ে হত্যার পর ভাসিয়ে দিলেন লাশ

স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়া, পিটিয়ে হত্যার পর ভাসিয়ে দিলেন লাশ

সর্বশেষ

চীনে আগুনে পুড়ে ১৪ জনের মৃত্যু

চীনে আগুনে পুড়ে ১৪ জনের মৃত্যু

সিরিয়ায় হামলায় তুর্কি সেনা নিহত, আঙ্কারার হুঁশিয়ারি

সিরিয়ায় হামলায় তুর্কি সেনা নিহত, আঙ্কারার হুঁশিয়ারি

লকডাউন বিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল দেশে দেশে

লকডাউন বিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল দেশে দেশে

ভূমধ্যসাগরে ৫৭৬ অভিবাসন প্রত্যাশী উদ্ধার

ভূমধ্যসাগরে ৫৭৬ অভিবাসন প্রত্যাশী উদ্ধার

অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা

অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা

১৫৫ কিলোমিটার বেগে চীনে আঘাত হানছে টাইফুন 'ইন-ফা'

১৫৫ কিলোমিটার বেগে চীনে আঘাত হানছে টাইফুন 'ইন-ফা'

স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়া, পিটিয়ে হত্যার পর ভাসিয়ে দিলেন লাশ

স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়া, পিটিয়ে হত্যার পর ভাসিয়ে দিলেন লাশ

লকডাউনের দ্বিতীয় দিনে ময়মনসিংহে ৪৩৫টি মামলা

লকডাউনের দ্বিতীয় দিনে ময়মনসিংহে ৪৩৫টি মামলা

মাছটি বিক্রি হলো সাড়ে ৪ লাখ টাকায়

মাছটি বিক্রি হলো সাড়ে ৪ লাখ টাকায়

শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে ৭০ বছরের বৃদ্ধ গ্রেফতার

শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে ৭০ বছরের বৃদ্ধ গ্রেফতার

তালেবানের উত্থান, আফগানিস্তানে কারফিউ জারি

তালেবানের উত্থান, আফগানিস্তানে কারফিউ জারি

খেলায় লাল কার্ড দেখানো নিয়ে সংঘর্ষে আহত অর্ধশতাধিক

খেলায় লাল কার্ড দেখানো নিয়ে সংঘর্ষে আহত অর্ধশতাধিক

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

পোশাক কারখানার বাইরে তালা ভেতরে চালু

পোশাক কারখানার বাইরে তালা ভেতরে চালু

প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ শিক্ষিকার

প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ শিক্ষিকার

জরিমানা ও ব্যবস্থাপকের কারাদণ্ডে যা বললো প্রিমিয়ার সিমেন্ট

জরিমানা ও ব্যবস্থাপকের কারাদণ্ডে যা বললো প্রিমিয়ার সিমেন্ট

পদ্মা সেতু এড়িয়ে ফেরি চলার কোনও সুযোগ নেই

পদ্মা সেতু এড়িয়ে ফেরি চলার কোনও সুযোগ নেই

কারখানা খোলা রাখায় এ-ওয়ান পলিমারকে জরিমানা

কারখানা খোলা রাখায় এ-ওয়ান পলিমারকে জরিমানা

ফতুল্লায় বন্ধুর ছুরিকাঘাতে যুবক নিহত

ফতুল্লায় বন্ধুর ছুরিকাঘাতে যুবক নিহত

পদ্মা সেতুর সেই পিলার পরিদর্শনে মন্ত্রণালয়ের টিম

পদ্মা সেতুর সেই পিলার পরিদর্শনে মন্ত্রণালয়ের টিম

পদ্মা সেতুর পিলারে ধাক্কা দেওয়া ফেরিচালককে আটক করা হয়নি: পুলিশ

পদ্মা সেতুর পিলারে ধাক্কা দেওয়া ফেরিচালককে আটক করা হয়নি: পুলিশ

পদ্মা সেতুর পিলারে বার বার ফেরির ধাক্কা কেন?

পদ্মা সেতুর পিলারে বার বার ফেরির ধাক্কা কেন?

© 2021 Bangla Tribune