X
মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

সকালে জন্ম নেওয়া নবজাতককে দুপুরে বিক্রির অভিযোগ

আপডেট : ০৩ আগস্ট ২০২১, ২১:০৪

নীলফামারীর সৈয়দপুরে বাবা-মায়ের বিরুদ্ধে ২০ হাজার টাকায় নবজাতককে (ছেলে) বিক্রির অভিযোগ উঠেছে। খবর পেয়ে পুলিশ ওই নবজাতককে উদ্ধার করে মায়ের কোলে ফিরে দিয়েছে। মঙ্গলবার (৩ আগস্ট) দুপুরে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে ঘটনাটি ঘটে।

পুলিশ ও হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, উপজেলা শহরের নিচু কলোনি এলাকার মো. নাদিমের স্ত্রী জোসনা বেগম (৩২) প্রসব বেদনা নিয়ে সকাল সোয়া ৭টার দিকে হাসপাতালে ভর্তি হন। সাড়ে ৮টার দিকে হাসপাতালের গাইনি ওয়ার্ডে একটি ছেলে সন্তানের জন্ম দেন। দুপুরের দিকে ওই নবজাতককে ২০ হাজার টাকায় বিক্রি করে দেন একই মহল্লার জনৈক জামিলা খাতুনের কাছে।

সৈয়দপুর হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা শহরের কুন্দল এলাকার রফিক মিয়া বলেন, ‘হাসপাতালের মূল গেটে নবজাতকের বাবার সঙ্গে এক নারীর চুক্তিপত্র সম্পাদন হতে দেখি। চুক্তিপত্র স্বাক্ষর শেষে ওই নারী নবজাতকের বাবার হাতে এক বান্ডেল টাকা তুলে দেন। পরে ঘটনাটি ছড়িয়ে পড়লে সৈয়দপুর সদর পুলিশ ফাঁড়ির কর্মকর্তা আব্দুর রহিম দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে ক্রেতা লিমা আক্তারের কাছ থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করেন। লিমা আকতার শহরের নিচু কলোনি মহল্লার খায়রুল ইসলামের স্ত্রী।’

নবজাতকের মা জোসনা বেগম বলেন, ‘জামিলা খাতুন আমার দূর সম্পর্কের ফুপাতো বোন। তার কোনও ছেলে না থাকায় তাকে স্বেচ্ছায় দিয়েছি। তবে আমার চিকিৎসার খরচ বাবদ তিনি আমাকে ২০ হাজার টাকা দিয়েছেন।’

হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. নবিউর রহমান বলেন, ‘সকাল ১০টার দিকে ঘটনাটি জানতে পেরে আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা ওমেদুল হাসান সম্রাট ও গাইনি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মাসুদা আফরোজসহ ওই ওয়ার্ডে পরিদর্শনে যাই। সেখানে নবজাতকের মা জোসনা বেগমকে দেখতে পাই, কিন্তু ওই সময় নবজাতককে বেডে পাওয়া যায়নি।’

সৈয়দপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসনাত খান বলেন, ‘খবর পেয়ে আমাদের পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে নিখোঁজ নবজাতককে উদ্ধার করে। নবজাতক বিক্রির বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে।’

/এফআর/

সম্পর্কিত

হাসপাতালে গৃহবধূর লাশ ফেলে স্বামীর পরিবার উধাও

হাসপাতালে গৃহবধূর লাশ ফেলে স্বামীর পরিবার উধাও

প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে নীলফামারীতে ২০২ জনকে সহায়তা

প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে নীলফামারীতে ২০২ জনকে সহায়তা

সাবেক যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে ৩৫ কোটি টাকা লন্ডারিংয়ের মামলা

সাবেক যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে ৩৫ কোটি টাকা লন্ডারিংয়ের মামলা

সিনহা হত্যা মামলা: চতুর্থ দফার সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু

আপডেট : ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:০৭

সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান হত্যা মামলার চতুর্থ দফার সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়েছে।মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) সকাল সোয়া ১০টার দিকে কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ ইসমাইলের আদালতে এ সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী, কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পিপি (পাবলিক প্রসিকিউটর) অ্যাডভোকেট ফরিদুল আলম জানান, মঙ্গলবার সাক্ষ্য দিতে আদালতে উপস্থিত রয়েছেন সাইফুল আফসার, ছেনুয়ারা বেগম, অলি আহামদ, হামজালাল ও মো. আলী আকবর। ছেনুয়ারা বেগমকে নিয়ে চতুর্থ দফায় সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু করেন আদালত। চলবে আগামীকাল বুধবার পর্যন্ত।

এর আগে গত ২৩ আগস্ট জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ ইসমাইলের আদালতে মামলার বাদী শারমিন শাহরিয়া ফেরদৌসের সাক্ষ্য প্রদানের মাধ্যমে সিনহা হত্যা মামলার আনুষ্ঠানিক বিচার কার্যক্রম শুরু হয়। এরপর পর্যায়ক্রমে প্রত্যক্ষদর্শী সাক্ষী সাহিদুল ইসলাম সিফাত, মোহাম্মদ আলী, মোহাম্মদ আমিন, মোহাম্মদ কামাল হোসেন, হাফেজ শহীদুল ইসলাম, আবদুল হামিদ, ফিরোজ মাহমুদ, মোহাম্মদ শওকত আলী, হাফেজ জহিরুল ইসলাম, ডা. রনধীর দেবনাথ, সেনা সদস্য সার্জেন্ট আইয়ুব আলী, কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালের আরএমও ডা. মো. শাহীন আবদুর রহমান চৌধুরী ও মোক্তার আহমদের সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়।

গত বছর ৩১ জুলাই রাতে কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ সড়কের টেকনাফ উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নের শামলাপুর চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে নিহত হন সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান। হত্যার পাঁচদিনের মাথায় ৫ আগস্ট সিনহার বোন শারমিন শাহরিয়ার ফেরদৌস বাদী হয়ে টেকনাফ থানার সাবেক ওসি প্রদীপ কুমার দাশ ও বাহারছড়া তদন্ত কেন্দ্রের সাবেক ইনচার্জ পরিদর্শক লিয়াকত আলীসহ নয় পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা করেন। 

ঘটনায় চার মাসের বেশি সময় ধরে চলা তদন্ত শেষে গত বছরের ১৩ ডিসেম্বর ৮৩ জন সাক্ষীসহ আলোচিত মামলাটির অভিযোগপত্র দাখিল করেন র‌্যাব-১৫ এর সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মোহাম্মদ খায়রুল ইসলাম। ১৫ জনকে আসামি করে দায়ের করা অভিযোগপত্রে সিনহা হত্যাকাণ্ডকে একটি ‘পরিকল্পিত ঘটনা’ হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। চলতি বছরের গত ২৭ জুন সব আসামির উপস্থিতিতে মামলার চার্জ গঠন করা হয়। এ মামলায় ৮৩ জন চার্জশিটভুক্ত সাক্ষী রয়েছে।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

পাঁচ ঘণ্টা পর ময়লা সরিয়ে উদ্ধার হলো কলেজছাত্রীর লাশ

পাঁচ ঘণ্টা পর ময়লা সরিয়ে উদ্ধার হলো কলেজছাত্রীর লাশ

২৮ কোটি টাকার চেক চুরি করা আইনজীবীর বিরুদ্ধে সমন

২৮ কোটি টাকার চেক চুরি করা আইনজীবীর বিরুদ্ধে সমন

এবার চট্টগ্রামে ড্রেনে পড়ে কলেজছাত্রী নিখোঁজ

এবার চট্টগ্রামে ড্রেনে পড়ে কলেজছাত্রী নিখোঁজ

জামায়াতের দুই শীর্ষ নেতাসহ ৯৩ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন

জামায়াতের দুই শীর্ষ নেতাসহ ৯৩ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন

পাঁচ ঘণ্টা পর ময়লা সরিয়ে উদ্ধার হলো কলেজছাত্রীর লাশ

আপডেট : ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৫৭
ড্রেনে পড়ে নিখোঁজ হওয়া আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী সেহেরিন মাহবুব সাদিয়ার লাশ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিস। নিখোঁজের পাঁচ ঘণ্টা পর সোমবার দিবাগত রাত (২৭ সেপ্টেম্বর) ৩টার দিকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক নিউটন দাশ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।  
 
বাংলা ট্রিবিউনকে তিনি বলেন, পাঁচ ঘণ্টা খোঁজ করার পর ঘটনাস্থল থেকে ৩০-৩৫ গজ ভেতরে ড্রেন থেকে ওই তরুণীর লাশ উদ্ধার করা হয়। রাত ৩টার দিকে উদ্ধারের পর স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। মরদেহ স্থানীয় থানা পুলিশের মাধ্যমে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়। এর আগে, রাত ১০ টার দিকে আগ্রাবাদ থেকে চশমা কিনে নানা-মামার সঙ্গে বাসায় যাওয়ার সময় সাদিয়া ড্রেনে পড়ে যান। 
 
সাদিয়া আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। তিনি হালিশহর থানার বড়পোল এলাকায় শুক্কুর মেম্বারের বাড়ির প্রবাসী মোহাম্মদ আলীর মেয়ে। ড্রেনে পড়ার পরপরই ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধার অভিযান শুরু করে ফায়ার সার্ভিস। ফায়ার সার্ভিসের একটি ডুবুরি দল, একটি স্পেশাল দলসহ মোট চারটি টিম উদ্ধারে কাজ করে।
 
নিউটন দাশ বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ড্রেনে পড়ে সাদিয়া স্রোতের সঙ্গে অনেক ভেতরে চলে যান। ড্রেনের ভেতরে আবর্জনার ভেতরে ঢুকে যাওয়ায় তাকে তাৎক্ষণিকভাবে উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। এস্কেবেটর দিয়ে ময়লা সরিয়ে তাকে উদ্ধার করা হয়।
 
 
/টিটি/

সম্পর্কিত

সিনহা হত্যা মামলা: চতুর্থ দফার সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু

সিনহা হত্যা মামলা: চতুর্থ দফার সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু

‘নিবন্ধন-এসএমএসের ঝামেলা না থাকায় গণটিকায় খুশি’

‘নিবন্ধন-এসএমএসের ঝামেলা না থাকায় গণটিকায় খুশি’

২৮ কোটি টাকার চেক চুরি করা আইনজীবীর বিরুদ্ধে সমন

২৮ কোটি টাকার চেক চুরি করা আইনজীবীর বিরুদ্ধে সমন

রানিই সবচেয়ে ছোট গরু

রানিই সবচেয়ে ছোট গরু

‘নিবন্ধন-এসএমএসের ঝামেলা না থাকায় গণটিকায় খুশি’

আপডেট : ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:৪৪

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে দেশব্যাপী গণটিকা কার্যক্রম বাস্তবায়ন হচ্ছে। মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) গণটিকার আওতায় ৭৫ লাখ মানুষকে টিকার প্রথম ডোজ দেওয়া হবে। এদিকে ময়মনসিংহে গণটিকা দেওয়ার কার্যক্রমে সকাল থেকেই প্রতিটি কেন্দ্রে দীর্ঘ লাইন দেখা গেছে। নারী ও পুরুষরা দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে টিকা নিচ্ছেন। 

নগরীর চরপাড়ার গৃহবধূ রত্না বেগম বলেন, টিকাদান কেন্দ্রে শুধু জাতীয় পরিচয়পত্র নিয়ে গিয়েই টিকা দিতে পেরেছি। অন্য সময় টিকা দিতে হলে আগে থেকেই অনলাইনে নিবন্ধন করতে হতো। এসএমএস আসার পর টিকা দিতে হতো। কিন্তু গণটিকায় এমন ঝামেলা না থাকায় আমরা খুশি।   

mymensingh vaccination জেলা সিভিল সার্জন ডা. নজরুল ইসলাম বলেন, ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের ৩৩টি ওয়ার্ডে, ১০ পৌরসভার ৯০টি ওয়ার্ডে এবং ১৪৬টি ইউনিয়ন পরিষদের প্রতিটিতে একটি করে মোট ২৬৯টি কেন্দ্রে গণটিকা দেওয়া হচ্ছে। 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে চীনের সিনোফার্মের দুই লাখ ৩৮ হাজার টিকা দেওয়ার উদ্যোগের কথা জানিয়েছেন তিনি। টিকা দেওয়ার কার্যক্রম যথাযথভাবে হচ্ছে কিনা তা দেখভালের জন্য বেশ কিছু টিম মাঠে কাজ করছে বলেও জানান তিনি।

 

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

পাঁচ ঘণ্টা পর ময়লা সরিয়ে উদ্ধার হলো কলেজছাত্রীর লাশ

পাঁচ ঘণ্টা পর ময়লা সরিয়ে উদ্ধার হলো কলেজছাত্রীর লাশ

রানিই সবচেয়ে ছোট গরু

রানিই সবচেয়ে ছোট গরু

এবার চট্টগ্রামে ড্রেনে পড়ে কলেজছাত্রী নিখোঁজ

এবার চট্টগ্রামে ড্রেনে পড়ে কলেজছাত্রী নিখোঁজ

পানিতে ডুবে প্রথম শ্রেণির ২ ছাত্রীর মৃত্যু

পানিতে ডুবে প্রথম শ্রেণির ২ ছাত্রীর মৃত্যু

২৮ কোটি টাকার চেক চুরি করা আইনজীবীর বিরুদ্ধে সমন

আপডেট : ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:৩১

মামলার নথি থেকে ডিজঅনার হওয়া ২৮ কোটি টাকার একটি চেক চুরির ঘটনায় অভিযুক্ত আইনজীবী জোবায়ের মো. আরঙ্গজেবের বিরুদ্ধে সমন জারি করেছে আদালত। চেক চুরির ঘটনায় আইনজীবীর বিরুদ্ধে আদালতে মামলার পর সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. শফিউদ্দিন অভিযোগ আমলে নিয়ে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে সমন জারি করেন। 

বাদীর আইনজীবী সুলতান মো. অহিদ এ তথ্য জানিয়েছেন। বাংলা ট্রিবিউনকে তিনি বলেন, শিল্প প্রতিষ্ঠান এসএ গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান এসএ অয়েল রিফাইনারি লিমিটেডের জেনারেল ম্যানেজার সৈয়দ ফরিদুল আলম মামলাটি করেন। 

সোমবার বাদীর জবানবন্দি গ্রহণের পর আদালত আসামি জোবায়েরের বিরুদ্ধে সমন জারি করেন। ১৫ নভেম্বরের মধ্যে তাকে আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 

এর আগে, এসএ গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান এসএ অয়েল রিফাইনারি লিমিটেডের বিরুদ্ধে ২০১৩ সালে ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামি ব্যাংক লিমিটেড আগ্রাবাদ শাখা ২৭ কোটি ৯৭ লাখ ৮৮ হাজার ৭২০ টাকার চেক প্রত্যাখ্যাত (ডিজঅনার) হওয়ার অভিযোগে মামলা করে। মামলায় প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান মো. শাহাবুদ্দিন আলম ও তার স্ত্রী ইয়াসমিন আলমকে অভিযুক্ত করা হয়। মামলাটি চট্টগ্রাম মহানগর ৫ম যুগ্ম দায়রা জজ আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। গত ৯ সেপ্টেম্বর বিকালে ওই আদালতে মামলার নথি দেখার সময় চেকটি কৌশলে নিয়ে যান জোবায়ের। পরে রাত ১০টায় তার কাছ থেকে এটি উদ্ধার করা হয়।

জোবায়েরের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলার অভিযোগে বলা হয়, জোবায়ের আইনজীবী হিসেবে তালিকাভুক্তির আগে এসএ রিফাইনারিতে চাকরি করতেন। নানা অনিয়মের কারণে তাকে চাকরিচ্যুত করা হয়। জোবায়ের চেক ডিজঅনার মামলায় কখনও প্রতিষ্ঠানটির আইনজীবী ছিল না। জোবায়েরকে কখনও ওকালতনামাও দেওয়া হয়নি। এরপরও তিনি মামলার নথি পর্যবেক্ষণ করেন। চেক চুরি করে ধরা পড়ার ঘটনায় প্রতিষ্ঠানটি অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে লেনদেন ও ব্যাংকিং লেনদেনে সমস্যার মুখে পড়েছে। চেক চুরির ঘটনার পর প্রতিষ্ঠানটি লেনদেনে বাধাপ্রাপ্ত হয়ে ১০ কোটি টাকা ক্ষতির সম্মুখীন হয়। এ ঘটনায় ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয়েছে বলে দাবি করেছে প্রতিষ্ঠানটি। 

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

সিনহা হত্যা মামলা: চতুর্থ দফার সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু

সিনহা হত্যা মামলা: চতুর্থ দফার সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু

পাঁচ ঘণ্টা পর ময়লা সরিয়ে উদ্ধার হলো কলেজছাত্রীর লাশ

পাঁচ ঘণ্টা পর ময়লা সরিয়ে উদ্ধার হলো কলেজছাত্রীর লাশ

এবার চট্টগ্রামে ড্রেনে পড়ে কলেজছাত্রী নিখোঁজ

এবার চট্টগ্রামে ড্রেনে পড়ে কলেজছাত্রী নিখোঁজ

জামায়াতের দুই শীর্ষ নেতাসহ ৯৩ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন

জামায়াতের দুই শীর্ষ নেতাসহ ৯৩ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন

হাসপাতালে গৃহবধূর লাশ ফেলে স্বামীর পরিবার উধাও

আপডেট : ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:১৮

জেলা সদর হাসপাতালে রিমু আক্তার নামের এক গৃহবধূর লাশ রেখে পালিয়ে গেছে স্বামীর পরিবার। সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) এই ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে ঠাকুরগাঁও সদর থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করেছে। তবে নিহতের বাবা আলম হোসেনের অভিযোগ, একটি হত্যা মামলা দায়ের করতে থানায় গেলে অভিযোগ গ্রহণ করেনি পুলিশ।

মৃত রিমু আক্তার শহরের দক্ষিণ সালন্দর শান্তি নগরে তার স্বামী তামিম হোসেনের পরিবারের সঙ্গে বাস করতেন। 

হাসপাতাল সূত্র জানায়, রবিবার (২৬) সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় এক মৃত মেয়েকে নিয়ে কিছু মানুষ হাসপাতালে আসে। তবে কিছু সময় পরেই হাসপাতালের জরুরি ওয়ার্ডে লাশটি ফেলে পালিয়ে যায় তারা। পরে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ পুলিশকে খবর দেয়।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছে জানতে পেরেই অজ্ঞাত পরিচয়ের লাশ উদ্ধার করা হয় বলে নিশ্চিত করেছেন ঠাকুরগাঁও সদর থানার ওসি জিয়ারুল জিয়া। 

তিনি বলেন, লাশটি থানায় আনার পর আমরা গৃহবধূর পরিবারের সন্ধান করতে থাকি। পরে মৃতের পিতার পরিবারের সন্ধান পেয়ে তাদের অবগত করা হয়। এ ঘটনায় মামলা হয়েছে ও তদন্ত চলছে।

এদিকে ঘটনা জানতে শান্তিনগরে রিমুর শ্বশুড়বাড়িতে গেলে দেখা যায় পরিবারের সবাই বাড়ি ছেড়ে পালিয়েছেন। 

তবে পুলিশ কেন মৃতের পিতার অভিযোগ গ্রহণ করেনি, জানতে চাইলে ওসি জিয়ারুল বলেন, সুরতহাল রিপোর্টে দেখা যায়, লাশের শরীরে কোনও ক্ষতচিহ্ন ছিল না। একই ঘটনায় একই সময় একটা মামলা হলে তদন্ত না হওয়া পর্যন্ত আরেকটি মামলা হতে পারে না। এ ঘটনায় অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত চলছে, ময়না তদন্ত, ভিসেরা রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর কারণ বোঝা যাবে। তখন পরিবারের লোকের জবানবন্দি নিয়ে যদি হত্যাকাণ্ড হিসেবে এটা প্রতীয়মান হয়, তাহলে সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে নীলফামারীতে ২০২ জনকে সহায়তা

প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে নীলফামারীতে ২০২ জনকে সহায়তা

সাবেক যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে ৩৫ কোটি টাকা লন্ডারিংয়ের মামলা

সাবেক যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে ৩৫ কোটি টাকা লন্ডারিংয়ের মামলা

ভারত থেকে আমদানি হচ্ছে চুল, কেজি ৫৩০০ টাকা

ভারত থেকে আমদানি হচ্ছে চুল, কেজি ৫৩০০ টাকা

কুড়িগ্রামে সাহিত্যিক সৈয়দ শামসুল হকের পঞ্চম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

কুড়িগ্রামে সাহিত্যিক সৈয়দ শামসুল হকের পঞ্চম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

হাসপাতালে গৃহবধূর লাশ ফেলে স্বামীর পরিবার উধাও

হাসপাতালে গৃহবধূর লাশ ফেলে স্বামীর পরিবার উধাও

প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে নীলফামারীতে ২০২ জনকে সহায়তা

প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে নীলফামারীতে ২০২ জনকে সহায়তা

সাবেক যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে ৩৫ কোটি টাকা লন্ডারিংয়ের মামলা

সাবেক যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে ৩৫ কোটি টাকা লন্ডারিংয়ের মামলা

ভারত থেকে আমদানি হচ্ছে চুল, কেজি ৫৩০০ টাকা

ভারত থেকে আমদানি হচ্ছে চুল, কেজি ৫৩০০ টাকা

অন্য চিকিৎসকের নাম-পদবী ব্যবহার করে চিকিৎসা

অন্য চিকিৎসকের নাম-পদবী ব্যবহার করে চিকিৎসা

কুড়িগ্রামে সাহিত্যিক সৈয়দ শামসুল হকের পঞ্চম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

কুড়িগ্রামে সাহিত্যিক সৈয়দ শামসুল হকের পঞ্চম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

দিনাজপুর পৌরসভার বিদ্যুৎ বিল বকেয়া ১২ কোটি টাকা

দিনাজপুর পৌরসভার বিদ্যুৎ বিল বকেয়া ১২ কোটি টাকা

আ.লীগকে রাজনৈতিক সমঝোতায় আসার আহবান জোনায়েদ সাকির

আ.লীগকে রাজনৈতিক সমঝোতায় আসার আহবান জোনায়েদ সাকির

১৯ শিক্ষক-কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়নি বেরোবি কর্তৃপক্ষ

বিকৃত জাতীয় পতাকা প্রদর্শন১৯ শিক্ষক-কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়নি বেরোবি কর্তৃপক্ষ

সর্বশেষ

মেট্রোরেলে ১৩০ জনের চাকরি, আবেদনের সুযোগ আর দুইদিন

মেট্রোরেলে ১৩০ জনের চাকরি, আবেদনের সুযোগ আর দুইদিন

দেশে পৌঁছেছে ফাইজারের ২৫ লাখ টিকা

দেশে পৌঁছেছে ফাইজারের ২৫ লাখ টিকা

লড়াই, সংগ্রাম ও সাফল্যের নাম শেখ হাসিনা

লড়াই, সংগ্রাম ও সাফল্যের নাম শেখ হাসিনা

হার্ট অ্যাটাক ইনজামামের

হার্ট অ্যাটাক ইনজামামের

সিনহা হত্যা মামলা: চতুর্থ দফার সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু

সিনহা হত্যা মামলা: চতুর্থ দফার সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু

© 2021 Bangla Tribune