X
শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৯ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

তুরস্কে দাবানলের তাণ্ডবে পুড়ে মরছে পশু-পাখি

আপডেট : ০১ আগস্ট ২০২১, ২১:৪৮

টানা তিন ধরে দাবানলে জ্বলছে তুরস্কের দক্ষিণাঞ্চলের বেশ কিছু প্রদেশ। দমকা বাতাস আগুনের তীব্রতাকে আরও বাড়িয়ে তুলছে। বনাঞ্চলে ছড়িয়ে পড়া আগুনে বন্যপ্রাণীর পাশাপাশি গৃহপালিত পশু-পাখিও মারা যাচ্ছে। এ অবস্থায় দেশটির পাঁচটি প্রদেশ ‘দুর্যোগ অঞ্চল’ ঘোষণা করেছেন প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোয়ান।

গত বুধবার থেকে শুরু হওয়া দাবানলে পুড়ে গেছে অনেক ঘরবাড়ি ও বনভূমি। তবে দমকল বাহিনীর প্রচেষ্টায় শনিবার পর্যন্ত ৮৮টি জায়গার আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা গেছে। দাবানলের ভয়াবহতা থামাতে লড়ছে দেশটির বিভিন্ন জরুরি সংস্থার কর্মীরা। কিছু জায়গার পরিস্থিতি উন্নতি হলেও পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আনা যায়নি।

কৃষি ও বনমন্ত্রী বেকির পাকদেমিরলি শনিবার টুইট করেন, এন্টালিয়ার জনপ্রিয় পর্যটক অঞ্চলের তিনটি স্থানে আগুন এখনও সক্রিয় রয়েছে। 

তুরস্কের ভূমধ্যসাগরীয় উপকূলে আগুন বিশেষভাবে গুরুতর ছিল। সেখানে প্রবল বাতাস অগ্নিনির্বাপণে বাধা সৃষ্টি করে। ফলে অনেক অঞ্চল এবং হোটেল খালি করা হয়েছে। পর্যটকদের নৌকায় করে নিরাপদ স্থানে নেওয়া হয়েছে। এদিকে বন্যপ্রাণীর পাশাপাশি গৃহপালিত অনেক পশু-পাখি আগুন পুড়ে মারা গেছে। এ সংখ্যা কত তা এখনও জানা যায়নি।

পরিস্থিতি নিয়ে শনিবার তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান বলেন, দাবানলে আমাদের যে মানুষগুলো আহত এবং মৃত্যু হয়েছে তাদের ক্ষতিপূরণ দিতে সব ধরনের পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে’।

তুরস্কের ভূমধ্যসাগরের উপকূলীয় পাঁচ প্রদেশে দুর্যোগ অঞ্চল ঘোষণা করেন তিনি। দাবানল নিয়ন্ত্রণে ৪৫টি হেলিকপ্টার, ৫৫টি ভারী যানবাহন এবং এক হাজার ৮০টি জলযান কাজ করছে।

/এলকে/এমওএফ/

সম্পর্কিত

জাতিসংঘে ফের কাশ্মির ইস্যু তুললেন এরদোয়ান

জাতিসংঘে ফের কাশ্মির ইস্যু তুললেন এরদোয়ান

আফগানিস্তানে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি যুক্তরাষ্ট্র-তুরস্কের

আফগানিস্তানে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি যুক্তরাষ্ট্র-তুরস্কের

পশ্চিমা দুনিয়ার রাজনীতি ইসলামবিদ্বেষের কাছে জিম্মি: এরদোয়ান

পশ্চিমা দুনিয়ার রাজনীতি ইসলামবিদ্বেষের কাছে জিম্মি: এরদোয়ান

কমলা হ্যারিসে মুগ্ধ নরেন্দ্র মোদি

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:০৫

প্রথম সাক্ষাতেই কমলা হ্যারিসে মুগ্ধ হলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ভারতীয় বংশোদ্ভূত প্রথম মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস-কে সকলের কাছে ‘অনুপ্রেরণা’ বলেন তিনি। আগামীতে ভারতে আসার জন্যও আমন্ত্রণ জানান কমলা হ্যারিসকে।

শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) হোয়াইট হাউসে মুখোমুখি হন মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস ও ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আফগানিস্তান, কোভিড পরিস্থিতিসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা হয় মোদি-কমলার।

এদিন কমলার প্রশংসা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট পদের নির্বাচনে আপনার লড়াই অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ও ঐতিহাসিক একটি পর্ব ছিল। গোটা বিশ্বজুড়েই আপনি অনুপ্রেরণা। আমি নিশ্চিত যে প্রেসিডেন্ট বাইডেন ও আপনার নেতৃত্বে দিল্লি ও ওয়াশিংটনের মধ্য দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক এক নতুন উচ্চতায় পৌঁছবে’।

মোদি আরও বলেন, ‘ভারত ও আমেরিকার মূল্যবোধ অনেকটাই একই রকম, রাজনৈতিক স্বার্থও এক। সকল ভারতীয়ই আপনার জন্য অপেক্ষা করছে, সেই কারণে আমি আপনাকে ভারত সফরে আসার জন্য আমন্ত্রণ জানাচ্ছি’।

/এলকে/

সম্পর্কিত

মোদি-কমলার বৈঠক, পাকিস্তানকে সন্ত্রাসীদের সমর্থন বন্ধ করা উচিত: কমলা

মোদি-কমলার বৈঠক, পাকিস্তানকে সন্ত্রাসীদের সমর্থন বন্ধ করা উচিত: কমলা

যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুক হামলায় হতাহত ১৩, হামলাকারীর আত্মহত্যা

যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুক হামলায় হতাহত ১৩, হামলাকারীর আত্মহত্যা

মোদি-কমলার বৈঠক, পাকিস্তানকে সন্ত্রাসীদের সমর্থন বন্ধ করা উচিত: কমলা

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:৪৩

যুক্তরাষ্ট্রে মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসের সঙ্গে প্রথমবার সাক্ষাৎ হয়েছে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির। হোয়াইট হাউসে এক ঘণ্টার বৈঠকে দিল্লি-ওয়াশিংটনের কূটনৈতিক সম্পর্ক, আফগানিস্তান ও পাকিস্তানের প্রসঙ্গসহ নানা বিষয়ে কমলার সঙ্গে আলোচনা হয় মোদির।

আলোচনা নিয়ে ভারতের পররাষ্ট্র সচিব হর্ষবর্ধন শ্রিংলা জানান, পাকিস্তান সীমান্তে সন্ত্রাসী কার্যক্রমে সমর্থন দিয়ে আসায় প্রধানমন্ত্রী মোদি মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলার কাছে উদ্বেগ প্রকাশ করেন। কমলা হ্যারিস প্রধানমন্ত্রী মোদীর সঙ্গে সহমত পোষণ করেন যে ভারত বিগত কয়েক দশক ধরে সন্ত্রাসবাদের শিকার হয়ে এসেছে। এই ধরণের সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর প্রতি পাকিস্তানের সমর্থনকে লাগাম টানার কথাও বলেন তিনি। বিষয়টির উপর নজরদারি চালানোর প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রীর সাথে একমত হন মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট।

কমলা পাকিস্তানকে পদক্ষেপ নিতে বলেছেন যাতে সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলো মার্কিন নিরাপত্তা এবং ভারতের নিরাপত্তার উপর প্রভাব না ফেলে।

বৈঠক প্রসঙ্গে শ্রিংলা আরও জানান, প্রধানমন্ত্রী মোদীর সঙ্গে ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলার বৈঠকে উষ্ণতা ও সৌহার্দ্যের প্রতিফলন ঘটে। আলোচনায় সন্ত্রাসবাদের সমস্যা ছাড়াও উঠে আসে কোভিড, জলবায়ু পরিবর্তন, প্রযুক্তি খাতে সহযোগিতাসহ সাইবার নিরাপত্তার বিষয়।

এদিকে গত জুনে ভারতে করোনার চূড়ান্ত অবস্থায় যুক্তরাষ্ট্রের সহায়তার কথা মনে করিয়ে কমলা হ্যারিসকে ধন্যবাদ জানান মোদি। বলেন, বিপদের সময় ভারতের পাশে দাঁড়িয়ে সত্যিকারের বন্ধুত্বের পরিচয় দিয়েছেন। ভারত সব সময় তা মনে রাখবে বলেও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন নরেন্দ্র মোদি।

/এলকে/

সম্পর্কিত

যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুক হামলায় হতাহত ১৩, হামলাকারীর আত্মহত্যা

যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুক হামলায় হতাহত ১৩, হামলাকারীর আত্মহত্যা

আসিয়ানের প্রতি অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করলো যুক্তরাষ্ট্র

আসিয়ানের প্রতি অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করলো যুক্তরাষ্ট্র

‘আফগানিস্তানে রক্তপাত ও অস্থিতিশীলতার জন্য যুক্তরাষ্ট্র দায়ী’

‘আফগানিস্তানে রক্তপাত ও অস্থিতিশীলতার জন্য যুক্তরাষ্ট্র দায়ী’

অকাস জোটে ভারত-জাপানকে রাখছে না যুক্তরাষ্ট্র

অকাস জোটে ভারত-জাপানকে রাখছে না যুক্তরাষ্ট্র

তালেবান সরকারের আসল ক্ষমতা কার হাতে?

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:৩০

তালেবান আফগানিস্তানের ক্ষমতা দখলের এক মাসেরও কম সময়ের মধ্যে দলটির নেতৃত্বের মধ্যে বিভেদের খবর আসতে শুরু করে। এর মধ্যেই অন্তর্বর্তী সরকারের প্রধানমন্ত্রীসহ কয়েকজন মন্ত্রীর নাম ঘোষণা করা হয়। সর্বশেষ মঙ্গলবার মন্ত্রিসভার আরও কয়েকজন সদস্যের নাম ঘোষণা করা হয়। এদিন ঘোষিত সদস্যদের বেশিরভাগই উপমন্ত্রী। তবে তালেবান প্রশাসনে বৈচিত্র্য আনতে এদিনের ঘোষণা ছিল তাৎপর্যপূর্ণ।

এ দফায় মন্ত্রিসভায় ঠাঁই পেয়েছেন এক সময় তালেবানবিরোধী প্রতিরোধ আন্দোলনের শক্ত ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত পাঞ্জশির এবং বাঘলানের প্রতিনিধিরাও। মিলিশিয়া গোষ্ঠী ন্যাশনাল রেজিস্টেন্স ফ্রন্টের ঘাঁটি হিসেবে বিবেচনা করা হয় পঞ্জশিরকে। রাজধানী কাবুলসহ পুরো দেশের বিস্তীর্ণ এলাকা দখলের পরও এই উপত্যকার নিয়ন্ত্রণ নিতে রীতিমতো হিমশিম খেতে হয়েছে তালেবানকে। গত কয়েক মাসে বাঘলানেরও কিছু জেলায় প্রতিরোধের চিত্র দেখা গেছে।

তালেবান সতর্ক ছিল যে, সম্প্রসারিত মন্ত্রিসভায় তাজিক ও উজবেক অধ্যুষিত পঞ্জশির, বাঘলান এবং সার-ই পোল এলাকার যেন প্রতিনিধিত্ব থাকে। সরকারে এরইমধ্যে তাজিক, উজবেক ও তুর্কমেনদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে সমর্থ হয়েছে দলটি। তবে তাদের সরকারে এখনও শিয়া, হাজারা বা অন্য কোনও সংখ্যালঘু গোষ্ঠীর প্রতিনিধিত্ব নেই।

তালেবান প্রধান হাইবাতুল্লাহ আখুন্দজাদার বসবাস কান্দাহারে। ক্ষমতার মূল কেন্দ্র হিসেবে দেখা হয় শহরটির একটি গোপন শুরা বা উপদেষ্টা শিবিরকে। এই সার্কেলটিই এখন আফগানিস্তানের প্রকৃত সিদ্ধান্ত গ্রহণকারী হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে।

কয়েক বছর ধরে তালেবানের নিউজ করেছেন এমন একজন সংবাদকর্মী বলেন, কাবুলের আনুষ্ঠানিক সরকারের তেমন ক্ষমতা নেই। বেশ কিছু তালেবান নেতা নতুন প্রশাসনে তাদের অবস্থান নিয়ে স্পষ্টতই বিরক্ত ছিলেন। কূটনৈতিক ও রাজনৈতিক সূত্রগুলোর আশঙ্কা, তালেবানের অভ্যন্তরীণ নানা বিরোধ রাজধানী কাবুলসহ অন্যান্য প্রদেশে তাদেরকে নিজেদের মধ্যে লড়াইয়ের দিকে নিয়ে যেতে পারে।

ওই সংবাদকর্মী বলেন, ‘রাজনৈতিক আসনের জন্য লড়াই এক জিনিস। কিন্তু যোদ্ধারা যদি তাদের দীর্ঘদিনের বিরোধের ভিত্তিতে যুদ্ধ শুরু করে, তখন কোনও জায়গাই আর নিরাপদ থাকবে না।’ সূত্র: আল জাজিরা।

/এমপি/

সম্পর্কিত

সৌদি আরবের সঙ্গে আলোচনায় ব্যাপক অগ্রগতি হয়েছে: ইরান

সৌদি আরবের সঙ্গে আলোচনায় ব্যাপক অগ্রগতি হয়েছে: ইরান

আসিয়ানের প্রতি অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করলো যুক্তরাষ্ট্র

আসিয়ানের প্রতি অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করলো যুক্তরাষ্ট্র

‘আফগানিস্তানে রক্তপাত ও অস্থিতিশীলতার জন্য যুক্তরাষ্ট্র দায়ী’

‘আফগানিস্তানে রক্তপাত ও অস্থিতিশীলতার জন্য যুক্তরাষ্ট্র দায়ী’

করোনায় মৃত্যু ‘স্বপ্নে নিরাময় পাওয়ার’ দাবি করা এলিয়ান্থা হোয়াইটের

করোনায় মৃত্যু ‘স্বপ্নে নিরাময় পাওয়ার’ দাবি করা এলিয়ান্থা হোয়াইটের

যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুক হামলায় হতাহত ১৩, হামলাকারীর আত্মহত্যা

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:১২

যুক্তরাষ্ট্রের টেনিস অঙ্গরাজ্যের মেমফিস শহরের একটি সুপারমার্কেটে বন্দুক হামলায় একজন নিহত হয়েছেন। এতে আহত হন আরও ১২ জন। পরে হামলাকারী নিজের বন্দুকের গুলিতে আত্মহত্যা করেন।

স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) কোলিয়ারভিল উপশহরে ক্রোগার গ্রোসারি স্টোরে অস্ত্রধারী হঠাৎ করেই হামলা চালায়। তার ছোড়া এলোপাতাড়ি গুলিতে বেশ কয়েকজন হতাহত হন। এসময় ওই গ্রোসারি স্টোরসহ আশপাশে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছায় নিরাপত্তা বাহিনী।

পুলিশ জানায়, বন্দুক হামলার কারণে ভয়াবহ পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়। জীবন বাঁচাতে অনেকে ফ্রিজ এবং লকারে অবস্থান নেয়। হামলাকারীকে আটকের আগেই আত্মহত্যা করেন।

পরে সবাইকে দ্রুত বের করে নিরাপদে আশ্রয়ে নিয়ে যায় পুলিশ। আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

হামলাকারীর উদ্দেশ্য কি ছিল তা জানা যায়নি। ঘটনার কারণ অনুসন্ধানে তদন্তে নেমেছে মার্কিন ফেডারেল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (এফবিআই)।

/এলকে/

সম্পর্কিত

মোদি-কমলার বৈঠক, পাকিস্তানকে সন্ত্রাসীদের সমর্থন বন্ধ করা উচিত: কমলা

মোদি-কমলার বৈঠক, পাকিস্তানকে সন্ত্রাসীদের সমর্থন বন্ধ করা উচিত: কমলা

আসিয়ানের প্রতি অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করলো যুক্তরাষ্ট্র

আসিয়ানের প্রতি অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করলো যুক্তরাষ্ট্র

‘আফগানিস্তানে রক্তপাত ও অস্থিতিশীলতার জন্য যুক্তরাষ্ট্র দায়ী’

‘আফগানিস্তানে রক্তপাত ও অস্থিতিশীলতার জন্য যুক্তরাষ্ট্র দায়ী’

অকাস জোটে ভারত-জাপানকে রাখছে না যুক্তরাষ্ট্র

অকাস জোটে ভারত-জাপানকে রাখছে না যুক্তরাষ্ট্র

সৌদি আরবের সঙ্গে আলোচনায় ব্যাপক অগ্রগতি হয়েছে: ইরান

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:৩২

উপসাগরীয় অঞ্চলের নিরাপত্তা নিয়ে সৌদি আরবের সঙ্গে তেহরানের আলোচনায় ব্যাপক অগ্রগতি হয়েছে। বৃহস্পতিবার এমন মন্তব্য করেছেন ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাঈদ খাতিবজাদেহ।

তিনি বলেন, রিয়াদের সঙ্গে যে আলোচনা চলছে তাতে অর্জিত অগ্রগতির ঘটনায় খুশি তেহরান। আঞ্চলিক এই দুইটি শক্তি টেকসই সম্পর্ক প্রতিষ্ঠা করতে সক্ষম।

ইরানের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা ইরনাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, গত কয়েক মাসে সৌদি সরকারের সঙ্গে ইরানের বেশ কয়েক দফা আলোচনা হয়েছে। এসব আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়েছে ইরাকের রাজধানী বাগদাদে।

সাঈদ খাতিবজাদেহ জানান, চমৎকার পরিবেশে আলোচনা হয়েছে। এছাড়া উপসাগরীয় অঞ্চলের নিরাপত্তা নিয়ে বৈঠকে বেশ গুরুত্বপূর্ণ অগ্রগতি হয়েছে।

ইরানের নতুন প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি দায়িত্ব নেওয়ার পরও যথাযথ পর্যায় থেকে উভয় পক্ষই বার্তা আদান-প্রদান করেছে। কখনও আলোচনা বন্ধ হয়নি।

সাঈদ খাতিবজাদেহ জানান, ইরান সব সময় সৌদি সরকারকে এই বার্তা দিচ্ছে যে, আঞ্চলিক ইস্যুগুলো নিয়ে যেসব সমস্যা আছে তার সমাধান এই অঞ্চলেই বিদ্যমান রয়েছে। সৌদি সরকার যদি ইরানের কথায় মনোযোগ দেয় তাহলে দুই দেশের মধ্যে টেকসই ও সুন্দর সম্পর্ক প্রতিষ্ঠা করা কোনও কঠিন বিষয় নয়। সূত্র: ফ্রান্স ২৪, পার্স টুডে।

/এমপি/

সম্পর্কিত

তালেবান সরকারের আসল ক্ষমতা কার হাতে?

তালেবান সরকারের আসল ক্ষমতা কার হাতে?

আসিয়ানের প্রতি অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করলো যুক্তরাষ্ট্র

আসিয়ানের প্রতি অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করলো যুক্তরাষ্ট্র

করোনায় মৃত্যু ‘স্বপ্নে নিরাময় পাওয়ার’ দাবি করা এলিয়ান্থা হোয়াইটের

করোনায় মৃত্যু ‘স্বপ্নে নিরাময় পাওয়ার’ দাবি করা এলিয়ান্থা হোয়াইটের

ভবানীপুর জিতে বিজেপিকে দুর্বল করতে চান মমতা

ভবানীপুর জিতে বিজেপিকে দুর্বল করতে চান মমতা

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

জাতিসংঘে ফের কাশ্মির ইস্যু তুললেন এরদোয়ান

জাতিসংঘে ফের কাশ্মির ইস্যু তুললেন এরদোয়ান

আফগানিস্তানে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি যুক্তরাষ্ট্র-তুরস্কের

আফগানিস্তানে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি যুক্তরাষ্ট্র-তুরস্কের

পশ্চিমা দুনিয়ার রাজনীতি ইসলামবিদ্বেষের কাছে জিম্মি: এরদোয়ান

পশ্চিমা দুনিয়ার রাজনীতি ইসলামবিদ্বেষের কাছে জিম্মি: এরদোয়ান

কাবুল বিমানবন্দর নিয়ে বাইডেনের সঙ্গে বসছেন এরদোয়ান

কাবুল বিমানবন্দর নিয়ে বাইডেনের সঙ্গে বসছেন এরদোয়ান

পুতিনের সঙ্গে বসছেন এরদোয়ান

পুতিনের সঙ্গে বসছেন এরদোয়ান

দাবানল থেকে 'জেনারেল শেরম্যান'কে রক্ষায় বিশেষ ব্যবস্থা

দাবানল থেকে 'জেনারেল শেরম্যান'কে রক্ষায় বিশেষ ব্যবস্থা

ইদলিবে আরও সেনা এবং সামরিক সরঞ্জাম পাঠালো তুরস্ক

ইদলিবে সামরিক উপস্থিতি বাড়ালো তুরস্ক

সর্বশেষ

কমলা হ্যারিসে মুগ্ধ নরেন্দ্র মোদি

কমলা হ্যারিসে মুগ্ধ নরেন্দ্র মোদি

নেদারল্যান্ডের রানির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বৈঠক

নেদারল্যান্ডের রানির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বৈঠক

ভাষা সৈনিক ও বীর মুক্তিযোদ্ধা ইসমাইল হোসেন আর নেই

ভাষা সৈনিক ও বীর মুক্তিযোদ্ধা ইসমাইল হোসেন আর নেই

২০ বছর পর মুখ খুললেন বিপাশা

২০ বছর পর মুখ খুললেন বিপাশা

ঢাবির হলের বারান্দায় ফাটল: পর্যবেক্ষণে কমিটি গঠন

ঢাবির হলের বারান্দায় ফাটল: পর্যবেক্ষণে কমিটি গঠন

© 2021 Bangla Tribune